শেষের পাতা

সুনামগঞ্জে মুদি ব্যবসায়ী হত্যা মামলায় যুবকের যাবজ্জীবন

প্রকাশিত হয়েছে: ২৩-০৯-২০১৯ ইং ০৪:০৪:২৭ | সংবাদটি ২৫৯ বার পঠিত
Image

সুনামগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি : সুনামগঞ্জে মুদি ব্যবসায়ী ফেরদৌস মিয়া হত্যা মামলায় সানি মিয়া(৩১) নামের এক যুবককে যাবজ্জীবন কারাদ- ও ৫০ হাজার টাকা অর্থদ- অনাদায়ে আরো ৩ মাসের কারাদ- দিয়েছেন আদালত। গতকাল রোববার দুপুর পৌণে ১২ টায় এ রায় ঘোষণা করেন সুনামগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ আল মামুন।
যাবজ্জীবন কারাদ- প্রাপ্ত সানি মিয়া জগন্নাথপুর উপজেলার ঘোষগাঁও এর মৃত আব্দাল মিয়ার ছেলে।
আদালত সূত্র জানায়, জগন্নাথপুর শিবগঞ্জ রোডে রাস্তার পূর্ব পাশে শাহরিন ভেরাইটিজ স্টোর নামক মুদি দোকান ছিল ফেরদৌস মিয়ার। ২০০৮ সালের ১৪ জুন দিনগত রাত অনুমান সোয়া ৮ টার দিকে ফেরদৌসের বড় ভাই রাজন মিয়া দোকান থেকে চাচাতো ভাই নাজমুল ও প্রতিবেশী জাহের মিয়াসহ বাড়ি ফিরছিলেন। এই পথের কোনাপাড়া জালাল উদ্দিন রোড নামক কাচা রাস্তার মধ্যবর্তী স্থানে পৌছলে জ্যোৎ¯œার আলোতে রাস্তায় দেখতে পান তার ছোট ভাই ফেরদৌসের দোকানের চাবি পড়ে আছে। দেখে সঙ্গে থাকা নাজমুল ও জাহেরকে ছোটতে ভাইয়ের দোকানের চাবির ঝুমটা দেখান। সঙ্গে সঙ্গে পাশের ঝোপে গিয়ে দেখেন ফেরদৌস রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে আছে ও তার শরীরে ধারালো অস্ত্রের অসংখ্য আঘাত এবং পাশেই ধারালো অস্ত্র হাতে ঘোষগাঁও গ্রামের মৃত আবদাল মিয়ার ছেলে সানি মিয়া দাড়িয়ে আছে। সঙ্গে সঙ্গে ফেরদৌসের বড় ভাই রাজন মিয়া ঘাতক সানি মিয়াকে ধরতে গেলে হাতে থাকা ধারালো অস্ত্র দিয়ে রাজনকেও আঘাত করলে রাজন চিৎকার দিয়ে মাটি পড়ে যান। এসময় সঙ্গে থাকা নাজমুল ও জাহের এবং আশে পাশের লোকজন এগিয়ে এলে ঘাতক সানি পালিয়ে যায়। পরে গুরুতর আহত অবস্থায় ফেরদৌস ও রাজনকে তাদের বাড়িতে নিয়ে এলে ফেরদৌস মারা যায় এবং রাজনকে হাসপাতালে পাঠানো হয়। এ ঘটনায় নিহত ফেরদৌস ও আহত রাজনের বড় ভাই শাহীন মিয়া বাদি হয়ে ১৫ জুন জগন্নাথপুর থানায় সানি মিয়া, সাজ্জাদ মিয়া, আনোয়ার মিয়া, মো.নূর আলম, আজম মিয়া ও রবির বিরুদ্ধো হত্যা মামলা দায়ের করেন। তদন্ত শেষে পুলিশ সানি মিয়ার বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশীট দাখিল করে।
দীর্ঘ শুনানী শেষে আদালত সানি মিয়াকে যাবজ্জীবন কারাদ- ও ৫০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরো ৩ মাসের কারাদ- প্রদান করেন এবং সাজ্জাদ মিয়া, আনোয়ার মিয়া, মো.নূর আলম, আজম মিয়া ও রবিকে বেখসুর খালাস প্রদান করেন।
রাষ্ট্রপক্ষে মামলা পরিচালনা করেন, এডভোকেট সৈয়দ জিয়াউল ইসলাম ও আসমি পক্ষে মামলা পরিচালনা করেন, এডভোকেট মো. আজাদুল ইসলাম ও এডভোকেট আজমল হোসেন।

 

শেয়ার করুন

ফেসবুকে সিলেটের ডাক

শেষের পাতা এর আরো সংবাদ
  • চিকিৎসাসেবা পাচ্ছেন না :পরিকল্পনামন্ত্রী
  • রাজনগরে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানে ৬ মাদকসেবী কারাগারে
  • বাক শ্রবণ প্রতিবন্ধী মেয়েটি নাম-ঠিকানা বলতে পারছে
  • স্থপতি চৌধুরী মুশতাক আহমদের দ্বিতীয় মৃত্যুবার্ষিকী আজ
  • রাতারগুল ওয়াচ টাওয়ারে পর্যটক উঠা বন্ধ
  • শায়েস্তাগঞ্জ থানার ওসিসহ ৫ পুলিশ সদস্য প্রত্যাহার
  • স্বাস্থ্যবিধি মেনে নৃত্য-আবৃত্তি নাটকে জেগে উঠলো মঞ্চ
  • সিলেটের সকল শুল্ক স্টেশনে সুযোগ-সুবিধা বৃদ্ধির প্রস্তাব
  • আ’লীগের ডজন খানেক প্রার্থী আগ্রহ নেই বিএনপির
  • গণধর্ষণ মামলার ২ আসামী আটক
  • বিশ্বনাথে সাংবাদিক জুবায়েরের পিতৃবিয়োগ
  • সরকার সকল শ্রেণি পেশার মানুষের উন্নয়নে কাজ করছে : উপজেলা চেয়ারম্যান ইকবাল চৌধুরী
  • আজমিরীগঞ্জে ৩৯টি দোকান পুড়ে ২০ কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি
  • বড়লেখায় চুরি হওয়া কম্পিউটার ও মুঠোফোন উদ্ধার, গ্রেফতার ৫
  • দক্ষিণ সুরমার চান্দাইয়ে ব্রিজ ভেঙে গর্ত দুর্ঘটনার আশঙ্কা
  • জকিগঞ্জে যুবদলের প্রতিনিধি সভায় পুলিশি বাধা
  • কমলগঞ্জে পেঁয়াজের বাজার চড়া দুর্ভোগে নিম্ন আয়ের ক্রেতারা
  • রাধিকা মোহন স্মৃতিপদক পেলেন এটিএন বাংলার সিলেট বিভাগীয় প্রতিনিধি শাহ মুজিবুর রহমান জকন
  • সাবেক মেয়র কামরানের ভাই কানিজ আর নেই
  • ‘সাস্টকাস্ট’ নামে শাবি’র রেডিও এপ্লিকেশনের যাত্রা শুরু
  • Image

    Developed by:Sparkle IT