মহিলা সমাজ

কবিতা

প্রকাশিত হয়েছে: ২০-০২-২০১৮ ইং ০০:০২:৪৭ | সংবাদটি ২৬৮ বার পঠিত

‘স্প্যানিশ অমলেট’
সকালে ঘুম থেকে উঠে ডাল, সবজি, ডিম ভাজি বানাও সাথে রুটি বানাও, সেটা সেঁকে তারপর খাও। সকালের এক নাস্তার জন্য এতো ঝামেলা করার সময় কার আছে বলুন। তার চেয়ে চলুন সকালের নাস্তার ঝামেলা একদম সেরে ফেলি একটি মাত্র অমলেট দিয়ে। আর সেটা হচ্ছে ‘স্প্যানিশ অমলেট’ । আসুন জেনে নেই কীভাবে তৈরি করবেন ‘স্প্যানিশ অমলেট’।
উপকরণ : ডিম- ৬/৭ টি, ক্যাপ্সিকাম- ১/২ কাপ (কুঁচি করে কাটা), টমেটো- বড় একটা (কুঁচি করে কাটা), পেয়াজ কুচি- ১/২ কাপ, গোল মরিচ গুঁড়া- ১ চা চামচ, লবণ- পরিমান মতো, চীজ- ২ টেবিল চামচ (ইচ্ছা), বাটার- ২ টেবিল চামচ। যদি আলু দিতে চান তাহলে আলু- ১/২ কাপ (গোলগোল পাতলা করে কাটা। ৫/৬ মিনিট গরম পানিতে সিদ্ধ করে নিন। নরম হওয়ার জন্য।)
এছাড়া আপনি চাইলে পছন্দ মতো ফুলকপি, গাজর, ব্রোকলি, বাঁধাকপি, বরবটি, পেঁয়াজের কলি অথবা যেকোনো সিজনাল সবজি দিতে পারেন।
প্রণালি : গোলমরিচ আর লবণ দিয়ে ডিম ফাটিয়ে নিন। তারপর ফাটানো ডিমে বাকি সব উপকরণ হালকাভাবে মিশিয়ে নিন। বড় ননস্টিক প্যানে বাটার গলিয়ে নিন। বাটার গলে এলে এতে ডিমের মিশ্রণ দিয়ে ছড়িয়ে দিন। (এমনভাবে ছড়াবেন যেন পাতলা না হয়ে যায়)
এবার ঢাকনা দিয়ে ঢেকে হালকা আঁচে ১৫ মিনিট রান্না করুন। মাঝে মাঝে দেখে নিন যাতে নিচে পুড়ে না যায়।
দুই দিক হয়ে গেলে নামিয়ে আপনার পছন্দ মতো কেটে গরম গরম পরিবেশন করুন। আপনি চাইলে এর সাথে চাটনি, সস, ক্যাচাপের সাথে খেতে পারেন। তাহলে আরো স্বাদ লাগবে।


