প্রথম পাতা

মহান স্বাধীনতা দিবস আজ

স্টাফ রিপোর্টার প্রকাশিত হয়েছে: ২৬-০৩-২০১৯ ইং ০২:৩৪:২০ | সংবাদটি ২১২ বার পঠিত

মহান স্বাধীনতা দিবসের ৪৯তম বার্ষিকী আজ। স্বাধীনতা অর্জনের লক্ষ্যে রক্তক্ষয়ী মুক্তিযুদ্ধে আত্মদানকারী শহীদদের স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন এবং জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ার শপথ গ্রহণের মধ্য দিয়ে গর্বিত জাতি আজ ৪৯তম মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উদযাপন করবে।
স্বাধীনতার ঘোষণা ও মুক্তিযুদ্ধের সূচনার এই সময়টি জাতি গভীর আবেগের সঙ্গে স্মরণ করে। প্রতিবছর পেছনে তাকিয়ে সামনে এগিয়ে যাওয়ার প্রেরণা জোগায় ২৬ মার্চ। স্বাধিকারের দাবিতে জেগে ওঠা নিরীহ বাঙালির ওপর একাত্তরের ২৫ মার্চ কালোরাতে পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী চালিয়েছিল নির্মম হত্যাযজ্ঞ। সেই মৃত্যুর বিভীষিকা থেকে এক হয়ে মাথা তুলে দাঁড়িয়েছিল দেশের মানুষ।
যথাযোগ্য মর্যাদায় মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস পালন উপলক্ষে সিলেটসহ সারা দেশে ব্যাপক কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে। আজ সরকারি ছুটির দিন।
পরাধীনতার শৃঙ্খল ভেঙে ১৯৭১ সালের এই দিনে বাংলাদেশের স্বাধীনতা ঘোষিত হয়েছিল। বিশ্বের বুকে স্বাধীন অস্তিত্ব ঘোষণা করেছিল বীর বাঙালি। ইতিহাসের পৃষ্ঠা রক্তে রাঙিয়ে, আত্মত্যাগের অতুলনীয় দৃষ্টান্ত সৃষ্টি করে একাত্তরের এই দিন যে সংগ্রামে ঝাঁপিয়ে পড়েছিল এ দেশের মানুষ, দীর্ঘ ৯ মাসের মুক্তিযুদ্ধে এক সাগর রক্তের বিনিময়ে স্বাধীনতা অর্জন তার চূড়ান্ত পরিণতি। রক্তক্ষয়ী মুক্তিযুদ্ধের সূচনার সেই গৌরব ও অহঙ্কারের দিন আজ।
সারাদেশে গণহত্যা, ভয়াল ‘কালোরাত্রি’র পোড়া কাঠ, লাশ আর জননীর কান্না নিয়ে রক্তে রাঙা নতুন সূর্য উঠেছিল ১৯৭১ সালের ২৬ মার্চ। ভীতবিহ্বল মানুষ দেখলো লাশপোড়া ভোর। সারি সারি স্বজনের মৃতদেহ। আকাশে কুন্ডলী পাকিয়ে উঠছে ধোঁয়া। পুড়ছে স্বাধীন বাংলার মানচিত্র আঁকা লাল সবুজ পতাকা। জ্বলছে শাড়ি, খুকুর ফ্রক। চোখে জল। বুকে আগুন। জ্বলে উঠলো মুক্তিকামী মানুষের চোখ, গড়লো প্রতিরোধ। মৃত্যুভয় তুচ্ছ করে ‘জয় বাংলা’ তীব্র স্লোগান তুলে ট্যাঙ্কের সামনে এগিয়ে দিলো সাহসী বুক। আজ থেকে ৪৯ বছর আগের ঠিক এমনি এক ভোর রাতে পাক বাহিনীর গণহত্যার বিরুদ্ধে বাঙালি জাতির অবিসংবাদিত নেতা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ঘোষণা করেন বাংলাদেশের স্বাধীনতা। শত্রুসেনাদের বিতাড়িত করতে শেষ রক্তবিন্দু দিয়ে বঙ্গবন্ধুর ডাকে জীবনপণ সশস্ত্র লড়াইয়ে ঝাঁপিয়ে পড়ে বীর বাঙালি। ঘোরতর ওই অমানিশা ভেদ করেই দেশের আকাশে উদিত হয় স্বাধীনতার চিরভাস্বর সূর্য। বাঙালির অস্তিত্ব রক্ষার লড়াই শুরু হয়েছিল একাত্তরের আজকের এই দিনে। এক সাগর রক্তের বিনিময়ে অর্জিত মহার্ঘ স্বাধীনতার ৪৯তম বার্ষিকী।
