শেষের পাতা

নদী পাড়ের মানুষের মধ্যে স্বস্তি দোয়ারাবাজারের খাসিয়ামারা নদীতে বালু উত্তোলন বন্ধ

প্রকাশিত হয়েছে: ০৮-০৬-২০১৮ ইং ১৯:৪৫:৪৮ | সংবাদটি ৯৪ বার পঠিত

দোয়ারাবাজার (সুনামগঞ্জ) থেকে তাজুল ইসলাম ঃ সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজার উপজেলার খাসিয়ামারা নদীতে বালু মহালের অপরিকল্পিত বালু উত্তোলন বন্ধ করা হয়েছে। এতে নদীর পার্শ্ববর্তী এলাকার মানুষের মধ্যে স্বস্তি ফিরে এসেছে।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, এলাকাবাসীর লিখিত অভিযোগের প্রেক্ষিতে গতকাল বৃহস্পতিবার ভোর ৫টায় সুরমা ইউনিয়ন পরিষদের পক্ষ থেকে আলীপুর-টেংরাটিলা খেয়াঘাটে বালু উত্তোলনকারী স্টিলবডি নৌকা ও শ্রমিকদেরকে জড়ো করে বালু উত্তোলনে নিষেধ করেন সুরমা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান খন্দকার মামুনুর রশীদ। এরপর থেকে বন্ধ রয়েছে নদী থেকে বালু উত্তোলন। ফলে পরিবেশের জন্য ক্ষতিকর অপরিকল্পিতভাবে বালু উত্তোলন বন্ধ করায় স্বস্তি প্রকাশ করেছেন স্থানীয়রা।
জানা যায়, খাসিয়ামারা নদীবিধৌত এলাকার প্রাকৃতিক পরিবেশের পরিপার্শ্বিকতা বিবেচনা না করেই চলতি বছরে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ৪ লাখ টাকা মূল্যে খাসিয়ামারা বালু মহাল ইজারা দেয়া হয়। ওই সুবাদে অবাধে বালু উত্তোলন শুরু করে ইজারা নেয়া মালিক পক্ষ। নদীর পার ঘেঁষে অবাধে অপরিকল্পিতভাবে বালু উত্তোলনে পরিবেশ বিপর্যয় হওয়ার আশঙ্কায় শুরুতেই আপত্তি জানিয়েছিলেন নদীর দুপাড়ের বাসিন্দারা। স্থানীয়দের আপত্তি ও পরিবেশ বিপন্নের বিষয়টি বিভিন্ন মিডিয়াতে এসেছে বেশ কয়েকবার।
এনিয়ে একাধিকবার এলাকায় প্রতিবাদ সভা, সমাবেশ, মানববন্ধন কর্মসূচিসহ স্থানীয় সুরমা ইউনিয়ন পরিষদে অভিযোগ করা হয়েছে বলেও জানা গেছে। এরপরও সংশ্লিষ্ট প্রশাসন কোনো পদক্ষেপ গ্রহণ না করায় স্থানীয়দের মধ্যে অসন্তোষ বিরাজ করছিলো দীর্ঘদিন ধরে। নদীর পার ঘেঁষে অবাধে বালু উত্তোলন করায় সম্প্রতি খাসিয়ামারা নদীর ভাঙ্গন তীব্র আকার ধারণ করে। এতে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে এলাকাবাসী।
স্থানীয়রা জানান, এমনিতেই খাসিয়ামারা নদী ভাঙনে হুমকির মুখে রয়েছে উপজেলার সুরমা ইউনিয়নের রাবার ড্যাম, মহব্বতপুর, টিলাগাঁও, গিরিস নগর, আজবপুর, টেংরাটিলা ও আলীপুর গ্রামের ফসলি জমি, বসতবাড়ি, বাজারসহ আশপাশের বিস্তীর্ণ এলাকা।
সুরমা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান খন্দকার মামুনুর রশীদ জানান, খাসিয়ামারা নদীর বালু মহাল সরকারিভাবে লিজ দেয়া হয়েছে বলে জানতে পেরেছি। কিন্তু তাদের অপরিকল্পিতভাবে বালু উত্তোলনের ফলে ইউনিয়নের প্রাকৃতিক পরিবেশের মারাত্মক ক্ষতি হচ্ছে। সম্প্রতি নদীভাঙন বেড়ে গেছে। আমি তাদেরকে এব্যাপারে আলোচনায় বসার আহবান করেছিলাম কিন্তু কোনো সাড়া মিলেনি। এলাকা থেকে একাধিকবার আমার কাছে অভিযোগ এসেছে। আমি গত কিছুদিন যাবৎ বালু উত্তোলনে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকাবাসীর চাপে রয়েছি। শেষ পর্যন্ত এলাকাবাসীর তীব্র চাপে বাধ্য হয়েই বালু উত্তোলন করতে নিষেধ করেছি। পরবর্তীতে আলোচনায় বসে সিদ্ধান্ত না নেয়ার আগ পর্যন্ত আপাতত বালু উত্তোলন বন্ধ থাকবে।
দোয়ারাবাজার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কাজী মহুয়া মমতাজ জানান, ‘বালু উত্তোলন বন্ধের বিষয়ে সুরমা ইউপি চেয়ারম্যান আমাকে কিছুই বলেননি। তবে ইজারাদাররা আমাকে জানিয়েছেন বালু উত্তোলনে ইউপি চেয়ারম্যান নিষেধ করেছেন। অপরিকল্পিতভাবে বালু উত্তোলনের বিষয়ে আপত্তি জানিয়ে এর আগে এলাকা থেকেও অভিযোগ এসেছিলো। আমি এসিল্যান্ডের মাধ্যমে তদন্ত করিয়েছি কিন্তু তদন্ত রিপোর্ট এখন পর্যন্ত আমার হাতে আসেনি। রিপোর্ট না আসার আগ পর্যন্ত কিছুই বলা যাচ্ছে না। বিষয়টি আমি দেখবো।’

