শেষের পাতা আজ বিশ্ব দৃষ্টি দিবস

অন্ধজনে আলো ছড়াচ্ছে মৌলভীবাজার বিএনএসবি চক্ষু হাসপাতাল

হোসাইন আহমদ, মৌলভীবাজার থেকে নিজস্ব সংবাদদাতা প্রকাশিত হয়েছে: ১১-১০-২০১৮ ইং ০৩:০৮:০৪ | সংবাদটি ২০৮ বার পঠিত

মৌলভীবাজার বিএনএসবি চক্ষু হাসপাতাল ৩৫ বছর থেকে অন্ধজনে আলো ছড়িয়ে যাচ্ছে। সিলেট বিভাগের প্রথম বিশেষায়িত চক্ষু হাসপাতালটি থেকে এ পর্যন্ত চিকিৎসা নিয়ে পৃথিবীর আলো দেখেছেন কয়েক লক্ষ রোগী। চোখের ফ্যাকো সার্জারি, ছানি অপারেশন, লেন্স সংযোজন, টনসিল অপারেশন ও ট্যারা চোখ সোজা করাসহ সব ধরনের চোখের চিকিৎসা দিয়ে যাচ্ছে হাসপাতালটি। এপর্যন্ত চিকিৎসাপ্রাপ্ত রোগীর সংখ্যা প্রায় ১৬ লক্ষ ছাড়িয়েছে বলে জানিয়েছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ ।
হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, বাংলাদেশ জাতীয় অন্ধ কল্যাণ সমিতি (বিএনএসবি) ও আন্ধেরী হেলফি জার্মানীর কারিতাস ১৯৮৩ সালে মৌলভীবাজার শহরতলির মাতারকাপন এলাকায় ৩.২১ একর জমির উপর গড়ে তোলে হাসপাতালটি। এর কার্যক্রম শুরু হয় ১৯৮৫ সালে। ২০০৪ সাল থেকে মৌলভীবাজার বিএনএসবি চক্ষু হাসপাতাল ও অরবিস ইন্টারন্যাশনালের যৌথ উদ্যোগে হাসপাতালে একটি আধুুনিক শিশু চক্ষু বিভাগ চালু করা হয়। ১৪ বছরে এই বিভাগের মাধ্যমে আড়াই লক্ষ শিশুর চিকিৎসা এবং ৪ হাজার জনের অধিক শিশুর চোখে বিনামূল্যে অস্ত্রোপচার করা হয়েছে। বর্তমানে ৫টি সাধারণ কেবিন, ১০টি এসি কেবিন ও ৫০টি সাধারণ বেড রয়েছে। হাসপাতালে ৯ জন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক, ৪জন মেডিক্যাল অফিসার সহ সব মিলিয়ে ১২৫ জন স্টাফ সার্বক্ষণিক কাজ করে যাচ্ছেন। ১৯ সদস্যবিশিষ্ট কার্যনির্বাহী কমিটির দিক নির্দেশনায় হাসপাতালটি পরিচালিত হয়ে আসছে।
সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে আসা রোগীদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য সংখ্যকই গ্রামাঞ্চলের মানুষজন। অল্প খরচে উন্নত চিকিৎসা পাওয়া যায় বলে দরিদ্র ও সুবিধাবঞ্চিত জনগোষ্ঠী এখানে সেবা নিতে বেশি আসেন। এছাড়া, হাসপাতাল থেকেও দুর্গম অঞ্চলে চক্ষু শিবির স্থাপন করে রোগীদের সেবা প্রদান করা হয় বলে জানান তারা।
হাসপাতল কর্তৃপক্ষ জানায়, বহির্বিভাগে গড়ে প্রতিদিন প্রায় সাড়ে ৫’শ থেকে ৬ শতাধিক রোগীরা চোখের বিভিন্ন পরীক্ষাসহ চিকিৎসা নিয়ে থাকেন। যার মধ্যে রয়েছে বায়োমেট্্ির, এ-স্কেন, বি-স্কেন, লেজার চিকিৎসা, মাইনর অপারেশন (নালী, টেরিজিয়াম, কেলজিয়ান), কর্ণিয়া ও ক্যাটারেক্ট ক্লিনিক সার্ভিস প্রভৃতি। এছাড়া, আন্ত:বিভাগে গড়ে প্রতি মাসে ২ হাজার থেকে ২ হাজার ৫শ’ জন রোগী ভর্তি হন। এদের মধ্যে থেকে চোখে কৃত্রিম লেন্স সংযোজন, ইসিসি, গ্লোকোমা, ডিসিআর অপারেশন, সেপটিক, এসেপটিক চিকিৎসাসহ চোখের সব ধরনের চিকিৎসা দেয়া হয়।
হাসপাতালের বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক ডা. দেওয়ান রুহুল আমিন জানান, ফ্যাকো সার্জারির মতো সেলাইবিহনী অপারেশন এখানে অত্যন্ত দক্ষতার সাথে অল্প খরচে সম্পন্ন হয়। এই অপারেশনের পর পরই রোগী দৃষ্টি ফিরে পায়। তিনি জানান, হাসপাতালটিতে সিলেট বিভাগ ছাড়াও, কুমিল্লা, চাঁদপুর, ময়মনসিংহ, নেত্রকোণা ও ব্রাক্ষণবাড়িয়া জেলা থেকেও রোগীরা সেবা নিতে আসেন।
অবৈতনিক (ভারপ্রাপ্ত) সাধারণ সম্পাদক আব্দুল হামিদ মাহবুবু বলেন, হাসপাতালটি প্রতিষ্ঠার পর থেকে অন্ধত্বে আলো ফিরিয়ে দেয়ার জন্য আন্তরিকতার সহিত কাজ করছে। ইনডোরে কাজ করার পাশাাপাশি দেশের বিভিন্ন গ্রামে চক্ষু শিবিরের মাধ্যমে ফ্রি চক্ষু সেবা দিয়ে থাকে হাসপাতালটি।

