প্রথম পাতা

সব অনিয়মে আইন প্রয়োগকারী সংস্থার সংশ্লিষ্টতা রয়েছে: টিআইবি

প্রকাশিত হয়েছে: ২৩-০৮-২০১৯ ইং ০৪:৫২:২৯ | সংবাদটি ১৫০ বার পঠিত
Image

 
ডাক ডেস্ক : আইন প্রয়োগকারী সংস্থার বিরুদ্ধে অভিযোগ করে টিআইবির নির্বাহী পরিচালক ড. ইফতেখারুজ্জামান বলেছেন, ‘দেশে সব অনিয়মের সঙ্গে আইন প্রয়োগকারী সংস্থার প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ সংশ্লিষ্টতা রয়েছে।’
গতকাল বৃহস্পতিবার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে হিউম্যান রাইটস ফোরাম বাংলাদেশ (এইচআরএফবি) আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ অভিযোগ করেন।
সংবাদ সম্মেলনে ইফতেখারুজ্জামান বলেন, ‘বলতে দ্বিধা নেই যে, এমন কোনো অপরাধ নেই যার সঙ্গে কোনো না কোনোভাবে আইন প্রয়োগকারী সংস্থার জড়িত থাকার অভিযোগ পাওয়া যায় না। আইনের রক্ষকরাই এর ভক্ষক হয়ে দাঁড়িয়েছে। বর্তমানে এমন পরিস্থিতি বিরাজ করছে দেশে।’
তবে তাই বলে পুলিশ ও আইন প্রয়োগকারী সংস্থার মধ্যে সৎ কর্মকর্তার অভাব নেইও বলে মন্তব্য করেন তিনি।
তিনি যোগ করেন, ‘এ কথা আমরা কখনোই বলি না যে, আইন প্রয়োগকারী সংস্থার মধ্যে সৎ কর্মকর্তা নেই। অনেকেই আছেন যারা ইতিমধ্যে ইতিবাচক দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন এবং জাতীয় ও আন্তর্জাতিকভাবে পুরস্কৃত হচ্ছেন।’
এ ধারা অব্যাহত থাকলে আইন প্রয়োগকারী সংস্থার নাম পরিবর্তন করে আইন লঙ্ঘনকারী সংস্থা করতে হবে বলে মন্তব্য করেন তিনি।
তবে আইন প্রয়োগকারী কর্মকর্তাদের অনেকেই আইন ভঙ্গ করে নানা অপরাধে জড়িত হচ্ছেন বলে রিপোর্ট পাচ্ছি আমরা।
টিআইবির নির্বাহী পরিচালক বলেন, ‘আমরা দেখছি, সব ধরনের অনিয়মের সঙ্গে আইন প্রয়োগকারী সংস্থার কোনো না কোনোভাবে যোগাযোগ এবং সংশ্লিষ্টতা, যোগসাজশ, প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ সংশ্লিষ্টতা রয়েছে। কার্যকরভাবে বিষয়টি প্রতিহত না করা হলে আমরা আশঙ্কা করছি যে, একটা সময় চলে আসবে তখন সংস্থাটির নামটা পরিবর্তন করতে হবে।’
তবে সেই অবস্থা দেখতে চান না জানিয়ে টিআইবির নির্বাহী পরিচালক বলেন, ‘আমরা চাই, আইন প্রয়োগকারী সংস্থার কোনো কর্মকর্তা অপরাধে যুক্ত রয়েছেন প্রমাণ মিললে তার বস্তুনিষ্ঠ তদন্ত করে শাস্তি নিশ্চিত করা হোক।’
কিন্তু সে তদন্তে ঘাটতি আছে জানিয়ে ইফতেখারুজ্জামান বলেন, ‘আমরা দেখি বিভাগীয় তদন্ত হয়। তাতে সর্বোচ্চ যে সাজা দেয়া হয়, অভিযুক্ত ব্যক্তিকে ক্লোজড করা হয় অথবা বদলি করা হয়। বড়জোর রিটায়ার্ড করে দেয়া হয়।’ -এমন শাস্তিতে অভিযুক্তকে পুরস্কৃত করা হয় বলে মনে করেন তিনি।
তিনি বলেন, ‘এমন বিচারে তো সমাধান হল না। সমাধানের জন্য বিচার বিভাগীয় তদন্ত হতে হবে।’
জাতিসংঘের নির্যাতনবিরোধী কমিটির সুপারিশের কার্যকর বাস্তবায়ন নিশ্চিতের দাবিতে এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।
আইন ও সালিশ কেন্দ্রের (আসক) নির্বাহী সদস্য আইনজীবী জেড আই খান পান্নার সভাপতিত্বে সংবাদ সম্মেলনে আরও বক্তব্য রাখেন মানুষের জন্য ফাউন্ডেশনের নির্বাহী পরিচালক শাহিনা হক, নাগরিক উদ্যোগের নির্বাহী পরিচালক জাকির হোসেন, এএলআরডির নির্বাহী পরিচালক শামছুল হুদা, হিউম্যান রাইটস ফোরাম বাংলাদেশের সমন্বয়ক তামান্না হক রিতি প্রমুখ।

