সম্পাদকীয়

সবার জন্য পেনশন

প্রকাশিত হয়েছে: ২৮-০৭-২০১৯ ইং ০১:১৪:০৭ | সংবাদটি ১৩৩ বার পঠিত

চালু হচ্ছে সর্বজনীন পেনশন। দেশের সকল মানুষ এবার আসবে পেনশনের আওতায়। এই লক্ষে প্রণীত হচ্ছে সর্বজনীন পেনশন নীতিমালা। চলতি মাসেই এর খসড়া তৈরী হবে বলে জানা গেছে। একটি জাতীয় দৈনিকে প্রকাশিত খবরে বলা হয় উন্নত বিশ্বের মতো সরকারী চাকরিজীবীদের পাশাপাশি দেশের সাধারণ মানুষকেও পেনশনের আওতায় আনতে যাচ্ছে সরকার। এই নীতিমালার খসড়া রূপরেখা তৈরীর জন্য গঠিত সাত সদস্যের কমিটি ইতোমধ্যেই কাজ শুরু করেছে। বর্তমানে পেনশন কাঠামো তৈরীতে প্রয়োজনীয় বিষয়ের খুঁটিনাটি পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে। আইনী বিষয়গুলো পর্যালোচনার পাশাপাশি এই বিষয়ে অন্যান্য অভিজ্ঞতা একত্রিত করে নীতিমালা তৈরী করা হবে। এ বিষয়ে বেসরকারী খাত সংশ্লিষ্ট ও অন্যান্য স্টেক হোল্ডারদের সঙ্গে বসে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে সরকার। পেনশন পাচ্ছেন সরকারী চাকরিজীবীরা। চাকরীর মেয়াদ শেষে সব স্তরের চাকরিজীবীরাই মোটা অংকের আর্থিক সুবিধা পাচ্ছেন। কিন্তু বেসরকারি সেক্টরে সেই সুবিধা নেই। ফলে চাকরি পরবর্তী সময় একটা অনিশ্চয়তার মধ্যে কাটে তাদের। দেশের ছয় কোটি কর্মজীবীর মধ্যে পাঁচ কোটি ৮০ লাখই কাজ করেন বেসরকারী খাতে। চাকরিজীবন শেষে তাদের অর্থসংকটে পড়তে হয়। এসব চাকরিজীবীকে শেষ বয়সে সুবিধা দিতে নেয়া হচ্ছে এই পেনশন প্রদানের উদ্যোগ। জানা গেছে এর আগেও এ বিষয়ে অর্থ মন্ত্রণালয়ের একটি কমিটি সর্বজনীন পেনশন ব্যবস্থার ওপর একটি প্রস্তাব দিয়েছিলো। এ প্রস্তাব অনুযায়ী সর্বজনীন পেনশন ব্যবস্থায় পেনশন তহবিল হবে অংশীদারীত্বের ভিত্তিতে। অর্থাৎ চাকরিজীবী ও নিয়োগকারী কর্তৃপক্ষ যৌথভাবে এই তহবিলে অর্থ দেবে। এর পরিমাণ হতে পারে চাকরিজীবীর মূল বেতনের দশ শতাংশ। আর নিয়োগকারী কর্তৃপক্ষকে দিতে হবে সমপরিমাণ অর্থ। আর পেনশনের এ তহবিল ব্যবস্থাপনার জন্য থাকবে একটি রেগুলেটরি অথরিটি। সর্বজনীন পেনশন পদ্ধতির আওতায় বেসরকারী পর্যায়ের বড় বড় কর্পোরেট হাউসগুলোকে নিয়ে আসা হবে প্রথমে। পরবর্তীতে তা সম্প্রসারিত করা হবে।
সরকারী চাকরিজীবীর সংখ্যা জনগোষ্ঠীর মাত্র একটা ক্ষুদ্র অংশ। এই সংখ্যা সর্বোচ্চ ২০ লাখ। এর বাইরে বিপুল জনগোষ্ঠীকে পেনশনের আওতায় নিয়ে আসতেই সরকারের এই উদ্যোগ। এ জন্য গঠন করা হবে ইউনিভার্সাল পেনশন অথরিটি। বিগত অর্থ বছরের বাজেটেও এই ধরণের প্রতিশ্রুতি দেয়া হয়েছিলো। কিন্তু তার কোন বাস্তবায়ন নেই। এবারও যে উদ্যোগ নেয়া হয়েছে তা-ও নির্বিঘেœ সফলতার মুখ দেখবে, এমনটি আশা করা যায় না। সরকার সংশ্লিষ্টরা বলছে পুরো কর্মযজ্ঞ বাস্তবায়নে রয়েছে নানা ধরণের জটিলতা। আর আগামী তিন বছরের মধ্যেই সর্বজনীন পেনশন চালু হবে বলে সরকার আশাবাদ ব্যক্ত করছে।

শেয়ার করুন

Developed by: Sparkle IT