মহিলা সমাজ রেসিপি

গরমের খাবার দাবার

দিলরুবা বেগম ফ্যান্সি প্রকাশিত হয়েছে: ০২-০৭-২০১৯ ইং ০০:০৫:০৩ | সংবাদটি ৬১ বার পঠিত

ডাবের পুডিং
উপকরণ : ডাবের পানি ২ কাপ, ডাবের শাঁস আধা কাপ, চিনি ৩ টেবিল চামচ, আগার আগার পাউডার ২ টেবিল চামচ।
যেভাবে তৈরি করবেন : ডাবের পানিতে আগার আগার পাউডার গুলে নিন। ডাবের শাঁস পাতলা স্লাইস করে কেটে রাখুন। ডাবের পানির মিশ্রণ চুলায় দিয়ে নাড়তে থাকুন। ফুটে উঠলে চিনি দিয়ে নেড়েচেড়ে নামিয়ে নিন। একটা বাটিতে ডাবের শাঁস বিছিয়ে তার ওপর গরম থাকতেই জ্বাল দেওয়া ডাবের মিশ্রণ ঢালুন। ঠা-া হয়ে জমে গেলে ফ্রিজে রাখুন। পরিবেশনের আগে ফ্রিজ থেকে বের করে পছন্দমতো কেটে পরিবেশন করুন।

ভেজিটেবল গার্ডেন সালাদ
উপকরণ : গাজর ১টি, শসা ১টি, বিট অর্ধেক, টমেটো ২টি, ক্যাপসিকাম ১টি, লেটুসপাতা ৫টি, বড় পেঁয়াজ ১টি, কাঁচা মরিচ কুঁচি আধা টেবিল চামচ, পনির স্লাইস ৮ পিস, পুদিনা পাতা ২ টেবিল চামচ, লেবুর রস ৪ টেবিল চামচ, অলিভ অয়েল ৩ টেবিল চামচ, সাদা গোলমরিচের গুঁড়া ১ চা চামচ, মধু ২ টেবিল চামচ, লবণ স্বাদমতো।
যেভাবে তৈরি করবেন : লেবুর রস, অলিভ অয়েল, মধু, কাঁচা মরিচ কুঁচি, গোলমরিচের গুঁড়া ও স্বাদমতো লবণ মিশিয়ে সালাদের ড্রেসিং বানিয়ে রাখুন। পুদিনা ও লেটুসপাতা ধুয়ে পানি ঝরিয়ে রাখুন। পেঁয়াজ গোল গোল স্লাইস করে কেটে নিন। গাজর, শসা, টমেটো, ক্যাপসিকাম ও বিট স্লাইস করে কেটে নিন। এর সঙ্গে সালাদের ড্রেসিং মিশিয়ে নিন। পরিবেশনপাত্রে প্রথমে লেটুসপাতা বিছিয়ে দিন। লেটুসপাতার ওপর স্লাইস করা সবজি সাজিয়ে পনির, পেঁয়াজ কুঁচি ও পুদিনাপাতা সাজিয়ে পরিবেশন করুন।

ভেজিটেবল ক্রেপ উইথ গ্রিন সস
উপকরণ : চালের গুঁড়া আধা কাপ, ময়দা ৪ টেবিল চামচ, গাজর কুঁচি ২ টেবিল চামচ, টমেটো কুঁচি ২ টেবিল চামচ, বরবটি কুঁচি ২ টেবিল চামচ, ডিম ১টি, পনির কুঁচি ২ টেবিল চামচ, কাঁচা মরিচ কুঁচি ১ টেবিল চামচ, ধনেপাতা কুঁচি ১ টেবিল চামচ, হলুদ গুঁড়া আধা চা চামচ, গোলমরিচ গুঁড়া আধা চা চামচ, কুসুম গরম পানি প্রয়োজনমতো, অলিভ অয়েল ২ টেবিল চামচ।
যেভাবে তৈরি করবেন : অলিভ অয়েল ছাড়া বাকি উপকরণ একসঙ্গে মিশিয়ে ব্যাটার তৈরি করে আধা ঘণ্টা ঢেকে রাখুন। ব্যাটার খুব ঘন বা বেশি পাতলা হবে না। নন-স্টিক প্যানে অলিভ অয়েল ব্রাশ করে এক হাতা ব্যাটার দিয়ে ঘুরিয়ে ঘুরিয়ে পাতলা রুটির আকৃতি দিন। ঢেকে দিয়ে ২ পাশ বাদামি করে ভেজে তুলুন। একইভাবে সব ক্রেপ বানিয়ে নিন।

