প্রথম পাতা

হতাশ হবেন না, হতাশার কথাও বলবেন না: ফখরুল

ডাক ডেস্ক প্রকাশিত হয়েছে: ২০-০৪-২০১৯ ইং ০২:৩৪:১২ | সংবাদটি ৭৯ বার পঠিত

দলের নেতা-কর্মীদের হতাশ না হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেন, বিএনপি নিঃশেষ হয়ে যায়নি। বিএনপি প্রতিটি সংকটের মুহূর্তে উঠে দাঁড়িয়েছে এবং জনগণকে সঙ্গে নিয়ে দাঁড়িয়েছে। তিনি নেতা-কর্মীদের উদ্দেশে বলেন, ‘হতাশ হবেন না, হতাশার কথাও বলবেন না।’
গতকাল শুক্রবার বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্ট বার অ্যাসোসিয়েশন মিলনায়তনে শত নাগরিক আয়োজিত 'খালেদা জিয়া তৃতীয় বিশ্বের কণ্ঠস্বর’ বইয়ের প্রকাশনা উৎসবে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এসব কথা বলেন। বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার রাজনৈতিক জীবনের ওপর এই গবেষণা গ্রন্থটি সম্পাদনা করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য এমাজউদ্দীন আহমদ ও কবি আবদুল হাই শিকদার।
বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মওদুদ আহমদ বলেছেন, যত গুঞ্জনই থাক, সংসদ সদস্য হিসেবে শপথ না নেওয়ার বিষয়ে দল আগের সিদ্ধান্তেই অটল থাকবে।
তিনি বলেন, “আমাদের ৬ জন সংসদে যাওয়ার প্রশ্নই ওঠে না। কারণ আমরা দলীয়ভাবে সিদ্ধান্ত নিয়েছি, আমাদের নির্বাচিত সদস্যরা শপথ নেবেন না।
“আমাদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানের(তারেক রহমান) সঙ্গে বসে আমরা এই সিদ্ধান্ত নিয়েছি, আমাদের স্থায়ী কমিটি নিয়েছে। সুতরাং এখান থেকে ফিরে যাওয়ার বা কেনো পরিবর্তনের প্রশ্নই ওঠে না। আজকে এখানেই এ বিষয়টার নিষ্পত্তি হয়ে যাওয়া দরকার বলে আমি মনে করি।”
দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচন বর্জন করা বিএনপি একাদশ সংসদ নির্বাচনে অংশ নিয়েছিল গণফোরাম নেতা কামাল হোসেনের সঙ্গে জোট বেঁধে- জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট গড়ে। কেন্তু শেষ পর্যন্ত তাদের ভরাডুবি হয়।
গত ৩০ ডিসেম্বর ওই নির্বাচনে মাত্র ছয়টি আসন পায় বিএনপি। গণফোরামের দুটি মিলিয়ে ঐক্যফ্রন্ট পায় মোট আটটি আসন।
নির্বাচনে ‘ভোট ডাকাতির’ অভিযোগ তুলে পুনর্নির্বাচনের দাবি তোলে তারা। নির্বাচিতরা সংসদ সদস্য হিসেবে শপথ নেবে না বলেও ঘোষণা দেওয়া হয় বিএনপি ও ঐক্যফ্রন্টের পক্ষ থেকে।
কিন্তু গণফোরামের সুলতান মনসুর ও মোকাব্বির খান দলের সিদ্ধান্ত উপেক্ষা করে এমপি হিসেবে শপথ নেওয়ায় বিএনপির নির্বাচিতরাও একই পথে হাঁটতে পারেন বলে গুঞ্জন শুরু হয়। ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের নেতারাও বিএনপিকে সংসদে আসার আহ্বান জানান।
সেই আহ্বান নাকচ করে বিএনপি নেতা মওদুদ বলেন, “আজকে তারা আমাদেরকে বলছেন, ‘আসুন আপনারা আসুন’। আমরা তো জানি তাদের ন্যাচারটা কী।”
২০০৯ সালে সংসদের প্রথম সারিতে বিএনপির দাবি অনুযায়ী নয়টি আসন না দেওয়ার প্রসঙ্গ টেনে তিনি বলেন, “আমি তখন পার্লামেন্টে দাঁড়িয়ে বলেছিলাম, এই সিট দিলে আপনাদের কী সরকারের পতন হবে? এই সংকীর্ণমনা দলের কাছ থেকে কোনো রকম সহনশীলতা, কোনো রকম রাজনৈতিক শিষ্ঠাচার আমাদের প্রত্যাশা করা উচিত নয়।”
বিএনপির স্থায়ী কমিটির আরেক সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেন, তার দৃষ্টিতে ৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচনে সংসদের ৩০০ আসনে কেউ জয়লাভ করেনি, কেউ পরাজিতও হয়নি।
“জয়-পরাজয় তো নির্ধারণ করে জনগণ। সেই জনগণ যখন শতভাগ ভোটকেন্দ্রে গিয়ে ভোট দিতে পারে নাই, সেই নির্বাচনে নির্বাচিত বলার সুযোগ নাই।”
বিএনপির নির্বাচিতদের মধ্যে কারও সংসদে যাওয়ার আগ্রহ থেকে থাকলে তাদের উদ্দেশে তিনি বলেন, “আমরা শুনি, নির্বাচিতরা বলেন, জনগণের ইচ্ছে। কিন্তু তাদের মধ্যে শুনলাম না এই কথা যে অবৈধ সরকারকে বৈধতা দিতে আমরা পার্লামেন্টে যাব না।... উঁকি-ঝুঁকি মারছে নানা চোরাগলি পথ দিয়ে নানা কথা। কোন কথা সত্য কোন কথা মিথ্যা জানি না।”
বিএনপির নেতা-কর্মীদের খালেদা জিয়ার মত ‘আপসহীন’ হওয়ার আহ্বান জানান গয়েশ্বর।
নির্বাচনে বিএনপির দুই পরাজিত প্রার্থী মওদুদ ও গয়েশ্বর সংসদে না যাওয়ার বিষয়ে জোরালো বক্তৃতা দিলেও বগুড়ায় খালেদা জিয়ার আসন থেকে নির্বাচিত দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এ বিষয়ে অনুষ্ঠানে কোনো কথা বলেননি।
এমাজউদ্দীন আহমদের সভাপতিত্বে এ অনুষ্ঠানের সঞ্চালনায় ছিলেন বিএনপির সহ-প্রচার সম্পাদক শামীমুর রহমান শামীম, শত নাগরিক কমিটির জাহাঙ্গীর আলম মিন্টু ও জাহাঙ্গীর আলম প্রধান।
অন্যদের মধ্যে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আবদুল মঈন খান, নজরুল ইসলাম খান, ভাইস চেয়ারম্যান খন্দকার মাহবুব হোসেন, গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক আনোয়ারুল্লাহ চৌধুরী, সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সম্পাদক ব্যারিস্টার মাহবুবউদ্দিন খোকন অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন।

