স্বাস্থ্য কুশল

সাময়িক বাচন অসঙ্গতি : তোতলামি

বিমল কর প্রকাশিত হয়েছে: ০৯-০৪-২০১৮ ইং ০২:৩৩:২১ | সংবাদটি ১০৩ বার পঠিত

চিকিৎসা বিজ্ঞানের ভাষায় তোতলামি অসঙ্গতির নাম নরমাল ডিসফ্লুয়েন্সি। অনেক শিশু কিশোরদের মাঝে ভাষাগত একদম সুস্পষ্ট বিপত্তি দেখা যায়। এ ধরনের একটা অস্বাচ্ছন্দ্যের নাম হলো ‘তোতলামি’।
তবে এটি কারো কারো সাময়িক হয়ে থাকে। নির্দিষ্ট সময়ের পরে এটা এমনিতেই স্বাভাবিক হয়ে আসে। তবে দীর্ঘ দিন অতিবাহিত না করাই ভালো। গবেষকরা আরও সুন্দরভাবে বলে থাকেন- শিশুর মন জিহ্ব অপেক্ষা দ্রুততর গতিতে ভাষা তৈরি করে। যে কারণে জিহ্বার ভাষার প্রকাশে শব্দ আটকে যায় বা উপচে পড়ে অথবা দ্বিধাদ্বন্দ্বের প্রকাশ ঘটে।
যাদের তোতলামির সমস্যা তারা তাদের বাচন অসংলগ্নতার কারণে মনের দিক থেকে বিষণœ হয়ে থাকে। হতাশায় ভোগে। তা হতে দেয়া যাবে না। তবে সতর্ক থাকতে হবে কথা বলার সাথে সাথে দেহের অঙ্গ-ভঙিমা যেন না করে। বডিল্যাংগুয়েজ ব্যবহার করে ভাষার ঘাটতি যাতে পুষিয়ে নিতে না পারে। তাকে বাধা দিতে হবে কথা বলার অস্বাচ্ছন্দকালে শিশুর বিশেষ মুখ-ভঙিমা, জোরে জোরে চোখ বন্ধকরা, ঠোঁট নাড়তে থাকা বা হাত নাড়ানোতে। তাকে বুঝাতে হবে একটি শব্দ পুনঃ পুনঃ উচ্চারণ না করার জন্য। অতিমাত্রায় চাপ বা কড়া শাসন শুদ্ধি করণের জন্য অনাকাক্সিক্ষত বিপত্তি দেখা দিতে পারে। ভাষার বিকাশে অভিভাবকদের তোতলামির ক্ষেত্রে প্রথম করণীয় হলো- (১) শিশুকে তার কথা শেষ করতে দিন, কথা শেষ করার মাঝে বিঘœ ঘটাবেন না। (২) শিশুকে রিলাক্স হতে দিন। (৩) শিশুকে কথা বলার সুযোগ দিন। (৪) শিশু-কিশোরের সাথে কথা বলার জন্য স্পেশাল সময় বের করুন। (৫) আপনি স্বাভাবিক ধীর-স্থির ভাবে কথা বলুন।
ডা. নাভিদ ফারহানের মতে তোতলামির সমস্যায় আক্রান্ত তাদের বেলাতে এর সাথে মানসিক উদ্বেগ সমস্যা দেয়া দেয়। এ কারণে স্পিচ থেরাপিস্ট রোগীকে কোনো অভিজ্ঞ মনোচিকিৎসকের তত্ত্বাবধানে থাকার পরামর্শ দেন। মনে রাখতে হবে তোতলামির প্রধান চিকিৎসার নাম স্পিচ থেরাপি। এটি আসলে কথা বলার ক্ষেত্রে বিশেষ নির্দেশনা।
তবে যারা নরমাল ডিসফ্লুয়েন্সি নিয়ে লোকজনের আড়ালে থাকার কথা ভাবছেন আবৃত্তি চর্চা কেন্দ্র তাদের স্বাগত জানায়। উচ্চারণ ও কথা বলা প্রয়োগ শিল্পে তাদের অবস্থার পরিবর্তন আনা সম্ভব। তাই এদের আত্মবিশ্বাস বাড়াতে আশে পাশের লোকজনের সাথে প্রয়োজনে বা অপ্রয়োজনে কথা বলতে উৎসাহিত করুন। সাবধান তাদেরকে নিয়ে হাসা-হাসি যেন না হয়।
একজন আবৃত্তি প্রশিক্ষক নরমাল ডিসফ্লুয়েন্সি ব্যক্তিটির সহায়ক বন্ধু। শব্দ প্রয়োগ ও শব্দের ব্যায়াম স্বাভাবিক করে দেয়। দ্বৈত-আবৃত্তি পার্টনারশিপের কারণে এবং তাল মিলিয়ে রিডিং পড়ার ফলে কখনো কখনো উন্নতি ঘটে থাকে।
তাই তোতলামি সমস্যার শিশু-কিশোররা অবৃত্তিতে উদ্যোগী হয়ে ধৈর্য নিয়ে স্বাভাবিক জীবন মেনে অবস্থান করুক। শক্তভাবে ভূমিকা নেবে তাদের দ্বিধাদ্বন্দ্বের পাশে আবৃত্তি চর্চাকেন্দ্র।

শেয়ার করুন
স্বাস্থ্য কুশল এর আরো সংবাদ
  • কোন জ্বরে কী দাওয়াই
  • মায়ের দুধ পান : সুস্থ জীবনের বুনিয়াদ
  • রোগ প্রতিরোধে মিষ্টি কুমড়া
  • আমাশয় চিকিৎসায় পরিচিত ভেষজ
  • ভাইরাল হেপাটাইটিস
  • পাইলস কি কোনো গোপন রোগ
  • শিশুর খাবারে অরুচি ও প্রতিকার
  • স্বাধীনচেতা ইবনে সিনা : চিকিৎসা বিজ্ঞানের বিস্ময়
  • ধূমপান স্মার্টনেস নয় মৃত্যু ঘটায়
  • থাইরয়েড সমস্যা ও সমাধান
  • আমের বিভিন্ন ধরনের স্বাস্থ্যগুণ
  • এলোভেরা ও প্রপোলিস : দাঁতের যতেœ চমৎকার এক জুটি
  • অর্জুনের এত্তো গুণ
  • রোগ প্রতিরোধে আমলকী
  • ঔষধি গুণের ইলিশ
  • ওমেগা-থ্রি : মানবদেহে এর গুরুত্ব
  • নিরাপদ মাতৃত্ব রক্ষায় প্রয়োজন প্রশিক্ষিত ও দক্ষ মিডওয়াইফ
  • রক্ত স্বল্পতা : জনস্বাস্থ্যের প্রধান সমস্যা
  •  তাফসিরুল কুরআন
  • দেশে দেশে রোজা
  • Developed by: Sparkle IT