প্রথম পাতা   সিলেটে পৃথক অনুষ্ঠানে প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক

২০২০ সালে ১০ কোটি মানুষ ডিজিটাল সেন্টারের সেবার আওতায় আসবে

প্রকাশিত হয়েছে: ২১-০৬-২০১৯ ইং ০৪:০২:৫০ | সংবাদটি ১০৬ বার পঠিত

স্টাফ রিপোর্টার ঃ তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, ২০২০ সালে ১০ কোটি মানুষ ডিজিটাল সেন্টারের সেবার আওতায় চলে আসবে। আগামী বছর ২০২০ সাল বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী। জনগণকে সেবা দেয়ার মাধ্যমে বঙ্গবন্ধুকে প্রকৃতভাবে স্মরণ করা হবে। গতকাল বৃহস্পতিবার সিলেটে পৃথক সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন। প্রতিমন্ত্রী গতকাল সিলেটে ব্যস্ত সময় কাটান। তিনি সরকারের উন্নয়নমূলক অনুষ্ঠানসহ বিভিন্ন অনুষ্ঠানে যোগদান করেন।
নগরীর আমানউল্লাহ কনভেনশন হলে ডিজিটাল সেন্টার পরিচালনাকারীদের নিয়ে ‘বিভাগীয় উদ্যোক্তা সম্মেলন-২০১৯’এ প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, বর্তমানে দেশের ৫ হাজার ২৯৩টি ডিজিটাল সেন্টারের মাধ্যমে দেড়শ এর বেশি সেবা প্রদান করা হচ্ছে। প্রতি মাসে ৫০ থেকে ৬০ লক্ষ মানুষ সেবা গ্রহণ করছে। আগামী বছর বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী ও ডিজিটাল সেন্টারে ১০ বছর পূর্তি উপলক্ষে আরো ১শটি সেবা ডিজিটাল সেন্টারের আওতায় নিয়ে আসার চেষ্টা করা হবে যাতে ২০২০ সালের লক্ষ্য অর্জন করা যায়।
সিলেটের বিভাগীয় কমিশনার মোহাম্মদ মেজবাহ উদ্দিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে সিলেটে বিভাগের ইউনিয়ন, পৌরসভা ও সিটি ডিজিটাল সেন্টারের উদ্যোক্তারা অংশ গ্রহণ করেন।
এসময় প্রধান অতিথি আরো বলেন, সারা বিশ্ব এখন আমাদের ডিজিটালাইজেশনের গল্প শুনতে চায় উল্লেখ করে তিনি বলেন, এই সরকারের যে সাফল্যের গল্প গুলো দেশ বিদেশে আলোচিত হয় তার মধ্যে ডিজিটাল সেন্টার একটি। যা দেশ-বিদেশে সুনাম ও মর্যাদা অর্জন করেছে। সারাবিশ্বে যেখানেই আমরা যাই জননেত্রী শেখ হাসিনার ডিজিটালাইজেশনের কথা শুনতে অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করে তারা। কিভাবে আমরা তা করলাম জানতে চায়। ডিজিটাল সেন্টারের শুরুর সময়ের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী দুর্গম অঞ্চল চর কুকরিমুকরিতে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে ডিজিটাল সেন্টারের উদ্বোধন করেছিলেন। তখন ১১শ ইউনিয়নে কোন বিদ্যুতের ব্যবস্থা না থাকায় সৌরবিদ্যুতের মাধ্যমে সেসব ইউনিয়নে ডিজিটাল সেবা পৌছে দেয়া হয়েছিল। সেসময় প্রত্যন্ত গ্রামের অনেক মা বিদেশে তার ছেলের সাথে প্রথম ভিডিও কলে কথা বলার সময় যে আবেগঘন ঘটনার অবতারণা হয়েছিল তার সাক্ষী আপনারা অনেকেই। তিনি বলেন, বিশ্বের প্রতিটি দেশে প্রথমে শহরে পরে ধীরে ধীরে গ্রামে ডিজিটালাইজেশন হয়েছে। শুধু বাংলাদেশে প্রথমে গ্রামে ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টারের মাধ্যমে ডিজিটাল সেবা পৌছে দেয়া হয়েছে। পরে পৌর ও নগর ডিজিটাল সেন্টার স্থাপন করা হয়েছে। যা জননেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার একটি ইউনিক এপ্রোচ। ‘বাড়ছে সেবার বহর, গ্রাম হবে শহর’ এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে