উপ সম্পাদকীয় রঞ্জিত কুমার দে

বাংলাদেশের গৃহায়ন সমস্যা

প্রকাশিত হয়েছে: ২১-০৬-২০১৯ ইং ০২:০১:০৭ | সংবাদটি ৩১৪ বার পঠিত
Image

জনবহুল বাংলাদেশে বর্তমানে গৃহায়ন সমস্যা অন্যতম জাতীয় সমস্যা। জনসংখ্যা বৃদ্ধির সাথে গৃহায়ন সমস্যা ওতপ্রোতভাবে জড়িত। জনসংখ্যা বৃদ্ধির সাথে বৃদ্ধি পাচ্ছে আবাসিক সমস্যাও। বাংলাদেশের মতো উন্নয়নশীল দেশগুলোতে গৃহায়ন সমস্যা আরো জটিল। উন্নয়নশীল দেশগুলোতে জনসংখ্যা অনিয়ন্ত্রিতভাবে বৃদ্ধি পাচ্ছে। জনসংখ্যা দিন দিন বাড়ছে-কিন্তু জমি বাড়ছেনা, জনসংখ্যা যেহারে বৃদ্ধি পাচ্ছে সে হারে অর্থনৈতিক উন্নয়ন সাধিত হচ্ছে না। গৃহায়ন সমস্যা বর্তমান সময়ের সৃষ্ট সমস্যা নয়। প্রাচীনকাল থেকে সমাজে এ সমস্যা বিদ্যমান। আদিকালে মানুষ বনে-জঙ্গলে বসবাস করত। শান্তির সন্ধানে, সুখের খোঁজে, জীবনের নিরাপত্তার জন্যে। এভাবে প্রয়োজনের তাগিদে মানুষ গৃহ নির্মাণ করতে শিখছে। গৃহ হল শান্তির নীড়। তাইতো মানুষ যুগে যুগে অন্ন, বস্ত্রের পরেই স্থান দিয়েছে গৃহায়নকে। কিন্তু অন্যান্য সমস্যার মতো গৃহায়ন সমস্যাও বিদ্যমান রয়েছে। ক্রমবর্ধমান জনসংখ্যা সমস্যা প্রকটভাবে বৃদ্ধি করছে গৃহায়ন সমস্যাকে।
দেশের শতকরা ৮০ ভাগ আবাসস্থল গ্রামাঞ্চলে। অথচ গ্রামীণ গৃহায়নে সরকারের ভূমিকা সীমিত। সরকার শুধু প্রাকৃতিক দুর্যোগ যেমন-ঝড়, বৃষ্টি, বন্যা ইত্যাদিতে বিধ্বস্ত ঘরবাড়ি পুনঃনির্মাণের জন্য নির্মাণ উপকরণ ত্রাণ হিসেবে দিয়ে থাকে। দারিদ্রের কারণে গ্রামাঞ্চলে ৮০% গৃহের অবস্থা এত খারাপ যে এগুলো বাতাস, বৃষ্টি এবং বন্যার কবল হতে বাসিন্দাদেরকে রক্ষা করতে পারেনা। এভাবে গৃহায়ন সমস্যার মধ্য দিয়ে অতিবাহিত হয় গ্রামবাসীর অশান্তির জীবন, দুঃখের জীবন।
বাংলাদেশে শহরাঞ্চলে গৃহায়ন সমস্যা আরো প্রকট। শহরাঞ্চলে জনসংখ্যা দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে ব্যাপক হারে। কিন্তু সাধারণ সামর্থদের মধ্যে আছে এমন গৃহায়ন একই হারে বিস্তৃতি লাভ করছেনা। কোনো রকম জীবন যাপন করছে। বস্তির লোকেরা নর্দমাসম এক চিলতে ক্ষুদ্র জমিতে সামান্য বেড়া দিয়ে তৈরি করেছে আশ্রয়স্থল। সেখানে বর্ষায় পানি জমে, রোগ ব্যাধি তাদের সব সময় বস্তিকে ঘিরে রেখেছে। অনেকে আবার বস্তিতেও ঠাঁই পায়না। হতভাগা দিন মজুর, শ্রমিক রিকসা চালকরা রাত যাপন করে রাস্তার ধারে। খোলা নীল আকাশ তাদের গৃহের ছাউনী, রাস্তার সোডিয়াম লাইট তাদের গৃহের আলো। এভাবে রাস্তার ধারেই তাদের সংসারের যাবতীয় কাজ। রাস্তার ধুলা-মাটি, গাড়ির ধোঁয়া, নোংরা পরিবেশ, অস্বাস্থ্যকর খাবার প্রভৃতির মধ্যে বেড়ে উঠে তাদের সন্তানাদি।
গৃহায়ন সমস্যা কোনো একক কারণে সৃষ্টি হয়নি। বাংলাদেশের গৃহায়ন সমস্যাকে বিভিন্ন কারণে আরো প্রকট করে তুলছে। এসব কারণগুলোর মধ্যে কিছু রয়েছে প্রাকৃতিক। আবার কিছু আমাদের নিজেদের সৃষ্ট। বাংলাদেশের গৃহায়ন সমস্যা সবাইকে আজ ভাবিয়ে তুলছে। বাংলাদেশে জমির পরিমাণ অপ্রতুল এবং এর বন্টনও অত্যন্ত অসম। বাড়ি নির্মাণে অর্থায়ন ব্যবস্থার ভিত্তিও অত্যন্ত ক্ষীণ। আনুষ্ঠানিক উৎস মাত্র ১০% বাড়ি নির্মাণে অর্থায়ন করে হাউজ বিল্ডিং ফাইন্যান্স কর্পোরেশন শুধু শহরে উচ্চ এবং মধ্যবিত্তদের গৃহ নির্মাণ অর্থায়ন করে। ফলে পল্লী উন্নয়ন মন্ত্রণালয় এবং এনজিও যেমন-গ্রামীণ ব্যাংক, ব্র্যাক, কেয়ার, কনসার্ন, প্রশিকা গ্রামে গরীবদেরকে গৃহ-নির্মাণে অর্থায়ন করছে। বেসরকারি হাউজিং কোম্পানীসমূহ উচ্চ এবং মধ্যবিত্তদের জন্য বাড়ি নির্মাণ ও জমি উন্নয়ন করে বিক্রয় করছে।
বাংলাদেশের স্বাধীনতা লাভের পর সাবেক গৃহ নির্মাণ ঋণদান সংস্থার সব দায় ও সম্পদ নিয়ে বাংলাদেশ গৃহ নির্মাণ ঋণদান সংস্থা বা ইধহমষধফবংয ঐড়ঁংব ইঁরষফরহম ঋরহধহপব ঈড়ৎঢ়ড়ৎধঃরড়হ প্রতিষ্ঠিত হয়। এ সংস্থার অনুমোদিত মূলধন ছিলো ১০ কোটি টাকা। মূলধনের সবটাই সরকার কর্তৃক প্রদত্ত। এ সংস্থার ঢাকায় দু’টি এবং অন্যান্য বিভাগীয় সদরে ১টি করে মোট ৫টি জোনাল এবং ১৪টি আঞ্চলিক অফিস রয়েছে। বাংলাদেশ গৃহ নির্মাণ ঋণদান সংস্থার প্রধান কাজ হলো আবাসিক সমস্যা সমাধানের জন্য শহর এলাকায় গৃহ নির্মাণ, মেরামত এবং পুনঃনির্মাণের জন্য প্রয়োজনীয় ঋণদান করা। বর্তমানে গৃহ-নির্মাণ ঋণদান সংস্থা দু’ধরনের ঋণ প্রদান করে থাকে; তাহলো ১. সাধারণ ঋণ এবং ২. বহুতল বাসভবন নির্মাণের জন্য বিশেষ ঋণ।
বাংলাদেশে গৃহায়ন সমস্যা শহর ও গ্রামে সমানভাবেই প্রকট আকার ধারণ করেছে। এ-সমস্যা সমাধানের লক্ষ্যে প্রস্তাবিত বিভিন্ন নীতিমালা বাস্তবায়নের জন্য সরকারি ও বেসরকারি সংস্থাকে একযোগে কাজ করতে হবে।
লেখক : অব. শিক্ষক

