স্বাস্থ্য কুশল

পায়ের গোড়ালি ব্যথায় কী করবেন

ডা. মোহাম্মদ আলী প্রকাশিত হয়েছে: ০৮-১০-২০১৮ ইং ০০:৫৪:৪৪ | সংবাদটি ১০৩ বার পঠিত

গাড়ির গঠন খেয়াল করেছেন? গাড়িকে ঝাঁকি সহনশীল করার জন্য এতে শক এবজরভার বা বিশেষ ধরনের স্প্রিং ব্যবহার করা হয়। এ জিনিসটি গাড়ির যাত্রীকে সুরক্ষিত রাখে, উঁচু-নিচু রাস্তায় ঝাঁকি বা আঘাত লাগতে দেয় না। এমনিভাবে আমাদের পা একেবারে সমান না, একটু বাঁকানো।
এ বাঁকানো গঠনটিই স্প্রিং এর কাজ করে। মানুষের শরীরের ওজনকে সুষমভাবে বণ্টন করে মানুষকে সাবলীলভাবে দাঁড়িয়ে থাকতে, হাঁটতে বা দৌড়াতে সহায়তা করে।
গোড়ালি ব্যথার সঙ্গে এর সম্পর্ক কি! অনেকে খেয়াল করবেন তাদের পা বাঁকানো না হয়ে সমান বা কম বাঁকানো। এ ধরনের পা কে ফ্লাটফুট বলে। এ ধরনের পা শরীরের ওজন সুষমভাবে বণ্টন করতে পারে না ফলে পায়ের মাংশপেশিতে অতিরিক্ত চাপ সৃষ্টি হয় যা গোড়ালির হাড় ও মাংশপেশির সংযোগস্থলে প্রদাহ তৈরি করে।
এটাই প্লান্টার ফাসাইটিস বা গোড়ালি ব্যথা। তবে ফ্লাটফুট ছাড়াও পায়ের গোড়ালিতে ব্যথা হতে পারে। যারা দীর্ঘ সময় দাঁড়িয়ে কাজ করেন, পেন্সিল হিল বা উঁচু হিলের জুতা-স্যান্ডেল ব্যবহার করেন বা যাদের ওজন বেশি তারা গোড়ালি ব্যথায় ভোগেন।
লক্ষণ : পায়ের গোড়ালিতে মাঝারি থেকে তীব্র ব্যথা হয়। সকাল বেলা ঘুম থেকে উঠে মেঝেতে পা দিতে প্রচ- ব্যথা অনুভূত হয়। অনেকে দিনের বেলায় কিছুক্ষণ বিশ্রামের পর মেঝেতে পা দিতেও ব্যথা অনুভব করেন। তবে কিছুক্ষণ হাঁটলে ব্যথা কমে আসে। অনেকের ব্যথা সারাদিনই সমানভাবে অনুভূত হয়।
রোগ নির্ণয় : এক্সরে করা যেতে পারে। অনেক সময় পায়ের গোড়ালির হাড়ে কাটার আকৃতির স্পার দেখা যায়। শারীরিক পরীক্ষার মাধ্যমেই ফ্লাটফুট আছে কিনা নির্ণয় করা সম্ভব।
চিকিৎসা : ব্যথা কমানোই মূল উদ্দেশ্য। এক্ষেত্রে ইলেকট্রোথেরাপি খুব শক্তিশালী চিকিৎসা। ব্যথার ওষুধ এক্ষেত্রে ভালো কাজ করে না। হিল কুশন ব্যবহার ও জুতা মোডিফিকেশন করে ভালো ফলাফল পাওয়া যায়। তীব্রতর ব্যথা নিয়ন্ত্রণে ইনফিলট্রেশন করা যেতে পারে।
পরামর্শ : শরীরের বাড়তি ওজন ঝেরে ফেলুন। এ ব্যথায় আক্রান্তরা উঁচু হিলের জুতা ব্যবহার করবেন না। নরম আরামদায়ক মোডিফাইড জুতা ব্যবহার করুন। একভাবে বেশিক্ষণ দাঁড়িয়ে থাকবেন না। প্রতিদিন সকালে আক্রান্ত পা লবণ মিশ্রিত গরম জলে ১০/১৫ মিনিট ডুবিয়ে রাখবেন।

শেয়ার করুন

Developed by: Sparkle IT