প্রথম পাতা

‘ফুল ফুটুক আর না-ই ফুটুক আজ বসন্ত’

স্টাফ রিপোর্টারঃ প্রকাশিত হয়েছে: ১৩-০২-২০১৮ ইং ০৩:০৭:৩০ | সংবাদটি ১২১ বার পঠিত

আজ পহেলা ফাল্গুন, ঋতুরাজ বসন্তের প্রথম দিন। কবি বলেছেন, ‘ফুল ফুটুক আর নাই ফুটুক আজ বসন্ত’। তবে এবারও ফুটেছে ফুল, প্রকৃতি সেজেছে নতুন রূপে। প্রকৃতি আজ খুলে দিয়েছে দক্ষিণা দুয়ার। সে দুয়ারে বইছে ফাগুনের হাওয়া। বসন্তের আগমনে কোকিল গাইছে গান। গাছে গাছে পলাশ আর শিমুলের মেলা। বসন্তের এই আগমনে প্রকৃতির সাথে তরুণ হৃদয়েও লেগেছে দোলা।
শীতের খোলসে আবৃত থাকা কৃষ্ণচূড়া, রাধাচূড়া, নাগলিঙ্গম অলৌকিক স্পর্শে জেগে উঠেছে। মৃদুমন্দ এক বাতাসে ভেসে আসা ফুলের গন্ধে বসন্ত জানিয়ে দিচ্ছে, সত্যি সত্যি সে ঋতুর রাজা। লাল আর হলুদের বাসন্তী রঙে প্রকৃতির সাথে নিজেদের সাজিয়ে আজ বসন্তের উচ্ছ্বলতা ও উন্মাদনায় ভাসবে বাঙালি। বসন্ত অনেক ফুলের বাহারে সজ্জিত হলেও গাঁদা ফুলের রঙকেই এদিনে তাদের পোশাকে ধারণ করে তরুণ-তরুণীরা। খোঁপায় শোভা পায় গাঁদা ফুলের মালা। বসন্তের আনন্দযজ্ঞ থেকে বাদ যায় না গ্রাম্য জীবনও। আমের মুকুলের সৌরভে আর পিঠাপুলির মৌতাতে গ্রামে বসন্তের আমেজ একটু বেশিই ধরা পড়ে। বসন্তকে তারা আরও নিবিড়ভাবে বরণ করে। প্রাণ খুলে তাই কবির ভাষায় বলা যায়, ‘আহা আজি এ বসন্তে/ এতো ফুল ফোটে/এতো বাঁশি বাজে/এতো পাখি গায়’।
দীর্ঘ প্রতীক্ষার পর তরুণ মনে আবার লেগেছে বসন্তের ছোঁয়া। চারিদিকে যেন সাজ সাজ রব। নতুন কচিপাতার দোলায় দুলছে প্রকৃতি, দুলছে আবেগী মন। আজ নতুন প্রাণেও লেগেছে ফাগুনের সতেজ হাওয়া। ঋতুরাজ বসন্ত আজ প্রত্যেকের হৃদয়কে করেছে উচাটন। বসন্তের আগমন মানেই তরুণ হৃদয়ে নতুন প্রাণের সঞ্চার
বসন্ত শুধু অশোক-পলাশ-শিমুলেই উচ্ছ্বাসের রং ছড়ায় না, আমাদের ঐতিহাসিক রাষ্ট্রভাষা আন্দোলনে শহীদদের রক্তিম পুষ্পিত রক্তের স্মৃতির ওপরও রং ছড়ায়।
১৯৫২ সালের আট ফাল্গুন বা একুশের পলাশরাঙা দিনের সঙ্গে তারুণ্যের সাহসী উচ্ছ্বাস আর বাঁধভাঙা আবেগের জোয়ার যেন মিলেমিশে একাকার হয়ে আছে।
বাংলা পঞ্জিকাবর্ষের শেষ ঋতু বসন্তের প্রথম দিনকে বাঙালি পালন করে ‘পহেলা ফাল্গুন-বসন্ত উৎসব’ হিসেবে। এ উৎসব এখন গোটা বাঙালির কাছে ব্যাপক সমাদৃত হয়েছে। বাংলায় বসন্ত উৎসব এখন প্রাণের উৎসবে পরিণত হলেও এর শুরুর একটা ঐতিহ্যময় ইতিহাস আছে, যা অনেকের অজানা।
মোগল স¤্রাট আকবর প্রথম বাংলা নববর্ষ গণনা শুরু করেন ১৫৮৫ সালে। নতুন বছরকে কেন্দ্র করে ১৪টি উৎসবের প্রবর্তন করেন তিনি। এর মধ্যে অন্যতম হচ্ছে বসন্ত উৎসব। তখন অবশ্য ঋতুর নাম এবং উৎসবের ধরনটা এখনকার মতো ছিল না। তাই পহেলা ফাল্গুন বা বসন্ত উৎসব কেবল উৎসবে  মেতে ওঠার সময় নয়। এর সঙ্গে জড়িয়ে আছে বাংলার গৌরবময় ঐতিহ্য, বাঙালি সত্তা। সে ঐতিহ্যের ইতিহাসকে ধরে রাখতে পারলেই বসন্ত উৎসবের সঙ্গে সঙ্গে নতুন প্রজন্ম ছড়িয়ে দিতে পারবে বাঙালি  চেতনাকে।
বঙ্গাব্দ ১৪০১ সাল থেকে প্রথম ‘বসন্ত উৎসব’ উদযাপন করার রীতি চালু হয়। সেই থেকে জাতীয় বসন্ত উৎসব উদযাপন পরিষদ বসন্ত উৎসবের আয়োজন করে আসছে। এছাড়া তরুণ-তরুণীরা বাংলা একাডেমি আয়োজিত একুশের বইমেলা, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস, শাহবাগ, চারুকলা চত্বর, পাবলিক লাইব্রেরি,  সোহরাওয়ার্দী উদ্যান, ধানমন্ডি লেক, বলধা গার্ডেন মাতিয়ে রাখবে সারাদিন। ঢাকার বাইরেও আজ দিনভর চলবে বসন্তের উচ্ছ্বাস প্রকাশ। ফোন, ফেসবুক, টুইটারসহ বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে চলবে বসন্তের শুভেচ্ছা বিনিময়। আজ নানা আয়োজনে বসন্তকে বরণ করবে বাঙালি।
এদিকে, সিলেটের বিভিন্ন সংগঠন আজ নানা আয়োজনে বরণ করে নেবে ঋতুরাজকে। বসন্তের প্রকৃতি বর্ণনা ও বন্দনা করা ছাড়াও এসব অনুষ্ঠানে বাঙালির জীবনে বসন্তের প্রভাব নানা ব্যঞ্জনায় ফুটিয়ে তোলা হবে। আয়োজকরা জানান, পয়লা ফাল্গুন বা বসন্ত উৎসব কেবল উৎসবে মেতে ওঠার সময় নয়।

