সাহিত্য

ছুঁয়ে যায় ভেতর বাহির

মুহম্মদ তোবারক আলী প্রকাশিত হয়েছে: ২০-১০-২০১৯ ইং ০০:১৯:৫২ | সংবাদটি ১০৪ বার পঠিত



নদীতে ডুবতে গিয়ে ভেসে ওঠি বারবার
মনে হয় কেউ বুঝি সেই প্রিয় নাম ধরে ডাকছে আমায়।
আমারতো নাম নেই, নামহীন এক গোত্রে ছিল আজন্ম বসবাস
চৈত্রের গোধূলি রঙে আমায় রাঙিয়ে তুমি
চলে গেলে কোন দূরে?
সরোবরে ডুব দিয়ে স্বীকৃত মাতাল আমি আহা!
খুঁজেছি প্রেয়সী তোমায়....
ছুঁতে গিয়ে বারবার সোনালী চিবুক তোমার
ছিটকে পড়েছি আমি সাত সমুদ্রের নোনা জলে।
দ্যাখোনি তাকিয়ে তবু কী যন্ত্রণা পাকিয়ে
নির্জনে কুড়াই সেইসব দিনরাত্রি
দ্যাখোনি সুমাত্রা কোলে সৌম্য শিলা সৌষ্ঠভে
ক্যামোন এক রাজ প্রাসাদ গড়েছি
তোমারই জন্য হে প্রিয়তমা!
দ্যাখোনি তোমার জন্য বরাক এনেছি সুরমা করে
সুরমাকে বইয়ে দিয়েছি ¯্রােতস্বিনী কুশিয়ারা করে
তারপর মেঘনায় ডুবুরীর মতো ডুবতে ডুবতে ভেসেছি অনেক
তারা হয়ে আকাশের রন্ধ্রে রন্ধ্রে প্রবেশ করেছি দুর্নিবার
আমি অনিদ্রার ঘোর কাটিয়ে ওঠেছি নিদ্রাচ্ছন্ন পরম পুরুষ।
পরমাচ্ছন্ন মানবীদের জাগিয়ে তুলেছি
ধ্যানী যোগীদের আখড়া থেকে
আকাশের নীল থেকে সবটুকু নির্যাস এনে
রক্ত জবার তিলক এঁকেছি
রামধনু রঙ দিয়ে ঠোঁটের পাপড়ি করেছি গোলাপ বাগান।
তবু হলে স্বার্থপর, নিজেকে ভাবলে এক প্রাজ্ঞ মুকুট ধীরাজ
হওনি আমার তুমি সমুদ্রের মতো সীমাহীন ভালোবাসা,
তারপরও..........
যেতে যেতে বারবার ফিরে আমি তন্দ্রাচ্ছলে নিজেরই ঠিকানায়
ভাবি বুঝি পেয়ে গেছি হারানো আমার সেই হীরক সা¤্রাজ্য।

 

শেয়ার করুন

Developed by: Sparkle IT