প্রথম পাতা

কোনো মামলাতেই খালেদা জিয়াকে গ্রেফতার দেখানো হয়নি : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

ডাক ডেস্ক : প্রকাশিত হয়েছে: ১৪-০২-২০১৮ ইং ০৩:২২:০৪ | সংবাদটি ৫৭ বার পঠিত

অন্য কোনো মামলাতে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে গ্রেফতার দেখানো হয়নি বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।
কয়েকটি মামলায় খালেদা জিয়াকে গ্রেফতার দেখানো হয়েছে বলে যেসব সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে, তা সত্য নয় বলে জানান তিনি।
গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে সচিবালয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর নিজ কার্যালয়ে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন মন্ত্রী।
স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, কেবল জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় আদালতের রায়ে খালেদা জিয়া কারাগারে আছেন। অন্য কোনো মামলাতে তাকে গ্রেফতার দেখানো হয়নি।
তিনি বলেন, খালেদা জিয়া বর্তমানে একটি মামলায় কারাগারে আছেন। বড়পুকুরিয়া কয়লাখনি ও গ্যাটকো দুর্নীতি মামলায় তিনি জামিনে রয়েছেন। এসব মামলায় তাকে গ্রেফতার দেখানো হয়নি।
কারাগারে খালেদা জিয়াকে সব ধরনের সুযোগ-সুবিধা দেয়া হচ্ছে উল্লেখ করে আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, খালেদা জিয়া একটি বৃহত্তর রাজনৈতিক দলের প্রধান। তিনি সাবেক প্রধানমন্ত্রী। তার একটি সামাজিক মর্যাদা রয়েছে। তার সামাজিক মর্যাদা বিবেচনা করে তাকে এখানে বিশেষ মর্যাদায় রাখা হয়েছে।
তিনি আরও বলেন, কাশিমপুর কারগারে অনেক কয়েদি রয়েছে। তাছাড়া কারাগারটি অনেক দূরে। যাতায়াতের পথও স্বস্তিদায়ক নয়। এজন্য খালেদা জিয়াকে এখানে বিশেষ বন্দির মর্যাদায় রাখা হয়েছে। তার প্রাপ্য সব ধরনের সুযোগ-সুবিধা তাকে দেয়া হচ্ছে।
উল্লেখ্য, গত ৮ ফেব্রুয়ারি জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় বৃহস্পতিবার বকশীবাজার আলিয়া মাদ্রাসা মাঠে স্থাপিত ঢাকার পাঁচ নম্বর বিশেষ আদালতের বিচারক ড. মো. আখতারুজ্জামান খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছরের কারাদ- দেন।
এছাড়া একই মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসনের ছেলে তারেক রহমান, সাবেক এমপি কাজী সলিমুল হক কামাল, ব্যবসায়ী শরফুদ্দিন আহমেদ, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সাবেক সচিব ড. কামাল উদ্দিন সিদ্দিকী ও প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ভাগনে মমিনুর রহমানকে ১০ বছর করে কারাদ- দেয়া হয়।
একই সঙ্গে তাদের প্রত্যেককে দুই কোটি ১০ লাখ ৭১ হাজার ৬৭১ টাকা করে জরিমানা করেন আদালত।
রায়ের পরপরই খালেদা জিয়াকে আদালতের পাশে নাজিমউদ্দিন রোডের লালদালানখ্যাত ২২৮ বছরের পুরান ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে নিয়ে যাওয়া হয়।
২০১৬ সালের ২৯ জুন থেকে ছয় হাজার ৪০০ বন্দিকে কেরানীগঞ্জের তেঘরিয়ার রাজেন্দ্রপুরের নতুন কারাগারে স্থানান্তর করে পুরান কারাগার বন্ধ ঘোষণা করা হয়। কিন্তু দুই বছর চার মাস ১০ দিন পর দুর্নীতির মামলায় সাজাপ্রাপ্ত আসামি হিসেবে এই পরিত্যক্ত কারাগারেই দিন পার করছেন খালেদা জিয়া।

শেয়ার করুন
প্রথম পাতা এর আরো সংবাদ
  • আইসিটি আইনের মামলায় ফারিয়া ৩ দিনের রিমান্ডে
  • ইমরান খান পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত
  • ওবায়দুল কাদের মারাত্মক কথা বলেছেন: ফখরুল
  • ২৪ হাজার রোহিঙ্গাকে হত্যা ধর্ষণের শিকার ১৮ হাজার
  • প্রধানমন্ত্রীর কাছে ১০ মিনিট সময় চান ড. কামাল
  • মির্জা ফখরুলের বক্তব্য রাষ্ট্রদ্রোহের শামিল: কাদের
  • ইলেকট্রিক সাপ্লাই এলাকায় স্কুল ছাত্রী পাশবিকতার শিকার
  • নজর পড়েনি রেজিস্ট্রেশনবিহীন সিএনজি অটোরিক্সায়!
  • কানাইঘাটে সংঘর্ষের ঘটনায় থানায় মামলা ॥ গ্রেফতার ৩
  • শাবিতে রোববার থেকে ঈদের ছুটি শুরু
  • নবীগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় আহত ১০
  • কোম্পানীগঞ্জে টাস্কফোর্সের অভিযান ২০টি বোমা মেশিন ধ্বংস, আটক ১
  • আ’লীগকে নেতৃত্বশূন্য করে ক্ষমতা পাকাপোক্ত করতেই বিএনপি গ্রেনেড হামলার পথ বেছে নিয়েছিল
  • বাংলাদেশে আর কোনদিন খুনীদের রাজত্ব আসবে না : প্রধানমন্ত্রী
  • রায়নগরে পুলিশ সদস্য কর্র্তৃক দখলকৃত স্থাপনা উচ্ছেদ করলেন আরিফুল হক
  • নগরীতে বেওয়ারিশ কুকুরের উৎপাত বেড়েই চলেছে
  • উপজেলার হাটসমূহে বেচাকেনা শুরু হয়েছে
  • সাফ অনূর্ধ্ব-১৫ নারী ফুটবল ভুটানকে বিধ্বস্ত করে ফাইনালে বাংলাদেশ
  • শাহজালাল বিশ^বিদ্যালয়ে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে বিভিন্ন কর্মসূচি পালন
  • আওয়ামী লীগের শোক র‌্যালি ও বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ
  • Developed by: Sparkle IT