প্রথম পাতা ঈদের অগ্রিম টিকেট বিক্রি শুরু আজ

সিলেট রুটে এবারও নেই স্পেশাল ট্রেন

এনামুল হক রেনু প্রকাশিত হয়েছে: ২২-০৫-২০১৯ ইং ০২:২০:১৪ | সংবাদটি ১৬৭ বার পঠিত

 

ঈদের অগ্রিম টিকেট আজ বুধবার থেকে বিক্রি শুরু করবে বাংলাদেশ রেলওয়ে। তবে, প্রতিবারের মতো এ ঈদেও সিলেট রুটে স্পেশাল কোন ট্রেনের ব্যবস্থা রাখা হয়নি। রাখা হয়নি অতিরিক্ত টিকেটের ব্যবস্থাও। এ অবস্থায় ঘরমুখো লোকজন রয়েছে উদ্বেগ-উৎকণ্ঠায়।
রেল সূত্রে জানা গেছে, ট্রেনের টিকেট বিক্রি শুরুর প্রথমদিনে আজ ২২ মে দেয়া হবে ৩১ মে’র টিকেট। এছাড়া, ২৩ মে দেয়া হবে ১ জুনের টিকিট, ২৪ মে দেয়া হবে ২ জুনের টিকিট, ২৫ মে দেয়া হবে ৩ জুনের টিকেট এবং ২৬ মে দেয়া হবে ৪ জুনের টিকিট। ফেরত যাত্রীদের জন্য ২৯ মে দেয়া হবে ৭ জুনের টিকেট, একইভাবে ৩০ ও ৩১ মে এবং ১ ও ২ জুন দেয়া হবে যথাক্রমে ৮, ৯, ১০ ও ১১ জুনের টিকেট। আসন্ন ঈদুল ফিতরে প্রতিদিন ৭০ থেকে ৭২ হাজার টিকিট বিক্রি করবে বাংলাদেশ রেলওয়ে। সেই হিসেবে ঈদের ৫ দিনে ৩ লাখ ৫০ হাজার যাত্রীকে সেবা দেবে রেলওয়ে।
রেল সূত্র জানায়, ৯৬টি আন্তঃনগর ট্রেনের পাশাপাশি ৮ জোড়া বিশেষ ট্রেন এসব ঘরমুখো যাত্রীদের বাড়ি পৌঁছে দেবে। তবে, সিলেট রুটের যাত্রীরা এ সুবিধা থেকে এবারও বঞ্চিত।
এদিকে, সিলেট-ঢাকা রুটে চারটি আন্তঃনগর (কালনী, জয়ন্তিকা, পারাবত, উপবন) ও চট্টগ্রাম রুটে দু’টি আন্তঃনগর ট্রেন (উদয়ন ও পাহাড়িকা) চলাচল করে। ২০১৪ সালে সিলেট-ঢাকা রুটে ১৪টি কোচ নিয়ে যাত্রা শুরু করে কালনী এক্সপ্রেস। গত বছর পর্যন্ত ৪টি কোচ নিয়ে যাত্রী পরিবহন করে কালনী। অবশ্য, এ বছর থেকে ১১টি কোচ নিয়ে চলাচল করছে। তবে, এই ট্রেনে নেই কোনো কেবিন বা এসি বগি। এছাড়া, ঢাকা ও চট্টগ্রাম রুটে চলাচলকারী অন্য আন্ত:নগর ট্রেনগুলোতে কোচ সংকুচিত করা হলেও বর্তমান রেলমন্ত্রীর হস্তক্ষেপে সবগুলোতেই ১৬টি কোচ নিয়ে চলাচল করছে এবং পারাবতে দু’টি করে এসি ও কেবিন, জয়ন্তিকায় একটি এসি ও তিনটি কেবিন, উপবনে একটি এসি ও দু’টি কেবিন সংযুক্ত রয়েছে বলে দাবি করছে সিলেট রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ।
যাত্রীরা অভিযোগ করছেন, ছয়টি আন্তঃনগর ট্রেনের মধ্যে পারাবত ছাড়া পাঁচটিরই জীর্ণদশা। সিট-দরজা ভাঙা, ফ্যান চলে না, লাইট জ্বলে না। বাথরুমের অবস্থাও করুণ। এমন দুরাবস্থা যাত্রীদের সেবায় রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ উদাসীনতাই প্রমাণ। এতো বঞ্চনা সত্ত্বেও সিলেট রুটে ট্রেনে ভ্রমণই নিরাপদ মনে করছেন যাত্রীরা।
তারা বলছেন, প্রতিবছরই ঈদ আসলেই রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ পশ্চিমাঞ্চল ও পূর্বাঞ্চলের চট্টগ্রাম রুটে যাত্রীদের সুবিধায় বিশেষ ট্রেনের ব্যবস্থা করা হয়। প্রতিবারই এ সুবিধা বঞ্চিত সিলেটের যাত্রীরা। এমনকি চলাচলকারী ট্রেনগুলোতেও নতুন বগি সংযোজন করা হয়নি এবারের ঈদে। কাউন্টারে টিকেট পাওয়া না গেলেও কালোবাজারিদের হাতে টিকেটের অভাব নেই। এসব কারণে চরম বিড়ম্বনায় পড়তে হচ্ছে বাড়ি ফেরা মানুষকে।
সাধারণ যাত্রীদের অভিযোগ, ঢাকাগামী আন্তঃনগর ট্রেন জয়ন্তিকা, উপবন, কালনী, পারাবত ট্রেন ও চট্টগ্রামগামী আন্তঃনগর উদয়ন, পাহাড়িকা ট্রেনের টিকেট সংগ্রহ করতে আগের নিয়মে তিনদিন আগে কাউন্টারে যোগাযোগ করে কিছু টিকিট পেতেন যাত্রীরা। অথচ বর্তমানে ১০দিন আগে টিকিট বিক্রির নিয়ম চালু থাকায় কাউন্টারে এখন আর টিকেটই পাওয়া যাচ্ছে না। যোগাযোগ করলে কাউন্টারে বলা হয়, টিকিট শেষ, সব বিক্রি হয়ে গেছে। এসব টিকিট আগে ভাগে কিনে নেন মুখচেনা কালোবাজারি চক্রের সদস্যরা। পরবর্তীতে তাদের কাছ থেকেই এসব টিকেট বেশি দামে কিনতে বাধ্য হন যাত্রীরা।
যাত্রীদের অভিযোগ, কাউন্টারে আসলে বলা হয় ‘সিট নেই’ স্ট্যান্ডিং টিকেট নিতে পারবেন। বিরক্ত হয়ে অনেকে বাসে যাত্রা করেন। কেউ কেউ বাধ্য হয়ে স্ট্যান্ডিং টিকেট নিয়ে ট্রেনেই যাত্রা করেন। এ ছাড়া ভিআইপি কোটা দেখিয়ে সিট আটক করে অতিরিক্ত টাকা পেলে ছেড়ে দেয়া হয় বলেও অভিযোগ যাত্রীদের।
এ ব্যাপারে সিলেট রেলওয়ে স্টেশন ম্যানেজার কাজী শহিদুর রহমান বলেন, আরামদায়ক ভ্রমণ হিসেবে বাংলাদেশ রেলওয়েতে ভ্রমণে যাত্রীদের চাহিদা রয়েছে। সিলেট রুটে বিশেষ ট্রেন চালু না থাকলেও বগি বাড়ালে আরও ভালো হতো। এতে করে যাত্রীরা সুবিধা ভোগ করতে পারতেন। তবে, বগি বরাদ্দের জন্য কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে। চাহিদা বেশী থাকলে শেষ মুহূর্তে বগি সংযোজন হতে পারে।
তিনি ভিআইপিদের জন্য টিকেট সংরক্ষণে রাখলেও কালোবাজারি মারফত বিক্রির বিষয়টি অস্বীকার করে বলেন, এবার ঈদে কোন কালোবাজারির হাতে টিকেট যাবে না। অ্যাপস, অনলাইন ও কোটা ছাড়াও যে সব টিকেট থাকবে সেগুলোও পর্যাপ্ত। যতক্ষণ কাউন্টারে টিকেট থাকবে সেগুলো বিক্রি হবে। কালোবাজারি ঠেকাতে আইনশৃংখলা বাহিনী কঠোর অবস্থানে থাকবে।
তিনি জানান, ট্রেন আধুনিকায়নের কাজ শুরু হয়েছে। সিলেট রুটে চলাচলকারী ট্রেনগুলোর কোন বগি জরাজীর্ণ থাকবে না। কিছুদিনের মধ্যে প্রতিটি ট্রেনেই নতুন বগি সংযোজিত হবে।

