সম্পাদকীয়

সড়কপথ বেহাল

প্রকাশিত হয়েছে: ২৮-০২-২০১৮ ইং ২৩:২৯:২০ | সংবাদটি ৯৫ বার পঠিত

সড়কপথের অবস্থা বেহাল। আসছে বর্ষাকাল। তখন দুর্ভোগ পৌঁছবে চরমে। সারা দেশের সাড়ে ১৬ হাজার কিলোমিটার সড়ক পথ চলাচল অযোগ্য হয়ে উঠছে। গত মঙ্গলবার একটি জাতীয় দৈনিকে প্রকাশিত খবরে বলা হয়, সারা দেশে ২১ হাজার তিনশ’ দুই কিলোমিটার সড়কপথের মধ্যে সাড়ে ১৬ হাজার কিলোমিটারের অবস্থাই নাজুক। এর মধ্যে জেলা ও আঞ্চলিক সড়কগুলো সবচেয়ে খারাপ। এসব সড়কের বেশির ভাগ স্থানে পিচঢালাই ওঠে গিয়ে ইটসুরকি বেরিয়ে গেছে। কোথাও কোথাও সৃষ্টি হয়েছে বড় বড় গর্ত। আর সামান্য বৃষ্টি হলেই সেইসব গর্ত মৃত্যুফাঁদে পরিণত হয়। গত বছর বন্যায় অনেক রাস্তা ক্ষতিগ্রস্ত হয়। কিন্তু পুরো শুষ্ক মওসুম চলে যাচ্ছে; এখন পর্যন্ত মেরামতের নাম নেই। এবারের বর্ষা মওসুমেরও খুব একটা দেরি নেই। সময়ের মধ্যে সড়কগুলো আদৌ সংস্কার করা হবে কিনা, সেটাই সন্দেহ।
এটা অবশ্য আমাদের দেশে একটা নিয়মিত বিষয়ে পরিণত হয়ে গেছে যে, রাস্তাঘাট ভেঙ্গে গেলে ক্ষতিগ্রস্ত হলে তা মেরামতের জন্য অর্থ বরাদ্দসহ দরপত্র আহ্বান ইত্যাদি প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে কাটিয়ে দেয়া হয় দীর্ঘ সময়। এভাবে চলে যায় শুষ্ক মওসুম। আর অনেক সময় কাজ শুরুর কিছু দিনের মধ্যেই চলে আসে বর্ষা। আটকে যায় কাজ, অপেক্ষা আরও একবছর। আর দুর্ভোগও বেড়ে যায় দ্বিগুণ। অনেক সময় অফিসিয়াল প্রক্রিয়া শেষ করতে করতে বর্ষাই চলে আসে, কাজ আর শুরু হয় না। এতে বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই প্রকল্পের বরাদ্দ অর্থ লুটপাট হয়ে যায়। জানা গেছে, গত বর্ষা মওসুমে ক্ষতিগ্রস্ত সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের সড়কগুলো মেরামতের জন্য বরাদ্দ চাওয়া হয় তিন হাজার ২৯ কোটি টাকা। কিন্তু বরাদ্দ পাওয়া যায় এক হাজার আটশ কোটি টাকা। ফলে মেরামত কাজ অসম্পূর্ণ থেকে যাবে বলে আশংকা করা হচ্ছে।
জাতীয় মহাসড়কসহ জেলা ও উপজেলা পর্যায়ের সড়কগুলোর অবস্থা করুণ। বিশেষ করে প্রায় চার হাজার কিলোমিটার জাতীয় মহাসড়ক যানবাহন চলাচলের জন্য মোটামুটি উপযোগী হলেও হাজার হাজার কিলোমিটার আঞ্চলিক মহাসড়কের অবস্থা বেশি করুণ। সিলেট-ঢাকা সড়কসহ রাজধানীর সঙ্গে সংযোগ স্থাপনকারী মহাসড়কগুলো জরুরী ভিত্তিতে সংস্কার করা দরকার। সিলেট-ঢাকা মহাসড়কটি ইতোপূর্বে সম্প্রসারণ ও মেরামত করা হয়। কিন্তু সময়ের দাবী পূরণ করতে পারছে না সড়কটি। বর্তমানে চার লেন-এ উন্নীত করার কথা শোনা গেলেও তা কবে বাস্তবায়িত হবে বলা মুশকিল।
সড়কপথে মানুষের দুর্ভোগ এদেশে নতুন কিছু নয়। প্রায় সারা বছরই বেশির ভাগ সড়ক পথ থাকে চলাচল অনুপযোগী। যাত্রীরা যাতায়াত করেন জীবনের ঝুঁকি নিয়ে। ভাঙ্গাচুরা রাস্তায় দুর্ঘটনাও ঘটে ঘন ঘন। দীর্ঘদিন সংস্কারহীন অবস্থায় পড়ে থাকার পর অনেক সড়কই এক পর্যায়ে মেরামত করা হয়। কিন্তু তা টেকে না বেশি দিন। এর অন্যতম কারণ হলো যথাযথভাবে সড়কের কাজ না করা। এটা স্থায়ী অভিযোগ যে, সংশ্লিষ্ট ঠিকাদার থেকে শুরু করে সরকারি দুনীতিবাজ কর্মকর্তা-কর্মচারীর পকেট ভারী করার জন্য প্রকল্পের কাজে ব্যাপক কারচুপির আশ্রয় নেয়া হয়। এই ধারা চলে আসছে অতীত থেকেই। সরকারের সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিবর্গ বলছেন, আগামী জুন মাসের মধ্যেই ক্ষতিগ্রস্ত সড়কগুলোর মেরামতের কাজ শেষ হবে। এই কথাটি যেন বাস্তবে প্রতিফলিত হয়।

 

শেয়ার করুন

Developed by: Sparkle IT