 

শেয়ার করুন

ফেসবুকে সিলেটের ডাক

উপ সম্পাদকীয় এর আরো সংবাদ
  • করোনাকালের ঈদোৎসব
  • মহাপূণ্য ও করুণার রাত শবে-কদর
  • মাহে রামাজান: যাকাত আদায়ের উত্তম সময়
  • দারিদ্র দূরীকরণে প্রয়োজন সমন্বিত উদ্যোগ
  • চীন-আমেরিকার শীতল যুদ্ধ
  • চাই আশার বাণী
  • কোভিড-১৯:সংকটে বিশ্ব অর্থনীতি
  • ক্যাস্পিয়ান সাগরের ভূ-কৌশলগত গুরুত্ব
  • নিজগৃহে আমাদের এই উদ্বাস্তু জীবন
  • বেকারত্ব ও যুবসমাজ
  • আমার হাতেই আমার সুরক্ষা
  • কুড়িগ্রামের সুলতানা সরেবোর
  • স্মার্টফোনের আনস্মার্ট ব্যবহার
  • কোয়ারেন্টাইন না বলে ঘরবন্দি, একঘরে, ছোঁয়াচে বলুন
  • বিশ্বের স্বাধীনতাকামী মানুষের বন্ধু
  • করোনা ভাইরাস ও করুণ পরিস্থিতি
  • পানির অপচয় রোধ করতেই হবে
  • বিশ্বনবী (সা) এর মিরাজ
  • বিদ্যুৎসাশ্রয় এবং আমাদের করণীয়
  • বেঁচে থাকি প্রাণশক্তির জোরে
  • Image

    Developed by:Sparkle IT