ঝাল চিকেন বিরিয়ানি
বিরিয়ানি মানেই মিষ্টি স্বাদের। কিন্তু বিরিয়ানি হতে পারে ঝালও। ঝাল বিরিয়ানি রান্নার উপায় হয়তো অনেকেরই জানা নেই। চলুন জেনে নেয়া যাক-
উপকরণ : মুরগি দেড় কেজি। বাসমতি অথবা পোলাওয়ের চাল ১ কেজি। পেঁয়াজ ১ কাপ। আদাবাটা ২ টেবিল-চামচ। রসুনবাটা ২ টেবিল-চামচ। বিরিয়ানির মসলা ৩ টেবিল-চামচ। টক দই ৪ টেবিল-চামচ। মরিচগুঁড়া দেড় টেবিল-চামচ। পুদিনাপাতা বাটা আধা টেবিল-চামচ। ধনেপাতা বাটা ১ টেবিল-চামচ। কাঁচামরিচ বাটা ১ টেবিল-চামচ। সরিষার তেল ১/৪ কাপ। সয়াবিন তেল ১/৪ কাপ (মুরগি রান্না জন্য)। ঘি ২ টেবিল-চামচ। লবণ স্বাদ মতো। পানি ১৫ কাপ (গরম পানি)। এলাচ ৩টি। দারুচিনি ১টি৷
প্রণালি : রান্নার আগে চাল ধুয়ে পানিতে ভিজিয়ে রাখতে হবে। বাসমতি-চাল হলে ৪০ মিনিট আর পোলাওয়ের চাল হলে ২০ মিনিট। তেল গরম করে পেঁয়াজকুচি হালকা বাদামি করে ভেজে এর মধ্যে আদা ও রসুন বাটা এবং লবণ দিয়ে কষিয়ে নিন। টক দই, টমেটো, বিরিয়ানির মসলা, শুকনা মরিচগুঁড়া ও সামান্য পানি দিয়ে কষিয়ে মুরগির মাংসের টুকরাগুলো দিয়ে দিন।
এবারে মাংস ভালোভাবে কষিয়ে সিদ্ধ হওয়ার জন্য পানি দিন। ভুনা ভুনা করে নিতে হবে। মাংস রান্না হলে ধনিয়া ও পুদিনা পাতা এবং কাঁচামরিচ-বাটা দিয়ে চুলা বন্ধ করে দিন। চাল যে পরিমাণ তার দ্বিগুন থেকে একটু কম পানি নিতে হবে, কারণ মাংসের মধ্যে ঝোল আছে।
এবার বিরিয়ানি রান্নার জন্য হাঁড়িতে সরিষার তেল, এলাচ ও দারুচিনি দিয়ে ভিজিয়ে রাখা চাল পানি ঝরিয়ে দিয়ে দিতে হবে। চাল ৭, ৮ মিনিট নেড়ে নেড়ে কষাতে হবে। যখন সুন্দর ভাজা ভাজা হয়ে যাবে তখন গরম করে রাখা পানি ও লবণ দিয়ে দিতে হবে।
পানি ফুটলে ১০ মিনিট পর চাল যখন প্রায় ৮০ ভাগ সিদ্ধ হয়ে যাবে তখন রান্না করা মাংস ও কাঁচামরিচ দিয়ে চালের সঙ্গে মিশিয়ে দিতে হবে। সাবধানে মেশাতে হবে, নইলে চালগুলো ভেঙে যাবে৷ ২৫ মিনিট ঢেকে রান্না করুন৷ নামানোর আগে উপর দিয়ে ঘি ছড়িয়ে দিন। গরম গরম পরিবেশন করুন৷


চাইনিজ সেজোয়ান রাইস
ছুটির দিন, বাচ্চাকাচ্চা, বড়, বুড়ো সবাই বাড়িতেই আছে। আর আপনি সবাইকে নিয়ে ছুটির দুপুরে কি খাবেন সেই চিন্তা করছেন? সাদামাটা খাবার তো রোজই খাচ্ছেন। আজ একটু ভিন্ন স্বাদের খাবার খেয়ে দেখুন। কি খাবেন? খুবই দ্রুত তৈরি করে নিতে পারবেন অত্যন্ত সুস্বাদু একটি চাইনিজ রাইস আইটেম সেজোয়ান রাইস। চলুন আজকে জেনে নেওয়া যাক চাইনিজ সেজোয়ান রাইস তৈরির খুবই সহজ রেসিপিটি।
উপকরণ : শুকনো মরিচ ১ মুঠো, আদা রসুন বাটা ১ চা চামচ, পেঁয়াজ কুচি ১ টি, সয়া সস ১ টেবিল চামচ, ভিনেগার ১ টেবিল চামচ, লবণ স্বাদ মতো, ঝাল বুঝে মরিচ গুঁড়ো, তেল ৩/৪ টেবিল চামচ।
রাইসের জন্য উপকরণ : রসুন কুচি ১ টেবিল চামচ, শুকনো মরিচ ১-২ টি, বরবটি বা ফ্রেঞ্চ বীনস আধা কাপ, গাজর কুচি আধা কাপ, সেজোয়ান সস ঝাল বুঝে, ভিনেগার ১ চা চামচ, সয়া সস ১ চা চামচ, ভাত ১-দেড় কাপ (৯০% সেদ্ধ করা), লবণ স্বাদ মতো, তেল পছন্দ মতো, স্প্রিং অনিয়ন ইচ্ছে (পেঁয়াজ পাতা)
প্রণালি :
সসতৈরি : প্রথমে গরম পানিতে শুকনো মরিচ ডুবিয়ে রাখুন এবং এরপর তা ব্লেন্ড করে পেস্ট তৈরি করে নিন। একটি প্যানে তেল গরম করে নিয়ে এতে আদা রসুন বাটা দিয়ে ভালো করে নেড়ে নিন। পুড়িয়ে ফেলবেন না। এরপর এতে দিন পেঁয়াজ কুচি এবং নরম হয়ে গেলে মরিচের পেস্ট দিয়ে দিন। যখন তেল ছেড়ে আসবে তখন একে একে বাকি মসলা দিয়ে ভালো করে নেড়ে মিশিয়ে নিন। সব শেষে ৫-৬ মিনিট চুলায় অল্প আঁচে রেখে নামিয়ে ফেলুন সেজোয়ান সস।
রাইস তৈরি : প্রথমে প্যানে তেল দিয়ে এতে রসুন কুচি ও একটি শুকনো মরিচ ছিঁড়ে দিয়ে ভালো করে নেড়ে নিন। এতে যোগ করুন ফেঞ্চ বীনস বা কুচি করে কাটা বরবটি ও গাজর।
১ মিনিট উচ্চ তাপমাত্রায় সবজি নেড়ে নিয়ে সেজোয়ান সস দিয়ে নেড়ে নিন। সয়া সস ও ভিনেগার দিয়ে নেড়ে মিশিয়ে রান্না করা ভাত দিয়ে দিন। উপরে লবণ ছিটিয়ে ভালো করে নেড়ে মিশিয়ে নিন। নামানোর পূর্বে কিছুটা স্প্রিং অনিয়ন দিয়ে নেড়ে নামিয়ে নিন। এরপর পরিবেশন করুন সুস্বাদু এই চাইনিজ রাইস আইটেম এবং ছুটির দুপুরে মজা নিন চাইনিজ সেজোয়ান রাইসের



