প্রথম পাতা ওসিসহ আহত অর্ধশত

ছাতকে দু’পক্ষের গোলাগুলিতে প্রাণ গেলো ভ্যান চালকের

ছাতক (সুনামগঞ্জ) থেকে নিজস্ব সংবাদদাতা প্রকাশিত হয়েছে: ১৫-০৫-২০১৯ ইং ০২:৪৪:৩৯ | সংবাদটি ৩৩১ বার পঠিত

ছাতকে নৌপথে চাঁদা আদায়কে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে শাহাব উদ্দিন (৪৫) নামের একজনের মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় ছাতক থানার ওসি মোস্তফা কামালসহ অন্তত ৩০ জন আহত হয়েছেন। রাতে পুলিশ অভিযান চালিয়ে ২০ জনকে আটক করেছে। সুনামগঞ্জের পুলিশ সুপার বরকত উল্যাহ খান হতাহতের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। রাত ২টায় ঘটনাস্থলের উদ্দেশ্যে রওয়ানা হন সুনামগঞ্জের পুলিশ সুপার বরকত উল্যাহ খান।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, গতকাল মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে ছাতক হাই স্কুল এলাকায় দুই পক্ষ আগ্নেয়াস্ত্রসহ দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। উভয় পক্ষের ব্যাপক সংঘর্ষে এলাকা রণক্ষেত্রে পরিণত হয়। খবর পেয়ে ছাতক থানা পুলিশ ঘটনা স্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে বেশ কয়েক রাউন্ড ফাঁকা গুলি ও টিয়ারশেল নিক্ষেপ করে। এক পর্যায়ে ওসি মোস্তফা কামাল গুলিবিদ্ধ হন। তাকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণের পরামর্শ দেয়া হয়েছে। পরে অতিরিক্ত পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়েন্ত্রণে আনে।
সংঘর্ষে একজন নিহত এবং ওসি, ৬ পুলিশসহ ৩০ জন আহত হয়েছেন বলে স্থানীয়ভাবে জানা গেছে। নিহত শাহাবউদ্দিন (৪৫) ছাতক বাগবাড়ি এলাকার আব্দুস সুবহানের ছেলে। তিনি পেশায় ভ্যান চালক।
ঘটনার পর এলাকায় থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। এদিকে, জড়িতদের গ্রেফতারে পুলিশ ব্যাপক অভিযান শুরু করেছে। রাতে ২০ জনকে আটক করা হয়েছে বলে পুলিশ সূত্র জানিয়েছে।
জানা যায়, ছাতকে নৌপথে নির্ধারিত চাঁদার পাশাপাশি নামে-বেনামে অতিরিক্ত চাঁদা আদায়ের বিরুদ্ধে ব্যবসায়ীরা প্রতিবাদ জানিয়ে আসছিলেন। বিষয়টি নিয়ে ব্যবসায়ী ও চাঁদা আদায়কারীদের মধ্যে দীর্ঘদিন থেকে বিরোধ চলে আসছে। কয়েকদিন পূর্বে ব্যবসায়ীরা এ ব্যাপারে স্থানীয় সংসদ সদস্য ও ইউএনও-এর সাথে দেখা করে এ ব্যাপারে ব্যবস্থা নেয়ার দাবি জানান। এই বিরোধের জের ধরে গতকাল মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৮টায় উভয় পক্ষ অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। উভয় পক্ষের মধ্যে গোলাগুলির ঘটনা ঘটে। এ সময় ছাতক হাই স্কুল থেকে মাদরাসা সংলগ্ন এলাকা রণক্ষেত্রে পরিণত হয়। খবর পেয়ে ছাতক থানার ওসি মোস্তফা কামালের নেতৃত্বে একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করে। পুলিশ বেশ কয়েক রাউন্ড গুলি ও টিয়ারশেল নিক্ষেপ করে। সংঘর্ষের এক পর্যায়ে ওসি মোস্তফা কামাল পায়ে গুলিবিদ্ধ হন। তাকে ছাতক উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হলে চিকিৎসক ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে যাওয়ার পরামর্শ দেন। সংঘর্ষ ব্যাপক আকার ধারণ করলে অতিরিক্ত পুলিশ ও দাঙ্গা পুলিশ ঘটনাস্থলে আসে। প্রায় দেড় ঘণ্টা সংঘর্ষ চলার পর রাত ১০টার দিকে পরিস্থিতি শান্ত হয়। পরিস্থিতি শান্ত থাকলেও এলাকায় থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে।
ওসি ছাড়াও আহত এসএই আব্দুল মান্নান, কনস্টেবল কামরুল ইসলাম, সজিব আহমদ, ইমরান আহমদ, তোফাজ্জল হোসেন, সাকিব হোসাইনকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্রো চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।
এদিকে, সংঘর্ষে গুরুতর আহত ফরহাদ চৌধুরী, আবুল খায়ের, সোহাগ দাস, কামরুল হোসেন সাজু, শিবলু মিয়া ও শাহাবউদ্দিনকে ওসমানী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শাহাবউদ্দিন মারা যান। পুলিশ সাহসী ও দ্রুত ব্যবস্থা না নিলে পরিস্থিতি আরো ভয়াবহ আকার ধারণ করতো বলে জানান স্থানীয়রা। এদিকে, ঘটনার পর এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। ঘটনার সাথে জড়িতদের ধরতে পুলিশের ব্যাপক অভিযান চলছে। ইতিমধ্যে ২০জনকে আটক করা হয়েছে।
সুনামগঞ্জের পুলিশ সুপার বরকত উল্লাহ খান বলেন, পরিস্থিতি এখন সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। এ ঘটনার সাথে জড়িত কাউকে ছাড় দেয়া হবে না। অপরাধীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানান তিনি।

