প্রথম পাতা

কোনো মামলাতেই খালেদা জিয়াকে গ্রেফতার দেখানো হয়নি : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

ডাক ডেস্ক : প্রকাশিত হয়েছে: ১৪-০২-২০১৮ ইং ০৩:২২:০৪ | সংবাদটি ৭৩ বার পঠিত

অন্য কোনো মামলাতে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে গ্রেফতার দেখানো হয়নি বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।
কয়েকটি মামলায় খালেদা জিয়াকে গ্রেফতার দেখানো হয়েছে বলে যেসব সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে, তা সত্য নয় বলে জানান তিনি।
গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে সচিবালয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর নিজ কার্যালয়ে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন মন্ত্রী।
স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, কেবল জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় আদালতের রায়ে খালেদা জিয়া কারাগারে আছেন। অন্য কোনো মামলাতে তাকে গ্রেফতার দেখানো হয়নি।
তিনি বলেন, খালেদা জিয়া বর্তমানে একটি মামলায় কারাগারে আছেন। বড়পুকুরিয়া কয়লাখনি ও গ্যাটকো দুর্নীতি মামলায় তিনি জামিনে রয়েছেন। এসব মামলায় তাকে গ্রেফতার দেখানো হয়নি।
কারাগারে খালেদা জিয়াকে সব ধরনের সুযোগ-সুবিধা দেয়া হচ্ছে উল্লেখ করে আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, খালেদা জিয়া একটি বৃহত্তর রাজনৈতিক দলের প্রধান। তিনি সাবেক প্রধানমন্ত্রী। তার একটি সামাজিক মর্যাদা রয়েছে। তার সামাজিক মর্যাদা বিবেচনা করে তাকে এখানে বিশেষ মর্যাদায় রাখা হয়েছে।
তিনি আরও বলেন, কাশিমপুর কারগারে অনেক কয়েদি রয়েছে। তাছাড়া কারাগারটি অনেক দূরে। যাতায়াতের পথও স্বস্তিদায়ক নয়। এজন্য খালেদা জিয়াকে এখানে বিশেষ বন্দির মর্যাদায় রাখা হয়েছে। তার প্রাপ্য সব ধরনের সুযোগ-সুবিধা তাকে দেয়া হচ্ছে।
উল্লেখ্য, গত ৮ ফেব্রুয়ারি জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় বৃহস্পতিবার বকশীবাজার আলিয়া মাদ্রাসা মাঠে স্থাপিত ঢাকার পাঁচ নম্বর বিশেষ আদালতের বিচারক ড. মো. আখতারুজ্জামান খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছরের কারাদ- দেন।
এছাড়া একই মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসনের ছেলে তারেক রহমান, সাবেক এমপি কাজী সলিমুল হক কামাল, ব্যবসায়ী শরফুদ্দিন আহমেদ, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সাবেক সচিব ড. কামাল উদ্দিন সিদ্দিকী ও প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ভাগনে মমিনুর রহমানকে ১০ বছর করে কারাদ- দেয়া হয়।
একই সঙ্গে তাদের প্রত্যেককে দুই কোটি ১০ লাখ ৭১ হাজার ৬৭১ টাকা করে জরিমানা করেন আদালত।
রায়ের পরপরই খালেদা জিয়াকে আদালতের পাশে নাজিমউদ্দিন রোডের লালদালানখ্যাত ২২৮ বছরের পুরান ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে নিয়ে যাওয়া হয়।
২০১৬ সালের ২৯ জুন থেকে ছয় হাজার ৪০০ বন্দিকে কেরানীগঞ্জের তেঘরিয়ার রাজেন্দ্রপুরের নতুন কারাগারে স্থানান্তর করে পুরান কারাগার বন্ধ ঘোষণা করা হয়। কিন্তু দুই বছর চার মাস ১০ দিন পর দুর্নীতির মামলায় সাজাপ্রাপ্ত আসামি হিসেবে এই পরিত্যক্ত কারাগারেই দিন পার করছেন খালেদা জিয়া।

শেয়ার করুন
প্রথম পাতা এর আরো সংবাদ
  • জোট নয়, বি. চৌধুরীর দোয়া চায় ন্যাপ-এনডিপি
  • সংসদের ২৩তম অধিবেশন শুরু আগামী রোববার
  • সিভিল সার্জন ভবনসহ বিভিন্ন স্বাস্থ্য প্রতিষ্ঠানের স্থাপনা উদ্বোধন করলেন অর্থমন্ত্রী
  • পারস্পরিক সমঝোতা ও সহযোগিতা নিয়ে অগ্রসর হতে হবে
  • ওসমানীনগরে সালিশ বৈঠকে দু’পক্ষের সংঘর্ষে আহত ২০
  • কমলগঞ্জ ও বিয়ানীবাজারে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় ২ জনের মৃত্যু
  • জেদ্দায় বাংলাদেশ কনস্যুলেট ভবনের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন প্রশিক্ষণ নিয়ে বিদেশ যান : বিদেশে
  • ট্রান্সকমের লতিফুরকে দুদকের জিজ্ঞাসাবাদ
  • নভেম্বরের প্রথম সপ্তাহে তফসিল ॥ ইসি সচিব
  • ২৩ অক্টোবর সিলেটে সমাবেশের অনুমতি পায়নি ঐক্যফ্রন্ট
  • যুব ইউনিয়ন নেতা মঈন উদ্দিন জালাল আর নেই
  •    কিংবদন্তি সংগীতশিল্পী আইয়ুব বাচ্চু আর নেই
  • প্রিন্সিপাল মাওলানা হাবীবুর রহমানের ইন্তেকাল আজ বিকাল সাড়ে ৩টায় আলীয়া মাদ্রাসা মাঠে জানাজা
  •  শারদীয় দুর্গোৎসবের বিজয়া দশমী আজ
  • মৌ’বাজারে বিভিন্ন পূজামন্ডপ পরিদর্শন ও অর্থ-বস্ত্র প্রদান বাংলাদেশ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির দেশ
  • সব জিরোদের নিয়ে গড়া জাতীয় ঐক্য ফ্রন্টের ফলাফল জিরোই হবে ॥ অর্থমন্ত্রী
  • বাংলাদেশের উন্নয়নের অংশ হতে চাই: সৌদি যুবরাজ
  • ‘গায়েবি মামলা’র প্রবণতায় উদ্বিগ্ন টিআইবি
  • মি টু বনাম হিম টু আকবরের পক্ষে ৯৭ উকিল, প্রস্তুত প্রিয়াও
  • সিলেটে জাতীয় ঐক্য ফ্রন্টের সমাবেশ সফলের লক্ষে বিএনপি’র প্রস্তুতি এসএমপি কমিশনারের কাছে অনুমতি চেয়ে আবেদন
  • Developed by: Sparkle IT