প্রথম পাতা

কুমারগাঁও তেমুখি-বাদাঘাট সড়ক যেন ‘মরণফাঁদ’

নূর আহমদ ।। প্রকাশিত হয়েছে: ১৫-০২-২০১৮ ইং ০২:৩৬:৩৫ | সংবাদটি ১৯১ বার পঠিত


# সরকারি দুই বিভাগের রশি টানাটানিতে ভোগান্তিতে উত্তর সদরের যাত্রী সাধারণ

# রোববার থেকে অনির্দিষ্টকালের ধর্মঘটের ডাক  

সিলেট নগরীর একেবারেই সন্নিকটে কুমারগাঁও তেমুখি-বাদাঘাট সড়ক। এই সড়কের বর্তমান অবস্থা দেখে কেউ বুঝতেই পারবে না-এটি সংসদীয় আসন সিলেট-১ এর আওতাধীন এলাকা। পুরো সড়ক জুড়ে সৃষ্টি হয়েছে বড় বড় মরণ ফাঁদ। সড়ক সংস্কার বা পুনঃনির্মাণের আশা অনেকটা ছেড়েই দিয়েছেন উত্তর সদরের যাত্রী সাধারণ। অথচ মাত্র তিন থেকে চার কিলোমিটারের ভাঙ্গা সড়ক ম্লান করে দিচ্ছে সরকারিভাবে কারাগার, নৌ একাডেমিসহ গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা প্রতিষ্ঠার পুরো সাফল্য। যদিও সড়কের এই পরিস্থিতির জন্য  স্থানীয় সরকার বিভাগ ও সড়ক ও জনপথ বিভাগের রশিটানাটানিকে দায়ী করছেন সংশ্লিষ্টরা। অন্যদিকে, দীর্ঘদিন থেকে ‘সড়ক যন্ত্রণায়’ পড়া সাধারণ জনগণ আর বসে নেই। আগামী রোববার থেকে সড়কের তেমুখি হতে বাদাঘাট পর্যন্ত এলাকায় অনির্দিষ্টকালের ধর্মঘটের ডাক দিয়েছেন সিএনজি অটোরিক্সা ও ট্রাক শ্রমিক নেতৃবৃন্দ। এ ব্যাপারে তারা সর্বস্তরের মানুষের সমর্থনও কামনা করেছেন।  
তেমুখি-বাদাঘাট-বাইশটিলা বাইপাস বা শিবেরবাজার সড়কের ভেঙ্গে যাওয়া সড়কের পরিমাণ ৩ থেকে ৪ কিলোমিটার। এই সড়কটি বর্তমানে সিলেট-কোম্পানীগঞ্জ সড়কের চেয়েও ভয়াবহ রূপ ধারণ করেছে।
তেমুখি থেকে বাদাঘাট পর্যন্ত সড়ক মরণফাঁদে পরিণত হয়েছে। বর্ষা মৌসুমে এই সড়কে যান চলাচল তো দূরের কথা, পথচারীদের হাঁটারও উপায় ছিল না। বড় বড় গর্তে কাদা আর পানিতে যেনো চাষাবাদের জমিতে পরিণত হয়েছিল সড়কটি। বর্তমান শুষ্ক মৌসুম শেষ হতে চললেও রাস্তা সংস্কারের কোন উদ্যোগ দেখছেন না সাধারণ মানুষ। অথচ প্রতিদিন সদর উপজেলার টুকেরবাজার-কান্দিগাঁও-খাদিমনগর- হাটখোলা- জালালাবাদ ইউনিয়ন ছাড়াও কোম্পানীগঞ্জের বিপুল সংখ্যক মানুষ এই সড়ক দিয়ে যাতায়াত করেন।
গত বছরের ৯ জুলাই সর্বশেষ এই সড়ক দিয়ে যাতায়াত করেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত।  তখন তিনি মন্তব্য করেন - ‘আগে যখন এসেছি, রাস্তার তো এতো খারাপ অবস্থা ছিলো না। এতো খারাপ হলো কিভাবে।’ পরে তিনি রাস্তাটি কার অধীনে জানতে চান। তখন সড়ক ও জনপথ বিভাগের এক কর্মকর্তা জানান- ‘ রাস্তাটি এখনো এলজিইডির অধীনেই রয়েছে। তবে রাস্তাটি পেতে সড়ক ও জনপদ বিভাগ ডিপিপি (উন্নয়ন প্রকল্প প্রস্তাবনা) তৈরি করে পাঠিয়েছে বলে জানান। এরপরই প্রকাশ পায় তেমুখি-বাদাঘাট সড়ক নিয়ে দুই বিভাগের রশি টানাটানির বিষয়টি। অর্থমন্ত্রীর এই মন্তব্যের প্রায় ৮ মাস অতিবাহিত হতে চললেও এখনো সড়ক সংস্কারের কোন উদ্যোগ নেয়া হয়নি। কবে এই যন্ত্রণা থেকে মুক্তি মিলবে তাও নির্দিষ্টভাবে বলতে পারছেন না সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা। অন্যদিকে যত দিন যাচ্ছে ‘সড়ক যন্ত্রণা’য় কাতর জনসাধারণ বিক্ষুব্ধ হয়ে উঠছেন।  
গতকাল বুধবার এলজিইডির নির্বাহী প্রকৌশলী এ.এস.এম মহসীন জানান, এই সড়কের তেমুখি থেকে বাদাঘাট পর্যন্ত এখন আর তাদের আওতায় নেই। সড়কটির দায়িত্ব এখন সড়ক ও জনপথ বিভাগের। অন্যদিকে সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী উৎপল সামন্ত জানান, সড়ক হস্তান্তরের বিষয়টি এখনো পরিকল্পনা কমিশনে আটকা আছে। কবে সেটি ছাড় পাবে এই বিষয়ে তিনি নিশ্চিত নয় বলেও জানান। তিনি আরো জানান, প্রকল্প জমা দেয়া আছে, চিঠি পেলেই তারা কাজ শুরু করে দিতে পারবেন।