গ্রিন সস
উপকরণ : পুদিনা পাতা ৩ টেবিল চামচ, ধনেপাতা ৩ টেবিল চামচ, কাঁচা মরিচ ২টি, রসুন বড় ১ কোয়া, টক দই ২ টেবিল চামচ, টমেটো সস ১ টেবিল চামচ, বিট লবণ আধা চা চামচ, গোলমরিচ গুঁড়া আধা চা চামচ, লেবুর রস ১ টেবিল চামচ, মধু ১ টেবিল চামচ।
যেভাবে তৈরি করবেন :
ব্লেন্ডারে সব উপকরণ একসঙ্গে ব্লেন্ড করে গ্রিন সস তৈরি করে গরম ক্রেপের সঙ্গে পরিবেশন করুন।

ফ্রুট সালাদ
উপকরণ : কলা ১টি, পেয়ারা ১টি, আপেল ১টি, আঙুর আধা কাপ, পাকা আম আধা কাপ, খেজুর ৪টি, কিশমিশ ২ টেবিল চামচ, মাল্টার রস ৩ টেবিল চামচ, পানি ঝরানো টক দই আধা কাপ, মধু ২ টেবিল চামচ, বিট লবণ আধা চা চামচ, ভাজা জিরা গুঁড়া ১ চা চামচ, পুদিনা পাতা কুঁচি ১ টেবিল চামচ, গোলমরিচ গুঁড়া আধা চা চামচ, লবণ স্বাদমতো।
যেভাবে তৈরি করবেন : সব ফল কিউব করে কেটে নিন। এবার ফলের সঙ্গে একে একে বাকি সব উপকরণ মিশিয়ে ফ্রিজে রেখে ঠা-া করে পরিবেশন করুন।

ডাল-করলার চচ্চড়ি
উপকরণ : মাঝারি আকারের করলা ৩টি, ডাল সিকি কাপ, আলু ২টি, পেঁয়াজ কুঁচি ২ টেবিল চামচ, রসুন বাটা ১ চা চামচ, মরিচ গুঁড়া আধা চা চামচ, হলুদ গুঁড়া সামান্য, ভাজা জিরার গুঁড়া আধা চা চামচ, কাঁচা মরিচ ফালি ৩-৪টি, লবণ স্বাদমতো, তেল পরিমাণমতো, পানি ১ কাপ।
যেভাবে তৈরি করবেন : করলা আর আলু ধুয়ে চারকোনা করে কেটে নিন। কড়াইয়ে তেল গরম করে পেঁয়াজ কুঁচি ভাজুন। পেঁয়াজ বাদামি রং হলে রসুন বাটা, হলুদ, মরিচ, লবণ ও সামান্য পানি দিয়ে মসলা কষান। মসলা ভালো করে কষানো হলে করলা, ডাল ও আলু দিয়ে আরো কিছুক্ষণ কষান। ১ কাপ পানি দিয়ে ঢেকে দিন। করলা ও আলু সিদ্ধ হয়ে মাখা মাখা হলে কাঁচা মরিচ ফালি ও ভাজা জিরার গুঁড়া দিয়ে নামিয়ে রাখুন। গরম ভাতের সঙ্গে পরিবেশন করুন গরমের উপাদেয় মেন্যু আলু-করলার চচ্চড়ি।

