প্রথম পাতা

কোনো মামলাতেই খালেদা জিয়াকে গ্রেফতার দেখানো হয়নি : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

ডাক ডেস্ক : প্রকাশিত হয়েছে: ১৪-০২-২০১৮ ইং ০৩:২২:০৪ | সংবাদটি ১০২ বার পঠিত

অন্য কোনো মামলাতে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে গ্রেফতার দেখানো হয়নি বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।
কয়েকটি মামলায় খালেদা জিয়াকে গ্রেফতার দেখানো হয়েছে বলে যেসব সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে, তা সত্য নয় বলে জানান তিনি।
গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে সচিবালয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর নিজ কার্যালয়ে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন মন্ত্রী।
স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, কেবল জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় আদালতের রায়ে খালেদা জিয়া কারাগারে আছেন। অন্য কোনো মামলাতে তাকে গ্রেফতার দেখানো হয়নি।
তিনি বলেন, খালেদা জিয়া বর্তমানে একটি মামলায় কারাগারে আছেন। বড়পুকুরিয়া কয়লাখনি ও গ্যাটকো দুর্নীতি মামলায় তিনি জামিনে রয়েছেন। এসব মামলায় তাকে গ্রেফতার দেখানো হয়নি।
কারাগারে খালেদা জিয়াকে সব ধরনের সুযোগ-সুবিধা দেয়া হচ্ছে উল্লেখ করে আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, খালেদা জিয়া একটি বৃহত্তর রাজনৈতিক দলের প্রধান। তিনি সাবেক প্রধানমন্ত্রী। তার একটি সামাজিক মর্যাদা রয়েছে। তার সামাজিক মর্যাদা বিবেচনা করে তাকে এখানে বিশেষ মর্যাদায় রাখা হয়েছে।
তিনি আরও বলেন, কাশিমপুর কারগারে অনেক কয়েদি রয়েছে। তাছাড়া কারাগারটি অনেক দূরে। যাতায়াতের পথও স্বস্তিদায়ক নয়। এজন্য খালেদা জিয়াকে এখানে বিশেষ বন্দির মর্যাদায় রাখা হয়েছে। তার প্রাপ্য সব ধরনের সুযোগ-সুবিধা তাকে দেয়া হচ্ছে।
উল্লেখ্য, গত ৮ ফেব্রুয়ারি জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় বৃহস্পতিবার বকশীবাজার আলিয়া মাদ্রাসা মাঠে স্থাপিত ঢাকার পাঁচ নম্বর বিশেষ আদালতের বিচারক ড. মো. আখতারুজ্জামান খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছরের কারাদ- দেন।
এছাড়া একই মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসনের ছেলে তারেক রহমান, সাবেক এমপি কাজী সলিমুল হক কামাল, ব্যবসায়ী শরফুদ্দিন আহমেদ, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সাবেক সচিব ড. কামাল উদ্দিন সিদ্দিকী ও প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ভাগনে মমিনুর রহমানকে ১০ বছর করে কারাদ- দেয়া হয়।
একই সঙ্গে তাদের প্রত্যেককে দুই কোটি ১০ লাখ ৭১ হাজার ৬৭১ টাকা করে জরিমানা করেন আদালত।
রায়ের পরপরই খালেদা জিয়াকে আদালতের পাশে নাজিমউদ্দিন রোডের লালদালানখ্যাত ২২৮ বছরের পুরান ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে নিয়ে যাওয়া হয়।
২০১৬ সালের ২৯ জুন থেকে ছয় হাজার ৪০০ বন্দিকে কেরানীগঞ্জের তেঘরিয়ার রাজেন্দ্রপুরের নতুন কারাগারে স্থানান্তর করে পুরান কারাগার বন্ধ ঘোষণা করা হয়। কিন্তু দুই বছর চার মাস ১০ দিন পর দুর্নীতির মামলায় সাজাপ্রাপ্ত আসামি হিসেবে এই পরিত্যক্ত কারাগারেই দিন পার করছেন খালেদা জিয়া।

শেয়ার করুন
প্রথম পাতা এর আরো সংবাদ
  • সর্বোচ্চ পরমাণু ক্ষমতাসম্পন্ন জাহাজ বানালো রাশিয়া, আনছে যুক্তরাষ্ট্র
  • এরশাদের অবর্তমানে চেয়ারম্যানের দায়িত্ব জিএম কাদেরের
  • কাউন্সিল ডেকে বিএনপি’র নেতৃত্বে পরিবর্তন আনার প্রস্তাব
  • মুহিতের অন্য রকম সিলেট সফর
  • জিয়াউর রহমানের জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে সিলেট জেলা ও মহানগর বিএনপির কর্মসূচি আজ
  • দেওবন্দ মাদ্রাসায় তাবলিগের কার্যক্রম নিষিদ্ধ
  • ভারতে ধরপাকড়, বাংলাদেশে আসছে আরও রোহিঙ্গা
  • স্বচ্ছতার মধ্য দিয়ে সারাদেশে শিক্ষক নিয়োগ করা হবে : শিক্ষামন্ত্রী
  • আওয়ামী লীগের বিজয় সমাবেশ আজ
  • ঐক্যফ্রন্ট না টেকারই কথা: কাদের
  • ৩০ ডিসেম্বর বিএনপি নয়, আ’লীগের পরাজয় হয়েছে: ফখরুল
  • প্রশাসনিক কর্মকর্তাদের সক্রিয় ভূমিকা রাখতে হবে ............... পরিবেশ ও বনমন্ত্রী শাহাব উদ্দিন
  • রোমাঞ্চ ছড়িয়েও জিততে পারেনি খুলনা
  • ‘সাকিবময়’ ম্যাচে উড়ে গেল সিলেট
  • সিলেট জেলা আইনজীবী সমিতির নির্বাচন সম্পন্ন
  • জনবান্ধব আমলা থেকে সফল রাজনীতিবিদ এম এ মান্নান
  • আ. লীগের ‘বিজয় উৎসব’ কাল
  • ৩ আসামী ৫ দিনের রিমান্ডে
  • বিশ্বনাথে পানি সংরক্ষণে নিজ জমিতে চাষিদের পুকুর খনন!
  • হজযাত্রীদের বিমান ভাড়া কমলো ১০ হাজার ১৯১ টাকা
  • Developed by: Sparkle IT