মহিলা সমাজ

কবিতা

প্রকাশিত হয়েছে: ২০-০২-২০১৮ ইং ০০:০৩:৫৩ | সংবাদটি ১৭৫ বার পঠিত

পথের দিশা
মুনিরা সিরাজ চৌধুরী রাজু
হাওর পাড়ের মানুষ কাঁদে
হারিয়ে সোনার ধান।
ফসলহারা চাষীর তরে
কেঁদে ওঠে প্রাণ।

শূন্য গোলা ভূখা চাষী
আকাশ পানে চায়।
হারিয়ে গেছে সোনার স্বপ্ন
দূর নীলিমায়।

বানের জলে ভেসে গেল
চাষীর সকল আশা।
অথই জলে দুলছে তরী
পায়না পথের দিশা।

শহীদ মিনার
নার্গিস মোমেনা
উনিশ’শ বাহাত্তর
সদ্যস্বাধীন ভূখন্ড
একটি বাংলাদেশ
নিজস্ব একটি পতাকা
লাল সবুজের আল্পনা
ঘটা করে চলছে প্রস্তুতি
আগামি কল্য প্রতুষ্যে
কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে
প্রথমবারের মতো অর্ঘ্য
সকলে মিলে যাব দিতে
চরম উত্তেজনায় উদ্বিগ্ন
ঘুম নেই দু’টি আখিতে
ঘন কুয়াশায় আচ্ছন্ন রাত্রিতে
কাক ডাকার ফুসরত নেই
নগ্ন পায়ে সবাই একসাথে
বের হলাম রাজপথে
বড়দের সাথে আমিও
অনেকটা দূর পায়ে হেঁটে
উপস্থিত হলাম শহীদ মিনারে
গুটি গুটি পায়ে এগিয়ে
দুহাত ভরে ফুল দিলাম বেদিতে
বুঝিনি শহীদ মিনার আর
বেদিতে ফুল দেবার অর্থ
পঞ্চাশ দশকের বর্তমান
বুঝেছি ফুল আর শহীদ মিনার
নিজেই পুলকিত হই ভেবে
শ্রদ্ধাঞ্জলিতে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে।

প্রাণের মাঝে একুশ বাজে
ঝরনা বেগম
একুশ আমার
হাজার বছরের উত্তরাধিকার
একুশ আমার
ভরসার জায়গা-জমি
একুশ আমার
নীল নোটবুক, যুগল কাব্য
তন্দ্রাবিলাস
তাই আমার-
প্রাণের মাঝে একুশ বাজে
আর বাংলা ভাষা-
তুমি আমার গৌরবের ভাষা
তোমার জন্যে প্রাণ বিসর্জন
শুধু বাঙালির ইতিহাস নয়
ঐতিহ্য ও সংস্কৃতির অংশ
রক্তে রাঙা সেই রাজপথ
সেই কৃষ্ণচূড়া, পলাশ,
শিমুল তাঁর সাক্ষী।
বাংলা ভাষা-
তোমার মৃত্যু হবে না
কখনো-কোনোদিন
ইতিহাস তা-ই কয়!
জলে জ্যোৎ¯œার কারুকাজ
অথবা
শতবর্ষী বৃক্ষ হয়ে
তুমি রবে প্রাণের মাঝে
মনস্তাত্ত্বিক টানাপোড়েনের মিশেলে
দূর দ্রাঘ্রিমায়
হেঁটে যাবে তুমি
অপার মহিমায়
বাংলা ভাষা-
তুমি আমার ভালোবাসার গল্প
স্পর্শের বাইরেও আমি
তোমাকে খুঁজি!
তুমি আমার এক উঠোন আকাশ
বাংলা ভাষা-
আমার বুকের ভিতর তুমি
বরফ গলা নদী!

অন্তিম অপেক্ষা
ইছমত হানিফা চৌধুরী
দিগন্তের অনন্ত অবধি
পাখিদের উড়ে যাওয়া অন্তিম
চন্দ্র, সূর্য দখিনা বাতাস
আমায় বলে দিও
কোনদিকে যাব।
যেখানে স্বপ্ন নয়, স্মৃতি নয়, জ্বলন্ত জীবন।
সেখান থেকে শুরু হউক
নতুনের আগমন।

এসেছে বসন্ত
অকেয়া হক জেবু
অফুরান সজীবতা নিয়ে এসেছে বসন্ত
গাছে গাছে ফুল ফুটে, হয় মন শান্ত
বসন্তের আগমনে পরশ লাগে মনে
ইচ্ছে করে হারিয়ে যেতে প্রকৃতির সনে।
পাখিগুলো ভোর বিহানে করে যখন গান
মধুর গানের সুরে জুড়িয়ে যায় প্রাণ।
গাছের শাখায় ফুটে যখন রঙবেরঙের ফুল
অপরূপ সেই সৌন্দর্য দেখতে করেনা কেউ ভুল।
বসন্ত ঋতু বছরেতে একবারই আসে
বসন্তকে কাটাও সবাই একটু ভালবেসে।

জীবনটা যদি হতো
ফাতিহা ইসলাম পাপড়ি
জীবনটা যদি হতো
পেনসিলে আঁকা গল্প
তবে রাবার দিয়ে মুছে
নতুন করে আঁকতাম
আর ভুল গুলো সব
আপন মনে শুধরে নিতাম
জীবনটার যদি থাকতো জানা
কতটুকু সময় আছে এ জীবনে
তবে সব পরিকল্পনা
করে রাখতাম মনে
জীবনটা যদি হতো,
ডানা মেলা পাখি
মনের সুখে উড়তাম
যত ইচ্ছা তত।
জীবনটা যদি হতো,
ছোট্ট শিশুর মতো
যার যত্ন থাকে
সবার কাছে মুখ্য।
তাকে কেউ দেয় না
পেতে কখনো দুঃখ।

শেয়ার করুন

Developed by: Sparkle IT