আয়োজিত অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, এটুআই প্রকল্প পরিচালক মোস্তাফিজুর রহমান, সিলেটের জেলা প্রশাসক এম কাজী এমদাদুল ইসলাম, সুনামগঞ্জের জেলা প্রশাসক আব্দুল আহাদ, হবিগঞ্জের জেলা প্রশাসক মাহমুদুল কবীর মুরাদ, মৌলভীবাজারের জেলা প্রশাসক মো. তোফায়েল ইসলাম। এটুআই এর লোকাল ডিজিটালাইজেশন প্রকল্পের কর্মকর্তা পারভেজ হাসানের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে উদ্যোক্তারা তাদের বক্তব্য তুলে ধরেন। সবার বক্তব্যে ডিজিটাল সেন্টারগুলোর জন্য উচ্চগতির ইন্টারনেট ও সেবার বহর বৃদ্ধির বিষয়টি উঠে আসলে মন্ত্রী সেসব পূরণের আশ্বাস দেন। সিলেটে দুটি বৃহৎ প্রকল্প চলছে উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, ‘ডিজিটাল সিলেট’ পাইলট প্রকল্পের আওতায় ডিজিটাল শহর শুধু নয়, জননিরাপত্তার জন্য ২৫০টি ফেইস রিকগনাইজ অত্যাধুনিক ক্যামেরা স্থাপন করা হচ্ছে। এছাড়া সিলেট শহরে আইসিটিতে দক্ষ জনশক্তি তৈরি করতে ট্রেনিং, ওরিয়েন্টেশন ও ওয়ার্কশনের ব্যবস্থা করা হয়েছে। বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন যুবক-যুবতীদের জন্যও ট্রেনিং এর সুযোগ সৃষ্টি করা হয়েছে। সিলেটের কোম্পানীগঞ্জের সালুটিকরে ‘শেখ মুজিবুর রহমান হাইটেক পার্ক’ স্থাপনের কাজ দ্রুত এগিয়ে চলছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, সিলেটে বসেই এখন সিলেটের তরুণ-তরুণীরা মোবাইল, ল্যাপটপ, কম্পিউটারসহ ইলেকট্রনিক্রা ডিজিটাল ডিভাইস ও সফটওয়ার তৈরি করবে। তিনি বলেন, সিলেটের জনগণ যেভাবে সারাবিশ্ব থেকে নিজেদের কষ্টার্জিত টাকা দেশে প্রেরণ করে দেশের অর্থনীতিকে সচল রেখেছেন। অল্পদিনের মধ্যেই সিলেটের মাটি থেকে পুরো বিশ্বকে সেবা প্রদান করা হবে । প্রধান অতিথি উদ্যোক্তাদের উদ্দেশ্যে বলেন, আপনারা স্বাধীন, উদ্যোগী, উদ্যোমী। আপনারা আপনাদের মেধা ও শ্রম কাজে লাগিয়ে নিজেরাই প্রতিষ্ঠান গড়ে তুলেছেন। শুধু নিজেই নয়, অন্যেরও কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করে দিয়েছেন। উদ্যোক্তাদের অনেকের সরকারি বেতন ভাতা দাবির কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, যদি আমরা প্রত্যেককে ১০-২০ হাজার টাকা করে বেতন দেই তাহলে অনেকেই খুশি হবেন না। কারণ অনেকের আয় এরচেয়েও বেশি। ডিজিটাল সেন্টারের আওতায় সেবার পরিমাণ বাড়ানো হবে ফলে আয়ও বাড়বে। তার জন্য যে সাহায্য সহযোগিতা প্রয়োজন তা আপনাদের দেয়া হবে। আয় বাড়াতে নিজের প্রতিষ্ঠানে ট্রেনিং সেন্টার গড়ে তোলার পরামর্শ দেন তিনি। প্রয়োজনে শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাবগুলোতে তাদের ট্রেনিং সেন্টার হিসেবে ব্যবহারের সুযোগ দেয়া হবে বলে উল্লেখ করেন তিনি। মন্ত্রী বক্তব্যের শুরুতে দেশের বিভিন্ন স্থানে আয়োজিত উদ্যোক্তা সম্মেলন গুলোর মধ্যে সিলেটের আয়োজন সবচেয়ে সেরা বলে মন্তব্য করলে মুহুর্মুহু করতালিতে মুখরিত হয় পুরো হল। এসময় তিনি বলেন, দিনশেষে কারোরই বক্তব্য শুনতে ভালো লাগে না। আসার আগে মনে হয়েছিল সবাই ক্লান্ত-পরিশ্রান্ত থাকবেন। কিন্তু এসে দেখি উদ্যোক্তারা প্রত্যেকে উচ্ছ্বাস ও উৎসাহে প্রণবন্ধ। আপনারাই পারবেন জননেত্রী শেখ হাসিনার ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ে তুলতে। মন্ত্রী সকলের নিকট প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা ও আইসিটি উপদেষ্টা সজিব ওয়াজেদ জয়ের পক্ষ থেকে শুভেচ্ছা জানান। পরে মন্ত্রী সিলেট জেলা প্রশাসকের সম্মেলনকক্ষে বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিলের উদ্যোগে প্রতিবন্ধীদের কম্পিউটার প্রশিক্ষণনের সনদপত্র বিতরণ অনুষ্ঠানে যোগদান করেন।