 

শেয়ার করুন
প্রথম পাতা এর আরো সংবাদ
  • রোজায় ইনকাম একটু কম করলে কি হয়, বিআরটিসি কর্মীদের কাদের
  • কাউন্ড ডাউন ওয়ার্মআপ ম্যাচটি হলো না
  • খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে রিজভীর নেতৃত্বে মিছিল
  • খালেদা জিয়ার আদালত বদলের সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার চেয়ে রিট
  • রাষ্ট্রপতি চিকিৎসা শেষে দেশে ফিরেছেন
  •   মাত্র ২৪ দিনেই ১৩৫ কোটি ডলার রেমিটেন্স
  • প্রধানমন্ত্রী ত্রিদেশীয় সফরের উদ্দেশ্যে মঙ্গলবার ঢাকা ত্যাগ করবেন
  • আলবিদা মাহে রমজান
  • রমজান থেকে স্রষ্টার সৃষ্টির প্রতি কর্তব্য পালনের শিক্ষা নিতে হবে
  • ঈদকে সামনে রেখে সিলেটে র‌্যাবের তিন স্তরের নিরাপত্তা
  • সোনার বাংলা গড়ার জন্য সোনার মানুষ তৈরী করতে হবে
  • ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ভিপি নূরকে অনুষ্ঠানে যেতে বাধা-
  • রমজানুল মোবারক আস-সালাম
  • মাধবপুর ও শ্রীমঙ্গলে সড়কে প্রাণ গেলো ৪ জনের
  • সিলেটে জাতীয় কবির জন্মবার্ষিকী পালিত
  • সরকারের ভ্রান্ত নীতিতে কৃষকরা সঙ্কটে: ফখরুল
  • স্কুল জীবন থেকেই ট্রাফিক আইন সম্পর্কে প্রশিক্ষণ দরকার : প্রধানমন্ত্রী
  • ভারতে এবার সরকার গঠনের পালা
  •   খালেদা জিয়াকে মৃত্যুর মুখে ঠেলে দেয়া হচ্ছে
  •   সরকার এতো অমানবিক নয়
  • Developed by: Sparkle IT