প্রথম পাতা প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ

বাংলাদেশের কাছে বিশ্বের শেখার আছে: প্রিয়াঙ্কা

প্রকাশিত হয়েছে: ২৫-০৫-২০১৮ ইং ০৪:১০:৪০ | সংবাদটি ৫১ বার পঠিত

 

ডাক ডেস্ক : মিয়ানমারে নৃশংসতার শিকার হয়ে পালিয়ে আসা লাখ লাখ রোহিঙ্গাকে বাংলাদেশ যেভাবে আশ্রয় দিয়েছে, তাকে ‘বিশ্বের জন্য অনুসরণীয়’ বলেছেন ইউনিসেফের শুভেচ্ছা দূত প্রিয়াঙ্কা চোপড়া।

বাংলাদেশ সফর শেষে ফেরার আগে গতকাল বৃহস্পতিবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাতকালে এ মন্তব্য করেন বলিউড ও হলিউডের জনপ্রিয় এই অভিনেত্রী।

জাতিসংঘ শিশু তহবিল ইউনিসেফের শুভেচ্ছা দূত হিসেবে চারদিনের সফরে সোমবার বাংলাদেশে আসেন প্রিয়াঙ্কা।

উখিয়া ও টেকনাফে ১০টি শরণার্থী ক্যাম্প ঘুরে দেখে শিশুদের সঙ্গে কথা বলে তাদের অভিজ্ঞতা, তাদের সঙ্কট তিনি বোঝার চেষ্টা করেন।

বৃহস্পতিবার কক্সবাজার থেকে ঢাকায় এসে বিকালে গণভবনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাত করেন এই অভিনেত্রী। বঙ্গবন্ধুর ছোট মেয়ে শেখ রেহানাও এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

প্রধানমন্ত্রীর অতিরিক্ত প্রেস সচিব এম নজরুল ইসলাম পরে এ বৈঠকের বিষয়ে সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন।

তিনি জানান, প্রিয়াঙ্কা চোপড়া রোহিঙ্গা ক্যাম্পে তার অভিজ্ঞতার কথা প্রধানমন্ত্রীর সামনে তুলে ধরেন। রোহিঙ্গা ক্যাম্পগুলোতে শিশুদের পরিস্থিতি তুলে ধরে প্রিয়াঙ্কা চোপড়া বলেন, একটা প্রজন্ম হারিয়ে যেতে বসেছে। যথাযথ শিক্ষার ব্যবস্থা না হলে এই শিশুরা চরমপন্থার দিকে ঝুঁকতে পারে বলেও প্রিয়াঙ্কা আশঙ্কা প্রকাশ করেন বলে  জানান নজরুল।

তিনি বলেন, রোহিঙ্গারা বিপর্যয়ের মধ্যে আছে। যারা কর্মক্ষম তাদের কাজ নেই। ক্যাম্পের শিশুরা যে শিক্ষার যথাযথ সুযোগ পাচ্ছে না, সে কথাও প্রিয়াঙ্কা চোপড়া তুলে ধরেন।

মিয়ানমারের রাখাইনে দমন-পীড়নের মুখে গত কয়েক দশকে চার লাখের মত রোহিঙ্গা পালিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়ে আছে। আর গতবছর ২৫ অগাস্ট রাখাইনে নতুন করে দমন অভিযান শুরুর পর এসেছে প্রায় সাত লাখ রোহিঙ্গা।

এই বিপুল সংখ্যক রোহিঙ্গাকে বাংলাদেশ যেভাবে আশ্রয় দিয়েছে- তাকে ‘অভূতপূর্ব’ হিসেবে বর্ণনা করে প্রিয়াঙ্কা চোপড়া বলেন, কীভাবে মানবতার পাশে দাঁড়াতে হয়, তা বাংলাদেশের কাছে বিশ্বের শেখার আছে।

প্রধানমন্ত্রী বৈঠকে বলেন, নৃশংসতার মুখে মিয়ানমার থেকে পালিয়ে আসা এই রোহিঙ্গাদের বাংলাদেশে আশ্রয় দেওয়া হয়েছে মানবিক কারণে।

ক্যাম্পগুলোতে রোহিঙ্গাদের জন্য সব ধরনের সুযোগ সুবিধার ব্যবস্থা করা বাংলাদেশের একার পক্ষে কঠিন, তারপরও বাংলাদেশ সাধ্যমত চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে বলে জানান প্রধানমন্ত্রী।

তিনি বলেন, এক লাখ রোহিঙ্গাকে শিগগিরই ভাসানচরে স্থানান্তর করা হবে। সেখানে তাদের জন্য পর্যাপ্ত সুযোগ সুবিধার ব্যবস্থাও করা হচ্ছে।

রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে গত বছরের ২৩ নভেম্বর একটি সম্মতিপত্রে সই করেছে বাংলাদেশ ও মিয়ানমার। ওই চুক্তি বাস্তবায়নে মিয়ানমারের ওপর আন্তর্জাতিক চাপ অব্যাহত রাখার কথাও বলেন প্রধানমন্ত্রী।

শেয়ার করুন
প্রথম পাতা এর আরো সংবাদ
  • বিশ্বনাথে একই পরিবারের ৭ জন দগ্ধ হওয়ার ঘটনায় মামলা দায়ের
  • নবীগঞ্জে গৃহবধূর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার
  • নবীগঞ্জের করগাঁওয়ে দু’গ্রুপের সংঘর্ষে আহত ১০
  • নবীগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রী নিহত
  •   ম্যাচ প্রিভিউ ইন্ডিয়াকে হারাতে লড়তে হবে টাইগারদের
  • কানাইঘাট থানা পুলিশের অভিযানে ডাকাতি মামলার ২ আসামী গ্রেফতার
  • শ্রীমঙ্গল-ভানুগাছ সড়কে গাছ ফেলে গণডাকাতি
  • বিএনপি নেতৃবৃন্দের নিন্দা
  • হবিগঞ্জকে মাদকমুক্ত করার অঙ্গীকার করলেন নবাগত পুলিশ সুপার
  • দুই ছাত্র বহিষ্কার এসআইইউ শিক্ষার্থীরা ফের আন্দোলনে
  • ফলোআপ : বিশ্বনাথে কিশোরী রুমী হত্যাকান্ড ঘাতক শফিকসহ গ্রেফতারকৃত ৪ জনের ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তি
  • কোটা বাতিলের সুপারিশে প্রধানমন্ত্রীর অনুমোদন
  •   দেশে ইন্টারনেট গ্রাহক ৯ কোটি ছাড়াল
  • দশম জাতীয় সংসদের ২২তম অধিবেশন সমাপ্ত
  • প্রধানমন্ত্রী লন্ডন যাচ্ছেন আজ
  • বর্তমান সরকারের ১০ বছরে দেশের প্রতিটি সেক্টরে অভূতপূর্ব উন্নয়ন হয়েছে
  • আফগানদের কাছে বাংলাদেশের ‘অসহায় আত্মসমর্পণ’
  • ভোলাগঞ্জের রূপ-সৌন্দর্য রক্ষায় সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে
  • হবিগঞ্জে খোয়াই নদীর ভাটি এলাকায় ডুবন্ত বাঁধের দৈন্যদশা
  • আজ পবিত্র আশুরা
  • Developed by: Sparkle IT