শেষের পাতা

পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সাথে প্রতারণাকারী চট্টগ্রামে আটক

প্রকাশিত হয়েছে: ০৮-১০-২০১৯ ইং ০২:৫৯:৪০ | সংবাদটি ৯৮ বার পঠিত

ডাক ডেস্ক : পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও সিলেট-১ আসনের সাংসদ ড. এ কে আব্দুল মোমেনের কাছ থেকে প্রতারণার মাধ্যমে টাকা নেয়ার মামলায় একজনকে আটক করেছে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের(পিবিআই) একটি টিম। গত শনিবার চট্টগ্রাম থেকে গ্রেফতার করা হয় প্রতারক আবু তৈয়ব (২৪) নামের যুবককে। তাকে সিলেটে এনে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে। আবু তৈয়ব চট্টগ্রামের বোয়ালখালি থানার উত্তর কনুজুরীর আব্দুল আলিমের ছেলে।
পিবিআই সূত্রে জানা গেছে, গত ২৫ জুলাই রাত ৯টায় পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও সিলেট-১ আসনের সাংসদ ড. এ কে আব্দুল মোমেনকে ফোন করে চট্টগ্রাম-১৬ আসনের সংসদ সদস্য মোস্তাফিজুর রহমানের পরিচয় দিয়ে কথা বলে প্রতারক তৈয়ব। ফোনে সে জানায়, তার এক আত্মীয় সিলেটে হাসপাতালে ভর্তি, জরুরি ভিত্তিতে তার টাকা প্রয়োজন। এজন্য আবু তৈয়ব নামের একজনের কাছে টাকা পাঠাতে মোমেনকে অনুরোধ করে ফোনের ওপাশে থাকা প্রতারক ব্যক্তি। খবর শুনে সরল বিশ^াসে সাহায্যের জন্য আগ্রহ প্রকাশ করেন মন্ত্রী। ঐ সময় পররাষ্ট্রমন্ত্রী প্রতারক তৈয়বকে সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি বদর উদ্দিন আহমদ কামরানের সাথে যোগাযোগ করতে বলেন। মন্ত্রী এ ব্যাপারে সাবেক সিটি মেয়র কামরানকে ফোন করে জানিয়ে রাখেন। পরে আবু তৈয়ব বদর উদ্দিন আহমদ কামরানের কাছে ফোন করে বিকাশে টাকা পাঠাতে বলে। তাৎক্ষণিকভাবে কামরানসহ চার আওয়ামী লীগ নেতার কাছ থেকে সংগ্রহ করা মোট ৫৩ হাজার টাকা পাঠানো হয় বিকাশে।
এর পরে চট্টগ্রামের ‘সংসদ সদস্যের’ আত্মীয়কে দেখতে হাসপাতালে যান কামরানসহ কয়েকজন। কিন্তু হাসপাতালে এরকম কোন রোগী কিংবা আবু তৈয়বকে পাননি তারা। এমনকি যে নম্বর থেকে কল করা হয়েছিল, সেটিতে কল দিয়েও বন্ধ পান। পরে তারা পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সাথে যোগাযোগ করলে তিনিও জানান, তাকে চট্টগ্রামের ওই সংসদ সদস্য ফোন করেননি, বিষয়টি প্রতারকচক্রের কাজ। এ ঘটনায় ওসমানী হাসপাতালের নার্সেস অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক ইসরাইল আলী সাদেক কোতোয়ালী থানায় মামলা করেন গত ১ আগস্ট।
মামলার তদন্তভার পড়ে পিবিআই এর উপর। প্রযুক্তির সহায়তায় আবু তৈয়বের অবস্থান সনাক্ত করে গত শনিবার চট্টগ্রামের নিউমার্কেট এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। সিলেটে এনে তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। প্রতারণায় তার সহযোগী ছিলেন এহসানুল হক হাসান (২৬) নামের আরেকজন। বিকাশের নম্বরটি ছিল তার। তবে গেল আগস্টে তিনি মাদকের একটি মামলায় গ্রেফতার হয়ে কারাগারে আছেন।

শেয়ার করুন
শেষের পাতা এর আরো সংবাদ
  • ছাতকে গ্রামীণ সড়ক পাকাকরণ ও ব্রিজ নির্মাণে অনিয়ম, এলাকাবাসীর চাপে কাজ বন্ধ
  • ছবি
  • মহিলা ভিডিপি সদস্যদের কম্পিউটার প্রশিক্ষণ কোর্স পরিদর্শন
  • বালাগঞ্জের বেতরী নদীতে মৎস্য নিধনে স্থানে স্থানে ‘ভরজাল’র মরণ ফাঁদ
  • জাউয়া বাজারে তীর শিলং খেলার অভিযোগে একজনকে ১৫ দিনের দন্ড
  • বিশ্বনাথে গণধর্ষণ মামলার আসামী জাহেদ র‌্যাবের হাতে গ্রেফতার
  • আওয়ামী লীগ নেতা খোকন কুমার দত্তের মাতৃবিয়োগ শেষকৃত্য সম্পন্ন
  • বড়লেখায় রাস্তায় ময়লা পানি ফেলায় জনদুর্ভোগ
  • ‘মর্ডান ওয়েস্ট ম্যানেজমেন্ট প্ল্যান্ট স্থাপনে মালয়েশিয়া সরকার ও বিশ্বব্যাংকের সহায়তা কামনা’
  • তথ্য প্রাপ্তিতে সাধারণ মানুষের প্রবেশাধিকার কার্যক্রম জোরদার করতে হবে --জুলিয়া জেসমিন মিলি
  • ছাতকে বিএসটিআই’র অভিযান দু’ ফিলিং স্টেশনে ১ লক্ষ টাকা জরিমানা
  • জকিগঞ্জে স্কুলছাত্রী শ্লীলতাহানির অভিযুক্ত ইজিবাইক চালক কারাগারে,সহযোগী পলাতক
  • সুমনা পেলো নতুন জীবন আর মাথা গোঁজার ঠাঁই
  • সিলেটে নমুনা সংরক্ষণের পর ধ্বংস করা হলো মামলার আলামত
  • মোগলাবাজার থানাপুলিশের পৃথক অভিযানে ৮ জন আটক
  • প্রাথমিক বিদ্যালয় শিক্ষকদের ১১ ও ১০ম গ্রেডের দাবিতে কর্মবিরতি অব্যাহত
  • বড়পুকুরিয়া কয়লাখনির সাবেক এমডি হাবিবউদ্দীনসহ ৩ কর্মকর্তা কারাগারে
  • কমিউনিটিকে সেবা দেয়ার স্বীকৃতি মিলছে আজ : মাহি জলিল
  • আজমিরীগঞ্জে মসজিদে বসা নিয়ে সংঘর্ষে আহত ১০
  • ক্ষুধার সূচকে বাংলাদেশ ১১৭ দেশের তালিকায় ৮৮তম
  • Developed by: Sparkle IT