শেষের পাতা

বাহুবলে পুলিশ-গ্রামবাসী সংঘর্ষে ৮জন গুলিবিদ্ধসহ আহত ১৫

বাহুবল (হবিগঞ্জ) থেকে নিজস্ব সংবাদদাতা : প্রকাশিত হয়েছে: ১৫-০২-২০১৮ ইং ০২:৩৪:০৮ | সংবাদটি ৩৭ বার পঠিত

 হবিগঞ্জ জেলার বাহুবলে টিলার মালিকানা নিয়ে বিরোধের জেরে পুলিশ ও গ্রামবাসীর সংঘর্ষে ৮জন গুলিবিদ্ধসহ কমপক্ষে ১৫ জন আহত হয়েছেন।
গতকাল বুধবার বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে বাহুবল উপজেলার রশিদপুরের রামপুর চা বাগান এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।
গুলিবিদ্ধরা হলেন, সুন্দ্রাটিকি গ্রামের আবদাল মিয়া (৩৫), হাবিব উল্লাহ (২৮), রেণু মিয়া (৩০), সোহেল মিয়া (২৫), বিলাল মিয়া (৩০), আব্দুল কদ্দুছ (৪৪), মোজাম্মেল (২৮), ইদ্রিস আলী (৭০)। আহতদের বাহুবল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।
স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার বাবুল কুমার দাশ জানান, আহতদের মধ্যে অবস্থা গুরুতর ইদ্রিস আলীকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এবং আবদাল মিয়া ও হাবিব উল্লাহ নামে দু’জনকে হবিগঞ্জ জেলা সদরের আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
পুলিশ জানায়, উপজেলার ভাদেশ্বরী ইউনিয়নের সুন্দ্রাটিকি গ্রামের রামপুর চা বাগানে সরকারী জায়গা দখল করে সুন্দ্রাটিকি গ্রামের লোকজন রাতে টিন দিয়ে দুটি ঘর নির্মাণ করে দখল করে নেয়। রামপুর চা বাগান কর্তৃপক্ষ বিষয়টি র‌্যাব-৯ শ্রীমঙ্গল ও বাহুবল মডেল থানাকে অবহিত করলে বাহুবল উপজেলা নির্বাহী অফিসার জসিম উদ্দিনের নেতৃত্বে তারা ঘটনাস্থলে পৌঁছেন।
এদিকে, দুপুর থেকে জায়গার কাগজপত্র হাতে নিয়ে নির্মাণকৃত ঘরের পাশে দাঁড়িয়ে দখল নিশ্চিত করতে প্রস্তুত থাকে গ্রামবাসীর একাংশের লোকজন। এক পর্যায়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ওই সরকারী ভূমি থেকে গ্রামবাসীদের সরে যেতে বললে তারা যেতে চায়নি। পরে গ্রামবাসী একত্রিত হয়ে পুলিশের উপর হামলা চালানোর চেষ্টা করলে পুলিশ তাদেরকে ছত্রভঙ্গ করে দেয়। এ সময় ১৫ জন আহত হন।
সুন্দ্রাটিকি গ্রামের পক্ষে আদালতে দায়েরকৃত মামলার বাদী আউয়াল মিয়া বলেন, ওই ভূমি আমাদের গ্রামবাসী কয়েক’শ বছর ধরে ভোগদখল করছে। এ ভূমিতে আমাদের লোকজনের বাড়িঘর, গাছপালা রয়েছে। ইদানিং বাগান কর্তৃপক্ষ তাদের লীজকৃত ভূমি দাবি করে আমাদের উচ্ছেদের পাঁয়তারা শুরু করলে আমরা আদালতে মামলা দায়ের করি। এ অবস্থায় বাগান কর্তৃপক্ষ আমাদের বিরুদ্ধে ভিত্তিহীন একটি অভিযোগ দায়ের করে। এ নিয়ে আমরা উপজেলা নির্বাহী অফিসারের স্মরণাপন্ন হয়েছিলাম। তিনি পুলিশ নিয়ে এসে আমাদের বাড়িঘর ভেঙে উচ্ছেদের চেষ্টা চালান। আমরা এর শান্তিপূর্ণ প্রতিবাদ করলে আমাদের নির্বিচারে গুলি করা হয়। কয়েকজন গ্রামবাসী গুলিবিদ্ধ হয়ে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে।
এ ব্যাপারে বাহুবল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাসুক আলীর সাথে যোগাযোগ করলে তিনি  বলেন, সরকারী জায়গা থেকে দখলদারদের উচ্ছেদ করতে গেলে দখলদাররা পুলিশের উপর চড়াও হয় এবং লাঠিসেঁটা নিয়ে পুলিশের দিকে ধাওয়া করলে আত্মরক্ষার্থে পুলিশ গুলি ছুঁড়ে।
বাহুবল উপজেলা নির্বাহী অফিসার জসিম উদ্দিন জানান, এই জায়গাটি নিয়ে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানসহ কয়েকবার বসেছি। এক পর্যায়ে আমরা তাদেরকে ৮ একর জায়গা দিয়ে দিব বলার পরও তারা সরকারী ভূমি ছাড়ছেন না। তারা দাপট দেখিয়ে সরকারী ভূমিতে ঘর তৈরি করেছে।
এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত এলাকায় পুলিশ মোতায়েন রয়েছে। ঘটনার পর থেকে এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে।

