ধর্ম ও জীবন

জীবনের হিসাব ও মুমিনের আমল 

মুন্সি আব্দুল কাদির প্রকাশিত হয়েছে: ০৮-০৩-২০১৯ ইং ০০:৩৩:৪৭ | সংবাদটি ১৭১ বার পঠিত

আমাদের জীবন সেকেন্ড মিনিট আর ঘন্টার সমষ্টি। এভাবে দিন মাস বছর পুরো জীবন পার হয়ে যায়। আসে মৃত্যু। চলে যাই পরপারে। আপনজনেরা কিছুদিন মনে রাখে, তারপর ভুলে যায়। খুব কাছের মানুষেরা মাঝে মাঝে মনে করে। আস্তে আস্তে তারাও বিদায় নেয়। তখন আর কেউ মনে রাখে না। এভাবে কালের গর্ভে সব হারিয়ে যায়। এই সময় নিয়েই সবকিছু। এই সময় সবচেয়ে বেশী দীর্ঘস্থায়ী আবার এটিই সবচেয়ে ক্ষণস্থায়ী। সবচেয়ে বেগবান আবার সবচেয়ে ধীর। আমরা সকলেই তাকে হেলায় নষ্ট করি আবার পরে আফসোস করি। এই সময় ছাড়া কিছুই করা যায় না। আবার একেই সবচেয়ে বেশী অবজ্ঞা করি। সুখী মানুষের নিকট সময় খুব দ্রুত ফুরিয়ে যায়। আবার দুঃখীর সময় যেন পার হতে চায় না। এই সময় দিয়েই আমাদের জীবন গঠিত। এই সময়ের নাট্যশালায় আমরা অভিনেতা। এই সময়কে ঘিরেই আমাদের পথচলা। সময়ের সদ্ব্যবহারে আসে জীবনের সফলতা। সময়ের অপব্যবহারে জীবনের ব্যর্থতা। এই পৃথিবীতে যত ভাল কাজ হয়েছে তা সময়ের উত্তম ব্যবহারের ফলেই হয়েছে। খারাপ কিছুও সময়ের ব্যবহারেই হয়েছে। পৃথিবীতে যারা স্মরণীয় হয়ে আছেন তারাতো সময়কে ঘিরেই স্মরণীয় হয়ে আছেন।
একজন দিনমুজুর দিনে ৫০০ টাকা রোজগার করে তার প্রতি ঘন্টার মূল্য ৬২.৫০ টাকা। একজন ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালকের প্রতি ঘন্টার মূল্য ৩০০০ টাকা বা তারও বেশী। দু’জায়গায় সময় কিন্তু একই। এটা নির্ভর করে আমি সময়কে কিভাবে নিয়েছি। যে সময়কে যত মূল্যবান মনে করে জীবন পরিচালনা করেছে তার সময়ের মূল্যও তত বেশী, তার কর্মঘন্টার মূল্যও তত বেশী।
আমরা রাতে ঘুমিয়ে পড়ি। সকালে আবার জেগে উঠি তখন আমার পকেটে ২৪ ঘন্টা সময় থাকে। আমি ২৪টি ঘন্টার মালিক হয়ে যাই। কিন্তু সময় আমার অধীন নয় যে খরচ না করলে কমবে না। ২৪ ঘন্টা পকেটে ঢোকার সাথে সাথে আবার তার সরে যাওয়ার পালা শুরু হয়ে যায়। আমি তাকে কাজে লাগাই অথবা না লাগাই সে বইতে শুরু করে। তাকে কোন বাঁধ দিয়ে আটকানো যায় না। সে সদা চলমান। পৃথিবীর শুরু থেকে তার চলা শুরু সে সামান্য সময়ের জন্য থেমে নেই। এর মাঝখানে আমাদের সময়ের ভেলায় চড়ে আগমন বা শেষ বিদায়।
রাসুল (সাঃ) বলেন, দু’জন ফেরেস্তার নিম্নরূপ আহবান ব্যতিত একটি সকালও আসে না। তারা বলে হে আদম সন্তান, আমি একটি নতুন দিন এবং আমি তোমার কাজের সাক্ষী। সুতরাং আমাকে ভালভাবে ব্যবহার কর। শেষ বিচার দিনের আগে আমি আর কখনো ফিরে আসব না।
আমাদেরকে কেউ নামাজের কথা বললে বা ভাল কোন কাজের কথা বললে আমরা বেশীর ভাগ সময়ই বলি, আগামী কাল থেকে শুরু করব বা আগামী কাল করব। এ সপ্তাহে নয়, আগামী সপ্তাহে করব। আগামী বছর করব ইত্যাদি। এভাবে আমরা কাদা মাটিতে আটকিয়ে আছি। আমাদের সময় চলে যাচ্ছে। জীবন ফুরিয়ে যাচ্ছে। মৃত্যু ঘনিয়ে আসছে। আগামী আগামী আর শেষ হচ্ছে না। সচেনত ব্যক্তি কখনো বলে না আগামীকাল, সে বলে আজই আমার সময়। আজকের দিনটি আর কখনো ফিরে পাব না। যাকে যতই আদর সোহাগ করি সে চলে যাবেই। তার কদর হল তাকে কাজে লাগানো।
