শেষের পাতা

বাণিজ্য সংক্রান্ত চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় ডব্লিউটিও-র সাহায্য চায় বাংলাদেশ

ডাক ডেস্ক প্রকাশিত হয়েছে: ১৫-০৫-২০১৯ ইং ০২:৪৭:৫২ | সংবাদটি ১৫০ বার পঠিত

বাংলাদেশ একটি নি¤œমধ্যম দেশ থেকে মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত হওয়ার পর বাণিজ্য সংক্রান্ত যেসব চ্যালেঞ্জের মুখে পড়তে পারে, তা মোকাবেলায় ঢাকা বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থার (ডব্লিউটিও) সহায়তা কামনা করেছে।
গতকাল মঙ্গলবার দিল্লীতে বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুন্সি বলেন, গত ২০০৪ সালের সাধারণ সভায় ৫৯/২০৯ ভোটে যে রেজুলেশন গৃহীত হয়েছিল তার আলোকে মধ্যম আয়ের দেশের স্বীকৃতি লাভের পর যেসব চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করতে হবে ডব্লিউটিও-র তা নির্ধারণ করা প্রয়োজন।
বাণিজ্য মন্ত্রীদের এক বৈঠকে টিপু মুন্সি উল্লেখ করেন, ডব্লিউটিও-র সঙ্গে যেকোন সিদ্ধান্ত, বিধান এবং সমঝোতা চুক্তি উন্নয়নশীল ও স্বল্প উন্নত দেশগুলোর ক্রমবর্ধমান বাণিজ্য সুযোগ বৃদ্ধির আলোকে হওয়া উচিৎ।
তিনি এসময় সিদ্ধান্ত গ্রহণের প্রক্রিয়া স্বচ্ছ, উন্মুক্ত এবং অন্তর্ভুক্তিমূলক নিশ্চিতের ওপর গুরুত্বারোপ করে বলেন, নিকটতম অতীতে ডব্লিউটিও-র সিদ্ধান্ত গ্রহণ প্রক্রিয়া স্বচ্ছ ছিল না এবং এটি ডব্লিউটিও-র সকল সদস্য দেশ বিশেষত উন্নয়নশীল দেশ সমূহের পূর্ণাঙ্গ অংশগ্রহণ সমর্থন করে না।
ভারতের বাণিজ্য মন্ত্রী সুরেশ প্রভুর সভাপতিত্বে বিভিন্ন দেশের বাণিজ্য মন্ত্রী ও ভাইস-মিনিস্টারবৃন্দ এ সময় বক্তব্য তুলে ধরেন। গতকাল জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা পর্যায়ে বৈঠকের মধ্যদিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে সম্মেলন শুরু হয়।
বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুন্সি বাংলাদেশের চার সদস্যের প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দিচ্ছেন। প্রতিনিধি দলের অন্য সদস্যরা হলেন, ডব্লিউটিও-র বাংলাদেশের মহাপরিচালক মুনির চৌধুরী, ট্যারিফ কমিশনের সদস্য ড. মোস্তফা আবিদ এবং ডব্লিউটিও-র বাংলাদেশের উপপরিচালক মো. খলিলুর রহমান।
বাণিজ্যমন্ত্রী বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দূরদর্শী নেতৃত্বে বাংলাদেশ অর্থনীতিতে অবিষ্মরণীয় প্রবৃদ্ধি অর্জন করেছে এবং স্বল্প উন্নত দেশ থেকে যে মধ্যম আয়ের দেশে উন্নীত হয়েছে তা তুলে ধরেন।
আপিল বিভাগের বিরোধ নিষ্পত্তি সংক্রান্ত রেজুলেশন অনুমোদনের কথা উল্লেখ করে টিপু মুন্সি বলেন, বহুমুখী বাণিজ্য ব্যবস্থায় সমর্থক হিসেবে বাংলাদেশ ডব্লিউটিও-কে বিরোধ নিষ্পত্তির ভিত্তি হিসেবে মনে করে, যদিও বাংলাদেশ এখনও কোনো বিরোধে জড়ায়নি।
তিনি এ সময় অবিলম্বে আপিল বিভাগের খালি পদ পূরণে রাজনৈতিক পর্যায়সহ সকল পর্যায়ের গঠনমূলকভাবে সম্পৃক্ত থাকার প্রয়োজনীয়তা উল্লেখ করেন। এ ব্যাপারে তিনি ডব্লিউটিও সদস্য দেশগুলোর মাঝে নীতিমালা সংরক্ষণে একটি চুক্তির আহ্বান জানান।
ডব্লিউটিও-র ২২ টি উন্নয়নশীল ও স্বল্পোউন্নত সদস্য রাষ্ট্রের বাণিজ্যমন্ত্রী ও ভাইস মিনিস্টাররা দুই দিনের এই বৈঠকে অংশগ্রহণ করেন।
দেশগুলো হলো, আর্জেন্টিনা, বাংলাদেশ, বার্বাডোজ, বেনিন, ব্রাজিল, মধ্য আফ্রিকা প্রজাতন্ত্র, চাদ, চীন, মিশর, গুয়েতেমালা, ঘানা, ইন্দোনেশিয়া, জামাইকা, কাজাকিস্তান, মালাউই, মালয়েশিয়া, নাইজেরিয়া, ওমান, সৌদিআরব, দক্ষিণ আফ্রিকা, তুরস্ক এবং উগান্ডা।