এই মহার্ঘ স্বাধীনতা অর্জন করতে বাঙালি জাতিকে করতে হয়েছে দীর্ঘ সংগ্রাম, দিতে হয়েছে এক সাগর রক্ত। ১৯৭০ সালের ঐতিহাসিক নির্বাচনে বাংলার মানুষের ভোটে বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বাধীন আওয়ামী লীগ নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা লাভ করে। কিন্তু পাকিস্তানি শাসকগোষ্ঠী আওয়ামী লীগের হাতে ক্ষমতা হস্তান্তরে গড়িমসি করতে থাকে। তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তানের অবিসংবাদিত নেতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সাথে আলোচনার আড়ালে সামরিক অভিযানের প্রস্তুতি নিতে শুরু করে পাকিস্তানের সামরিক জান্তা। নির্বাচনে নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা অর্জনের পরও পাকিস্তানি শাসকগোষ্ঠীর ক্ষমতা হস্তান্তরে অনীহার কারণে বাংলার মুক্তকামী মানুষ ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠে। এমনই এক প্রেক্ষাপটে ২৫শে মার্চ কালোরাত্রিতে পাক হানাদার বাহিনী ঢাকাসহ সারাদেশে ‘অপারেশন সার্চলাইট’ নামে ইতিহাসের বর্বরোচিত গণহত্যা শুরু করে। মধ্যরাতেই অর্থাৎ ২৬ মার্চ প্রথম প্রহরে ধানমন্ডির ঐতিহাসিক ৩২ নম্বরের বাড়ি (বর্তমানে বঙ্গবন্ধু ভবন) থেকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ইপিআরের ওয়্যারলেসে স্বাধীনতার ডাক দেন। ইংরাজিতে ঘোষণা করা সেই স্বাধীনতা ঘোষণার বাংলা অনুবাদ হলো, ‘এটাই হয়তো আমার শেষ বার্তা, আজ থেকে বাংলাদেশ স্বাধীন। বাংলাদেশের জনগণ তোমরা যে যেখানেই আছ এবং যার যা কিছু আছে তাই নিয়ে শেষ পর্যন্ত দখলদার সৈন্য বাহিনীকে প্রতিরোধ করার জন্য আমি তোমাদের আহ্বান জানাচ্ছি। পাকিস্তান দখলদার বাহিনীর শেষ সৈনিকটিকে বাংলাদেশের মাটি থেকে বিতাড়িত করে চূড়ান্ত বিজয় অর্জিত না হওয়া পর্যন্ত তোমাদের যুদ্ধ চালিয়ে যেতে হবে।’ একই সঙ্গে তিনি বাংলায় যে বার্তা পাঠান সেটি হলো, ‘পাকিস্তান সেনাবাহিনী অতর্কিতভাবে পিলখানা ইপিআর ঘাঁটি, রাজারবাগ পুলিশ লাইন আক্রমণ করেছে এবং শহরের রাস্তায় রাস্তায় যুদ্ধ চলছে, আমি বিশ্বের জাতিসমূহের কাছে সাহায্যের আবেদন করেছি। সর্বশক্তিমান আল্লাহর নামে আপনাদের কাছে আমার আবেদন ও আদেশ, দেশকে স্বাধীন করার জন্য শেষ রক্তবিন্দু থাকা পর্যন্ত যুদ্ধ চালিয়ে যান। আপনাদের পাশে এসে যুদ্ধ করার জন্য পুলিশ, ইপিআর, বেঙ্গল রেজিমেন্ট ও আনসারদের সাহায্য চান। কোনো আপোস নেই, জয় আমাদের হবেই। আমাদের পবিত্র মাতৃভূমি থেকে শেষ শত্রু বিতাড়িত করুন। সব আওয়ামী লীগ নেতাকর্মী এবং অন্যান্য দেশপ্রেমিক ও স্বাধীনতাপ্রিয় লোকদের কাছে এ সংবাদ পৌঁছে দিন। আল্লাহ আমাদের মঙ্গল করুন। জয় বাংলা।’
বঙ্গবন্ধুর এই স্বাধীনতার ঘোষণার ভিত্তিতেই ২৬ মার্চ বাংলাদেশের স্বাধীনতা দিবস পালিত হয়।
