শেষের পাতা প্রবল বর্ষণে ও পাহাড়ি ঢলে তলিয়ে গেছে নিম্নাঞ্চল

কমলগঞ্জে প্রায় তিন হাজার একর আউশ ক্ষেত নিমজ্জিত

কমলগঞ্জ(মৌলভীবাজার) থেকে নিজস্ব সংবাদদাতা প্রকাশিত হয়েছে: ২৫-০৫-২০১৯ ইং ০৩:৪৮:২৫ | সংবাদটি ৮৪ বার পঠিত

টানা ভারী বর্ষণে ও উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে কমলগঞ্জ উপজেলার নি¤œাঞ্চল তলিয়ে গেছে। গত বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত থেকে এ ভারী বর্ষণ শুরু হয়। বর্ষণের ঢলে উপজেলার প্রায় তিন হাজার একরের আউশ ক্ষেত নিমজ্জিত হয়েছে। নিচু স্থানের বাড়িঘর পানিবন্দি ও রাস্তাঘাটও তলিয়ে গেছে। উজানে ঢল নামতে থাকায় নদনদী ও নি¤œাঞ্চলে পানি বৃদ্ধি অব্যাহত রয়েছে।
জানা যায়, গত বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত থেকে আকস্মিকভাবে ভারী বর্ষণ শুরু হওয়ায় উপজেলার বিভিন্ন এলাকার খাল, বিল, ছড়া ও জলাশয় সমূহ পানিতে ভরপুর হয়ে উঠে। টানা বর্ষণের ফলে উজান থেকে পাহাড়ি ঢল নেমে মাঠ, ঘাট, গ্রাম্য রাস্তা ও নি¤œাঞ্চলের শমশেরনগর, পতনঊষার ইউনিয়নের কয়েকটি বাড়িঘর পানিবন্দি হয়ে পড়ে। প্রবল বর্ষণ ও উজানের ঢলে উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের প্রায় তিন হাজার একরের আউশ ক্ষেত নিমজ্জিত হয়েছে। আউশ ক্ষেত ছাড়াও পানিতে কিছু আমনের বীজতলা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। বৃষ্টিপাত অব্যাহত থাকায় উজান থেকেও ঢল নেমে নদ-নদীর পানি বৃদ্ধি পাচ্ছে। নি¤œাঞ্চলে বাড়িঘর থাকায় শমশেরনগর ও পতনঊষার ইউনিয়নের প্রায় ত্রিশ পরিবার পানি বন্দি রয়েছে। রোপণ করা আউশ ক্ষেত তলিয়ে যাওয়ায় শমশেরনগরের ভরতপুর, রঘুনাথপুর, নিত্যানন্দপুর, সতিঝিরগ্রাম, কেছুলুটি ও পতনউষার ইউনিয়নের মাইজগাঁও, পতনঊষার, ধূপাটিলাসহ বিভিন্ন গ্রামের কৃষকরা হতাশ হয়ে পড়েছেন।
শমশেরনগর ইউনিয়নের কৃষক গৌতম পাল, গৌরাঙ্গ পাল, নাইওর মিয়া, বিষ্ণু পাল, খালিক মিয়া ও কনু মিয়া জানান, রাস্তায় কালভার্টের অভাবে দশটি গ্রামের পানি আসায় আমাদের গ্রামের রোপণ করা প্রায় পাঁচশ একরের আউশ ক্ষেত তলিয়ে গেছে। পানি বাড়ার কারণে ক্ষেত সমূহ বিনষ্ট হয়ে পড়বে। আউশ ক্ষেত তলিয়ে যাওয়া ছাড়াও রঘুনাথপুর ও ভরতপুর গ্রামের পনেরটি ঘর পানিবন্দি রয়েছে। ইউনিয়নের অন্যান্য কয়েকটি ও পতনউষারের দু’টি গ্রামের আরও প্রায় পনেরটি বাড়ি পানিবন্দি হয়ে পড়েছে। উজান থেকে ঢল নেমে আসায় নি¤œাঞ্চলে পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় দরিদ্র পরিবারের সদস্যরা আতঙ্কগ্রস্ত হয়ে পড়েছেন।
তবে কমলগঞ্জ উপজেলার উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা কৃষ্ণ সিংহ জানান, বর্ষণের পানিতে উপজেলার রোপণ করা আউশ ক্ষেতের একটি বড় অংশ তলিয়ে গেলেও পুরোপুরি তথ্য পাওয়া যায়নি। তবে আর বৃষ্টিপাত না হলে পানি নেমে গেলে ক্ষেতের কোন ক্ষতি হবে না।
কমলগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আশেকুল হক জানান, ভারী বর্ষণ ও উজান থেকে ঢল নামার কারণে কিছু আউশ ক্ষেত তলিয়ে গেছে এবং নদনদীর পানি বৃদ্ধি পাচ্ছে। তবে সার্বিক বিষয়ে প্রশাসন নজরদারি করছে।

 

শেয়ার করুন
শেষের পাতা এর আরো সংবাদ
  • ছবি
  • ছবি
  • সুনামগঞ্জে ভ্যানচালক হত্যা মামলায় একজনের মৃত্যুদন্ড
  • ছাত্রলীগের হামলা রাজনীতির জন্য অশনিসংকেত -----------মির্জা ফখরুল
  • সিউলে আন্তর্জাতিক সম্মেলনে সিসিক মেয়রসহ পাঁচ সদস্যের প্রতিনিধি দলের যোগদান
  • ঢাবিতে ছাত্রদলের ওপর ছাত্রলীগের হামলা, আহত ১৫
  • হবিগঞ্জে সাংবাদিক জুনাইদ হত্যা মামলায় ৩ জনের যাবজ্জীবন
  • ইসিতে শুদ্ধি অভিযান, সন্দেহের তালিকায় ১৫ জন : এনআইডি ডিজি
  • দুর্নীতিবাজদের সাথে কোনো আপস হবে না : কাদের
  • বিশ্বায়নের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় লিডিং ইউনিভার্সিটির ব্যবসায় প্রশাসন বিভাগের সেমিনার
  • ছাতকে যুবলীগ নেতাকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে বলে দাবি পরিবারের
  • শ্রীমঙ্গলে ‘সর্পভাস্কর্য’
  • জগন্নাথপুরে ১০ টন ওজনের মালামাল পরিবহনে নিষেধাজ্ঞা
  • জুড়ী থেকে নিখোঁজ স্কুলছাত্র গোলাপগঞ্জে উদ্ধার
  • মুনির-তপন-জুয়েল স্মরণে জাসদের কর্মসূচি
  • বালাগঞ্জে বাল্যবিয়ে থেকে রক্ষা পেলো শিক্ষার্থী
  • জামালগঞ্জে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে স্বামীর মৃত্যু শোকে স্ত্রীর আত্মহনন
  • সুনামগঞ্জে মুদি ব্যবসায়ী হত্যা মামলায় যুবকের যাবজ্জীবন
  • সিসিকের ভারপ্রাপ্ত মেয়র হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করলেন লিপন বক্স
  • কমলগঞ্জে দুই সিএনজি মুখোমুখি সংঘর্ষে শিশু নিহত ঃ আহত-৫
  • Developed by: Sparkle IT