স্বাস্থ্য কুশল

স্বাস্থ্য রক্ষায় খতনা

মো. জহিরুল আলম শাহীন প্রকাশিত হয়েছে: ১৮-০৩-২০১৯ ইং ০০:৩১:২৪ | সংবাদটি ৪৭১ বার পঠিত

মুসলমানি বা খতনা একজন পুরুষের জীবন ঘনিষ্ট স্বভাব কর্ম। পুরুষাঙ্গের সামনের বা মাথার দিকে যে অতিরিক্ত চামড়া পুরুষাঙ্গের সংবেদনশীল মাথাকে ঢেকে রাখে তা কেটে বাদ দেওয়াকেই বলা হয় খতনা বা মুসলমানি বা (ঈরৎপঁসপরংরড়হং) সারকামসিশন।
প্রয়োজনীয়তা : যৌনাঙ্গের নানা রোগ থেকে বেঁচে থাকার জন্য মুসলমানি দেওয়া খুবই প্রয়োজন। ধর্মীয় কারণে মুসলিম জাতি, খৃস্টানরা মুসলামানি দিয়ে থাকে। তাছাড়া ফাইমোসিস বা প্যারাফাইমোসিস রোগ হলে মুসলমানি দিতে হয়।
ফাইমোসিস : পুরুষাঙ্গের মাথার দিকের চামড়া যদি মূত্রনালীকে এমনভাবে ঢেকে রাখে যাতে প্র¯্রাব ভালো মতো বের হতে পারে না। ফলে শিশুরা বা পুরুষটি জ্বালা যন্ত্রণায় ভোগতে থাকে। এতে পুরুষাঙ্গের মাথা ফুলে যায়। এভাবে বেশিদিন চললে প্র¯্রাবের নালীতে ইনফেকশন দেখা দেয়। এবং বৃক্ক বা কিডনি নষ্ট হয়ে যেতে পারে। এই অবস্থা কে বলে ফাইমোসিস। এই অবস্থা দেখা দিলে চিকিৎসকের পরামর্শ মতে অবশ্যই খতনা দিতে হবে।
প্যারাফাইমোসিস : পুরুষাঙ্গের মাথার দিকের চামড়া উল্টে শক্ত হয়ে গেলে এই চামড়াকে আর সামনে ও পেছনের দিকে নড়াচড়া করা যায় না। ফলে লিঙ্গের মাথা ফুলে যায়। জ্বালাযন্ত্রণা করে। রক্ত সঞ্চালনে বিরাট অসুবিধা হয়। এই অবস্থাকে বলা হয় প্যারাফাইমোসিস। এ অবস্থায় মুসলমানি দেওয়া খুবই দরকার হয়। তাছাড়া পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতার জন্য যেকোনো ধর্মের পুরুষরা মুসলমানি দিতে পারেন।
উপকারিতা : পুরুষাঙ্গের মাথার বাড়তি চামড়ার নিচে এক ধরনের সাদা সাদা পদার্থ যাকে স্মেগমা বলা হয় তা জমে লিঙ্গের মাথা অপরিষ্কার ও দুর্গন্ধময় করে তোলে। এই স্মেগমাই পুরুষাঙ্গের ক্যান্সার রোগ সৃষ্টি করে। তাই মরণ ব্যাধি এ রোগ থেকে বাঁচতে মুসলমানি দেওয়া দরকার। তাই মুসলিম ও খ্রিষ্টান সম্প্রদায়ের মধ্যে পুরুষাঙ্গের ক্যান্সার নেই বললেই চলে। এর প্রধান কারণ খতনা বা মুসলমানি। অনেক দেশী-বিদেশী চিকিৎসকের জরিপের মাধ্যমে তারই সত্যতা প্রকাশ পেয়েছে। মুসলমানি করালে লিঙ্গের মাথায় বিভিন্ন রকমের ছত্রাক, ব্যাকটেরিয়া জাতীয় রোগ থেকে রক্ষা পাওয়া যায়। মুসলমানির প্রধান সুবিধা হলো এর ফলে লিঙ্গের মাথায় তরল রস জমে নোংরা অবস্থার সৃষ্টি করে তা থেকে লিঙ্গ রক্ষা পায় ফলে বিভিন্ন প্রকার রোগও বাসা বাধতে পারে না। মুত্রনালীর প্রদাহ শিশুদের বেশি হয় এতে কিডনির সমস্যা, জ্বর ও রক্তের ইনফেকশন পর্যন্ত হতে পারে। মুসলমানি দিলে এসবের ঝুঁকি কমে যায়। বিভিন্ন তথ্য মাধ্যম থেকে জানা যায় মরণ ব্যাধি এইড এবং যৌন রোগ প্রতিরোধে মুসলমানি বিরাট একটি ভূমিকা পালন করে। তাই আমরা সবাই সতর্ক হয়ে আমাদের ছেলে শিশুদের ছোট বয়সেই মুসলমানি করানো দরকার।
কখন খতনা করা যাবে না : পুরুষাঙ্গের জন্মগত ত্রুটির কারণে বাচ্চা জন্মের পর লিঙ্গ দেখলে বুঝা যায় যে খতনা হয়ে জন্ম হয়েছে। এ অবস্থায় খতনা বা মুসলমানি দেওয়া নিষেধ। এ অবস্থায় যদি কোন শিশুর যৌনাঙ্গে কোন সমস্যা দেখা দেয় অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে।
খতনা দেওয়ার আগে রক্ত পরীক্ষা : আমাদের গ্রামে প্রায়ই হাজাম দ্বারা মুসলমানি বা খতনা করানো হয়। এটি একটি পুরাতন রীতি। চিকিৎসা বিজ্ঞানে তখনকার দিনে তত উন্নত ছিল না। ফলে হাজামরাই মুসলমানির কাজ সমাধান করতেন। কিন্তু চিকিৎসা বিজ্ঞান উন্নতির পরে দেখা যাচ্ছে এই অবস্থায় শিশুদের নানা সমস্যার সৃষ্টি হতে পারে বা হচ্ছে। মুসলমানি দেওয়ার পরে কোন কোন শিশুর বা খতনাকারীর রক্তক্ষরণ বন্ধ হয় না। যা মারাত্মক সমস্যার সৃষ্টি করে তাই মুলমানি দেওয়ার আগে রক্তক্ষরণ সমস্যা জন্মগত আছে কিনা জানা খুবই প্রয়োজন। এতে অবশ্যই সার্জন চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে।
কী সমস্যা হতে পারে : চামড়া কাটার পর রক্তক্ষরণ বন্ধ হয় না। হাজাম বা অনভিজ্ঞতার কারণে অতিরিক্ত বা কম চামড়া কেটে ফেলা। লিঙ্গের সংবেদনশীল মাথা কেটে ফেলা। তাই অভিজ্ঞ সার্জন ডাক্তারদের নিকট মুসলমানি বা খতনা করানো উচিত।
সতর্কতা : আমাদের দেশে এখনও হাজার হাজার শিশুকে গ্রামের মানুষরা হাজাম দিয়ে মুসলমানি দিয়ে থাকেন। তারা চিকিৎসা বিষয়ে অভিজ্ঞ নয় বিধায় মুসলমানি দিতে গিয়ে অনেক সময় চামড়া কম বা বেশি কেটে ফেলেন বা রোগীর রক্ত ঝরতে থাকে ফলে রক্তক্ষরণে অনেক শিশুর বিরাট সমস্যা দেখা দিতে পারে। তাই জেনারেল সার্জন ডাক্তার দিয়ে খতনা বা মুসলমানি করানো উচিত যা সুস্বাস্থ্যের জন্য অতি প্রয়োজন।