 

শেয়ার করুন
শেষের পাতা এর আরো সংবাদ
  • রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় সমাহিত অধ্যাপক মোজাফফর
  • ভিডিও ভাইরাল : জামালপুরের ডিসি ওএসডি, তদন্ত কমিটি
  • বিশ্বাসঘাতকতা করে জিয়া নিজেও বিশ্বাসঘাতকতার শিকার হয়েছেন : ওবায়দুল কাদের
  • কোম্পানীগঞ্জে ইউপি চেয়ারম্যানের বাড়িতে হামলা-ভাংচুর ও লুটপাটের অভিযোগ
  • সিলেটসহ সাত জেলায় চুরি-ডাকাতিতে জড়িত আন্তবিভাগীয় চক্রের ১১ সদস্য গ্রেফতার
  • বড়লেখায় বিএসএফের গুলিতে নিহত বাংলাদেশীর লাশ হস্তান্তর
  • বিয়ানীবাজারে মাইক্রোবাস চুরিকালে একজন আটক সিএনজি চুরি ॥ থানায় জিডি
  • র‌্যাবের পৃথক অভিযান অস্ত্র ব্যবসায়ী ও জুয়াড়িসহ ১৬জন গ্রেফতার
  • কমলগঞ্জ-মৌলভীবাজার সড়ক গর্ত ভরা পানি আর খানাখন্দে মরণফাঁদ
  • নগরীতে ট্রাফিক ব্যবস্থাপনা নিয়ন্ত্রণসহ সচেতনতা বৃদ্ধিমূলক কার্যক্রম
  • গোলাপগঞ্জে ভূমি জালিয়াতির মামলায় সাবেক সাবেক চেয়ারম্যানসহ ৫ জন জেল হাজতে
  • লন্ডনে সন্ত্রাসী হামলায় সিলেটের প্রবাসী আহত
  • ১৩০ কোটি টাকা ব্যয়ে ৫২ কলেজে নির্মিত হচ্ছে একাডেমিক ভবন
  • বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ছিলেন আধুনিক বাংলার স্বপ্নদ্রষ্টা
  • বাদাঘাটের চেঙ্গেরখাল নদীতে নৌকা বাইচ অনুষ্ঠিত
  • ছবি
  • হুমকির মুখে সিলেট তামাবিল মহাসড়ক
  • পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষায় গাছের গুরুত্ব অপরিসীম ---নুরুল ইসলাম নাহিদ এমপি
  • অর্থনৈতিক উন্নয়নে কৃষি সেক্টরের ভূমিকা অপরিসীম ----- সচিব সনৎ কুমার সাহা
  • জাসদ’র গণজাগরণ দিবস পালন
  • Developed by: Sparkle IT