প্রথম পাতা

কমিশন নেওয়ার অভিযোগ অস্বীকার ম খা আলমগীরের

ডাক ডেস্ক : প্রকাশিত হয়েছে: ১৩-০২-২০১৮ ইং ০২:৫৭:৩৬ | সংবাদটি ৪৩ বার পঠিত

ফারমার্স ব্যাংকের গ্রাহকের কাছ থেকে ঋণের কমিশন নেওয়াসহ নানা অনিয়মে জড়িত থাকার অভিযোগ অস্বীকার করেছেন ব্যাংকটির সাবেক চেয়ারম্যান সরকারি দলের সাংসদ মহীউদ্দীন খান আলমগীর। তাঁর দাবি, তিনটি পত্রিকা উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে অসত্য তথ্য প্রকাশ করেছে।
গতকাল সোমবার জাতীয় সংসদে পয়েন্ট অব অর্ডারে দাঁড়িয়ে বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশিত সংবাদের বিষয়ে নিজের ব্যাখ্যা দেন মহীউদ্দীন খান আলমগীর। তিনি এ বিষয়ে জাতীয় সংসদের স্পিকারের প্রত্যবেক্ষণ কামনা করেন।
কোনো পত্রিকার নাম উল্লেখ না করে এই সাবেক মন্ত্রী বলেন, ‘তারা বলেছে, ফারমার্স ব্যাংকের চেয়ারম্যান হিসেবে আমি ব্যক্তিগতভাবে ঋণ বিতরণের আগে কমিশন নিয়েছি। এত বড় অসত্য কথা আমার ৭৭ বছর বয়সে আমি কখনো সম্মুখীন হইনি।’
পেশাগত জীবনে বিভিন্ন সংস্থার শীর্ষ পর্যায়ে কাজ করার কথা তুলে ধরে মহীউদ্দীন খান আলমগীর বলেন, তাঁর কার্যকলাপ সম্পর্কে এ ধরনের কোনো উদাহরণ কেউ দিতে পারেনি।
মহীউদ্দীন খান আলমগীর একটি ব্যাংকের হিসাব বিবরণী দেখিয়ে বলেন, ‘আমি এ অভিযোগের বিপরীতে বাংলাদেশ ব্যাংকে রক্ষিত আমার ব্যাংক হিসাবের পুরো অংশ নিয়ে এসেছি। এই অংশে কোথাও কেউ প্রমাণ করতে পারবেন না যে কোনো ঋণগ্রহীতার কাছ থেকে আমার এখানে কোনো অর্থ ঢুকেছে।’
ফারমার্স ব্যাংকের অন্যতম এ উদ্যোক্তা বলেন, পত্রিকার প্রতিবেদন অনুযায়ী গত বছরের ১৭ জুলাই গ্রাহকের হিসাব থেকে তাঁর ব্যাংক হিসাবে ১৩ কোটি ঢুকেছে। কিন্তু তাঁর ব্যাংক হিসাবে এ ধরনের কোনো লেনদেন ঘটেনি।
ম খা আলমগীর বলেন, পত্রিকায় লিখেছে, তারা তথ্য পেয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে। বাংলাদেশ ব্যাংক অর্ডারের ৭৮ অনুচ্ছেদ উল্লেখ করে তিনি স্পিকারের অনুশাসন চান, যাতে কেন্দ্রীয় ব্যাংক বাংলাদেশ ব্যাংক অর্ডার মেনে চলে।
বাংলাদেশ ব্যাংকের এক তথ্যে উঠে এসেছে যে ফারমার্স ব্যাংকের গ্রাহকের ঋণের ভাগ নিয়েছেন ব্যাংকটির সাবেক চেয়ারম্যান মহীউদ্দীন খান আলমগীর ও নিরীক্ষা কমিটির সাবেক চেয়ারম্যান মাহবুবুল হক চিশতী। এর মাধ্যমে দুজনের নৈতিক স্খলন ঘটেছে এবং তাঁরা জালিয়াতির আশ্রয় নিয়েছেন। পরিদর্শনে উঠে এসেছে, ব্যাংকটির জনবল নিয়োগ হয়েছে মূলত এ দুজনের সুপারিশেই। আর্থিক লেনদেনের মাধ্যমে তাঁরা নিয়োগ দিয়েছেন।

শেয়ার করুন
প্রথম পাতা এর আরো সংবাদ
  • গরীব দুঃখী মানুষের মুখে হাসি ফুটাতে আজীবন কাজ করে যেতে চাই
  • আনোয়ার চৌধুরীর ওপর গ্রেনেড হামলার ১৪ বছর পূর্তি আজ
  • রমযানুল মুবারক
  • ৩২ মাদকসেবীর বিভিন্ন মেয়াদে কারাদন্ড
  • নতুন প্রজন্মকে রক্ষা করতে মাদকের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতেই হবে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
  • কূটনীতকিদরে সঙ্গে বএিনপরি ইফতার
  • মাদক নির্মূলে কঠোর হওয়ার ঘোষণা প্রধানমন্ত্রীর
  • রাজীবের মৃত্যু : দুই বাস চালকের জামিন নাকচ
  • e
  • ছয় জেলায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ৬ জন নিহত
  • নির্বাচনের ট্রেন কারো জন্য থেমে থাকবে না: কাদের
  • আগামী অর্থ বছরের জন্য ৩৩২ কোটি ৫৩ লাখ টাকার প্রাক্কলিত বাজেট অনুমোদন
  • বর্তমান সরকার ব্যবসা-বান্ধব
  • শিক্ষাবিদ ও ভাষা সৈনিক মুসলিম চৌধুরীর সহধর্মিনীর ইন্তেকাল
  • কম দামে সবজি কিনে বেশী দামে বিক্রি
  • ‘রোহিঙ্গা সঙ্কট’ সমাধানে আন্তর্জাতিক আইনের পূর্ণ ব্যবহার প্রয়োজন
  • ঐক্য চাইলেন মির্জা ফখরুল,
  • বিশ্ব মেট্রোলজি দিবস আজ
  • বিয়ের বন্ধনে প্রিন্স হ্যারি ও মেগান
  • কোটার আন্দোলন: পরীক্ষা বর্জন কর্মসূচি স্থগিত
  • Developed by: Sparkle IT