প্রথম পাতা

ভারতে ৪০০ কোটি ডলার যাওয়ার তথ্য ভুল: শ্রিংলা

প্রকাশিত হয়েছে: ১৩-০৯-২০১৮ ইং ০৩:৩১:৫৩ | সংবাদটি ২০ বার পঠিত

ডাক ডেস্ক : বাংলাদেশ থেকে প্রবাসী আয় বা রেমিট্যান্স হিসেবে বছরে ৪০০ কোটি ডলার ভারতে যাওয়ার তথ্যটি সঠিক নয় বলে দাবি করেছেন ঢাকায় নিযুক্ত ভারতীয় হাইকমিশনার হর্ষ বর্ধন শ্রিংলা। ভারতের রেমিট্যান্সের চতুর্থ বড় উৎস বাংলাদেশ নয় বলেও উল্লেখ করেন তিনি।
গতকাল বুধবার রাজধানীর আন্তর্জাতিক কনভেনশন সিটি বসুন্ধরায় (আইসিসিবি) বস্ত্র খাতের একটি আন্তর্জাতিক প্রদর্শনীর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ভারতীয় হাইকমিশনার এ দাবি করেন। দেশের ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন বাংলাদেশ শিল্প ও বণিক সমিতি ফেডারেশনের (এফবিসিসিআই) সভাপতি মো. শফিউল ইসলাম মহিউদ্দিনের এক বক্তব্যের ভুল ভাঙাতে গিয়ে হর্ষ বর্ধন শ্রিংলা প্রবাসী আয় নিয়ে কথা বলেন।
এর আগে শফিউল ইসলাম বাংলাদেশের অর্থনৈতিক উন্নয়ন ও ভারতের সঙ্গে বাণিজ্যিক সম্পর্ক নিয়ে কথা বলতে গিয়ে বলেন, ‘ভারতের প্রবাসী আয়ের চতুর্থ বড় উৎস বাংলাদেশ। এটা নিয়ে আমরা গর্ব বোধ করি।’
শফিউল ইসলামের এই বক্তব্যের সঙ্গে দ্বিমত পোষণ করেন হর্ষবর্ধন শ্রিংলা। তিনি বলেন, ‘আমি রেকর্ড রাখার জন্য এফবিসিসিআই সভাপতির বক্তব্যটির আংশিক সংশোধনী দিতে চাই। বাংলাদেশ যে ভারতের রেমিট্যান্সের চতুর্থ উৎস, এটা প্রকাশ করেছিল পিউ রিসার্চ। তাদের ওয়েবসাইটে সাইবার আক্রমণের মাধ্যমে এ তথ্য উঠেছিল, যা পুরোপুরি ভুল। সংবাদটি মিথ্যা।’ তিনি বলেন, ‘এ বিষয়ে তথ্যাদি আমরা এফবিসিসিআইয়ের সঙ্গে আদানপ্রদান করতে পারি। এ দেশে ভারতীয় নাগরিকদের একটি ছোট দল কাজ করে। এটা অবিশ্বাস্য যে তাদের পক্ষে ৪০০ কোটি ডলারের প্রবাসী আয় পাঠানো সম্ভব।’ উল্লেখ্য, ২০১৫ সালে পিউ রিসার্চের বরাত দিয়ে বিভিন্ন পত্রিকায় বাংলাদেশকে ভারতের রেমিট্যান্স আয়ের চতুর্থ উৎস বলে উল্লেখ করা হয়। এতে বাংলাদেশ থেকে ভারত বছরে ৪০৮ কোটি ডলারের রেমিট্যান্স পায় বলে উল্লেখ করা হয়। গত ২ জুলাই আরেকটি পত্রিকায় বাংলাদেশ থেকে ভারত এক হাজার কোটি ডলার আয় করে বলে উল্লেখ করা হয়। যদিও সেখানে কোনো প্রতিষ্ঠানের বরাত দেওয়া হয়নি।
পিউ রিসার্চ গত ২৩ জানুয়ারি বিশ্বব্যাংকের তথ্য-উপাত্ত ব্যবহার করে একটি হালনাগাদ ইনফোগ্রাফিকস প্রকাশ করে, যেখানে বাংলাদেশ থেকে ২০১৬ সালে ২০০ কোটি ডলার বা সাড়ে ১৬ হাজার কোটি টাকার রেমিট্যান্স বিদেশে যায় বলে উল্লেখ করা হয়। এর মধ্যে ভারতে যায় ১১ কোটি ৪০ লাখ ডলার। এ ক্ষেত্রে ভারতের ওপরে আছে চীন, ইন্দোনেশিয়া ও মালয়েশিয়া। পিউ রিসার্চের একই প্রতিবেদন অনুযায়ী, ভারত থেকে বাংলাদেশে ২০১৬ সালে ৪০৬ কোটি ডলারের রেমিট্যান্স এসেছে। আইসিসিবিতে বস্ত্র খাতের প্রদর্শনীর আয়োজন করেছে সেমস গ্লোবাল। এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে জাতীয় সংসদের স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরী, বস্ত্র ও পাট প্রতিমন্ত্রী মির্জা আজম, বিজিএমইএর সহসভাপতি মোহাম্মদ নাসির প্রমুখ বক্তব্য দেন।

শেয়ার করুন
প্রথম পাতা এর আরো সংবাদ
  • চুনারুঘাটে পূর্ব শত্রুতার জেরে যুবক খুন
  • দক্ষিণ সুরমায় শেখ হাসিনা শিশুপার্ক এখনো চালু হয়নি
  • সিলেটে আইসিসি বিশ্বকাপে পাঠানোর নামে মানব পাচারের অভিযোগ
  • প্রধান বিচারপতি আজ সিলেটে শিশু আদালতের উদ্বোধন করবেন
  • ইন্ডিয়া-পাকিস্তান ম্যাচ প্রিভিউ
  • কমনওয়েলথ ফেলোশিপ পেলেন লিডিং ইউনিভার্সিটির আয়ান
  • শাবিপ্রবি পরিদর্শক দলের জালালাবাদ রাগীব-রাবেয়া মেডিকেল কলেজ পরিদর্শন
  • প্রতীক বরাদ্দ পেয়ে প্রচারণায় প্রার্থীরা
  • ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলার রায় ১০ অক্টোবর
  • বাংলাদেশের মাথাপিছু আয় এখন ১৭৫১ ডলার
  • ইভিএম কেনার প্রকল্প একনেকে অনুমোদন
  • ইন্দো-বাংলা পাইপলাইন নির্মাণের উদ্বোধন করলেন হাসিনা-মোদি
  • ক্রিকেটের ‘এল ক্লাসিকো’ ভারত-পাকিস্তান ‘মহারণ’ আজ
  • জাতিসংঘ বলেছে, দেখবে: ফখরুল
  • জাতিসংঘ মহাসচিবের নামেও প্রতারণা বিএনপি’র: কাদের
  • মেডিকেল কলেজ স্থাপনের দাবীতে মৌলভীবাজারে অর্ধ দিবস হরতাল কাল
  • রাজনগরে মানবতাবিরোধী অপরাধে মৃত্যুদন্ডাদেশপ্রাপ্ত পলাতক আসামীর মৃত্যু
  • গোলাপগঞ্জ পৌরসভার উপনির্বাচন : মেয়র পদে প্রতীক বরাদ্দ আজ
  • টিলাগড়ে সিএনজি অটোরিক্সা চালকদের সড়ক অবরোধ
  • আসামী বিএনপি’র আড়াই শতাধিক নেতাকর্মী
  • Developed by: Sparkle IT