 

শেয়ার করুন
প্রথম পাতা এর আরো সংবাদ
  • সিলেট শহর-শহরতলীর জন্য ফিতরা সর্বনিম্ন ৫৫ ও সর্বোচ্চ ১১৫০ টাকা
  • ৫ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা
  • ফেঞ্চুগঞ্জে পানিতে ডুবে দুই শিশুর মৃত্যু
  • পাকিস্তানিদের ভিসা প্রদান বন্ধের খবর প্রত্যাখ্যান করেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী
  • বিচারাধীন বিষয়ে সংবাদ প্রকাশে সুপ্রিমকোর্টের জারীকৃত বিজ্ঞপ্তি স্পষ্টীকরণ
  • রমজানুল মোবারক আস-সালাম
  • সিলেট রুটে এবারও নেই স্পেশাল ট্রেন
  • পেশাজীবীদের সম্মানে প্রধানমন্ত্রীর ইফতার
  • সিলেটের রুবেলসহ উদ্ধার হওয়া ১৫ জন দেশে ফিরলেন
  • অসুস্থ মানুষের পাশে থাকাও রমজানের অন্যতম শিক্ষা ------- দানবীর ড. রাগীব আলী
  • রমজানের ত্যাগের শিক্ষাকে কাজে লাগিয়ে সোনার বাংলাদেশ গড়তে হবে ----------এড. মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ
  • লুটপাটের উন্নয়নের কথা শুনতে শুনতে জনগণ অতিষ্ঠ: রিজভী
  • ঋণ খেলাপিদের বিশেষ সুযোগ আটকে গেল হাই কোর্টে
  • সিলেট বিভাগে ২৫ লাখ ৪৯ হাজার ৯৩৭ মেট্রিক টন ধান উৎপাদন
  • রমজানুল মোবারক আস-সালাম
  • বোমা মেশিনের তান্ডবে ধ্বংসের পথে ভোলাগঞ্জ রোপওয়ের সংরক্ষিত এলাকা
  • ফলের বাজার মনিটরিং কমিটি গঠন করতে হাই কোর্টের নির্দেশ
  • ‘মা আমরা দেশও আইররাম’
  • আটকে গেল কেটলি বালিশ ফ্রিজ তোলার সব বিল
  • বিএনপির নারী সাংসদ হচ্ছেন রুমিন ফারহানা
  • Developed by: Sparkle IT