প্রথম পাতা ওসিসহ আহত অর্ধশত

ছাতকে দু’পক্ষের গোলাগুলিতে প্রাণ গেলো ভ্যান চালকের

ছাতক (সুনামগঞ্জ) থেকে নিজস্ব সংবাদদাতা প্রকাশিত হয়েছে: ১৫-০৫-২০১৯ ইং ০২:৪৪:৩৯ | সংবাদটি ৪৪৬ বার পঠিত

ছাতকে নৌপথে চাঁদা আদায়কে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে শাহাব উদ্দিন (৪৫) নামের একজনের মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় ছাতক থানার ওসি মোস্তফা কামালসহ অন্তত ৩০ জন আহত হয়েছেন। রাতে পুলিশ অভিযান চালিয়ে ২০ জনকে আটক করেছে। সুনামগঞ্জের পুলিশ সুপার বরকত উল্যাহ খান হতাহতের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। রাত ২টায় ঘটনাস্থলের উদ্দেশ্যে রওয়ানা হন সুনামগঞ্জের পুলিশ সুপার বরকত উল্যাহ খান।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, গতকাল মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে ছাতক হাই স্কুল এলাকায় দুই পক্ষ আগ্নেয়াস্ত্রসহ দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। উভয় পক্ষের ব্যাপক সংঘর্ষে এলাকা রণক্ষেত্রে পরিণত হয়। খবর পেয়ে ছাতক থানা পুলিশ ঘটনা স্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে বেশ কয়েক রাউন্ড ফাঁকা গুলি ও টিয়ারশেল নিক্ষেপ করে। এক পর্যায়ে ওসি মোস্তফা কামাল গুলিবিদ্ধ হন। তাকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণের পরামর্শ দেয়া হয়েছে। পরে অতিরিক্ত পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়েন্ত্রণে আনে।
সংঘর্ষে একজন নিহত এবং ওসি, ৬ পুলিশসহ ৩০ জন আহত হয়েছেন বলে স্থানীয়ভাবে জানা গেছে। নিহত শাহাবউদ্দিন (৪৫) ছাতক বাগবাড়ি এলাকার আব্দুস সুবহানের ছেলে। তিনি পেশায় ভ্যান চালক।
ঘটনার পর এলাকায় থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। এদিকে, জড়িতদের গ্রেফতারে পুলিশ ব্যাপক অভিযান শুরু করেছে। রাতে ২০ জনকে আটক করা হয়েছে বলে পুলিশ সূত্র জানিয়েছে।
জানা যায়, ছাতকে নৌপথে নির্ধারিত চাঁদার পাশাপাশি নামে-বেনামে অতিরিক্ত চাঁদা আদায়ের বিরুদ্ধে ব্যবসায়ীরা প্রতিবাদ জানিয়ে আসছিলেন। বিষয়টি নিয়ে ব্যবসায়ী ও চাঁদা আদায়কারীদের মধ্যে দীর্ঘদিন থেকে বিরোধ চলে আসছে। কয়েকদিন পূর্বে ব্যবসায়ীরা এ ব্যাপারে স্থানীয় সংসদ সদস্য ও ইউএনও-এর সাথে দেখা করে এ ব্যাপারে ব্যবস্থা নেয়ার দাবি জানান। এই বিরোধের জের ধরে গতকাল মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৮টায় উভয় পক্ষ অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। উভয় পক্ষের মধ্যে গোলাগুলির ঘটনা ঘটে। এ সময় ছাতক হাই স্কুল থেকে মাদরাসা সংলগ্ন এলাকা রণক্ষেত্রে পরিণত হয়। খবর পেয়ে ছাতক থানার ওসি মোস্তফা কামালের নেতৃত্বে একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করে। পুলিশ বেশ কয়েক রাউন্ড গুলি ও টিয়ারশেল নিক্ষেপ করে। সংঘর্ষের এক পর্যায়ে ওসি মোস্তফা কামাল পায়ে গুলিবিদ্ধ হন। তাকে ছাতক উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হলে চিকিৎসক ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে যাওয়ার পরামর্শ দেন। সংঘর্ষ ব্যাপক আকার ধারণ করলে অতিরিক্ত পুলিশ ও দাঙ্গা পুলিশ ঘটনাস্থলে আসে। প্রায় দেড় ঘণ্টা সংঘর্ষ চলার পর রাত ১০টার দিকে পরিস্থিতি শান্ত হয়। পরিস্থিতি শান্ত থাকলেও এলাকায় থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে।
ওসি ছাড়াও আহত এসএই আব্দুল মান্নান, কনস্টেবল কামরুল ইসলাম, সজিব আহমদ, ইমরান আহমদ, তোফাজ্জল হোসেন, সাকিব হোসাইনকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্রো চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।
এদিকে, সংঘর্ষে গুরুতর আহত ফরহাদ চৌধুরী, আবুল খায়ের, সোহাগ দাস, কামরুল হোসেন সাজু, শিবলু মিয়া ও শাহাবউদ্দিনকে ওসমানী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শাহাবউদ্দিন মারা যান। পুলিশ সাহসী ও দ্রুত ব্যবস্থা না নিলে পরিস্থিতি আরো ভয়াবহ আকার ধারণ করতো বলে জানান স্থানীয়রা। এদিকে, ঘটনার পর এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। ঘটনার সাথে জড়িতদের ধরতে পুলিশের ব্যাপক অভিযান চলছে। ইতিমধ্যে ২০জনকে আটক করা হয়েছে।
সুনামগঞ্জের পুলিশ সুপার বরকত উল্লাহ খান বলেন, পরিস্থিতি এখন সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। এ ঘটনার সাথে জড়িত কাউকে ছাড় দেয়া হবে না। অপরাধীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানান তিনি।