আজ সূর্যোদয়ের সাথে সাথে পুষ্পস্তবক অর্পণের মাধ্যমে মহান মুক্তিযুদ্ধে শহীদ বীর মুক্তিযোদ্ধাদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করা হবে। সরকারি, আধাসরকারি, স্বায়ত্বশাসিত ও বেসরকারি ভবনে সূর্যোদয়ের সাথে সাথে জাতীয় পতাকা এবং ঢাকা শহরে সহজে দৃশ্যমান উঁচু ভবনসমূহে বৃহদাকারের জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা হবে এবং গুরুত্বপূর্ণ ভবন ও স্থাপনাসমূহ আলোকসজ্জায় সজ্জিত করা হবে। ঢাকা ও দেশের বিভিন্ন শহরের প্রধান সড়ক ও সড়কদ্বীপসমূহ জাতীয় পতাকা ও অন্যান্য পতাকায় সজ্জিত করা হবে।
দিবসের তাৎপর্য তুলে ধরে এদিন সংবাদপত্রসমূহ বিশেষ ক্রোড়পত্র প্রকাশ করবে। এ উপলক্ষে ইলেকট্রনিক মিডিয়াসমূহ মাসব্যাপী মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক বিভিন্ন অনুষ্ঠানমালা প্রচার করছে।
মহানগর, জেলা ও উপজেলায় বীর মুক্তিযোদ্ধা এবং শহিদ পরিবারের সদস্যদের সংবর্ধনা প্রদান করা হবে। ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানসমূহে দেশের শান্তি, সমৃদ্ধি ও অগ্রগতি কামনা করে বিশেষ দোয়া ও উপাসনার আয়োজন করা হবে। দেশের সকল হাসপাতাল, জেলখানা, শিশু পরিবার, বৃদ্ধাশ্রম, ভবঘুরে প্রতিষ্ঠান ও শিশুদিবা যতœ কেন্দ্রসমূহে উন্নতমানের খাবার পরিবেশন করা হবে। দেশের সকল শিশুপার্ক ও জাদুঘরসমূহ বিনা টিকিটে উন্মুক্ত রাখা হবে।
সিলেট জেলা প্রশাসন ঃ সূর্যোদয়ের সাথে সাথে সিলেট কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ, সন্ধ্যায় কবি নজরুল অডিটরিয়ামে আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানসহ বিভিন্ন অনুষ্ঠান আয়োজন।
সিলেট জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগ॥ ২৬ মার্চ মহান স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে কর্মসূচি ঘোষণা করেছে সিলেট জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগ। স্বাধীনতা দিবসের কর্মসূচি হিসেবে রয়েছে-আজ সকাল দশটায় সিলেট কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ এবং সকাল সাড়ে দশটায় সিলেট জেলা পরিষদ মিলনায়তনে আলোচনা সভা।
কর্মসূচিতে অংশ নিতে যথাসময়ে জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের সকলস্তরের নেতাকর্মী এবং অঙ্গসহযোগী সংগঠনের সকল নেতৃবৃন্দকে উপস্থিত থাকার জন্য অনুরোধ জানিয়েছেন সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি বদর উদ্দিন আহমদ কামরান, জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এাডভোকেট লুৎফুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক শফিকুর রহমান চৌধুরী ও মহানগরের সাধারণ সম্পাদক আসাদ উদ্দিন আহমদ।
