শেষের পাতা

  রিশা হত্যা মামলায় ওবায়দুলের মৃত্যুদন্ড

প্রকাশিত হয়েছে: ১১-১০-২০১৯ ইং ০৪:৩৮:০৪ | সংবাদটি ১৭৭ বার পঠিত
Image

ডাক ডেস্ক : ঢাকার উইলস লিটল ফ্লাওয়ার স্কুলের ছাত্রী সুরাইয়া আক্তার রিশাকে তিন বছর আগে ছুরি মেরে হত্যার দায়ে দরজি দোকানের কর্মচারী ওবায়দুল হকের ফাঁসির রায় দিয়েছেন আদালত।
ঢাকার মহানগর দায়রা জজ কে এম ইমরুল কায়েশ গতকাল বৃহস্পতিবার আসামির উপস্থিতিতে আলোচিত এ মামলার রায় ঘোষণা করেন।
মৃত্যুদ-ের পাশাপাশি আসামি ওবায়দুল হককে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয় মামলার রায়ে।
রায় শুনে সন্তোষ প্রকাশ করলেও মেয়ের জন্য আদালতে কান্নায় ভেঙে পড়েন রিশার মা তানিয়া বেগম।
আর রায় শুনতে উপস্থিত হওয়া উইলস লিটল ফ্লাওয়ার স্কুলের শিক্ষার্থীরা আদালতের প্রাঙ্গণে আনন্দ প্রকাশ করে।
সিদ্দিক বাজারের ব্যবসায়ী রমজান হোসেনের মেয়ে রিশা ঢাকার কাকরাইলের উইলস লিটল ফ্লাওয়ার স্কুলের অষ্টম শ্রেণিতে পড়ত।
২০১৬ সালের ২৪ আগস্ট দুপুরে স্কুলের সামনে ফুটব্রিজে তাকে ছুরিকাঘাত করা হয়। চার দিন পর হাসপাতালে মারা যায় ১৪ বছর বয়সী ওই কিশোরী।
হামলার দিনই রিশার মা তানিয়া বেগম রমনা থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের ১০ ধারায় এবং দ-বধির ৩২৪/৩২৬/৩০৭ ধারায় হত্যাচেষ্টা ও গুরুতর আঘাতের অভিযোগে মামলা করেন। রিশা মারা যাওয়ার পর এটি হত্যা মামলায় পরিণত হয়।
মেয়ে হত্যাকা-ের পর দরজি দোকানের কর্মচারী ওবায়দুল খানকে সন্দেহের কথা জানিয়েছিলেন রিশার মা। রিশার সহপাঠীদের বিক্ষোভের মধ্যে ৩১ আগস্ট নীলফামারীর ডোমার থেকে গ্রেপ্তার করা হয় ওবায়দুলকে।
দিনাজপুর জেলার বীরগঞ্জ উপজেলার মোহনপুর ইউনিয়নের মীরাটঙ্গী গ্রামের আবদুস সামাদের ছেলে ওবায়দুল ইস্টার্ন মল্লিকা শপিং মলে বৈশাখী টেইলার্স নামের একটি দর্জির দোকানের কর্মচারী ছিলেন।
রিমান্ডে জিজ্ঞাসাবাদের পর ওবায়েদুল (৩০) স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিতে বলেন, প্রেমের প্রস্তাবে রিশা রাজি না হওয়ায় তাকে খুন করেছিলেন তিনি।
তদন্ত শেষে রমনা থানার পরিদর্শক আলী হোসেন ২০১৬ সালের ১৪ নভেম্বর ওবায়দুলকে একমাত্র আসামি করে আদালতে অভিযোগপত্র দেন। রিশার চার সহপাঠীসহ ২৬ জনকে সাক্ষী করা হয় সেখানে।
অভিযোগপত্রে বলা হয়, রিশার মা তানিয়া ওই হত্যাকা-ের ৫-৬ মাস আগে রিশাকে নিয়ে বৈশাখী টেইলার্সে কাপড় সেলাই করাতে যান। এরপর দোকানের রসিদের কপি থেকে ফোন নম্বর নিয়ে দোকানের কর্মচারী ওবায়দুল ফোনে রিশাকে বিরক্ত করতে থাকেন। রিশা প্রেমের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় ওবায়দুল তাকে ছুরি মেরে হত্যা করেন।
ওই তদন্ত প্রতিবেদনের ভিত্তিতে ২০১৭ সালের ১৭ এপ্রিল আদালত অভিযোগ গঠনের মধ্য দিয়ে আসামি ওবায়দুলের বিচার শুরুর আদেশ দেন।
বাদীপক্ষের ২৬ জন সাক্ষীর মধ্যে মোট ২১ জনের সাক্ষ্য ও জেরা শেষে বিচারক গতকাল বৃহস্পতিবার আসামি ওবায়েদুলকে দোষী সাব্যস্ত করে সর্বোচ্চ সাজার রায় দিলেন।
রায়ের পর্যবেক্ষণে বিচারক বলেন, “ভালোবাসার অধিকার সবারই আছে, কিন্তু ভালোবাসার জন্য এ ধরনের ঘটনা ঘটানো ন্যাক্কারজনক, ভয়ঙ্কর অন্যায়। ভবিষ্যতে কেউ যেন এ ধরনের ঘটনা ঘাটনোর সাহস না পায়, সেজন্য আসামির সর্বোচ্চ শাস্তি হওয়া উচিৎ বলে আমি মনে করি।”

