প্রথম পাতা # মনোনয়নপত্র দাখিল ১৯ নভেম্বর # বাছাই ২২ নভেম্বর # প্রত্যাহারের শেষ তারিখ ২৯ নভেম্বর

একাদশ সংসদ নির্বাচনের ভোটগ্রহণ ২৩ ডিসেম্বর

প্রকাশিত হয়েছে: ০৯-১১-২০১৮ ইং ০২:৫৪:৫৭ | সংবাদটি ৭৭ বার পঠিত

 

ডাক ডেস্ক : আগামী ২৩ ডিসেম্বর ভোটগ্রহণের দিন রেখে একাদশ সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করেছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার।
গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেয়ার মধ্য দিয়ে একাদশ সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নুরুল হুদা।
ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী এই নির্বাচনে মনোনয়নপত্র জমা দেওয়া যাবে ১৯ নভেম্বর পর্যন্ত, তা বাছাই হবে ২২ নভেম্বর, মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ তারিখ ২৯ নভেম্বর। ভোটগ্রহণ হবে ২৩ ডিসেম্বর।
৩০০টি আসনে সংসদ সদস্য নির্বাচনে এবার ভোট দেবেন ১০ কোটি ৪১ লাখ ৯০ হাজার ৪৮০ ভোটার।
তফসিল ঘোষণার ভাষণে সিইসি আসন্ন নির্বাচনে অংশগ্রহণ প্রত্যাশা করে নিজেদের মতানৈক্যের অবসান আলোচনার মাধ্যমে ঘটাতে দলগুলোর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।
অধিকাংশ দলের বর্জনের মধ্যে দশম সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠানের প্রেক্ষাপটে একাদশ সংসদ নির্বাচনে সব দলের অংশগ্রহণ প্রত্যাশা করে আসছেন সিইসি।
তফসিল ঘোষণার ঠিক আগে মতবিভেদ কাটাতে দুই প্রধান রাজনৈতিক শিবিরে সংলাপ হলেও তাতে এখনও কোনো সমঝোতা হয়নি।
বিএনপিকে নিয়ে গঠিত ড. কামাল হোসেনের জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট খালেদা জিয়াকে মুক্তি দিয়ে, সংসদ ভেঙে নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন চাইছে। অন্যদিকে সংবিধানের বাইরে কোনোভাবেই যেতে নারাজ ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ।
দুই দফা সংলাপ ব্যর্থ হওয়ার পর ফের আলোচনার আশা রেখে তফসিল পেছানোর আহ্বান ছিল ঐক্যফ্রন্টের; কিন্তু ক্ষমতাসীন দলের সমর্থন পাওয়ার পর তফসিল ঘোষণা করলো ইসি।
তফসিল ঘোষণা করে বিরোধী শিবিরকে আশ্বস্ত করে সিইসি বলেছেন, নির্বাচনে সবার জন্য সমান সুযোগ নিশ্চিত করতে ইসি সব ধরনের পদক্ষেপ নেবে।
জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট বিচারিক ক্ষমতা দিয়ে সেনা মোতায়েনের দাবি জানালেও তা উপেক্ষিত হয়েছে। সিইসি বলেছেন, আগের মতোই বেসামরিক প্রশাসনকে সহায়তায় সেনাবাহিনী মোতায়েন করা হবে।
বহুল আলোচিত ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনের (ইভিএম) পক্ষে বলেন।
ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ ইভিএমের পক্ষে অবস্থান জানালেও তার ঘোর বিরোধিতা করছে বিএনপিসহ জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট। প্রশ্ন ওঠায় ইভিএম ব্যবহার এবার না করার পক্ষে মত জানিয়েছে অন্য রাজনৈতিক দলগুলোর অধিকাংশ।
প্রধানমন্ত্রীর সংলাপ চলার মধ্যে গত কয়েকদিনে গুরুত্বপূর্ণ রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে নিজেদের বৈঠকের প্রেক্ষাপটে সিইসি বলেছেন, সার্বিকভাবে দেশে ভোটের অনুকূল আবহ সৃষ্টি হয়েছে।
সহিংসতা ও বর্জনের মধ্যে দশম সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার প্রেক্ষাপটে একাদশ সংসদ নির্বাচনে ভোটের প্রতিদ্বন্দ্বিতা যেন প্রতিহিংসা ও সহিংসতায় পরিণত না হয়, সে দিকে দৃষ্টি দিতে সব রাজনৈতিক দলের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন নূরুল হুদা।

শেয়ার করুন
প্রথম পাতা এর আরো সংবাদ
  • আ’লীগ কোনো দিনই জনগণের ভোটে নির্বাচিত হয়নি: ফখরুল
  • জনগণের প্রত্যাশা পূরণে সততা ও নিষ্ঠার সাথে কাজ করুন
  • ভারত থেকে পালিয়ে আসা ৬ রোহিঙ্গা নাগরিক দক্ষিণ সুরমায় আটক
  • ওলামা লীগের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে আহ্বান আওয়ামী লীগের
  • ছাত্রদলকে সমস্যায় ফেলবে না, কথা দিল ছাত্রলীগ
  • আফগান সেনা ঘাঁটিতে তালেবান হামলায় নিহত ১২৬
  • ট্রেনের টিকেট কেনায় এনআইডি বাধ্যতামূলক হচ্ছে
  • সাবেক ফুটবলার কায়সার হামিদ গ্রেফতার
  • ‘ভুয়া ভোটে’ জিতে বেপরোয়া ক্ষমতাসীনরা
  • ড. কামাল চিকিৎসার জন্য সিঙ্গাপুরে
  • আজ প্রথম বৈঠকে বসছে মন্ত্রিসভা
  • তিন বছরে এক হাজার শিক্ষার্থীর নাগরী রপ্ত
  • তিন বছরে এক হাজার শিক্ষার্থীর নাগরী রপ্ত
  • ব্যবসায়ী বাদল ও তাঁর স্ত্রী’র সম্পদ জব্দ
  • সিলেটে পর্দা উঠলো জাতীয় লোকনাট্যোৎসবের
  •  সিলেটে বিএনপির অঙ্গ সংগঠনের ২৮ নেতাকর্মীর জামিন
  • পদ্মা সেতু প্রকল্পের সার্বিক অগ্রগতি ৬৩ ভাগ : কাদের
  • শেখ হাসিনাকে ওআইসি’র অভিনন্দন
  • এসএসসি’র এক মাস কোচিং সেন্টার বন্ধ
  • দুর্নীতি, মাদক ও জঙ্গিবাদ নির্মূল করে শান্তিপূর্ণ বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠায় কাজ করতে হবে : প্রধানমন্ত্রী
  • Developed by: Sparkle IT