শেষের পাতা

সুনামগঞ্জে মুদি ব্যবসায়ী হত্যা মামলায় যুবকের যাবজ্জীবন

প্রকাশিত হয়েছে: ২৩-০৯-২০১৯ ইং ০৪:০৪:২৭ | সংবাদটি ৯৫ বার পঠিত

সুনামগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি : সুনামগঞ্জে মুদি ব্যবসায়ী ফেরদৌস মিয়া হত্যা মামলায় সানি মিয়া(৩১) নামের এক যুবককে যাবজ্জীবন কারাদ- ও ৫০ হাজার টাকা অর্থদ- অনাদায়ে আরো ৩ মাসের কারাদ- দিয়েছেন আদালত। গতকাল রোববার দুপুর পৌণে ১২ টায় এ রায় ঘোষণা করেন সুনামগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ আল মামুন।
যাবজ্জীবন কারাদ- প্রাপ্ত সানি মিয়া জগন্নাথপুর উপজেলার ঘোষগাঁও এর মৃত আব্দাল মিয়ার ছেলে।
আদালত সূত্র জানায়, জগন্নাথপুর শিবগঞ্জ রোডে রাস্তার পূর্ব পাশে শাহরিন ভেরাইটিজ স্টোর নামক মুদি দোকান ছিল ফেরদৌস মিয়ার। ২০০৮ সালের ১৪ জুন দিনগত রাত অনুমান সোয়া ৮ টার দিকে ফেরদৌসের বড় ভাই রাজন মিয়া দোকান থেকে চাচাতো ভাই নাজমুল ও প্রতিবেশী জাহের মিয়াসহ বাড়ি ফিরছিলেন। এই পথের কোনাপাড়া জালাল উদ্দিন রোড নামক কাচা রাস্তার মধ্যবর্তী স্থানে পৌছলে জ্যোৎ¯œার আলোতে রাস্তায় দেখতে পান তার ছোট ভাই ফেরদৌসের দোকানের চাবি পড়ে আছে। দেখে সঙ্গে থাকা নাজমুল ও জাহেরকে ছোটতে ভাইয়ের দোকানের চাবির ঝুমটা দেখান। সঙ্গে সঙ্গে পাশের ঝোপে গিয়ে দেখেন ফেরদৌস রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে আছে ও তার শরীরে ধারালো অস্ত্রের অসংখ্য আঘাত এবং পাশেই ধারালো অস্ত্র হাতে ঘোষগাঁও গ্রামের মৃত আবদাল মিয়ার ছেলে সানি মিয়া দাড়িয়ে আছে। সঙ্গে সঙ্গে ফেরদৌসের বড় ভাই রাজন মিয়া ঘাতক সানি মিয়াকে ধরতে গেলে হাতে থাকা ধারালো অস্ত্র দিয়ে রাজনকেও আঘাত করলে রাজন চিৎকার দিয়ে মাটি পড়ে যান। এসময় সঙ্গে থাকা নাজমুল ও জাহের এবং আশে পাশের লোকজন এগিয়ে এলে ঘাতক সানি পালিয়ে যায়। পরে গুরুতর আহত অবস্থায় ফেরদৌস ও রাজনকে তাদের বাড়িতে নিয়ে এলে ফেরদৌস মারা যায় এবং রাজনকে হাসপাতালে পাঠানো হয়। এ ঘটনায় নিহত ফেরদৌস ও আহত রাজনের বড় ভাই শাহীন মিয়া বাদি হয়ে ১৫ জুন জগন্নাথপুর থানায় সানি মিয়া, সাজ্জাদ মিয়া, আনোয়ার মিয়া, মো.নূর আলম, আজম মিয়া ও রবির বিরুদ্ধো হত্যা মামলা দায়ের করেন। তদন্ত শেষে পুলিশ সানি মিয়ার বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশীট দাখিল করে।
দীর্ঘ শুনানী শেষে আদালত সানি মিয়াকে যাবজ্জীবন কারাদ- ও ৫০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরো ৩ মাসের কারাদ- প্রদান করেন এবং সাজ্জাদ মিয়া, আনোয়ার মিয়া, মো.নূর আলম, আজম মিয়া ও রবিকে বেখসুর খালাস প্রদান করেন।
রাষ্ট্রপক্ষে মামলা পরিচালনা করেন, এডভোকেট সৈয়দ জিয়াউল ইসলাম ও আসমি পক্ষে মামলা পরিচালনা করেন, এডভোকেট মো. আজাদুল ইসলাম ও এডভোকেট আজমল হোসেন।

 

শেয়ার করুন
শেষের পাতা এর আরো সংবাদ
  • দোয়ারাবাজারে অগ্নিকান্ডে ৫ দোকান ভস্মিভূত : ক্ষয়ক্ষতি অর্ধকোটি টাকা
  • লিডিং ইউনিভার্সিটির ট্যুরিস্ট ক্লাবের শিক্ষা সফর
  • ছাতকে জনপ্রতিনিধি ও সরকারী কর্মকর্তাদের সাথে বিভাগীয় কমিশনারের মতবিনিময়
  • অতিরিক্ত সচিব শিশির রায়’র পরলোকগমণ
  • পোস্টমর্টেম রিপোর্ট স্পষ্ট অক্ষরে লিখতে হাইকোর্টের নির্দেশ
  • সংসদীয় তদন্ত কমিটির আহবায়ক এমপি মানিক
  • কানাইঘাটে সুরমা নদীর ভাঙ্গন পরিদর্শনে পাউবো’র প্রতিনিধি
  • ইমরান আহমদ কারিগরি কলেজ পলিটেকনিক ইন্সটিটিউটে উন্নীত হবে --প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রী
  • তারেক রহমানের জন্মদিন উপলক্ষে জেলা বিএনপি’র দোয়া মাহফিল
  • মিডওয়াইফরা মাতৃ ও শিশু মৃত্যুর হার কমাতে ভূমিকা রাখছে --------------মো. কুতুব উদ্দিন
  • প্রতিবাদ মিছিল করতে গিয়ে সংঘর্ষে আহত ১৫
  • ১০ দিন ধর্মঘটেও চালের বাজারে প্রভাব পড়বে না, গ্যারান্টি: খাদ্যমন্ত্রী
  • নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের দাম নিয়ন্ত্রণে সরকার ব্যর্থ ---বাম গণতান্ত্রিক জোট
  • বিয়ানীবাজারে আওয়ামীলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি শিগগির
  • পদ্মা সেতুর ১৬তম স্প্যান স্থাপন
  • গৃহঋণের সর্বোচ্চ সীমা বেড়ে ২ কোটি টাকা
  • মীর নাছিরের ১৩, ছেলের ৩ বছরের সাজা হাই কোর্টে বহাল
  • গবেষণা ছাড়া কোন বিশ্ববিদ্যালয় একাডেমিকভাবে পরিপূর্ণ হয়না ---প্রফেসর ড. মো. কামরুজ্জামান চৌধুরী
  • সরকারের ব্যর্থতায় নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের অস্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধি হচ্ছে ----------- নাসিম হোসাইন
  • তারেক রহমানের জন্মদিন উপলক্ষে জেলা বিএনপির দোয়া মাহফিল আজ
  • Developed by: Sparkle IT