 

শেয়ার করুন
প্রথম পাতা এর আরো সংবাদ
  • নিকাহনামার ক্ষেত্রে বৈষম্য ঘুচলো
  • শুল্কমুক্ত গাড়ি সুবিধা মুহিতের সুনামের সঙ্গে মানানসই হবে না: টিআইবি
  • সরকার প্লট দিলে ‘চিরকৃতজ্ঞ’ থাকবেন রুমিন
  • শুল্কমুক্ত গাড়ি সুবিধা মুহিতের সুনামের সঙ্গে মানানসই হবে না: টিআইবি
  • রাজনীতিতে এক এগারোর ধারা চলছে: ফখরুল
  • নাগরিকত্ব দিলে একসঙ্গে মিয়ানমারে ফিরব, ঘোষণা রোহিঙ্গাদের
  • বিদেশ যেতে ইচ্ছুকদের সাথে প্রতারণা ঠেকাতে নজরদারি জোরদারের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর
  • কৃষি আমাদের অর্থনীতির মূল চালিকাশক্তি
  • সিসিকের ৭৮৯ কোটি টাকার বাজেট ঘোষণা
  • আজ থেকে সিকৃবিতে ‘সাসটেইনেবল ফিসারিজ’ শীর্ষক আন্তর্জাতিক সম্মেলন
  • বড়লেখা সীমান্তে বিএসএফের গুলিতে ১ বাংলাদেশী নিহত
  • জাউয়ায় প্রতিপক্ষের ছুরিকাঘাতে স্কুল ছাত্র নিহত, খুনী আটক
  • সিসিক-এর বাজেট ঘোষণা আজ
  • বনরক্ষায় গাছ চুরি প্রতিরোধে প্রয়োজনে জিরো টলারেন্স গ্রহণ করা হবে : বনমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গাদের নিজ দেশে প্রত্যাবর্তনই উত্তম পন্থা
  • রোহিঙ্গাদের নিজ দেশে ফেরত পাঠাতে যুক্তরাষ্ট্র সবই করবে: মিলার
  • পাচারের ৩৩ ঘটনায় ৫১টি বাঘ বাংলাদেশের : জরিপ
  • মনে রাখতে হবে মিয়ানমারেরও শক্তিশালী বন্ধু আছে: কাদের
  • সবার জন্য কর্মসংস্থান নিশ্চিতে কাজ করছে সরকার....... পররাষ্ট্রমন্ত্রী
  • আজ কুমিল্লার দেবিদ্বারে অধ্যাপক মোজাফফরের দাফন
  • Developed by: Sparkle IT