শেষের পাতা ঘাতকের স্বীকারোক্তি

জগন্নাথপুরের টমটম চালক হত্যাকান্ড উন্মোচিত

জগন্নাথপুর (সুনামগঞ্জ) থেকে নিজস্ব সংবাদদাতা প্রকাশিত হয়েছে: ২৪-০৮-২০১৯ ইং ০৩:১০:১০ | সংবাদটি ৩৮ বার পঠিত

সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরে টমটম চালক সাইদুল ইসলাম (১৭) হত্যাকা-ের ঘটনায় গ্রেফতারকৃত কাজল দেবনাথ নিজের দোষ স্বীকার করে আদালতে স্বীকারোক্তি দিয়েছে।
গতকাল শুক্রবার সুনামগঞ্জ ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে তাকে হাজির করা হলে সে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি প্রদান করে। পরে তাকে সুনামগঞ্জ জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়। নৃশংস এই হত্যাকা-ের ঘটনায় কাজল দেবনাথকে প্রধান আসামি করে চারজনের বিরুদ্ধে নিহতের বড় ভাই রিয়াজুল হক বাদি হয়ে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। মামলার অপর তিন আসামি বি-বাড়িয়া জেলার নাসিরনগর থানার আতুকুড়া গ্রামের মৃত আইয়ূব আলীর পুত্র ভাঙ্গারী ব্যবসায়ী শেখ বিলাল হোসেন (৪৫) ও একই জেলার বিজয়নগর থানার জালালপুর গ্রামের আবুল হোসেনের পুত্র নৈশ প্রহরী শরিফ মিয়া (৩৫) ও প্রধান আসামি কাজল দেবনাথের বোন জামাই নাসিরনগর থানার কালিবাড়ি গ্রামের মহেশ্বর দেবনাথ। তাদের মধ্যে বিল্লাল ও শরিফ মিয়া দীর্ঘদিন ধরে সিলেটের রশিদপুর এলাকায় বসবাস করে আসছিল।
সহকারী পুলিশ সুপার (জগন্নাথপুর সার্কেল) মো. মাহমুদ হাসান চৌধুরী বলেন, তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগর উপজেলার হাতিউড়া গ্রামে আমি ও জগন্নাথপুর থানার উপ পরিদর্শক অনিক দে’র নেতৃত্বে অভিযান চালিয়ে গোপাল দেবনাথের পুত্র কাজল দেবনাথকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করলে প্রথমে তার কাছ থেকে টমটম চালকের মুঠোফোন পাওয়া যায়। পরে তার দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে তার বোন জামাই মহেশ্বর দেবনাথের একই উপজেলার কালিবাড়ি গ্রামের বাড়ি থেকে অভিযান চালিয়ে খুন হওয়া চালকের টমটম উদ্ধার করা হয়। পরে তার কথামতো লাশও উদ্ধার হয়।
তিনি বলেন, শেখ বিল্লাল হোসেন একজন ভাঙ্গারী ব্যবসায়ী। তার বাড়ি ব্রাহ্মণবাড়িয়া হলেও সে সিলেটে দীর্ঘদিন ধরে ভাঙ্গারী ব্যবসা করে আসছে। তার কর্মচারী হিসেবে ভাঙ্গারীর মালামাল জগন্নাথপুরসহ বিভিন্ন জায়গা থেকে ক্রয় করতো কাজল দেবনাথ। ঈদের আগের দিন টমটম চালক জগন্নাথপুরের বাউরকাপন গ্রামের সাইদুল ইসলামের টমটম গাড়ি রাসেল মিয়া পরিচয়ে ভাড়া নেয় কাজল দেবনাথ। সেদিন গাড়ি না চালিয়েই ৫০০ টাকা দিয়ে বিদায় দেয় সাইদুলকে। পরদিন ১১ আগস্ট ফোন করে সাইদুলকে ডেকে নিয়ে ভাঙ্গারী ব্যবসায়ী শেখ বিল্লাল হোসেনের দক্ষিণ সুরমার কুতুবপুর এলাকার গোডাউনে নিয়ে যায়। সেখানে শেখ বিল্লাল, কাজল দেবনাথ ও দোকানের নৈশ প্রহরী ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগর উপজেলার জালালপুর গ্রামের শরিফ মিয়া মিলে টমটম চালক সাইদুলের ঘাড়ে কাঠের বর্গা (কাঠের শক্ত টুকরা) দিয়ে আঘাত করে তাকে হত্যা করে তারা। পরে লাশ রশিদপুর এলাকার একটি ঝোঁপে ফেলে দেয়।
জগন্নাথপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী বলেন, আসামির স্বীকারোক্তির প্রেক্ষিতে আমরা প্রাথমিকভাবে নিশ্চিত হয়েছি দেড় লাখ টাকা দামের টমটম গাড়িটি আত্মসাৎ করতে তাকে হত্যা করা হয়। লাশটি ময়নাতদন্তের পর পরিবারের নিকট হস্তান্তর করা হয়েছে। আসামি ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি প্রদান করে জড়িত থাকার কথা স্বীকার ও হত্যাকা-ের বর্ণনা দিয়েছে। অপর আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

শেয়ার করুন
শেষের পাতা এর আরো সংবাদ
  • সুনামগঞ্জে মুদি ব্যবসায়ী হত্যা মামলায় যুবকের যাবজ্জীবন
  • সিসিকের ভারপ্রাপ্ত মেয়র হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করলেন লিপন বক্স
  • কমলগঞ্জে দুই সিএনজি মুখোমুখি সংঘর্ষে শিশু নিহত ঃ আহত-৫
  • সিলেটের সম্ভাবনাময় পর্যটন নিয়ে সরকার আন্তরিক
  • মাধবপুরে ছোট ভাইয়ের হাতে বড় ভাই খুন
  • নদী রক্ষায় সবাইকে আরও সচেতন হতে হবে
  • স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা পিযুষের ৪ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর
  • টেলিনর হেলথ-এর সব ধরণের সেবা এখন সিলেটবাসীর হাতের নাগালে
  • জামালগঞ্জে বিদ্যুৎ স্পৃষ্ট হয়ে যুবকের মৃত্যু
  • বদলে গেছে ঢাকা দক্ষিণ বাজারের ভাদেশ্বর রোড
  • রোহিঙ্গাদের জন্য আরও ৮ কোটি ৭০ লাখ পাউন্ড দেবে যুক্তরাজ্য
  • মোহামেডানসহ চার ক্লাবে ক্যাসিনোর সরঞ্জাম
  • ছবি
  • রেলগেইট মারকাজ পয়েন্টে সিএনজি অটোরিক্সা শ্রমিকদের মধ্যে সংঘর্ষে ৯জন আহত
  • জীবনে বহুমাত্রিক বিকাশের জন্য শিক্ষার কোন বিকল্প নেই -সেক্টর কমান্ডার কর্নেল এ এম এম খায়রুল কবীর
  • লিডিং ইউনিভার্সিটিতে আইন বিভাগের সেমিনার অনুষ্ঠিত
  • এনআইডি জালিয়াতি জয়নালের জবানবন্দিতে ‘আরও নাম’
  • ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা ২০ শতাংশ কমেছে : স্বাস্থ্য অধিদপ্তর
  • দুর্নীতিবাজ কেউ রেহাই পাবে না --------------স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
  • টিআইবির চিঠিতে বেক্সিমকোর প্রশংসা শুদ্ধাচারের প্রত্যাশা
  • Developed by: Sparkle IT