শেয়ার করুন
শেষের পাতা এর আরো সংবাদ
  • রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে সর্বোচ্চ চেষ্টা চালাতে ইউএনএইচসিআরের ড. মোমেনের আহ্বান
  • গ্রেপ্তার কায়সার হামিদ কারাগারে
  • রোহিঙ্গা ক্যাম্পে জর্ডানের রাজকন্যা
  • সিলেট-তামাবিল সড়কের মেজরটিলায় স্পিড ব্রেকার না থাকায় দুর্ঘটনা বাড়ছে
  • বাংলাদেশের কৃষি জমি দ্রুত হারিয়ে যাচ্ছে
  • সাবেক অর্থমন্ত্রী মুহিতের সাথে চেম্বার সভাপতির সৌজন্য সাক্ষাৎ
  • বড়লেখায় দুর্বৃত্তের আগুনে পুড়লো খাসিয়াদের তিন বসতঘর
  • মৌলভীবাজার মাদক নিরাময় কেন্দ্রের প্রধান কারাগারে
  • নতুন প্রজন্মকে মহানবী (সা:) জীবনাদর্শ চর্চা করতে হবে
  • পারিবারিক শিক্ষার মাধ্যমে শিশুদের গড়ে তুলতে হবে
  • সিলেট সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের ৩ দিনব্যাপী চিত্র প্রদর্শনী শুরু
  • দক্ষ পরিবহন শ্রমিক দিয়ে গাড়ি চালালে সড়ক দুর্ঘটনা হ্রাস পাবে
  • ডিমের খোসা পরীক্ষা করেই পাওয়া যাবে শক্তিশালী বাচ্চা
  • নতুন নৌপ্রধান আওরঙ্গজেব
  • শিক্ষার্থীদের দেশ ও মানবপ্রেমে উদ্বুদ্ধ হতে হবে
  • লিডিং ইউনিভার্সিটির সোশ্যাল সার্ভিসেস ক্লাবের চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা সম্পন্ন
  • রিজার্ভ চুরির ঘটনায় চলতি মাসেই নিউইয়র্কের আদালতে মামলা ॥ অর্থমন্ত্রী
  • কুলাউড়া বালিকা বিদ্যালয়ের প্রাক্তন প্রধান শিক্ষক শাফাত উদ্দিন আর নেই
  • বিশ্বাস ঘাতকদের ঠাঁই বিএনপিতে হবে না -------- আরিফুল হক চৌধুরী
  • এ প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের সাফল্য আমাকে সমাজসেবায় অনুপ্রাণিত করে
  • Developed by: Sparkle IT