সবজির পাটিসাপটা
পাটিসাপটা তো খাওয়া হয়ই। সবজির পাটিসাপটা হলে কেমন হয়? পিঠা মিষ্টি স্বাদেরই হতে হবে এমন কোনো কথা নেই। পিঠা হতে পারে ঝালও। তাই সবজি দিয়েই তৈরি করে ফেলুন মজাদার পাটিসাপটা।
উপকরণ : ময়দা- ১ কাপ, সুজি- ১/২ কাপ, ডিম- ২ টি, গাজর মিহি কুঁচি- ১ টি, বাঁধাকপি মিহি কুঁচি- ১/২ কাপ, পেঁয়াজ, কুঁচি- ১ টি, কাঁচা মরিচ কুঁচি- ৪/৫ টি, সয়া সস- ২ টেবিল চামচ, লবণ- স্বাদমতো, তেল- পরিমাণমতো, ধনে পাতা কুঁচি- ১ গোছা।
প্রণালি : প্রথমে ময়দা আর সুজি একটি বাটিতে নিয়ে তাতে সামান্য লবণ ও একটি ফেটানো ডিম দিয়ে ভালো করে মিশিয়ে গোলা তৈরি করুন। প্রয়োজনে একটু পানি মেশান। মোটামুটি ঘন একটি গোলা তৈরি করতে হবে যেটা আপনি প্যানের ওপর পাটিসাপটার মতো ছড়িয়ে দিতে পারবেন। গোলাটি মূল রান্নার ৩০ মিনিট আগেই তৈরি করে রাখতে হবে।
এবার কড়াইতে তেল দিয়ে পেঁয়াজ, কাঁচা মরিচ কুঁচি বাদামি করে ভেজে নিন। এবার সবজিগুলো দিয়ে দিন। পরিমাণ মতো লবণ দিন। মিনিট পাঁচেক রান্না করুন। একটু নরম হলেই একটি ডিম ফেটিয়ে নিয়ে তাতে ছেড়ে দিন। ভালো করে মিশিয়ে নিন। সয়াসস দিয়ে নেড়েচেড়ে বেশ মাখামাখা হয়ে আসলে ধনেপাতা কুঁচি ছিটিয়ে নামিয়ে নিন। এবার ননস্টিক প্যান বা তাওয়া গরম করে তেল দিয়ে ব্রাশ করে নিন।
ব্রাশ না থাকলে একটা ছোট কাপড় চামচে বেঁধে টেলে দুবিয়ে সেটা দিয়ে তাওয়াটা ভালো করে মুছে দিতে পারেন। এবার ২ টেবিল চামচ গোলা প্যানে ঢেলে সমানভাবে গোল করে ছড়িয়ে দিন। এসময় আঁচ কম রাখতে হবে।
গোলাটা একটু শুকিয়ে আসতে শুরু করলে খুন্তি দিয়ে নিচের দিকটা তুলে নিন। উল্টে দেবেন না। এবারে ২ চামচ ডিম-সব্জির পুর পাটিসাপটার এক পাশে লম্বা করে বিছিয়ে দিন। তারপরে সাবধানে চামচের সাহায্যে পাটিসাপটার মতো রোল করুন। মুড়িয়ে নেয়ার পর আরও ২/৩ মিনিট তাওয়ায় রাখুন, উল্টে-পাল্টে ভালোভাবে সেঁকে নিন। সস দিয়ে গরম গরম পরিবেশন করুন।

শেয়ার করুন

Developed by: Sparkle IT