শেষের পাতা

৫০ শয্যা বিশিষ্ট মাধবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে তীব্র ঔষধ সংকট

প্রকাশিত হয়েছে: ২১-১০-২০১৯ ইং ০৩:৫৭:০২ | সংবাদটি ১৭৬ বার পঠিত
Image

রোকন উদ্দিন লষ্কর, মাধবপুর (হবিগঞ্জ) থেকে ॥ ৫০ শয্যা বিশিষ্ট মাধবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ঔষধ সংকট তীব্র আকার ধারণ করেছে। এতে করে গ্রামাঞ্চল থেকে আগত লোকজন সরকারি ঔষধ থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন। ভুক্তভোগীরা জানিয়েছেন, প্যারাসিটামল পর্যন্ত সরবরাহ নেই এ হাসপাতালে। এতে করে সাধারণ রোগীদের মধ্যে হতাশা ও ক্ষোভ দেখা দিয়েছে।
সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, ঔষধ অধিদপ্তর কর্তৃক জেলা না উপজেলা পর্যায়ে ঔষধ সরবরাহ হবে এ সিদ্ধান্তহীনতার কারণে মাধবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ৩ মাস যাবত ঔষধ সরবরাহ বন্ধ রয়েছে। যে কারণে প্যারাসিটামল, কলেরা স্যালাইনসহ জীবন রক্ষাকারী ঔষধ একেবারেই নেই। এছাড়া, দু’একটি গ্রুপের ঔষধ থাকলেও তা খুব সীমিত। মাধবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গতকাল রোববার সকাল ১১ টার দিকে গিয়ে দেখা যায়, হাসপাতালে আগত আউটডোর ইনডোরের রোগীদের দু’একটি ঔষধ ছাড়া বাকি সব ধরনের সরকারি ঔষধ সরবরাহ বন্ধ রয়েছে। নাম প্রকাশ না করার শর্তে কর্তব্যরত একজন চিকিৎসক জানান, হাসপাতাল থেকে জানানো হয়েছে কোন ধরনের ঔষধ ব্যবস্থাপত্রে লিখা যাবে না। কারণ ঔষধ নেই। এ জন্য ডাক্তাররা ব্যবস্থাপত্রে ঔষধ লিখে বাইরে থেকে ঔষধ সংগ্রহের পরামর্শ দিচ্ছেন।
গোয়ালনগর গ্রামের ফটক চান জানান, তিনি ডাক্তার দেখিয়েছেন ; কিন্তু তার যে সমস্যা সেই রোগের ঔষধ হাসপাতালে নেই। তেলিয়াপাড়া থেকে আসা দুলাল মিয়া জানান, এত দূর থেকে গাড়ী ভাড়া দিয়ে ডাক্তার দেখাতে এসেছি। ডাক্তার ৩ ধরণের ঔষধ লিখে দিয়েছেন। কিন্তু, মাত্র ১ জাতের ঔষধ পেয়েছেন তিনি। ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার বিজয়নগর উপজেলার এক্তারপুর গ্রামের মমিনা আক্তারকে নিয়ে তার স্বজনরা হাসপাতালে আসেন। ডাক্তার দেখিয়েছেন কিন্তু ঔষধ পাননি।
হাসপতালের ফার্মাসিষ্ট মালেক মিয়া জানান, জরুরী প্রয়োজনীয় ঔষধ গুলো নেই। এর মধ্য রয়েছে প্যারাসিটামল, ভি-কমপ্লেক্স, মেট্রোজল, কলেরা স্যালাইন ইত্যাদি।
উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা এইচএম ইশতিয়াক মামুন জানান, প্রতিদিন এ হাসপাতালে আউটডোর, ইনডোরে ৬-৭’শ রোগী চিকিৎসা নিতে আসে। কিন্তু তিন মাস যাবত হাসপাতালে ঔষধ সরবরাহ নেই। এতে করে স্টক শেষ হয়ে গেছে। এ অবস্থায় রোগীদের সরকারি ঔষধ দেওয়া সম্ভব হচ্ছে না। ঔষধ অধিদপ্তর কৃর্তক জেলা না উপজেলা পর্যায়ে ঔষধ সরবরাহ হবে এ সিদ্ধান্ত হীনতার কারণে মাধবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ৩ মাস যাবত ঔষধ সরবরাহ বন্ধ রয়েছে বলে জানান তিনি।
যোগাযোগ করা হলে হবিগঞ্জের সিভিল সার্জন ডা. একেএম মোস্তাফিজুর রহমান জানান, ঔষধ অধিদপ্তরের নীতিগত সিদ্ধান্ত না হওয়ায় এ পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে। তবে, খুব দ্রুত উদ্ভুত সংকট নিরসন হবে বলে উল্লেখ করেন তিনি।

শেয়ার করুন

ফেসবুকে সিলেটের ডাক

শেষের পাতা এর আরো সংবাদ
  • তিলপাড়া ইউনিয়নে বিয়ানীবাজার থানা জনকল্যাণ সমিতি ইউকে’র আর্থিক সহায়তা প্রদান
  • জগন্নাথপুরে নলজুর সেতুর সংযোগ সড়ক উদ্বোধন
  • বিয়ানীবাজারের ৪ ইউনিয়নে থানা জনকল্যাণ সমিতি ইউকের আর্থিক সহায়তা প্রদান
  • যুক্তরাজ্য বিএনপির উদ্যোগে পূর্ব লন্ডনের নিউহ্যাম হসপিটালের এনএইচএস ষ্টাফদের জন্য খাদ্য বিতরণ
  • সিলেটে ৮৫০ পরিবারকে খাদ্য সহায়তা প্রদান করেছে দক্ষিণ সুরমা সমাজ কল্যাণ সমিতি
  • ওয়ার্ল্ড বিডি হিউম্যান হেল্প এসোসিয়েশনের কমিটি গঠিত
  • রাধাকান্ত দেবনাথের শ্রাদ্ধানুষ্ঠান আজ
  • ব্যবসায়ী গৌসুল আলম গেদু’র ব্যক্তিগত উদ্যোগে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ
  • মাধবপুরের আবাবিল সোসাইটির ত্রাণ বিতরণ
  • করোনায় অসহায় ১৮১ পরিবারের পাশে প্রজন্ম প্রত্যাশা
  • হাতিম চৌধুরী ইসলামিয়া হাফিজিয়া দাখিল মাদ্রাসার কৃতজ্ঞতা প্রকাশ
  • শাল্লায় কমিউনিস্ট পার্টির হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিতরণ
  • আরও একশ পরিবারে খাদ্য সামগ্রী পৌছে দিল বন্ধন সমাজ কল্যাণ যুব সংঘ
  • অসহায় পরিবারদের উপহার সামগ্রী দিল সিলেট জেলা ছাত্রলীগ
  • মাধবপুরে সুরমা চা বাগানে ত্রাণ বিতরণ
  • সিলেটে ১শ’ পরিবারের ১মাসের ভরণপোষণের দায়িত্ব নিলেন ব্যবসায়ী গৌসুল আলম
  • রোটারী ক্লাব অব গ্র্যান্ড সিলেট-এর ত্রাণ সহায়তা পেল নগরীর শতাধিক পরিবার
  • সিলেটে দৃষ্টিপ্রতিবন্ধীদের পাশে বৃটেনের ইষ্টহ্যান্ড
  • কোম্পানীগঞ্জে ঠিকাদার ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশনের খাদ্য সামগ্রী বিতরণ
  • বিয়ানীবাজারে প্রবাসীদের অনুদান পেলেন দু’শতাধিক পরিবার
  • Image

    Developed by:Sparkle IT