শেয়ার করুন
স্বাস্থ্য কুশল এর আরো সংবাদ
  • এডিস মশা ডেঙ্গু ছড়ায়
  • রোগ প্রতিরোধে আনারস
  • স্থূলতা : এখনই ব্যবস্থা জরুরি
  • মেহেদীর কতো গুণ
  • যে সব খাবার স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর
  • শিশুকে ওষুধ দিন বয়স ও ওজন অনুযায়ী
  • জ্বর কমার পরের সময়টা ঝুঁকিপূর্ণ
  • কম্পিউটারজনিত চক্ষু সমস্যা
  • ডেঙ্গু ও চিকুনগুনিয়া জ্বরের লক্ষণ
  • ডেঙ্গু প্রতিরোধের উপায়
  • সুস্থ থাকতে ওজন নিয়ন্ত্রণ
  • স্মার্টফোনের প্রতি শিশুদের আসক্তিতে ভয়ানক ঝুঁকি!
  • বন্যায় স্বাস্থ্য সমস্যা : করণীয়
  • কম বয়সেও স্ট্রোক হতে পারে
  • থানকুনির রোগ নিরাময় গুণ
  • সাপের কামড় : জরুরী স্বাস্থ্য সমস্যা
  • প্রাকৃতিক মহৌষধ মধু
  • চোখ দিয়ে পানি পড়া
  •   তরুণদের মনোরোগ ও পরিবার
  • ঘাড় ব্যথায় করণীয়
  • Developed by: Sparkle IT