সম্পাদকীয়

বন্ধ রেল স্টেশনগুলো

প্রকাশিত হয়েছে: ০৪-১০-২০১৮ ইং ০১:০৯:৩৫ | সংবাদটি ১২৮ বার পঠিত

তিনটি রেল স্টেশনই বন্ধ রয়েছে দীর্ঘদিন ধরে সিলেট আখাউড়া রেল সেকশনে। মূলতঃ লোকবল সংকটের কারণে বন্ধ রয়েছে টিলাগাঁও, ভাটেরা এবং মনু রেল স্টেশন। এতে দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন সংশ্লিষ্ট এলাকার শত শত যাত্রী। এই পত্রিকায় সম্প্রতি প্রকাশিত খবরে জানা যায়-২০০৯ সাল থেকেই বন্ধ রয়েছে টিলাগাঁও ও ভাটেরা স্টেশন এবং ২০১৬ সালে মনু রেল স্টেশনের কার্যক্রম বন্ধ হয়ে যায়। এক সময়ের ব্যস্ত রেল স্টেশনগুলো এখন ফাঁকা। বিভিন্ন কক্ষে ঝুলছে তালা। লোকসমাগম নেই। থামেনা কোন ট্রেনও। সংশ্লিষ্ট এলাকার বেশ কয়েকটি গ্রামের বাসিন্দাদের যাতায়াতে পোহাতে হচ্ছে চরম দুর্ভোগ। বিঘিœত হচ্ছে পণ্য পরিবহন। স্টেশনগুলো পুনরায় চালু করার জন্য এলাকাবাসী দীর্ঘদিন ধরে নানা ধরণের কর্মসূচি পালন করে আসছেন। বিশেষ করে স্টেশন মাস্টার, বুকিং সহকারী এবং পয়েন্টম্যানের অভাবেই স্টেশনগুলো চালু করা যাচ্ছে না বলে জানা যায়।
বাংলাদেশ রেলওয়ে সরকার নিয়ন্ত্রিত একটি প্রতিষ্ঠান। অতীতে যাতায়াতের প্রধান বাহন হিসেবেই মনে করতেন যাত্রীরা রেলওয়েকে। ভ্রমণ আরামদায়ক ও সাশ্রয়ী হওয়ায় এখনও মানুষ রেলে ভ্রমণ করতে বেশ আগ্রহী। কিন্তু যাত্রীসেবার মান নি¤œগ্রামী হওয়ায় অনেকে ইচ্ছে থাকা সত্ত্বেও ট্রেনে ভ্রমণ করছেনা। রেলওয়েতে বিরাজ করছে নানা সমস্যা। যাত্রীসেবার মানোন্নয়নে যেমন খুব একটা পদক্ষেপ নেয়া হচ্ছে না, তেমনি মেয়াদোত্তির্ণ রেললাইন সংস্কার করা হচ্ছে না। ঝুঁকি নিয়ে চলছে ট্রেন। আছে নিরাপত্তাহীন লেবেল ক্রসিং। বৈধ-অবৈধ অনেক ক্রসিং রয়েছে, যেখানে কোন গেইটম্যান নেই। ফলে অহরহ ঘটছে দুর্ঘটনা। নানা কারণে অনেক শাখা লাইনে রেল চলাচল বন্ধ রয়েছে বা অনিয়মিত হয়ে পড়েছে। বন্ধ হয়ে পড়েছে রেল স্টেশনও। উদাহরণ স্বরূপ, ছাতক সিমেন্ট কারখানার মালামাল পরিবহনের জন্য স্থাপিত সিলেট-ছাতক রেল লাইনও প্রায় বন্ধ হওয়ার উপক্রম। এই লাইনে মাঝে মধ্যে ট্রেন চলাচল করে। এভাবে অনেক রেল লাইন, রেল স্টেশন পরিত্যক্ত হয়ে পড়েছে। এসব ব্যাপারে সরকারের তেমন নজর নেই বললেই চলে।
সরকার রেলের উন্নয়নে সম্প্রতি ১৮শ’ কোটি টাকার প্রকল্প গ্রহণ করেছে। রেলপথকে আধুনিক, আরামদায়ক, নিরাপদ এবং যাত্রীদের আরও উন্নত সেবা দেয়াই হচ্ছে এই প্রকল্পের লক্ষ। আমরা আশা করছি, এই প্রকল্প বাস্তবায়নের পাশাপাশি বন্ধ হয়ে যাওয়া রেল স্টেশনগুলো চালু করা হবে, সচল করা হবে বন্ধ হয়ে যাওয়া রেল লাইনগুলো। যোগাযোগে সড়ক পথের যুগান্তকারী উন্নয়ন সাধিত হওয়ায় মানুষ ঝুঁকছে সেদিকে। অথচ রেলওয়ের সেবার মান বাড়ানো হলে যাত্রীদের ভ্রমণে প্রথম পছন্দ হিসেবেই চলে আসবে রেল। আর সারা বিশ্বেই ট্রেন একটি বিলাসবহুল বাহন হিসেবে পরিচিত। আমরা কি সেই পর্যায়ে যেতে পারি না?

শেয়ার করুন

Developed by: Sparkle IT