উপ সম্পাদকীয়

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন ও বিগত দশটি নির্বাচন

বেলাল আহমদ চৌধুরী প্রকাশিত হয়েছে: ১৪-১১-২০১৮ ইং ০০:২৯:৩২ | সংবাদটি ৫৪ বার পঠিত

উত্তরে হিমালয়, দক্ষিণে বঙ্গোপসাগর। পৃথিবীর মানচিত্রে এশিয়া মহাদেশের দক্ষিণ এশিয়ার লাল-সবুজের একটি ছোট দেশ, বাংলাদেশ।
বাংলাদেশ স্বপ্ন দেখছে দিন বদলের সমৃদ্ধতর গণতান্ত্রিক রাষ্ট্রের। একটি গণতান্ত্রিক বাংলাদেশ বিনির্মানের প্রবল প্রত্যাশা নিয়ে আওয়ামীলীগের নেতৃত্বাধীন ১৪ দলীয় ঐক্য জোট নেত্রী দেশরতœ মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সরাসরি সংলাপে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট, ইউনাইটেড ন্যাশনাল এলায়েন্স, (ইউনএ), যুক্তফ্রন্ট, ইসলামী ঐক্যজোট, বাম গণতান্ত্রিক মোর্চার (এলডিএ) সাথে সংলাপ করেছেন। সংলাপের মাধ্যমে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের রূপরেখা নিয়ে ইতিবাচক প্রত্যয় ও দৃঢ় সমর্থন পরিলক্ষিত হয়েছে। আগামী ২৩ ডিসেম্বর/১৮ দেশে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণায় জনগণ হর্ষ্যােৎফুল্ল।
এবার দেখা যাক, বিগত জাতীয় সংসদ নির্বাচনের চিত্র। দশটি সংসদ নির্বাচনে মূলত তিনটি রাজনৈতিক দল ঘুরে ফিরে সরকার গঠন করেছে। বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ ৭ মার্চ ১৯৭৩ প্রথম, ১২ জুন ১৯৯৬ সপ্তম, ২৯ ডিসেম্বর ২০০৮ নবম এবং ১৪ জুন ২০১৪ দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জয় লাভ করে। বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল (বিএনপি) ২ ফেব্রুয়ারি ১৯৭৯ দ্বিতীয়, ২৭ ফেব্রুয়ারি ১৯৯১ পঞ্চম, ১৫ ফেব্রুয়ারি ১৯৯৬ ষষ্ঠ এবং ১ অক্টোবর ২০০১ অষ্টম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জয়লাভ করেন। অপরদিকে জাতীয় পার্টি ৭ মে ১৯৯৬ তৃতীয়, ৩ জুন ১৯৮৮ চতুর্থ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিজয়ী হয়। প্রতিটি সংসদের মেয়াদ সংবিধান মত পাঁচ বছর ছিল। কিন্তু পূর্বের দশটি নির্বাচনের মধ্যে রাজনৈতিক অস্থিরতার কারণে প্রথম, দ্বিতীয়, তৃতীয়, চতুর্থ এবং ষষ্ঠ সাংসদ তাদের মেয়াদ পূর্ণ করতে পারেনি।
লক্ষ্য করলে দেখা যাবে, ৭ মার্চ ১৯৭৩ প্রথম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ভোট প্রদান হয় ৫৪.৯%, ১৮ ফেব্রুয়ারি ১৯৭৯ মেয়াদে সংসদ নির্বাচনে ভোট প্রদান করা হয় ৫১.৩%, ৭ মে ১৯৮৬ তৃতীয় মেয়াদে সংসদ নির্বাচনে ভোট প্রদান করা হয় ৬১.৩%, ০৩ মে ১৯৮৮ চতুর্থ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ভোট প্রদান ৫২.৫%, পঞ্চম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ৫৫.৪%, ষষ্ঠ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ২৬.৫%, সপ্তম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ৭৫.৪৯%, ১লা অক্টোবর ২০০১ অষ্টম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ৭৫%, ২৯ ডিসেম্বর ২০০৮ ভোট প্রদান করা হয় ৮৭.১৬% এবং ১৪ জুন ২০১৪ দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সর্বনি¤œ ৪০% ভোট কাস্ট হয়।
বাংলাদেশের প্রথম জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয় ০৭ মার্চ ১৯৭৩ সালে। নির্বাচনে আওয়ামীলীগ ৩০০ আসনের মধ্যে ২৯৩টি আসনে জয়যুক্ত হয়ে সরকার গঠন করে। তন্মধ্যে জাসদ ১টি, বাংলাদেশ জাতীয় লীগ ১টি এবং ৫টি আসন স্বতন্ত্র প্রার্থীরা জয়লাভ করেন।
দ্বিতীয় মেয়াদে জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয় ১৮ ফেব্রুয়ারি ১৯৭৯। এই নির্বাচনে বিএনপি ২০৭টি আসনে জয়লাভ করে। আওয়ামীলীগ (মালেক গ্রুপ) ৩৯টি, আওয়ামীলীগ (মিজান) ২টি, জাসদ ৮টি, মুসলিমলীগ ও ডেমোক্রেটিক লীগ ২০টি, ন্যাপ (মুজাফর) ১টি, বাংলাদেশ জাতীয়লীগ ২টি, বাংলাদেশ গণফ্রন্ট ২টি, বাংলাদেশ সাম্যবাদী দল ১টি, বাংলাদেশ গণতান্ত্রিক আন্দোলন ১টি, জাতীয় একতা পার্টি ১টি এবং ১৬টি আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থীরা জয়যুক্ত হন।