শেয়ার করুন

ফেসবুকে সিলেটের ডাক

শেষের পাতা এর আরো সংবাদ
  • তিলপাড়া ইউনিয়নে বিয়ানীবাজার থানা জনকল্যাণ সমিতি ইউকে’র আর্থিক সহায়তা প্রদান
  • জগন্নাথপুরে নলজুর সেতুর সংযোগ সড়ক উদ্বোধন
  • বিয়ানীবাজারের ৪ ইউনিয়নে থানা জনকল্যাণ সমিতি ইউকের আর্থিক সহায়তা প্রদান
  • যুক্তরাজ্য বিএনপির উদ্যোগে পূর্ব লন্ডনের নিউহ্যাম হসপিটালের এনএইচএস ষ্টাফদের জন্য খাদ্য বিতরণ
  • সিলেটে ৮৫০ পরিবারকে খাদ্য সহায়তা প্রদান করেছে দক্ষিণ সুরমা সমাজ কল্যাণ সমিতি
  • ওয়ার্ল্ড বিডি হিউম্যান হেল্প এসোসিয়েশনের কমিটি গঠিত
  • রাধাকান্ত দেবনাথের শ্রাদ্ধানুষ্ঠান আজ
  • ব্যবসায়ী গৌসুল আলম গেদু’র ব্যক্তিগত উদ্যোগে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ
  • মাধবপুরের আবাবিল সোসাইটির ত্রাণ বিতরণ
  • করোনায় অসহায় ১৮১ পরিবারের পাশে প্রজন্ম প্রত্যাশা
  • হাতিম চৌধুরী ইসলামিয়া হাফিজিয়া দাখিল মাদ্রাসার কৃতজ্ঞতা প্রকাশ
  • শাল্লায় কমিউনিস্ট পার্টির হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিতরণ
  • আরও একশ পরিবারে খাদ্য সামগ্রী পৌছে দিল বন্ধন সমাজ কল্যাণ যুব সংঘ
  • অসহায় পরিবারদের উপহার সামগ্রী দিল সিলেট জেলা ছাত্রলীগ
  • মাধবপুরে সুরমা চা বাগানে ত্রাণ বিতরণ
  • সিলেটে ১শ’ পরিবারের ১মাসের ভরণপোষণের দায়িত্ব নিলেন ব্যবসায়ী গৌসুল আলম
  • রোটারী ক্লাব অব গ্র্যান্ড সিলেট-এর ত্রাণ সহায়তা পেল নগরীর শতাধিক পরিবার
  • সিলেটে দৃষ্টিপ্রতিবন্ধীদের পাশে বৃটেনের ইষ্টহ্যান্ড
  • কোম্পানীগঞ্জে ঠিকাদার ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশনের খাদ্য সামগ্রী বিতরণ
  • বিয়ানীবাজারে প্রবাসীদের অনুদান পেলেন দু’শতাধিক পরিবার
  • Image

    Developed by:Sparkle IT