উপ সম্পাদকীয় চিঠিপত্র

সংযোগ সেতু চাই

প্রকাশিত হয়েছে: ১৯-০৯-২০১৮ ইং ০০:৩৮:৫৬ | সংবাদটি ৭৩ বার পঠিত

বরমচাল থেকে কুলাউড়া উপজেলা সদরের দূরত্ব কতটুকু, এমন প্রশ্ন অনেকের। অতীতে ভাটেরা, বরমচাল ও কুলাউড়ার মধ্যে যোগাযোগের একমাত্র ভরসা ছিলো রেলপথ। পরবর্তীতে ১৯৯২ সালে ফেঞ্চুগঞ্জ-বরমচাল-ব্রাহ্মণবাজার সড়ক সংস্কার ও চালু হলে ফেঞ্চুগঞ্জ থেকে ভাটেরা, বরমচাল ও ব্রাহ্মণবাজার হয়ে কুলাউড়া উপজেলা সদরের সাথে সড়ক যোগাযোগ ব্যবস্থা স্থাপিত হয়। কিন্তু এই সড়কপথে বরমচাল থেকে ব্রাহ্মণবাজার হয়ে কুলাউড়া উপজেলা সদরের দুরত্ব দাঁড়ায় ১৫ কিলোমিটার। অথচ চরমচাল-কুলাউড়া রেলপথের উত্তর দিকে নন্দনগর রেলক্রসিং থেকে ছকাপন রেলস্টেশনের মধ্য দিয়ে উত্তর কুলাউড়া রেলক্রসিং পর্যন্ত একটি সংযোগ সড়ক নির্মাণ করলে কুলাউড়া উপজেলা সদরের সাথে বরমচালের দুরত্ব দাঁড়াবে মাত্র ছয় কিলোমিটারে। অর্থাৎ ভাটেরা ও বরমচাল থেকে কুলাউড়া উপজেলা সদরের দূরত্ব ৯ কিলোমিটার কমে যাবে। ভাটেরা, বরমচাল, কাদিপুর ও ভুকশিমইল এই চারটি ইউনিয়ন হয়ে যাবে কুলাউড়া উপজেলা সদরের পাশের বাড়ী, পাশের ঘর। তাছাড়া ফেঞ্চুগঞ্জ তথা সিলেটের সাথে কুলাউড়া ও জুড়ি এই দুই উপজেলার সড়ক যোগাযোগ ব্যবস্থা সহজতর হবে। সংশ্লিষ্ট এলাকার জনপ্রতিনিধিরা উদ্যোগী ও তৎপর হলেই এই ছয় কিলোমিটার সড়ক নির্মাণ ও বাস্তবায়ন সম্ভব হবে।
রতœজিৎ রায় চৌধুরী
কুলাউড়া, মৌলভীবাজার।

শেয়ার করুন
উপ সম্পাদকীয় এর আরো সংবাদ
  • ‘শান্তি জিতলে জিতবে দেশ’
  • মানবাধিকার মুক্তি পাক
  • অদম্য বাংলাদেশ
  • নারী আন্দোলনে বেগম রোকেয়া
  • আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচন ও জনমানস
  • অরিত্রী : অস্তমিত এক সূর্যের নাম
  • স্বপ্নহীন স্বপ্নের তরী
  • মৌলভীবাজার জেলা প্রাথমিক শিক্ষার গুণগত মান
  • নয়া রাষ্ট্রদূত কী বার্তা নিয়ে এসেছেন?
  • ফেসবুক আসক্তি
  • কোম্পানীগঞ্জ উপজেলায় পৌরসভা প্রসঙ্গে
  • শিক্ষার্থীদের শাস্তি এবং অরিত্রী প্রসঙ্গ
  • রাষ্ট্রায়ত্ত বৃহৎ শিল্প টিকিয়ে রাখা ও উন্নয়ন জরুরি
  • হাফিজ মোবাশ্বির আলী
  • কীর্তিগাথা ক্রিকেটে অদম্য টাইগাররা
  • তামাক নিয়ন্ত্রণ আইন মেনে চলচ্চিত্র নির্মাণ হোক
  • দেশী মাছের আকাল ও সংরক্ষণ
  • ১৯৭০ এর নির্বাচন ও মুক্তিযুদ্ধ
  • রাশিয়া-ইউক্রেন দ্বন্দ্ব-সংঘাতের পরিণতি
  • যাত্রাপালা
  • Developed by: Sparkle IT