শেষের পাতা সুনামগঞ্জে স্কুল শিক্ষার্থী হত্যা মামলা

২ পুত্রসহ পিতার যাবজ্জীবন

প্রকাশিত হয়েছে: ১৮-০৬-২০১৯ ইং ০২:৩২:১৭ | সংবাদটি ৯৮ বার পঠিত

সুনামগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি : সুনামগঞ্জে স্কুল শিক্ষার্থী রুবেল হত্যা মামলায় ২ পুত্রসহ পিতার যাবজ্জীবন কারাদ- ও ৫০ হাজার টাকা অর্থদ- এবং অনাদায়ে আরো ২ মাসের সশ্রম কারাদ- দেয়া হয়েছে।
গতকাল সোমবার বেলা সাড়ে ১১টায় সুনামগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ আল মামুন এ রায় ঘোষণা করেন। দ-প্রাপ্তরা হচ্ছে, জেলার তাহিরপুর উপজেলার চিকসা গ্রামের মির্জা হাছন আলী, তার পুত্র নোমান মিয়া ও কামাল মিয়া।
আদালত সূত্রে জানা যায়, ২০০০ সালের ২০ আগস্ট রাতে জেলার তাহিরপুর উপজেলার চিকসা গ্রামের রনজিৎ পুরকায়স্থের পুত্র স্কুল ছাত্র রুবেলকে একই গ্রামের তার সহপাঠী নোমান বাড়ি থেকে জরুরী কাজ আছে বলে ডেকে নেয়। পরে রাত ২টার দিকে ‘চোর আসছে’ বলে চিৎকার শুনে ঘর থেকে বের হয়ে রনজিৎ পুরকায়স্থ ‘কোথায় চোর’ বললে একই গ্রামের মির্জা হাছন আলী বলেন তোদের বাড়িতেই চোর। পুকুর পাড়ে গিয়ে দেখ কে চোর। রনজিৎ পুকুর পাড়ে গিয়ে দেখে তার পুত্র রুবেল রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে রয়েছে। সঙ্গে সঙ্গে রুবেলকে তাহিরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এর আগে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথে রুবেল আহত অবস্থায় তার বাবা রনজিৎ পুরকায়স্থকে জানায়, গ্রামের মির্জা হাছন আলীর নির্দেশে হাছন আলীর পুত্র নোমান ও কামাল তাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে পুকুর পাড়ে ফেলে রেখেছে।
পরদিন ২১ আগস্ট এ ঘটনায় রুবেলের বাবা রনজিৎ পুরকায়স্থ বাদী হয়ে তাহিরপুর থানায় চিকসা গ্রামের মৃত জোয়াহের আলীর পুত্র মির্জা হাছন আলী ও মির্জা মশ্রব আলী, মির্জা হাছন আলীর পুত্র নোমান মিয়া ও কামাল মিয়া, একই গ্রামের মৃত মোক্তার আলী খান পাঠানের পুত্র নাছির উদ্দিন খান পাঠান, ছোয়াব মিয়ার পুত্র শায়েস্তা মিয়া ও বাবুল মিয়াকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন। তদন্ত শেষে পুলিশ আদালতে চার্জসীট দাখিল করে।
দীর্ঘ শুনানী শেষে আদালতের বিচারক মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ আল মামুন মির্জা হাছন আলী ও তার ২ পুত্র নোমান মিয়া এবং কামাল মিয়াকে যাবজ্জীবন কারাদ- ও ৫০ হাজার টাকা অর্থদ- দেন। অনাদায়ে আরো ২ মাসের সশ্রম কারাদ- প্রদান করেন এবং আসামী মির্জা মশ্রব আলী, নাছির উদ্দিন খান পাঠান প্রকাশ নিশি মিয়া, শায়েস্তা মিয়া ও বাবুল মিয়াকে বেকসুর খালাস প্রদান করেন।
রাষ্ট্রপক্ষে মামলা পরিচালনা করেন এডিশনাল পাবলিক প্রসিকিউটর এডভোকেট সোহেল আহমদ ছইল মিয়া এবং আসামি পক্ষে মামলা পরিচালনা করেন এডভোকেট রবিউল লেইছ ও এডভোকেট সৈয়দ জামিলুল হক।

 

শেয়ার করুন
শেষের পাতা এর আরো সংবাদ
  • কোম্পানীগঞ্জকে শিক্ষাক্ষেত্রে এগিয়ে নেয়ার প্রত্যয়
  • আ ন ম শফিকুল হকের মৃত্যুতে দোয়া ও মিলাদ মাহফিল
  • বঙ্গবন্ধু ছিলেন শোষিত ও নিপীড়িত মানুষের আপনজন ... বদর উদ্দিন আহমদ কামরান
  • মাধবপুরে মৃত্যুদন্ড প্রাপ্ত দুর্ধর্ষ ডাকাত এরশাদ আলী গ্রেফতার
  • সিরিজ বোমা হামলার বিচার অবশ্যই হবে
  • ২০৫০ সালের পর বাংলাদেশে মানুষ কমতে থাকবে
  • রিক্সাচালককে মারধর করে হত্যা : গ্রেফতার ১
  • ছাতকে দু’পক্ষের সংঘর্ষে নারীসহ আহত ২৫
  • মালয়েশিয়ায় দুর্ঘটনায় বাংলাদেশি নিহত
  • অটোরিকশা চুরির সময় দেখে ফেলায় খুন করা হয় নাঈমকে
  • সিলেটে হানিমুন সেরে বাড়ি ফেরা হলোনা নব দম্পতির
  • প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে দরিদ্র মানুষের জীবনমানের উন্নতি হচ্ছে
  • ঐতিহাসিক নানকার কৃষক বিদ্রোহ দিবস আজ
  • ছবি
  • যুবলীগ নেতা জাহাঙ্গীরের মুক্তি ও ঘটনার সুষ্ঠু তদন্তের দাবি জেলা যুবলীগের
  • বাংলা ভাষা ও সংস্কৃতির ইতিহাস ছড়িয়ে দিতে হবে ----------পরিকল্পনামন্ত্রী
  • বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ও চরিত্র ধারণ করতে হবে --------প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রী ইমরান আহমদ
  • মুসলিম সাহিত্য সংসদে আ.ন.ম. শফিকের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন
  • ফেঞ্চুগঞ্জের হাটুভাঙ্গায় ঝুঁকিপূর্ণ বৈদ্যুতিক খুঁটি
  • জাউয়াবাজার উপজেলা বাস্তবায়নের দাবীতে মতবিনিময়
  • Developed by: Sparkle IT