শেয়ার করুন
প্রথম পাতা এর আরো সংবাদ
  • বিজয়ের মাস
  • মহীয়সী নারী বেগম রাবেয়া খাতুন চৌধুরী ছিলেন দানবীর ড. রাগীব আলীর সকল অনুপ্রেরণার উৎস
  • অভিযোগ নিয়ে পুলিশ প্রধানের দ্বারে বিএনপি
  • বিজয় দিবসে সকল সরকারি বেসরকারি ভবনে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা হবে
  • বিএনপিই ফখরুলের গাড়িতে হামলা করেছে ----------এইচ টি ইমাম
  • চূড়ান্ত বিজয় না আসা পর্যন্ত মাঠ ছাড়বো না
  • অর্থমন্ত্রীকে ডিজিটাল বাংলাদেশ সম্মাননা প্রদান
  • প্রার্থিতা নিয়ে খালেদার আবেদন শুনতে নতুন বেঞ্চ গঠন
  • আওয়ামী লীগ আবার ক্ষমতায় আসছে ॥ ইআইইউ
  • আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সঙ্গে ইসি’র বৈঠক আজ
  • জনগণের সেবা করার সুযোগ চাইলেন প্রধানমন্ত্রী
  • ফেঞ্চুগঞ্জ মুক্ত দিবস আজ
  • মোমেন-মুক্তাদীরের মিশন শুরু
  • সিলেট প্রতীক পেয়ে ভোটের লড়াইয়ে প্রার্থীরা
  • কাল প্রচারণা শুরু করবেন শেখ হাসিনা
  • খালেদার প্রার্থিতা বিষয়ে সিদ্ধান্ত আজ
  • বিজয়ের মাস :
  • প্রার্থিতা নিয়ে খালেদা জিয়ার রিট
  • মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষে ভোট দিয়ে তরুণরা ইতিহাসের অংশীদার হবেন
  • ভোটের লড়াই থেকে সরে দাঁড়ালেন সিলেট বিভাগের ৩৮ প্রার্থী
  • Developed by: Sparkle IT