শেয়ার করুন
শেষের পাতা এর আরো সংবাদ
  • ঢাকা উত্তর সিটির মেয়র নির্বাচনে বাধা নেই
  • দেশের প্রতি উপজেলায় সরকার এক হাজার মানুষের কর্মসংস্থান সৃষ্টি করবে ---------প্রতিমন্ত্রী ইমরান আহমদ
  • কমলগঞ্জের শমশেরনগরে রেলওয়ের সম্পত্তিতে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান শুরু
  • রাজনৈতিক মামলা প্রত্যাহারের আহ্বান
  • নগরীর বাসা-বাড়িতে অবৈধভাবে পানি সংযোগ ও অনুমতি ছাড়া ভবন নির্মাণ করা যাবে না ---------মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী
  • এসএমপি কমিশনার অসুস্থ : হাসপাতালে ভর্তি
  • ১০ পদে লড়ছেন ৪২ প্রার্থী
  • জঙ্গিবাদে সম্পৃক্ত তিনজনকে শ্যোন এরেস্ট
  • বাড়ির সীমানা নিয়ে বিরোধে খুন
  • নির্বাচন বিষয়ে টিআইবির মন্তব্য অসৌজন্যমূলক : সিইসি
  • রাজপথে সক্রিয়দের সংরক্ষিত আসনে অগ্রাধিকার : কাদের
  • টিআইবি বিএনপি-জামায়াতের প্রতিবেদন দিয়েছে : তথ্যমন্ত্রী
  • পুরানলেন নিবাসী হাজী শফিকুল ইসলাম চৌধুরীর স্ত্রী বিয়োগ
  • পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেনকে লিডিং ইউনিভার্সিটির অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা
  • ১৯ জানুয়ারির ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন স্থগিত
  • সিলেট প্রেসক্লাবে পরিকল্পনা মন্ত্রীর সংবর্ধনা আজ
  • জগন্নাথপুরে ভারতীয় নিষিদ্ধ বিড়িসহ র‌্যাবের হাতে আটক ১
  • ফেঞ্চুগঞ্জে বৈদ্যুতিক ট্রান্সফরমার চুরি
  • ফরম পূরণের টাকা চাওয়ায় ভাতিজাকে চাচাদের মারধর থানায় অভিযোগ
  • নাশকতার মামলায় সোহেল রিমান্ডে
  • Developed by: Sparkle IT