 

শেয়ার করুন
প্রথম পাতা এর আরো সংবাদ
  • ছাত্রলীগের নেতৃত্বে জয়-লেখক
  • সিলেট বিভাগে ভাষা আন্দোলন ও মুক্তিযুদ্ধের ম্যুরাল নির্মাণের কাজ এগিয়ে চলছে
  • জনগণের আস্থা সমুন্নত রাখুন
  • আওয়ামী লীগের জাতীয় সম্মেলন ডিসেম্বরে
  • নবম ওয়েজ বোর্ডের গেজেট প্রকাশ
  • বরমচাল রেল দুর্ঘটনায় হাইকোর্টের রুল জারি
  • সিলেট মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হবে বিশ্বমানের প্রতিষ্ঠান -----------উপাচার্য ডা. মোর্শেদ আহমেদ
  • মৌলভীবাজারে শ্রদ্ধা ও ভালোবাসায় সৈয়দ মহসিন আলীকে স্মরণ
  • সিলেটে মাজার জিয়ারতের মাধ্যমে নির্বাচনী কার্যক্রম শুরু করলেন সাদ এরশাদ
  • ষড়যন্ত্রকারীদের রুখতে স্বেচ্ছাসেবক লীগকে সোচ্চার হতে হবে: নির্মল চন্দ্র গুহ
  • কোম্পানীগঞ্জের উৎমা সীমান্তে খাসিয়ার গুলিতে বাংলাদেশির মৃত্যু
  • তালতলায় নির্মাণাধীন ভবনের ইট পড়ে শ্রমিকের মৃত্যুর অভিযোগ
  • আফিফের ব্যাটে হারের বৃত্ত ভাঙল বাংলাদেশ
  • ঢাকা-সিলেট মহাসড়কসহ বিভিন্ন উন্নয়নে সহায়তা দেবে এডিবি
  • ড্রিমলাইনার ‘রাজহংস’ আজ আসছে
  • একমাস ধরে সবজিসহ নিত্যপণ্যের দাম চড়া
  • সৈয়দ মহসিন আলীর ৪র্থ মৃত্যুবার্ষিকী আজ
  • আগামী তিনদিন থাকতে পারে বৃষ্টিপাত
  • স্লোভাকিয়ার জঙ্গল থেকে উদ্ধার বিশ্বনাথের ফরিদের লাশ
  • বিএনপি নয়, ছাত্রদলের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তারেক: ফখরুল
  • Developed by: Sparkle IT