আমরা অর্থ খুব ভালবাসি। অর্থের জন্যই আমাদের চাকরী ব্যবসা আরো কত কাজ। অর্থ আমরা নষ্ট হতে দেইনা। একটি টাকার খুব কম দাম। তারপরও কি একটি টাকা হেলায় ফেলে দেই। দেই না। অথচ সময়ইতো অর্থ। সময় নষ্ট করা শুধু অপরাধই নয় হত্যা বা খুনের মত অপরাধ। কারণ জীবনতো সময়ের সমষ্টি। যখন কেউ আমাকে কোন কাজের কথা বলে তখন অনেক সময় বলি আমার হাতে সময় নেই। এর দ্বারা এটিই বুঝানো হয় এর চেয়ে আমার আরোও গুরুত্বপূর্ণ কাজ আছে।
প্রতি দিন এক ঘন্টা কাজে ফাঁকি দেওয়া বা অবহেলায় কাটানো মানে বছরে দুই কর্মমাস ফাঁকি দেওয়া। আমরা কি কখনো এভাবে চিন্তা করি। জীবনে গড়ে প্রতি দিন এক ঘন্টা অপচয় করা মানে ৬০ বছরের জীবন থেকে ২.৫০ বছর পচে যাওয়া। দিনে ১ মিনিট খসে যাওয়া অর্থ জীবন থেকে ১৫ দিন ঝরে যাওয়া।
আমি যদি আমার হায়াতের ৬০ বছর দিয়ে চিন্তা করি তাহলে দেখব। আমি কমপক্ষে ২০ বছর ঘুমে কাটিয়েছি। আমি ছোট কালের বেশীর ভাগ সময় ঘুম আর খেলায় কাটিয়েছি। প্রতিদিন ৩ ঘন্টা করে টেলিভিশনের সামনে বসে থাকলে জীবনের ৭.৫০ বছর খুইয়েছি। শুধু খাওয়া দাওয়ায় আমার প্রায় ৪ বছর সময় লেগেছে। নিজের দাঁত মেজে পুরো ৫ মাস সময় কাটিয়ে দিয়েছি। গোছল করতে যদি প্রতিদিন ১৫ মিনিট কাটিয়ে থাকি তাহলে প্রায় ৮ মাস গোছল করতে লেগেছে। পড়ালেখায় ১৫ বছরে যদি স্কুল কলেজ বা মাদ্রাসার ক্লাস এবং বাড়িতে পড়ায় গড়ে প্রতিদিন ৮ ঘন্টা সময় দিয়ে থাকি তাহলে জীবনের মাত্র ৫ বছর সময় জীবন গড়ার জন্য ব্যয় করেছি। ইবাদতে যদি আমি ১০ বছর বয়স থেকে গড়ে প্রতিদিন এক ঘন্টা সময় দিয়ে থাকি তাহলে মাত্র ২.০৮ বছর সময় দিয়েছি। রোজগারে যদি সপ্তাহের ৫ দিনে গড়ে ১০ ঘন্টা সময় দিয়ে থাকি তাহলে ৩৮ বছরে এগার বছর এখানে কাটিয়েছি।
আমার প্রতিদিন গড়ে ৫ মিনিট সময় নষ্ট হলে জীবন থেকে আড়াই মাস সময় ঝরে যায়। ১০ মিনিট সময় নষ্ট হলে জীবন থেকে ৫ মাস সময় চলে যায়।
এখন চিন্তা করার বিষয় হল, আমার হায়াতের সময়গুলো কিভাবে কাজে লাগিয়েছি? জীবন গড়ার জন্য কতটুকু সময় ব্যয় করেছি? আল্লাহ তায়ালাকে খুশি করার জন্য কতটুকু সময় দিয়েছি? আল্লাহ তায়ালাকে একান্তে পাবার জন্য কতটুকু সময় দিয়েছি? পরচর্চা, গীবত আর আড্ডায় কত সময় ব্যয় করেছি? এই প্রশ্নগুলো নিজেকে করলেই আমার অবস্থান আমার জানা হয়ে যায়। সময়কে কাজে না লাগাতে পারলে দুনিয়া যাই হোক আখেরাত একেবারে বরবাদ হয়ে যাবে। সময়তো একটি ছুরির মত, তাকে সুন্দরভাবে ব্যবহার করতে না পারলে সেই তোমাকে কেটে ফেলবে। আমরা সবচেয়ে বেশী অপচয় করি সময়। অর্থ অপচয় করলে কত আফসোস করি কিন্তু সময়ের অপচয় প্রতিদিনই হচ্ছে, তার জন্য আমার কোন আফসোস নেই। সময়ের সাথে সাথে আমার জীবনও ফুরিয়ে যাচ্ছে। জীবনতো কতগুলো মিনিট আর ঘন্টারই অপর নাম।

শেয়ার করুন

Developed by: Sparkle IT