সম্পাদকীয়

‘গ্যাসের দাম বাড়বেই’

প্রকাশিত হয়েছে: ২০-০৪-২০১৯ ইং ০০:১৬:১৩ | সংবাদটি ৮৯ বার পঠিত

গ্যাসের দাম বাড়বেই। এই ধরনের স্পষ্ট ঘোষণা জ্বালানী প্রতিমন্ত্রীর। গণশুনানীসহ নানান ফোরামে গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধির তীব্র প্রতিবাদ সত্ত্বেও সামান্যতম টনক নড়েনি সরকারের। সাধারণ মানুষের কষ্ট-দুর্ভোগের কোন কথাই পৌঁছেনি সংশ্লিষ্টদের কানে। সম্প্রতি রাজধানীতে অনুষ্ঠিত এক সেমিনারে প্রতিমন্ত্রী দৃঢ় ঘোষণা দেন যে, শিল্পে গ্যাসের দাম বাড়বেই। তবে তাতে ব্যবসায়ীদের ক্ষতি হবে না। আর দাম বাড়ানোর কারণে ব্যবসায়ীরা সমস্যায় পড়লে সরকার তা দেখবে। তিনি বলেন, বাংলাদেশে সবচেয়ে কম দামে জ্বালানী সরবরাহ করা হয়। সরকার ভর্তুকি দিয়ে গ্যাস ও বিদ্যুৎ দি”েছ। দেশের ৮০ লাখ গ্রাহক প্রতি ইউনিট বিদ্যুতের দাম দেয় দুই টাকা। গ্যাসের ক্ষেত্রেও নয় টাকার গ্যাস ছয় টাকায় বিক্রি করা হ”েছ। জ্বালানী খাতে বছরে ছয় হাজার কোটি টাকা ভর্তুকি দিতে হ”েছ। বিগত মাস কয়েক ধরে গ্যাসের দাম বাসাবাড়ি ও বাণিজ্যিক উভয় ক্ষেত্রেই বাড়ানোর পাঁয়তারা চালানো হ”েছ। কিš‘ বিশেষজ্ঞ মহল বলে আসছেন গ্যাসের দাম বাড়লে শিল্প কারখানা ও পরিবহন খাত অচল হয়ে পড়বে। বিপর্যস্ত হবে জনজীবন। অর্থনীতিতে অশনি সংকেত দেখা দেবে।
গ্যাসের দাম বৃদ্ধির ব্যাপারে গত মাসে অনুষ্ঠিত গণশুনানীতে ভোক্তাগণ প্রশ্ন তুলেন গ্যাস খাতে সরকার লাভের মুখ দেখার পরও কেন বাড়বে গ্যাসের দাম? তারা বলেন, সরকারের গ্যাস বিতরণ কোম্পানীগুলো প্রায় সব ক’টিই লাভে আছে। কর্মকর্তা-কর্মচারীরা বছরে কয়েক দফা বোনাস নি”েছ। কোম্পানীগুলো শেয়ার হোল্ডারদের নিয়মিত ডিভিডেন্ট দি”েছ। তবুও দুর্নীতি কমছে না। গ্যাস চুরি হ”েছ। প্রকৃত গ্রাহকরা নিরব”িছন্ন গ্যাস পা”েছ না। অথচ মাস শেষে ঠিকই তাদেরকে পুরো বিল গুণতে হ”েছ। গণশুনানীতে ভোক্তা গ্রাহকদের অভিমতকে তোয়াক্কা না করে সরকার গ্যাসের দাম বৃদ্ধির ব্যাপারে অটল রয়েছে। ইতোপূর্বে একবার গ্যাসের দাম বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত ¯’গিত হয় আদালতের নির্দেশে। এবার এই সিদ্ধান্তই কার্যকর করতে ওঠে পড়ে লেগেছে সরকার। কিš‘ যেসব অজুহাতে গ্যাসের দাম বাড়ানোর কথা বলা হ”েছ, তার সবই অমূলক বলে অভিমত দিয়েছেন বিশেষজ্ঞগণ। সরকার যেসব অজুহাত দাড় করছে তার মধ্যে প্রধান হ”েছ গ্যাস কোম্পানীগুলোর লোকসান পুষিয়ে নেয়া। অথচ বর্তমানে কোন গ্যাস কোম্পানীই লোকসান দি”েছনা। আর এই গণশুনানীতে গ্যাস বিতরণ কোম্পানীগুলোর অনিয়ম-দুর্নীতির কথাও ওঠে এসেছে। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, দেশে গ্যাস সম্পদ উত্তোলন না করে বেশি দামে গ্যাস আমদানীর দিকেই ঝুকেছে সরকার; যার খেসারত দিতে হ”েছ গ্রাহকদের।
গ্যাসের দাম বাড়লে নি¤œ ও সীমিত আয়ের মানুষের দুর্ভোগ বেড়ে যায়। তারপরেও যদি দাম বাড়ানোর যুক্তিসঙ্গত কারণ থাকে তবে তা আপত্তি ছিলো না। কিš‘ দুর্নীতিবাজদের পকেট ভারী করতেই গ্যাসের দাম বাড়ানো হ”েছ বলে যে অভিযোগ ওঠেছে তার সুরাহা দরকার। সংশ্লিষ্ট মন্ত্রী বলছেন, নতুন গ্যাস কূপ খনন এবং সাগরে গ্যাস অনুসন্ধান দুটোই সময় ও ব্যয় সাপেক্ষ বিষয়। তাই মেনে নেয়া গেলো যে, রাতারাতি নতুন গ্যাসের সন্ধান লাভ সম্ভব নয়। তাই বলে তো প্রচেষ্টা অব্যাহত না রাখার কোন কারণ নেই। আর সরকারি-বেসরকারি পর্যায়ে গ্যাস-বিদ্যুতের ১২ হাজার কোটি টাকা বকেয়া বিল আদায় এবং এই খাতে অনিয়ম-দুর্নীতি বন্ধে দ্রুত উদ্যোগ নিতে তো কোন বাধা থাকার কথা নয়। আমরা আবারও গ্যাসের দাম বৃদ্ধির বিষয়টির পুনঃর্বিবেচনার আহবান জানা”িছ।

 

শেয়ার করুন

Developed by: Sparkle IT