তৃতীয় মেয়াদের জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয় ৭ মে ১৯৮৬। এই নির্বাচনে জাতীয়পার্টি ১৫৩টি, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ ৭৬টি, জামায়াতে ইসলামী বাংলাদেশ ১০টি, সিপিবি ৫, ন্যাপ (মুজাফ্ফর) ২টি, ন্যাপ ৫টি, বাকশাল ৩টি, জাসদ (রব) ৪, জাসদ (সিরাজ) ৩টি, মুসলিমলীগ ৪টি, ওর্য়াকার্স পার্টি ৩টি এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী ৩২ জন আসনে জয়লাভ করেন। উল্লেখ্য যে, উক্ত নির্বাচন বিএনপি বর্জন করেছিল।
চতুর্থ মেয়াদে জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয় ৩ মার্চ ১৯৮৮। এই নির্বাচনে জাতীয়পার্টি ২৫১, আ.স.ম আব্দুর রব নেতৃত্বাধীন সম্মিলিত বিরোধী দল ১৯টি, জাসদ (সিরাজ) ৩টি, ফ্রিডম পার্টি ২টি এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী ২৫টি আসনে বিজয়ী হন। উল্লেখ্য যে, প্রধান রাজনৈতিক দল বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ, বিএনপি ও সিপিবি নির্বাচনে অংশ গ্রহণ করে নাই।
পঞ্চম মেয়াদে জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয় ২৭ ফেব্রুয়ারি ১৯৯১। এই নির্বাচনে বিএনপি ১৪০টি আসন নিয়ে সরকার গঠন করে। এতদ্ব্যতিত বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ ৮৮টি, জাতীয়পার্টি ৩৫, বাংলাদেশ জামাতে ইসলাম ১৮, সিপিবি ৫, বাকশাল ৫টি, জাসদ (সিরাজ) ১টি, গণতন্ত্রী পার্টি ১টি, ন্যাপ (মুজাফ্ফর) ১টি, ওর্য়াকার্স পার্টি ১টি, এনডিপি ১টি, ইসলামী ঐক্যজোট ১টি ও অন্যান্য ৩টি।
ষষ্ঠ মেয়াদে জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয় ১৫ ফেব্রুয়ারি ১৯৯৬। নির্বাচনে বিএনপি ২৭৮টি, ফিড্রম পার্টি ১টি এবং স্বতন্ত্র প্রার্থীরা ১০টি বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় ৪৯ জন প্রার্থী জয়লাভ করেন এবং ১১টি আসনে ভোট গ্রহণ স্থগিত থাকে। উল্লেখ্য যে, উক্ত নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ, জাতীয়পার্টিসহ অনেক বিরোধী দল নির্বাচন বর্জন করেন। উল্লেখ্য যে, ষষ্ঠ জাতীয় সংসদের মেয়াদকাল ছিল মাত্র ১১ দিন।
সপ্তম জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয় ১২ জুন ১৯৯৬। এই নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ ১৪৬টি, বিএনপি ১১৬টি, জাতীয় পার্টি ৩২টি, জামাতে ইসলামী ৩টি, ইসলামী ঐকজোট ১টি, জাসদ ১টি এবং স্বতন্ত্র ১ জন বিজয়ী হন।
অষ্টম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অনুষ্ঠিত ২য় ০১ অক্টোবর ২০০১। এই নির্বাচনে বিএনপি ১৯৩, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ ৬২, জাতীয় পার্টি ১৪টি, জামাতে ইসলামী ১৭টি, বিজেপি ৪টি, জাতীয় পার্টি (মঞ্জু) ১টি, ইসলামী ঐক্যজোট ২টি, কৃষক শ্রমিক জনতা লীগ ১টি এবং স্বতন্ত্র ৬ জন প্রার্থী বিজয়ী হন।
নবম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অনুষ্ঠিত হয় ২৯ ডিসেম্বর ২০০৮। এই নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ ২৩০, বিএনপি ৩০টি, জাতীয় পার্টি ২৭, জাসদ ৩টি, জামাতে ইসলামী ২টি, ওর্য়াকার্স পার্টি ২, বিজেপি ১টি, এলডিপি ১টি এবং স্বতন্ত্র ৪ জন প্রার্থী জয়ুক্ত হন।
দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয় ৫ জানুয়ারি ২০১৪। এই নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ ১৫৩টি আসনে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় বিজয়ী হন। বাদবাকী ১৪৭টি আসনের মধ্যে জাতীয় পার্টি ৩৪টি, ওর্য়াকার্স পার্টি ৬টি, জাসদ ৫টি, জাতীয় পার্টি (জেপি) ২টি, তরিকত ফেডারেশন ২টি, বিএনএপ ১টি এবং স্বতন্ত্র ১৬ জন প্রার্থী বিজয়ী হন। জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপি অংশ গ্রহণ করে নাই।
পরিশেষে বলতে হয় বিগত ১০টি জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ক্ষমতার ভাগাভাগি, আন্দোলন, বিভাজন, রক্ত ও আগুনে দগ্ধ সেই আখ্যান আমাদের দেশে বিরল অভিজ্ঞতা। সংকটের আলো-আঁধার একাদশ সংসদ নির্বাচনকে যেন ঢেকে না ফেলে। জাতি অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছে একটি অবাদ, সুষ্ঠ ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের।
লেখক : কলামিস্ট।

