সম্পাদকীয় কর্মহীন জীবন হতাশার কাফনে মোড়ানো জীবন্ত লাশ।- ডেল কার্নেগী

সারা দেশে ‘মডেল মসজিদ’

প্রকাশিত হয়েছে: ২৯-০৬-২০১৮ ইং ০২:১৬:৪৬ | সংবাদটি ১০৭ বার পঠিত

নির্মিত হচ্ছে ‘মডেল মসজিদ’। সারা দেশে পাঁচশ’ ৬০টি মডেল মসজিদ নির্মাণ করছে সরকার। সম্পূর্ণ নিজস্ব অর্থায়নে এইসব মসজিদের নির্মাণ কাজ ইতোমধ্যেই শুরু হয়েছে। একটি জাতীয় দৈনিকে প্রকাশিত খবরে বলা হয়-সৌদি সরকারের অনুদানের নিশ্চয়তা না পাওয়ায় এই মসজিদগুলো নিজস্ব অর্থায়নেই নির্মিত হবে। এই প্রকল্পের ৯০ শতাংশ অর্থই অনুদান হিসেবে দেওয়ার কথা ছিলো সৌদি আরবের। তাদের অনুদানের প্রতিশ্রুতি পাওয়ার পর প্রকল্পটি একনেকে অনুমোদন দেওয়া হয় গত বছরের এপ্রিল মাসে। নয় হাজার ৬২ কোটি টাকা সম্ভাব্য ব্যয়ের ৯০ শতাংশ অনুদান হিসেবে পাওয়ার কথা ছিলো সৌদি আরব থেকে। কিন্তু সৌদি সরকার থেকে এই অর্থের নিশ্চয়তা না পাওয়ায় সরকারের নিজস্ব অর্থে প্রকল্প বাস্তবায়নের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। আর এর সংশোধিত ব্যয় ধরা হয়েছে আট হাজার সাতশ’ ২২ কোটি টাকা।
মূলত ইসলামিক ফাউন্ডেশনের তত্ত্বাবধানে মসজিদগুলো একই মডেলে নির্মিত হবে সারা দেশে। প্রতিটি জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে এগুলো নির্মিত হবে। জেলা পর্যায়ে চারতলা এবং উপজেলা পর্যায়ে তিনতলা মসজিদ নির্মিত হবে। প্রতিটি মসজিদে নারী ও পুরুষদের আলাদা আলাদা সুবিধা থাকবে। এছাড়াও থাকবে পৃথক পৃথক অজু ও নামাজের ঘর। অন্যান্য সুবিধাগুলো হচ্ছে-পবিত্র কুরআন পঠন, লাইব্রেরি, শিশুদের শিক্ষা, অতিথিশালা, মৃতদের গোসল করানো এবং হজযাত্রী ও ইমামদের প্রশিক্ষণের সুবিধা। ইসলামিক ফাউন্ডেশন সূত্রে বলা হয়েছে-ইসলামী শিক্ষা ও সংস্কৃতি প্রসারে প্রতিটি জেলা ও উপজেলায় মডেল মসজিদ নির্মাণ করা সরকারের বিশেষ লক্ষ। এসব মসজিদ ইসলামিক সাংস্কৃতিক কেন্দ্র হিসেবেই কাজ করবে।
দেশের বুদ্ধিজীবী মহল ও সাধারণ মানুষ সরকারের এই উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছেন। সকল ধর্মের মানুষের শান্তিপূর্ণ সহাবস্থানের নীতিতে বিশ্বাসী এই সরকার একটি অসাম্প্রদায়িক চেতনা লালন করছে। শুধু ইসলাম নয়, প্রতিটি ধর্মের মানুষই যাতে নিরাপদ বসবাস করতে পারে সেদিকেই সদাসতর্কতা অবলম্বন করছে সরকার। ফলে এখানে বিরাজ করছে অনন্য সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি। ইসলাম ধর্মের উন্নয়ন, গবেষণা ও প্রসারের লক্ষে স্বাধীনতা পরবর্তীকালে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান গঠন করেন ইসলামিক ফাউন্ডেশন। প্রতিটি জেলা পর্যায়ে রয়েছে এই ফাউন্ডেশনের কার্যালয়। ইসলামী গ্রন্থের প্রকাশনা, দেশব্যাপী ইসলামী পাঠাগার পরিচালনা, বিভিন্ন বিষয়ে প্রশিক্ষণসহ ইসলামী তাহজিব তমদ্দুন বিষয়ে গবেষণা কার্যক্রম পরিচালনা করছে ইসলামিক ফাউন্ডেশন।
ইসলামের প্রসারে সরকার গৃহীত ধারাবাহিক নানা পদক্ষেপের অংশ হিসেবে প্রধানমন্ত্রী সারা দেশে মডেল মসজিদ নির্মাণের উদ্যোগ নেন। ইতোপূর্বে তিনি সৌদি আরব সফরের সময় সে দেশের বাদশাহকে এই বিষয়টি তুলে ধরেন। তখন সৌদি সরকার মডেল মসজিদ নির্মাণে সহযোগিতার আশ্বাস দেয়। কিন্তু পরবর্তীতে তারা অনুদান প্রদানের ব্যাপারে নীরব ভূমিকা পালন করে। এই প্রেক্ষিতে সরকার নিজস্ব অর্থায়নে মসজিদ নির্মাণ প্রকল্প বাস্তবায়নের উদ্যোগ নিয়েছে। অর্থাৎ বিদেশী অর্থায়ন ছাড়াই ইতোমধ্যেই শুরু হওয়া মডেল মসজিদ নির্মাণ প্রকল্প বাস্তবায়িত হবে। এইসব মসজিদের নির্মাণ ও পরিচালনার দায়িত্ব ইসলামিক ফাউন্ডেশনের। ফলে এগুলো সুশৃঙ্খলভাবেই পরিচালিত হবে বলেই আমরা আশা করছি। সেই সঙ্গে অন্যান্য ছোটবড় মসজিদগুলোতেও যাতে সরকারের উন্নয়নের ছোঁয়া লাগে সেদিকে নজর দিতে হবে।

শেয়ার করুন

Developed by: Sparkle IT