কৈ-আলুর খাট্টা
উপকরণ : কৈ মাছ ৪ পিস, আলু ৪টি, পেঁয়াজ কুঁচি ২ টেবিল চামচ, রসুন বাটা আধা চা চামচ, আদা বাটা আধা চা চামচ, জিরা বাটা আধা চা চামচ, হলুদ গুঁড়া আধা চা চামচ, মরিচ গুঁড়া ১ চা চামচ, টমেটো কুঁচি ১টি, কাঁচা মরিচ ফালি ৪টি, ভাজা জিরা গুঁড়া আধা চা চামচ, পাঁচফোড়ন গুঁড়া আধা চা চামচ, ধনেপাতা কুঁচি ২ টেবিল চামচ, কাঁচা তেঁতুল ৩টি, তেল ৩ টেবিল চামচ, লবণ স্বাদমতো।
যেভাবে তৈরি করবেন : মাছে লবণ ও সামান্য হলুদ মাখিয়ে তেলে ভেজে তুলুন। হাঁড়িতে তেল গরম করে পেঁয়াজ কুঁচি ভেজে সব বাটা মসলা দিয়ে কষান। কষানো হলে অল্প পানি দিয়ে হলুদ, মরিচ গুঁড়া, টমেটো কুঁচি ও লবণ দিয়ে আবার কষান। মসলা কষানো হলে মাছ দিয়ে নেড়েচেড়ে অল্প পানি দিয়ে ঢেকে দিন। কিছুক্ষণ পর ঢাকনা তুলে সাবধানে মাছগুলো উল্টে আবার ঢেকে দিন। এবার মসলা থেকে মাছ তুলে আলু দিয়ে ভালোভাবে নেড়ে কষিয়ে নিন। ১ কাপ কুসুম গরম পানি দিয়ে মাছ দিন। ফুটে উঠলে কাটা তেঁতুল দিয়ে ঢেকে দিন। আলু সিদ্ধ হয়ে ঝোল টেনে এলে জিরা গুঁড়া, পাঁচফোড়ন গুঁড়া ও ধনেপাতা দিয়ে নামিয়ে নিন।

শুক্তো
উপকরণ : করলা ৫০ গ্রাম, ছোট বেগুন ২টি, কাঁচা কলা ১টি, মাঝারি আলু ২টি, শজিনা ডাঁটা ১টি, শিম ১০০ গ্রাম, বড়ি ১ কাপ, কাঁচা মরিচ ফালি ৪টি, আদা আর সরিষার পেস্ট ১ চা চামচ, লবণ পরিমাণ মতো, হলুদ গুঁড়া আধা চা চামচ, সরিষার তেল প্রয়োজন মতো, তেজপাতা ১টি, গোটা শুকনা মরিচ ২টা, পাঁচফোড়ন আধা চা চামচ আর ভাজা মসলা ১ চামচ (গোটা জিরা আধা চামচ, এলাচ ২টি, লবঙ্গ ৪টি আর দারচিনি ১ টুকরা একসঙ্গে শুকনা কড়াইয়ে ভেজে গুঁড়া করা।)
যেভাবে তৈরি করবেন : সব সবজি মাঝারি আকারে লম্বা লম্বা করে কেটে নিন। হাঁড়িতে তেল গরম করে প্রথমে বড়ি ভাজুন। বাদামি রং হলে নামিয়ে আরেকটু তেল দিয়ে শিম আর করলা আলাদা করে ভেজে তুলে রাখুন। হাঁড়িতে ২ টেবিল চামচ তেল গরম করে তেজপাতা, গোটা শুকনা মরিচ আর পাঁচফোড়ন দিন। কিছুক্ষণ নাড়াচাড়া করে ফোড়ন থেকে গন্ধ এলে আলু দিন। আলু সামান্য ভাজা হলে কাঁচা কলা দিয়ে ভালো করে ভেজে নিন। আলু আর কাঁচা কলা ভাজা হলে কাঁচা মরিচ, বেগুন আর ডাঁটা দিয়ে আরেকটু ভাজুন। বাকি সব সবজি দিয়ে আদা-সরিষার পেস্ট, হলুদ গুঁড়া আর অল্প পানি দিন। অল্প আঁচে ভালো করে কষান, যাতে মসলার কাঁচা গন্ধ চলে যায়। মসলা ভাজা হলে একটু বেশি করে পানি দিন, যেন শুক্তোর সব সবজি প্রায় ডুবে যায়। পানি ফুটে উঠলে ভেজে রাখা সব সবজি, বড়ি আর পরিমাণমতো লবণ দিয়ে ঢেকে দিন। ৫ মিনিট পর ঢাকনা খুলে সব সবজি নাড়াচাড়া করে আবার ঢাকা দিয়ে দিতে হবে আরো ৫ মিনিট। এবার ঢাকনা খুলে ২টি আলু ভেঙে দিন, যেন গ্রেভি গাঢ় হয়। নামানোর আগে ঘি ছড়িয়ে দিয়ে নামিয়ে নিন। তারপর ওপরে ছড়িয়ে দিতে হবে ভাজা মসলা। এটি সবজির সঙ্গে মেশানোর দরকার নেই। শুক্তো পরিবেশনের সময় সবজির সঙ্গে ভাজা মসলা ভালোভাবে মিশিয়ে নিয়ে পরিবেশন করুন।

 

শেয়ার করুন

Developed by: Sparkle IT