কোতোয়ালী থানার কন্ট্রোল রুম পরিদর্শন ঃ এদিকে তথ্য ও যোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক গতকাল বৃহস্পতিবার ডিজিটাল সিলেট সিটি প্রকল্পের আওতায় আইপি ক্যামেরার কাজ পরিদর্শন করেছেন। এসএমপি’র কোতোয়ালী মডেল থানায় অবস্থিত কন্ট্রোল রুমে গিয়ে তিনি পরিদর্শন করেন। এসময় তিনি নগরবাসীকে নিরাপদ রাখতে পুলিশ প্রশাসনকে আরো সক্রিয় হয়ে কাজ করার আহ্বান জানান। পরিদর্শনকালে উপস্থিত ছিলেন সিলেট জেলা প্রশাসক এম. কাজী এমদাদুল ইসলাম, ডিসি হেডকোয়ার্টার কামরুজ্জামান, এডিসি বিভূতি ভূষণ, সুদ্বীপ, ডিসি (ট্রাফিক) ফয়ছল মাহমুদ, কোতোয়ালী থানার অফিসার ইনচার্জ মো. সেলিম মিয়া, প্রজেক্টর পিডি মহিদুর রহমান, ডিপিডি মধুসুদন চন্দ্র, সিসি ক্যামেরার তত্ত্বাবধানে থাকা গ্লোবাল ট্রেড কর্পোরেশনের সিইও মছনুল করিম চৌধুরী, সিও তানজিমূল ইসলাম। পরিদর্শনের পূর্বে প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমদ পলককে গার্ড অব ওনার প্রদান করা হয়। পরে কোতোয়ালী থানা কর্তৃপক্ষ ও গ্লোবাল ট্রেড কর্পোরেশন প্রতিমন্ত্রীকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান।

শেয়ার করুন
প্রথম পাতা এর আরো সংবাদ
  • হবিগঞ্জে ট্রিপল মার্ডার মামলায় ৪ জনের যাবজ্জীবন
  • সব অনিয়মে আইন প্রয়োগকারী সংস্থার সংশ্লিষ্টতা রয়েছে: টিআইবি
  • টমটম গাড়ির জন্য জগন্নাথপুরের কিশোর চালককে রশিদপুরে নিয়ে খুন
  • পররাষ্ট্র মন্ত্রী একে মোমেন সিলেট আসছেন আজ
  • দক্ষিণ সুনামগঞ্জের কালনী নদী থেকে ভাসমান লাশ উদ্ধার
  • মাধবপুরে ট্রাকের ধাক্কায় ২ মোটর সাইকেল আরোহী নিহত
  • ফিরতে রাজি হয়নি কেউ, শুরু হয়নি রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন
  •     রোহিঙ্গাদের অনাগ্রহ দুঃখজনক: পররাষ্ট্রমন্ত্রী
  •   সড়ক দুর্ঘটনা রোধে শিগগিরই টাস্কফোর্স গঠন করা হবে
  • বিমান বহরে তৃতীয় ড্রিমলাইনার গাংচিল উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী
  • গ্রন্থটি সমাজ বিনির্মাণের হাতিয়ার হিসেবে কাজ করবে
  • কদমতলীতে এডিস মশার লার্ভা ও পূর্ণাঙ্গ মশার অস্তিত্ব সন্ধান দুটি প্রতিষ্ঠানকে অর্থদন্ড
  • দুর্নীতি নিয়ন্ত্রণ ও নির্মূলে নিরলসভাবে কাজ করছে কমিশন : দুদক চেয়ারম্যান
  • ২৮ আগস্টের মধ্যে শাপলা ফিলিং স্টেশনে ডাকাতির টাকা উদ্ধার না হলে কঠোর কর্মসূচি
  • সংসদ অধিবেশন বসবে ৮ সেপ্টেম্বর
  • ২১ আগস্টের হামলায় আ. লীগ জড়িত কি না : প্রশ্ন রিজভীর
  • বাহুবলে দিনে দুপুরে চা শ্রমিকদের ভাতার ১২ লাখ টাকা ছিনতাই
  • কুলাউড়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় ইউরো ফার্মা’র এরিয়া ম্যানেজার নিহত
  • প্রধানমন্ত্রী বিমানের ‘গাংচিল’ উদ্বোধন করবেন আজ
  • সিলেটে আরো কমেছে ডেঙ্গু রোগী
  • Developed by: Sparkle IT