শিশু মেলা

ফুলপরী

নিখিল রায় পূজন প্রকাশিত হয়েছে: ১৩-০৬-২০১৯ ইং ০০:২৭:৫২ | সংবাদটি ১১০ বার পঠিত

রাজু স্কুল থেকে প্রতিদিন বিকেলবেলা ওদের ফুল বাগানে চলে যায়। বাগানে নানা জাতের ফুল গাছ আছে। ফুল বাগানে ঘুরে বেড়াতে ওর খুব ভালো লাগে। ও নিজ হাতে গাছগুলির পরিচর্যা করে। ওকে সাহায্য করে বুয়ার ছেলে বাবর। বুয়া সকালবেলা কাজে আসে, সারাদিন কাজ করে সন্ধ্যাবেলা চলে যায়। বাবরের কাজ হচ্ছে রাজুর পিছন পিছন ঘুরঘুর করা। রাজু পড়তে বসলে বাবর বারান্দায় বসে রাজুর জন্য অপেক্ষা করে। বাবরের মায়াবী মুখটি রাজুর খুব ভালো লাগে। কিন্তু সমস্যা হচ্ছে বাবর লেখা পড়া করে না। বাবরের স্কুলে ভর্তি করার ব্যাপারে বুয়া আপত্তি করে বলে গরীব মানুষের লেখাপড়ার প্রয়োজন নেই। রাজু বললো তুমি চিন্তা কর না। আব্বুকে বললে আব্বু বাবরের লেখাপড়ার সব ব্যবস্থা করবেন। বুয়া বললো তোমার আব্বা একজন বুয়াকে যা বেতন দেওয়ার কথা তার চেয়ে অনেক বেশি বেতন আমাকে দেন। তাইতো স্বামী ছাড়া তিন তিনটি সন্তান নিয়ে কোনমতে বেঁচে আছি। নতুন করে আর টাকার কথা বলে আমাকে লজ্জা দিও না। রাজু আর কথা বাড়ায় না।
গতকাল রাতে প্রচন্ড ঝড় বৃষ্টি হয়েছে। রাজু বাগানের কথা ভেবে চিন্তিত হয়ে পড়লো। নিশ্চয় সব গোলাপ ফুল ঝরে পড়েছে। অন্যান্য ফুল গাছের না জানি কেমন ক্ষতি হয়েছে বুঝতে পারছে না। সকালে বাগানে গিয়ে সব কিছু লন্ডভন্ড অবস্থায় দেখে রাজুর চোখে জল এসে পড়ে। হঠাৎ ঘাসের মধ্যে খুব সুন্দর একটি মেয়েকে বসে থাকতে দেখে অবাক হয়ে বললো আপনি আমাদের বাগানে ঢুকলেন কিভাবে? মেয়েটি হেসে উঠলো, বললো আমি প্রতিদিন তোমার বাগানে এসে ফুল ফোটায়ে দিয়ে যাই। আমি ফুলপরী। রাজু এবার মেয়েটির দিকে ভালোভাবে তাকালো, সত্যিই তো মেয়েটির পিছনে একটি ডানা দেখা যাচ্ছে। আরেকটি ডানা নীচে পড়ে আছে। এবার ফুলপরী বললো রাতে ঝড় শুরু হলে গাছের ডাল ভেঙ্গে এসে আমার একটি ডানায় আঘাত করে, আমি ঘাসে লুটিয়ে পড়ি। ডানাটি ছাড়া আমি যেতে পারছি না। তুমি কি আমার ডানাটি লাগাতে পারবে? হ্যাঁ পারবো, রাজু বাবরকে দিয়ে ফাস্ট এইড বক্স আনালো, তারপর ক্ষত স্থানে ঔষধ লাগিয়ে ডানাকে ব্যান্ডেজ করে জায়গামত বসিয়ে দিল। ফুলপরী উঠে দাঁড়ালো। রাজুর প্রতি খুব খুশী হয়ে বললো তোমাকে পুরস্কার দিতে চাই। বলো কি চাও? রাজু চিন্তা করছে ফুলপরীর কাছে কি চাওয়া যায়? হঠাৎ বাবরের দিকে চোখ পড়তেই বলে উঠলো বাবরের লেখাপড়ার খরচ চাই? ফুলপরী খুশি হলো, বললো ঠিক আছে। তাই হবে। পরদিন থেকেই বাবরের শিক্ষা জীবন শুরু হলো। বাবর মহানন্দে প্রতিদিন রাজুর সাথে বিদ্যালয়ে যেতে শুরু করলো।

শেয়ার করুন

Developed by: Sparkle IT