স্বাস্থ্য কুশল

নাক দিয়ে পানি পড়া

ডাঃ মোঃ ফজলুল কবির পাভেল প্রকাশিত হয়েছে: ০৪-০২-২০১৯ ইং ০০:৪৯:২০ | সংবাদটি ১১০ বার পঠিত

হঠাৎ করে যদি নাকের ভেতর মিউকাস মেমব্রেনে প্রদাহ হয় তাকে একিউট রাইনাইটিস বলে। ভাইরাসের সংক্রমণে এমন হয়। এটি অনেক বেশী দেখা যায়। ঋতু পরিবর্তনের সময় বেশী দেখা যায় একিউট রাইনাইটিস। নাকের ভেতর মিউকাস মেমব্রেনে যে গ্লান্ড বা গ্রন্থি থাকে একিউট রাইনাইটিসে সেখান থেকে নিঃসরণ হয়। বিভিন্ন ভাইরাস এর জন্য দায়ী। যেমন- রাইনোভাইরাস, ইনফ্লুয়েঞ্জা ভাইরাস, এডেনো ভাইরাস, ইকো ভাইরাস ইত্যাদি।
রোগের উপসর্গ ঃ একিউট রাইনাইটিসে বিভিন্ন উপসর্গ থাকে। যেমন-নাক দিয়ে পানি পড়া। নাকের ভেতর অস্বস্তি, হাঁচি, জ্বর। নাক বন্ধ হয়ে যাওয়া, মাথা ব্যথা। কানে অস্বস্তি, আস্তে আস্তে নাকের নিঃসরণ কমতে থাকে এবং পুরু হতে থাকে। ৫-৬ দিনের মধ্যেই এসব উপসর্গ ভাল হয়ে যায়। যেহেতু একিউট রাইনাইটিস সংক্রামক রোগ তাই এ রোগ হলে বাসায় থাকা উচিত। বাচ্চাদের এ সময় স্কুলে পাঠনো উচিত নয়। তাহলে অন্য বাচ্চাদেরও এমন হতে পারে। পর্যাপ্ত বিশ্রাম নিতে হবে। জ্বরের জন্য প্যারাসিটামল দেয়া যেতে পারে। এন্টিবায়োটিক খুব কম ক্ষেত্রেই লাগে। ইনফেকশন তীব্র সন্দেহ হলে এন্টিবায়োটিক দেয়া হয়।
এন্টিহিস্টাসিন তেমন উপকার করে না। নাক পরিষ্কার করার জন্য ন্যাজাল ডিকনজেসটেন্ট ব্যবহার করা হয়। একিউট রাইনাইটিস খুব সাধারণ সমস্যা। তাই এ বিষয়ে জানতে হবে। ঋতু পরিবর্তনের সময় সাবধানে থাকা উচিত। তাহলে অনেকটাই এ রোগ প্রতিরোধ করা যায়।

শেয়ার করুন
স্বাস্থ্য কুশল এর আরো সংবাদ
  • পিত্তথলীর ভেষজ চিকিৎসা
  • ফুটপাতের শরবত আর চাটনি : সংকটে জনস্বাস্থ্য
  • স্মৃতিশক্তি সমস্যা : করণীয়
  • যক্ষ্মা নির্মূলের এই তো সময়
  • মলদ্বারের রোগে পেটের সমস্যা
  • ব্যথার ওষুধ খাবেন সাবধানে
  • অতিরিক্ত ওজন ও স্থুলদেহী প্রসঙ্গ
  • স্বাস্থ্য রক্ষায় খতনা
  • আপনিই সুস্থ রাখতে পারেন আপনার কিডনি
  • এ্যান্টিবায়োটিক ব্যবহারে সতর্কতা
  • মুখের আলসার ও টুথপেস্টের রসায়ন
  • গলার স্বর বসে গেলে
  • মেছতার আধুনিক চিকিৎসা ডাঃ দিদারুল আহসান
  • স্ক্রিনে দীর্ঘসময় শিশুর মস্তিষ্কে প্রভাব ফেলে
  • প্রকৃতির মহৌষধ মধু
  • তাফসিরুল কুরআন
  • প্রসব পরবর্তী থায়রয়েড গ্রন্থির প্রদাহ
  • শ্বাসকষ্ট কোনো রোগ নয়!
  • নাক দিয়ে পানি পড়া
  • শীতে বয়স্কদের সমস্যা
  • Developed by: Sparkle IT