শেষের পাতা

সুনামগঞ্জে মুদি ব্যবসায়ী হত্যা মামলায় যুবকের যাবজ্জীবন

প্রকাশিত হয়েছে: ২৩-০৯-২০১৯ ইং ০৪:০৪:২৭ | সংবাদটি ১১৮ বার পঠিত

সুনামগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি : সুনামগঞ্জে মুদি ব্যবসায়ী ফেরদৌস মিয়া হত্যা মামলায় সানি মিয়া(৩১) নামের এক যুবককে যাবজ্জীবন কারাদ- ও ৫০ হাজার টাকা অর্থদ- অনাদায়ে আরো ৩ মাসের কারাদ- দিয়েছেন আদালত। গতকাল রোববার দুপুর পৌণে ১২ টায় এ রায় ঘোষণা করেন সুনামগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ আল মামুন।
যাবজ্জীবন কারাদ- প্রাপ্ত সানি মিয়া জগন্নাথপুর উপজেলার ঘোষগাঁও এর মৃত আব্দাল মিয়ার ছেলে।
আদালত সূত্র জানায়, জগন্নাথপুর শিবগঞ্জ রোডে রাস্তার পূর্ব পাশে শাহরিন ভেরাইটিজ স্টোর নামক মুদি দোকান ছিল ফেরদৌস মিয়ার। ২০০৮ সালের ১৪ জুন দিনগত রাত অনুমান সোয়া ৮ টার দিকে ফেরদৌসের বড় ভাই রাজন মিয়া দোকান থেকে চাচাতো ভাই নাজমুল ও প্রতিবেশী জাহের মিয়াসহ বাড়ি ফিরছিলেন। এই পথের কোনাপাড়া জালাল উদ্দিন রোড নামক কাচা রাস্তার মধ্যবর্তী স্থানে পৌছলে জ্যোৎ¯œার আলোতে রাস্তায় দেখতে পান তার ছোট ভাই ফেরদৌসের দোকানের চাবি পড়ে আছে। দেখে সঙ্গে থাকা নাজমুল ও জাহেরকে ছোটতে ভাইয়ের দোকানের চাবির ঝুমটা দেখান। সঙ্গে সঙ্গে পাশের ঝোপে গিয়ে দেখেন ফেরদৌস রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে আছে ও তার শরীরে ধারালো অস্ত্রের অসংখ্য আঘাত এবং পাশেই ধারালো অস্ত্র হাতে ঘোষগাঁও গ্রামের মৃত আবদাল মিয়ার ছেলে সানি মিয়া দাড়িয়ে আছে। সঙ্গে সঙ্গে ফেরদৌসের বড় ভাই রাজন মিয়া ঘাতক সানি মিয়াকে ধরতে গেলে হাতে থাকা ধারালো অস্ত্র দিয়ে রাজনকেও আঘাত করলে রাজন চিৎকার দিয়ে মাটি পড়ে যান। এসময় সঙ্গে থাকা নাজমুল ও জাহের এবং আশে পাশের লোকজন এগিয়ে এলে ঘাতক সানি পালিয়ে যায়। পরে গুরুতর আহত অবস্থায় ফেরদৌস ও রাজনকে তাদের বাড়িতে নিয়ে এলে ফেরদৌস মারা যায় এবং রাজনকে হাসপাতালে পাঠানো হয়। এ ঘটনায় নিহত ফেরদৌস ও আহত রাজনের বড় ভাই শাহীন মিয়া বাদি হয়ে ১৫ জুন জগন্নাথপুর থানায় সানি মিয়া, সাজ্জাদ মিয়া, আনোয়ার মিয়া, মো.নূর আলম, আজম মিয়া ও রবির বিরুদ্ধো হত্যা মামলা দায়ের করেন। তদন্ত শেষে পুলিশ সানি মিয়ার বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশীট দাখিল করে।
দীর্ঘ শুনানী শেষে আদালত সানি মিয়াকে যাবজ্জীবন কারাদ- ও ৫০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরো ৩ মাসের কারাদ- প্রদান করেন এবং সাজ্জাদ মিয়া, আনোয়ার মিয়া, মো.নূর আলম, আজম মিয়া ও রবিকে বেখসুর খালাস প্রদান করেন।
রাষ্ট্রপক্ষে মামলা পরিচালনা করেন, এডভোকেট সৈয়দ জিয়াউল ইসলাম ও আসমি পক্ষে মামলা পরিচালনা করেন, এডভোকেট মো. আজাদুল ইসলাম ও এডভোকেট আজমল হোসেন।

 

শেয়ার করুন
শেষের পাতা এর আরো সংবাদ
  • ছবি
  •  সাপ ধরেই ৫৯ বছর পার
  • জেলা বিএনপির আহবায়কসহ ৩৮ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে মামলা
  • নিত্যপণ্যের চড়া দাম কমছে পেঁয়াজ এখন ৬০ টাকা
  • সুনামগঞ্জে বিআরটিসির কাউন্টারে কর্মীকে মারধরের অভিযোগ
  • জাহানারা চৌধুরী উচ্চ বিদ্যালয় আলোকবর্তিকা হিসেবে কাজ করবে ----- মুহিবুর রহমান মানিক এমপি
  • চুনারুঘাটে ট্রাকের ধাক্কায় প্রাণ গেল মোটরসাইকেল আরোহীর
  • পরিবেশ ধ্বংসকারী প্রকল্পগুলো বন্ধের আহ্বান
  • লাখাইয়ে দেশীয় অস্ত্রসহ ৩ ডাকাত গ্রেফতার
  • জাতীয় সম্মেলনে যোগ দিতে নগর আ’লীগ চাঁদা গ্রহণ করছে না ...... অধ্যাপক জাকির হোসেন
  • সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে মেধা তালিকায় ভর্তি শেষে ১৮৬টি আসন ফাঁকা
  • দক্ষিণ সুরমায় ছালিক মিয়া হত্যা মামলার ৪ আসামী গ্রেফতার
  • লিডিং ইউনিভার্সিটিতে ‘গবেষণার রীতি ও কৌশল’ শীর্ষক কর্মশালা অনুষ্ঠিত
  • জগন্নাথপুরে ‘বাংলা মিরর’ সম্পাদক আবদুল করিম গণি’র মতবিনিময়
  • ১২ জনের মরদেহ হস্তান্তর
  • শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস ও মহান বিজয় দিবসে লিডিং ইউনিভার্সিটির কর্মসূচি
  • মিসবাহ সিরাজের নামে চাঁদা দাবি : সকলকে সতর্ক থাকার আহবান
  • বেগম রাবেয়া খাতুন ছিলেন ড. রাগীব আলীর সকল সৃষ্টিশীল চিন্তার বাতিঘর
  • নাগরিকত্ব বিল নিয়ে উদ্বিগ্ন হওয়ার কিছুই নেই: মোদি
  • ত্রয়োদশ মৃত্যুবার্ষিকীর আলোচনা সভায় বক্তারা
  • Developed by: Sparkle IT