শিবেরবাজার এলাকার বাসিন্দা ফারুক আহমদ জানান, ভোগান্তির শেষ নেই তাদের। প্রতিদিন অসহ্য যন্ত্রণা সহ্য করে তাদের শহরে আসতে হয়। গ্রামের ভেতর দিয়ে বিকল্প পথে নলকট, সাদিপুর,  নোয়াপাড়া, তালুকদারপাড়া, মইয়ারচর হয়ে অনেকেই গাড়ি নিয়ে শহরে প্রবেশের চেষ্টা করেন। এতে এই সড়কগুলোও ভেঙ্গে যাচ্ছে। একই সাথে পাড়ার ভেতর দিয়ে রাস্তা হওয়ায় প্রতিদিন দুর্ঘটনা ঘটছে। তিনি অভিযোগ করেন, বাদাঘাট -তেমুখি সড়ক দেখলে মনে হয় এসব দেখার যেন কেউ নেই।
সিলেট জেলা সিএনজি-অটোরিকশা শ্রমিক ইউনিয়ন তেমুখি-আম্বরখানা-লামাকাজি-শিবেরবাজার শাখার সভাপতি আব্দুল খালিক জানান, মানুষের দুর্ভোগ সীমাহীন। সড়কের বড় বড় গর্তে ঝাঁকুনি খেয়ে সিএনজি অটোরিক্সা থেকে নারী পুরুষের পড়ে যাওয়া নৈমিত্তিক ব্যাপার। এমনকি রাস্তায় গর্ভবতী নারীর সন্তান প্রসবেরও ঘটনা ঘটেছে। মাসের পর মাস অপেক্ষা করেও রাস্তা সংস্কারের কোন ফল আসছে না। এ অবস্থায় আমরা আন্দোলনে যেতে বাধ্য হচ্ছি। তিনি জানান, আগামী ১৮ ফেব্রুয়ারী রোববার থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য কুমারগাঁও তেমুখি থেকে বাদাঘাট পর্যন্ত কর্মবিরতি পালন করবেন তারা। এই আন্দোলনে সর্বস্তরের জনসাধারণের সহযোগিতা কামনা করেন এই পরিবহন নেতা।
সিলেট জেলা ট্রাক, পিকাপ, কাভার্ড ভ্যান শ্রমিক ইউনিয়নের জালালাবাদ থানা উপ-কমিটির সভাপতি কালা মিয়া জানান, রাস্তা ভাঙ্গার কারণে প্রতিনিয়ত গাড়ির যন্ত্রপাতি নষ্ট হচ্ছে। অনেক ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করতে হচ্ছে তাদের। এই অবস্থায় সিএনজি অটোরিক্সা শ্রমিক  ও ট্রাক শ্রমিক নেতৃবৃন্দ যৌথ সভা করে কর্মসূচি দিতে বাধ্য হয়েছেন বলে জানান তিনি।
বৃহত্তর বাদাঘাট বালু-পাথর ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি আবুল হাসনাত জানান, ‘‘ব্যবসায়ীরা টাকা তুলে মধ্যখানে সড়ক সংস্কারের চেষ্টা করেছিলেন, কিছু কাজও হয়েছিল। তবে বড় বড় গর্তে যেসব ইট বালু ঢালা হয়, গর্তের তুলনায় তা অপ্রতুল। এরপরও সরকার বাহাদুরের টনক নড়েনি। এই সড়ক দেখলে আমরা যে মর্যাদাপূর্ণ সিলেট-১ আসনের বাসিন্দা তা ভাবতেও পারি না।’’ তিনি সড়কের এই পরিস্থিতির জন্য তৃণমূল জনপ্রতিনিধিদের ব্যর্থতা রয়েছে বলে অভিযোগ করেন।
সিলেট সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আশফাক আহমদ জানান, সংস্কারের জন্য অর্থ বরাদ্দের চেষ্টা চলছে। খুব শীঘ্রই কাজ শুরু হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।
এব্যাপারে জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি ড. এ কে আবদুল মোমেন তেমুখি-বাদাঘাট সড়কের এমন পরিস্থিতির জন্য দুঃখ প্রকাশ করে বলেন, বাংলাদেশের প্রতিটি বিভাগে আমলাতান্ত্রিক জটিলতায় অনেক গুরুত্বপূর্ণ কাজ পড়ে থাকে, কুমারগাও তেমুখি-বাদাঘাট সড়কটিও এই জটিলতায় পড়েছে। অনেকের অভিযোগ সড়কের বর্তমান পরিস্থিতি অর্থমন্ত্রীর নজরে দেয়া হচ্ছেনা বলেই সৃষ্ট সংকটের সমাধান হচ্ছে না এমন প্রশ্নের জবাবে মোমেন জানান, ইতালী যাওয়ার আগ মুহূর্তে অর্থমন্ত্রীর সাথে তাঁর কথা হয়েছে, তিনি রাস্তাটি সংস্কারের জন্য থোক বরাদ্দের কথা ভাবছেন এবং রাস্তাটি বর্তমানে এলজিইডির না হলেও এই বিভাগকে দিয়ে সংস্কারের চিন্তা করছেন। মোমেন জানান, এ নিয়ে এলজিইডির নির্বাহী প্রকৌশলীর সাথে কথা হয়েছে। সংস্কারের অর্থ খুব শীঘ্রই ছাড় পাবে বলে জানান তিনি।
অপরদিকে এলজিইডির নির্বাহী প্রকৌশলী এ.এস.এম মহসীন জানান, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আশফাক আহমদ তাঁর সাথে কথা বলেছেন, টাকা পেলে এলজিইডি সংস্কার কাজ করে দিতে আপত্তি নেই বলে জানিয়ে দিয়েছেন। কবে নাগাদ সংস্কারের কাজ শুরু হতে পারে এমন প্রশ্নের জবাবে এ.এস.এম মহসীন বলেন, সরকার যখন টাকা ছাড় দিবে তখন সংস্কার কাজ শুরু হবে। সংস্কারের টাকার পরিমাণ আড়াই থেকে তিন কোটি টাকা হতে পারে বলেও জানান এলজিইডির নির্বাহী প্রকৌশলী। 

