শেষের পাতা সুনামগঞ্জে স্কুল শিক্ষার্থী হত্যা মামলা

২ পুত্রসহ পিতার যাবজ্জীবন

প্রকাশিত হয়েছে: ১৮-০৬-২০১৯ ইং ০২:৩২:১৭ | সংবাদটি ২৪৮ বার পঠিত
Image

সুনামগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি : সুনামগঞ্জে স্কুল শিক্ষার্থী রুবেল হত্যা মামলায় ২ পুত্রসহ পিতার যাবজ্জীবন কারাদ- ও ৫০ হাজার টাকা অর্থদ- এবং অনাদায়ে আরো ২ মাসের সশ্রম কারাদ- দেয়া হয়েছে।
গতকাল সোমবার বেলা সাড়ে ১১টায় সুনামগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ আল মামুন এ রায় ঘোষণা করেন। দ-প্রাপ্তরা হচ্ছে, জেলার তাহিরপুর উপজেলার চিকসা গ্রামের মির্জা হাছন আলী, তার পুত্র নোমান মিয়া ও কামাল মিয়া।
আদালত সূত্রে জানা যায়, ২০০০ সালের ২০ আগস্ট রাতে জেলার তাহিরপুর উপজেলার চিকসা গ্রামের রনজিৎ পুরকায়স্থের পুত্র স্কুল ছাত্র রুবেলকে একই গ্রামের তার সহপাঠী নোমান বাড়ি থেকে জরুরী কাজ আছে বলে ডেকে নেয়। পরে রাত ২টার দিকে ‘চোর আসছে’ বলে চিৎকার শুনে ঘর থেকে বের হয়ে রনজিৎ পুরকায়স্থ ‘কোথায় চোর’ বললে একই গ্রামের মির্জা হাছন আলী বলেন তোদের বাড়িতেই চোর। পুকুর পাড়ে গিয়ে দেখ কে চোর। রনজিৎ পুকুর পাড়ে গিয়ে দেখে তার পুত্র রুবেল রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে রয়েছে। সঙ্গে সঙ্গে রুবেলকে তাহিরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এর আগে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথে রুবেল আহত অবস্থায় তার বাবা রনজিৎ পুরকায়স্থকে জানায়, গ্রামের মির্জা হাছন আলীর নির্দেশে হাছন আলীর পুত্র নোমান ও কামাল তাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে পুকুর পাড়ে ফেলে রেখেছে।
পরদিন ২১ আগস্ট এ ঘটনায় রুবেলের বাবা রনজিৎ পুরকায়স্থ বাদী হয়ে তাহিরপুর থানায় চিকসা গ্রামের মৃত জোয়াহের আলীর পুত্র মির্জা হাছন আলী ও মির্জা মশ্রব আলী, মির্জা হাছন আলীর পুত্র নোমান মিয়া ও কামাল মিয়া, একই গ্রামের মৃত মোক্তার আলী খান পাঠানের পুত্র নাছির উদ্দিন খান পাঠান, ছোয়াব মিয়ার পুত্র শায়েস্তা মিয়া ও বাবুল মিয়াকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন। তদন্ত শেষে পুলিশ আদালতে চার্জসীট দাখিল করে।
দীর্ঘ শুনানী শেষে আদালতের বিচারক মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ আল মামুন মির্জা হাছন আলী ও তার ২ পুত্র নোমান মিয়া এবং কামাল মিয়াকে যাবজ্জীবন কারাদ- ও ৫০ হাজার টাকা অর্থদ- দেন। অনাদায়ে আরো ২ মাসের সশ্রম কারাদ- প্রদান করেন এবং আসামী মির্জা মশ্রব আলী, নাছির উদ্দিন খান পাঠান প্রকাশ নিশি মিয়া, শায়েস্তা মিয়া ও বাবুল মিয়াকে বেকসুর খালাস প্রদান করেন।
রাষ্ট্রপক্ষে মামলা পরিচালনা করেন এডিশনাল পাবলিক প্রসিকিউটর এডভোকেট সোহেল আহমদ ছইল মিয়া এবং আসামি পক্ষে মামলা পরিচালনা করেন এডভোকেট রবিউল লেইছ ও এডভোকেট সৈয়দ জামিলুল হক।

 

শেয়ার করুন

ফেসবুকে সিলেটের ডাক

শেষের পাতা এর আরো সংবাদ
  • মাধবপুরে শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেফতার ১
  • উচ্চ রক্তচাপ রয়েছে, এমন করোনা রোগীদের মৃত্যুঝুঁকি দ্বিগুণ
  • র‌্যাবের অভিযানে মাদক ব্যবসায়ী ও গণধর্ষণ মামলার আসামী আটক
  • গুজব, আতঙ্ক, পাকিস্তানে বাড়ছে মৃতের সংখ্যা
  • করোনাভাইরাসে দেশে ১৮ চিকিৎসকের মৃত্যু : এফডিএসআর
  • মাধবপুরে বিজিবি’র অভিযানে গাঁজাসহ আটক ৩
  • ছাতকে আরও ১২ জনের করোনা শনাক্ত
  • লকডাউনের ঈদযাত্রায় সড়কে প্রাণ গেছে ১৬৮ জনের, আহত ২৮৩ জন
  • শামসুদ্দিন হাসপাতালের পাশাপাশি করোনা চিকিৎসায় এগিয়ে এলো নর্থ ইস্ট হাসপাতাল
  • প্রধানমন্ত্রীর অনুদান পেলো জাফলংয়ের ৬৭টি মসজিদ
  • মাধবপুরে ভারী বর্ষণ ও পাহাড়ি ঢলে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি
  • জাতিসংঘের পাবলিক সার্ভিস অ্যাওয়ার্ড লাভ ভূমি মন্ত্রণালয়ের
  • বৈশ্বিক করোনায় সুদৃঢ় প্রবাসী-স্বজন সম্পর্ক
  • সিলেটে নিত্যপণ্যের দাম স্থিতিশীল
  • টানা বর্ষণ ও উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে কমলগঞ্জে ধলাই নদীর পানি বিপদ সীমার উপরে ॥ বন্যার আশঙ্কা
  • নগরীর সুবিদবাজারে ছিনতাইকারীদের হাতে যুবক খুনের রহস্য উদঘাটন
  • তালতলায় ছিনতাইয়ের ঘটনায় আরেক ছিনতাইকারী গ্রেফতার
  • সুনামগঞ্জের ছাতক করোনার হটস্পট আক্রান্ত-৪০, মৃত্যু ১
  • সিলেটে পেঁয়াজ ও সবজির দাম কমছে
  • বিয়ানীবাজারে করোনা উপসর্গ নিয়ে এক মুক্তিযোদ্ধার মৃত্যু রাষ্ট্রীয় সম্মান প্রদর্শন ॥ স্বাস্থ্যবিধি ছাড়াই দাফন
  • Image

    Developed by:Sparkle IT