সিলেট জেলা বিএনপি॥ মহান স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে নানা কর্মসূচি গ্রহণ করেছে সিলেট জেলা বিএনপি। কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে মহান স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে আজ সকাল ৯টায় নগরীর জিন্দাবাজারস্থ সহির প্লাজার সামন থেকে পদযাত্রা সহকারে চৌহাট্টাস্থা সিলেট কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন এবং পরদিন বুধবার বিকেল ৩টায় নগরীর দরগাহ গেইটস্থ হোটেল হলিসাইটের হলরুমে (আলিয়া মাদরাসা মাঠের পশ্চিম পাশে) আলোচনা সভা। জেলা বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আব্দুল কাহির চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক আলী আহমদ কর্মসূচিগুলোতে উপস্থিত থাকার জন্য সিলেট জেলা বিএনপির সকল পর্যায়ের নেতাকর্মী এবং জেলা বিএনপির আওতাধীন সকল অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের প্রতি অনুরোধ জানিয়েছেন।
মহানগর বিএনপি ॥ মহান স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে সিলেট মহানগর বিএনপির উদ্যোগে কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে। কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে আজ ২৬ মার্চ মঙ্গলবার সকাল ৯টায় সিলেট কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ এবং বিকেল ৩টায় জিন্দাবাজার থেকে আম্বরখানা পর্যন্ত র‌্যালি অনুষ্ঠিত হবে। কর্মসূচিতে যথাসময়ে উপস্থিত থাকতে মহানগর বিএনপি, ২৭টি ওয়ার্ড ও অঙ্গ-সহযোগি সংগঠনের নেতাকর্মীদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন সিলেট মহানগর সভাপতি নাসিম হোসাইন ও ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আজমল বখত চৌধুরী সাদেক।

শেয়ার করুন
প্রথম পাতা এর আরো সংবাদ
  • লন্ডন পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী
  • আদালতে মিন্নির স্বীকারোক্তি
  • কোম্পানীগঞ্জে জেএসসি পরীক্ষার্থী ও জামালগঞ্জে পিতা-পুত্রের মৃত্যু
  • সারা দেশে মাঝারি মাত্রার ভূকম্পন অনভূত
  • কুলাউড়ায় ঢাকাগামী জয়ন্তিকা ট্রেনের একটি কামরা লাইনচ্যুত
  • ট্রাম্পের কাছে প্রিয়ার নালিশ খতিয়ে দেখা হবে: পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী
  • কুলাউড়ায় ১৩ দিন পর স্কুলছাত্রীর লাশ উত্তোলন
  • রোববার থেকে বৃষ্টিপাতের প্রবণতা বাড়তে পারে
  • প্রধানমন্ত্রী লন্ডন যাচ্ছেন আজ
  • বন ও পরিবেশমন্ত্রী সিলেট আসছেন আজ
  • রিফাত হত্যার পরিকল্পনায় মিন্নিও: পুলিশ
  • পণ্যের দাম নির্ধারণে সরকারি ৫ প্রতিষ্ঠানকে আইনি নোটিশ
  • জেলায় ৯শ’ টন চাল, নগদ ১৫ লাখ টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়েছে ---------------দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণপ্রতিমন্ত্রী
  • সম্মিলিত প্রচেষ্টার মাধ্যমে পত্রিকাকে আরো এগিয়ে নেয়ার প্রত্যয়
  • বরিশালে মহাসমাবেশ জনসমুদ্রে পরিণত হবে: রিজভী
  • জাতীয় পার্টির নতুন চেয়ারম্যান জিএম কাদের
  • সিলেট থেকে বিমানের সরাসরি হজ ফ্লাইট শুরু
  • ‘সিলেট বিভাগে ৩৩ বিদ্রোহীকে বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত’
  • জিপিএ-৫ পেলো এমসি কলেজের ২৫৮ জন
  • সিলেট বোর্ডে পাশের হার বেড়ে ৬৭.০৫%
  • Developed by: Sparkle IT