শেয়ার করুন
প্রথম পাতা এর আরো সংবাদ
  • নির্বাচন হবে কি হবে না, জানি না: মহাসমাবেশে এরশাদ
  • চলতি সংসদের শেষ অধিবেশন শুরু আজ
  • শিক্ষকদের সমর্থন চেয়েছেন প্রধানমন্ত্রী
  • ২৮ অক্টোবর সকাল থেকে ৪৮ ঘন্টা কর্মবিরতির ঘোষণা
  • শ্রমিক সমাবেশ তাই বাস ছাড়েনি
  • ২৪ অক্টোবরও সিলেটে সমাবেশের অনুমতি পায়নি জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট
  • আলীয়া মাদ্রাসা মাঠের জানাজায় লাখো মানুষের ঢল
  • জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের সিলেটের সমাবেশ পেছালো
  • ভারতে ট্রেন দুর্ঘটনায় অর্ধশত মানুষের প্রাণহানি
  • বহিষ্কৃতদের নেতৃত্বে বিকল্প ধারার পাল্টা কমিটি
  • প্রতিমা বিসর্জনের মধ্য দিয়ে শেষ হলো দুর্গোৎসব
  • বিশ্বকাপের ট্রফি দেখলো সিলেটবাসী
  • সরকারের উন্নয়ন ও জনবান্ধব উদ্যোগকে ত্বরান্বিত করতে প্রয়োজন জনগণের ঐক্য ও সহযোগিতা
  • সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে আজ জাতীয় পার্টির মহাসমাবেশ
  • সমাবেশের অনুমতি দিয়ে নিয়ে নেওয়া হলো: মওদুদ
  • বিদেশীদের সঙ্গে বৈঠকের মাধ্যমে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের দেউলিয়াত্ব প্রকাশ পেয়েছে : কাদের
  • তারেককে ফেরত পাঠাতে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীকে যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের চিঠি
  • ওমরাহ শেষে দেশের উদ্দেশে যাত্রা করেছেন প্রধানমন্ত্রী
  • জোট নয়, বি. চৌধুরীর দোয়া চায় ন্যাপ-এনডিপি
  • সংসদের ২৩তম অধিবেশন শুরু আগামী রোববার
  • Developed by: Sparkle IT