প্রথম পাতা

খালেদাকে হাজির না করায় পিছিয়েছে গ্যাটকো মামলার শুনানি

ডাক ডেস্ক প্রকাশিত হয়েছে: ১৫-০৫-২০১৯ ইং ০২:৩৯:২৩ | সংবাদটি ৯১ বার পঠিত

 বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকায় গ্যাটকো দুর্নীতির মামলায় অভিযোগ গঠনের শুনানি আবার পিছিয়ে ১৮ জুন নতুন তারিখ রেখেছেন আদালত।
কেরানীগঞ্জের কেন্দ্রীয় কারাগারের সামনে নবনির্মিত দুই নম্বর ভবনে স্থাপিত অস্থায়ী এজলাসে বসে গতকাল মঙ্গলবার ঢাকার তিন নম্বর বিশেষ জজ সৈয়দ দিলজার হোসেন এই নতুন দিন ঠিক করে দেন।
খালেদার আইনজীবী জিয়াউদ্দিন জিয়া বলেন, গতকাল মঙ্গলবার এ মামলার অভিযোগ গঠন শুনানির দিন ছিল। তবে খালেদা জিয়া বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) চিকিৎসাধীন থাকায় তাকে আদালতে উপস্থিত করা হয়নি। এজন্য বিচারক মামলার শুনানি আজকের মতো মুলতবি রেখে নতুন করে দিন ধার্য করেছেন।
দুদকের উপ-পরিচালক মো. গোলাম শাহরিয়ার ২০০৭ সালের ২ সেপ্টেম্বর তেজগাঁও থানায় এ মামলা দায়ের করেন।
তদন্ত শেষে ২০০৮ সালের ১৩ মে আদালতে অভিযোগপত্র দেন দুদকের উপ-পরিচালক মো. জহিরুল হুদা। চার দলীয় জোট সরকারের নয় মন্ত্রী ও উপমন্ত্রীসহ মোট ২৪ জনকে সেখানে আসামি করা হয়।
অভিযোগপত্রে বলা হয়, আসামিরা পরস্পর যোগসাজশে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান গ্যাটকোকে ঢাকার কমলাপুর আইসিডি ও চট্টগ্রাম বন্দরের কন্টেইনার হ্যান্ডলিংয়ের কাজ পাইয়ে দিয়ে রাষ্ট্রের ১৪ কোটি ৫৬ লাখ ৩৭ হাজার ৬১৬ টাকার ক্ষতি করেছেন।
আসামিদের মধ্যে সাবেক মন্ত্রী এম সাইফুর রহমান, এম শামছুল ইসলাম, এমকে আনোয়ার, আকবর হোসেন, আব্দুল মান্নান ভুইয়া এবং খালেদা জিয়ার ছোট ছেলে আরাফাত রাহমান কোকো মারা গেছেন।
আর একাত্তরের যুদ্ধাপরাধের দায়ে জামায়াত নেতা মতিউর রহমান নিজামীর মৃত্যুদ- কার্যকর করা হয়েছে।
মামলার অপর আসামিরা হলেন আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের সাবেক চেয়ারম্যান কমোডর জুলফিকার আলী, আকবর হোসেনের স্ত্রী জাহানারা আকবর, দুই ছেলে ইসমাইল হোসেন সায়মন এবং একেএম মুসা কাজল, এহসান ইউসুফ, প্রাক্তন নৌ সচিব জুলফিকার হায়দার চৌধুরী, চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের প্রাক্তন সদস্য একে রশিদ উদ্দিন আহমেদ, গে¬াবাল এগ্রোট্রেড প্রাইভেট লি. (গ্যাটকো) এর পরিচালক শাহজাহান এম হাসিব, প্রাক্তন মন্ত্রী খন্দকার মোশাররফ হোসেন ও প্রাক্তন জ্বালানি প্রতিমন্ত্রী একেএম মোশাররফ হোসেন।
বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া দুর্নীতির দুই মামলায় ১০ ও সাত বছরের কারাদ-ে দ-িত হয়ে কারাগারে রয়েছেন।
২০১৮ সালের ৮ ফেব্রুয়ারি জিয়া এতিমখানা ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার রায় ঘোষণার পর পুরান ঢাকার নাজিমউদ্দিন রোডের পুরনো কেন্দ্রীয় কারাগারে রাখা হয়েছে খালেদা জিয়াকে। বর্তমানে বিএসএমএমইউ চিকিৎসাধীন।

 

শেয়ার করুন
প্রথম পাতা এর আরো সংবাদ
  • বন্যার পানি কমতে শুরু করেছে
  • হযরত শাহজালাল (রঃ) ৭০০তম ওরস ২৩ ও ২৪ জুলাই
  • বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত সাড়ে ৩ লাখ মানুষ
  • রংপুরের পল্লী নিবাসে চিরনিদ্রায় শায়িত এরশাদ
  • খালেদা জিয়ার মুক্তি ও দেশে পুননির্বাচিনের দাবি
  • মিন্নিকে গ্রেফতার দেখালো পুলিশ
  • প্রধানমন্ত্রী ‘বেনাপোল এক্সপ্রেস’ ট্রেনের উদ্বোধন করবেন আজ
  • রেলের ঈদটিকেট ২৯ জুলাই থেকে
  • এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষার ফল আজ
  • সিলেটের দু’টি পৌরসভাসহ ৭২ ইউনিয়নে বন্যা
  • ক্ষমতার অপব্যবহার না করার জন্য ডিসিদের প্রতি রাষ্ট্রপতির আহ্বান
  • ঢাকায় এরশাদের জানাজা-শ্রদ্ধা রংপুরের নেতাদের হুঁশিয়ারি
  • জাপার প্রস্তাবে সায় দেয়নি সরকার
  • সিরাজগঞ্জে ট্রেন ও মাইক্রোবাস সংঘর্ষে বর-কনেসহ নিহত ৯
  • বন্যায় প্লাবিত নগরীর বিভিন্ন এলাকা
  • সিলেটে জাতীয় মুক্তিমঞ্চের মতবিনিময় ও সুধী সমাবেশ আজ
  • বন্যার কবলে নেপাল, ভারত, বাংলাদেশ, বহু লোকের মৃত্যু
  • সুনামগঞ্জে বজ্রপাতে মৃত্যু থামছে না
  • কুমিল্লায় আদালত কক্ষে আসামির ছুরিকাঘাতে আরেক আসামি নিহত
  • সাতটি আবাসন প্রকল্পের উদ্বোধন প্রধানমন্ত্রীর
  • Developed by: Sparkle IT