 

শেয়ার করুন
উপ সম্পাদকীয় এর আরো সংবাদ
  • মুক্তিযুদ্ধে জাতীয় চার নেতা
  • বিজয়ের ৪৭ বছর
  • প্রত্যাশা ও বাস্তবতা : বিজয়ের সাতচল্লিশ বছর
  • মুশকিল আসানের এক সৈনিক আব্দুল মঈদ চৌধুরী
  • রপ্তানিতে সুবাতাস, ইতিবাচক বাংলাদেশ
  • রপ্তানিতে সুবাতাস, ইতিবাচক বাংলাদেশ
  • ডিসেম্বর আমাদের অহংকারের মাস
  • পোশাক শিল্পের অগ্রগতি
  • উন্নয়ন, আদর্শ ও মনস্তাত্ত্বিক প্রেক্ষিত
  • প্রসঙ্গ : রিকসা ভাড়া
  • পেছন ফিরে দেখা-ক্ষণিকের তরে
  • অবাধ ও সুষ্ঠু নিবার্চনের প্রত্যশা
  • শিক্ষাক্ষেত্রে তথ্যপ্রযুক্তির প্রসার
  • বাংলাদেশে প্রতিবন্ধী ব্যক্তির অধিকার
  • বাংলাদেশের উৎসব
  • ‘শান্তি জিতলে জিতবে দেশ’
  • মানবাধিকার মুক্তি পাক
  • অদম্য বাংলাদেশ
  • নারী আন্দোলনে বেগম রোকেয়া
  • আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচন ও জনমানস
  • Developed by: Sparkle IT