 

শেয়ার করুন
শেষের পাতা এর আরো সংবাদ
  • জুনে পদত্যাগ করবেন থেরেসা মে
  • সিলেটে ১৯ উপজেলার সহকারী শিক্ষক নিয়োগের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত দ্বিতীয় ধাপের পরীক্ষা ৩১ মে
  • ১৪ বাংলাদেশিসহ ভূমধ্যসাগরে ২৯০ অভিবাসী উদ্ধার
  • ১৪ বাংলাদেশিসহ ভূমধ্যসাগরে ২৯০ অভিবাসী উদ্ধার
  • পবিত্র রমজান মানুষের অন্তরে খোদা ভীতি তৈরি করে
  • জালালাবাদ রাগীব-রাবেয়া মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের ইফতার মাহফিল কাল
  • কমলগঞ্জে প্রায় তিন হাজার একর আউশ ক্ষেত নিমজ্জিত
  • জগন্নাথপুরে ছাত্রীকে পাশবিক নির্যাতনের অভিযোগে স্কুল শিক্ষক গ্রেফতার
  • হরিপুর বাজারের ঘটনায় ইউপি চেয়ারম্যানসহ নিরীহ মানুষজনকে ছেড়ে দিয়েছে র‌্যাব
  • খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে ঈদের পর আন্দোলনে নামবে বিএনপি ---কলিম উদ্দিন মিলন
  • তোমাদেরকে দেশ-জাতির কল্যাণে অবদান রাখতে হবে
  • একাদশে ভর্তি হতে আবেদন করেননি ২৪২০৪২ শিক্ষার্থী
  • কুলাউড়ায় পিত্রালয় থেকে গৃহবধূর গলাকাটা লাশ উদ্ধার
  • ফেঞ্চুগঞ্জে নদীতে ডুবে শিশুর মৃত্যু
  • বিশ্বনাথের ইফতেখার আলম মুকুল নরউইচ সিটির কাউন্সিলর নির্বাচিত
  • কমলগঞ্জে ইফতারের বাজার
  •   কানাইঘাটে সরকারি ধান ক্রয়ে অব্যবস্থাপনা
  • অবুঝ সন্তানদের আর্তনাদ-আমরারে রাখি কই গেলায় গো আব্বা!
  • রাজনগরে বিরল রোগে আক্রান্ত বাবা-মেয়ে
  • রমজান চরিত্র গঠনের হাতে কলমে শিক্ষা
  • Developed by: Sparkle IT