শেয়ার করুন

ফেসবুকে সিলেটের ডাক

প্রথম পাতা এর আরো সংবাদ
  • কাতারে সড়ক দুর্ঘটনায় কুলাউড়ার প্রবাসীর মৃত্যু
  • জাতীয় শোক দিবসে ১৪ আগস্ট বাদ জুমা ও ১৫ আগস্ট বাদ যোহর সকল মসজিদে বিশেষ দোয়া
  • সবক’টি নবায়ন ছাড়া ব্যবসা লাইসেন্স নেই ১১টির
  • আজ থেকে করোনাভাইরাসের ব্রিফিং বন্ধ
  • জরুরী প্রয়োজনে অন্যদের সাথে যোগাযোগের আহবান || সস্ত্রীক করোনায় আক্রান্ত সিসিকের নির্বাহী প্রকৌশলী আলী আকবর
  • মাথায় অস্ত্রোপচারের পর ভেন্টিলেশনে প্রণব মুখোপাধ্যায়
  • করোনাভাইরাস: আরও ৩৩ মৃত্যু, শনাক্ত ২৯৯৬
  • আগামী সপ্তাহ থেকে বাড়ছে বিমান ভ্রমণের খরচ
  • জকিগঞ্জে স্ত্রীর রহস্যজন মৃত্যু, স্বামী আটক
  • ভারতের সাবেক রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখার্জির দ্রুত আরোগ্য কামনা করেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী
  • সিনহা হত্যা মামলায় আরো তিনজনকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব
  • এএসআইকে চড় মারায় পটুয়াখালীর বামনা থানার ওসি প্রত্যাহার
  • করোনা ভ্যাকসিন পাবে বাংলাদেশও: হেলথ ডিজি
  • পল্টনে বোমা বিস্ফোরণের ঘটনায় সিলেট থেকে নব্য জেএমবি’র ৫ জন আটক
  • বিশ্বের প্রথম করোনা ভ্যাকসিনের অনুমোদন দিলো রাশিয়া, ঘোষণা পুতিনের
  • সিলেটে অতিরিক্ত ভাড়ার বিধি আছে, স্বাস্থ্যবিধি নেই
  • ভাদ্র মাসে দীর্ঘস্থায়ী বন্যার শঙ্কা, প্রস্তুতির নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর
  • জাতীয় শোক দিবসে জেলা আ’লীগের কর্মসূচি
  • ভার্চুয়াল ও শারীরিক উপস্থিতি দু’ভাবেই চলবে হাইকোর্ট
  • মাস্ক পরা নিশ্চিত করতে ভ্রাম্যমাণ আদালত
  • Image

    Developed by:Sparkle IT