প্রথম পাতা বাংলাদেশ প্রতিনিধি দল ভারত পৌঁছেছে

আসামের গুয়াহাটিতে বাংলাদেশ ভারত স্টেক হোল্ডার বৈঠক আজ

নূরুল ইসলাম, গুয়াহাটি (আসাম) ভারত থেকে প্রকাশিত হয়েছে: ২২-১০-২০১৯ ইং ০৩:৫৬:৪৭ | সংবাদটি ৯০ বার পঠিত

বাংলাদেশ ও উত্তর-পূর্ব ভারতের রাজ্যগুলোর সাথে ব্যবসা-বাণিজ্য প্রসারিত, অর্থনৈতিক, সামাজিক সাংস্কৃতিক উন্নয়ন ও আসাম-সিলেটের মানুষের মধ্যে সম্পর্ক স্থাপনের লক্ষ্যে আজ মঙ্গলবার আসামের প্রশাসনিক রাজধানী গুয়াহাটিতে বাংলাদেশ ও ভারত সরকারের উচ্চ পর্যায়ে দ্বি-পাক্ষিক স্টেক হোল্ডার বৈঠক অনুষ্ঠিত হচ্ছে। বাংলাদেশ প্রতিনিধি দল-কে স্বাগত জানাতে আসামের রাজধানী গুয়াহাটি শহরের বিভিন্ন সড়কে তোরণ নির্মাণ করা হয়েছে। দ্বি-পাক্ষিক স্টেক হোল্ডার বৈঠকে অংশগ্রহণ করতে বাংলাদেশ প্রতিনিধি দলের সদস্যগণ এখন গুয়াহাটিতে অবস্থান করছেন। গতকাল সোমবার ঢাকা ও তামাবিল ডাউকি শিলং হয়ে পৃথকভাবে সফরকারী প্রতিনিধি দল ভারতে প্রবেশ করেন।
সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, আসামের মুখ্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সোনোয়াল‘র আমন্ত্রণে বাংলাদেশের বাণিজ্য মন্ত্রী টিপু মুনশী, প্রধানমন্ত্রীর অর্থনৈতিক বিষয়ক উপদেষ্টা ড. মশিউর রহমান, জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের চেয়ারম্যান মোশারফ হোসেন ভূইয়া, কলকাতাস্থ বাংলাদেশের ডেপুটি হাই কমিশনের ফার্স্ট সেক্রেটারী (বাণিজ্য) সামছুল আরিফ, চট্রগ্রাম ও মাংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান, শিল্প মন্ত্রণালয়ের সচিব, স্থলবন্দর কর্তৃপক্ষের এডিশনাল সেক্রেটারী , ইন্দ্রো বাংলাদেশ চেম্বার অব কমার্স‘র প্রতিনিধি ,বিআরটিসি‘র চেয়ারম্যান এডিশনাল সেক্রেটারী এহসান-ই এলাহী , গুয়াহটিতে অবস্থিত বাংলাদেশের সহকারী হাই কমিশনার ড. শাহ মহাম্মদ তানভীর মনছুর, ভারতের নয়াদিল্লীস্থ হাই কমিশনের অর্থনৈতিক সচিব রাশেদুল আমিন, বাণিজ্য সচিব আতিকুল হক সহ বাংলাদেশ সরকারের বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের সচিব ,যুগ্ম সচিব, সড়ক পরিবহন বিভাগ, ব্যবসায়ী সংগঠন এফবিসিসিআই‘র সভাপতি, সিলেট চেম্বার অব কমার্সের সভাপতি, প্রশাসনের উচ্চ পর্যায়ের কর্মকর্তা সহ ৯০ সদস্য বিশিষ্ট প্রতিনিধি দল আসাম সফরে রয়েছেন। প্রতিনিধি দলের রয়েছেন সিলেট চেম্বার অব কমার্সের ২০ সদস্যের প্রতিনিধি।
বাংলাদেশ-ভারত দ্বি-পাক্ষিক বৈঠকের বিষয়ে আসামের বাণিজ্য ও পরিবহনমন্ত্রী চন্দ্র মোহন পাটোয়ারী জানান, বৈঠকে ভারতের ৭০ সদস্য বিশিষ্ট প্রতিনিধি দল অংশ গ্রহণ করবেন। বাণিজ্য মন্ত্রণালয় সহ সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, বাংলাদেশ থেকে ৯০ সদস্য বিশিষ্ট প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব রয়েছেন বাণিজ্য মন্ত্রী টিপু মুনশী। বৈঠকে আসাম সফরকারী প্রতিনিধি দল কয়েকটি গ্রুপে বৈঠকের বিভিন্ন সেশনে অংশ গ্রহণ করবেন।
বাংলাদেশের সাথে ভারতের সেভেন সিস্টার্স রাজ্যগুলোর যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়ন সড়ক পথ,রেলপথ, নৌ-পথ এবং আকাশ পথ ব্যবহার করতে ব্যাপক ভাবে আগ্রহী উত্তর-পূর্ব ভারতের রাজ্য সরকার গুলো। ইতোমধ্যে ঢাকা-শিলং-গুয়াহাটি সরাসরি বাস সার্ভিস চালু করা হয়।
নর্থ-ইস্ট রাজ্যগুলোতে ব্যবসা-বাণিজ্য ও যোগাযোগ বৃদ্ধি করতে আসামের সাথে সম্পর্ক উন্নয়নে আসামের গুয়াহাটি শহরে বাংলাদেশের সহকারী হাইকমিশন মিশন অফিস চালু করা হয়। বাংলাদেশের সাথে আসাম ও উত্তর-পূর্ব রাজ্যগুলোর বাণিজ্য এবং কানেক্টিভিটি বাড়াতে এই উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার ও আসাম সরকার যৌথভাবে এই উদ্যোগে সহযোগিতা করছে বলে জানা গেছে। আসামের গুয়াহাটি হোটেল রেডিসন ব্লুতে বাংলাদেশ-ভারত স্টেক হোল্ডার বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে। ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি সরকারের কেন্দ্রীয় বাণিজ্যমন্ত্রী পীষুষ গোয়েল ও বাংলাদেশের বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশী উভয় দেশের উচ্চ পর্যায়ের সরকারী প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দেবেন। আসামের মুখ্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সোনোয়াল ,বাণিজ্য ও পরিবহন মন্ত্রী চন্দ্র মোহন পাটোয়ারীসহ আসাম রাজ্য সভার সদস্য ও কেন্দ্রীয় সরকারের উচ্চ পর্যায়ের কর্মকর্তাগণ বৈঠকে অংশ গ্রহণ করবেন।
সম্মেলনে বাংলাদেশের সাথে স্থলপথে, সরাসরি পণ্যবাহী গাড়ি চলাচল, নৌ-পথ এবং চট্টগ্রাম ও মংলা সমুদ্র বন্দর ব্যবহার সংক্রান্ত বিষয়ে সিদ্ধান্ত হতে পারে। অ্যাডভান্স অসম প্রকল্পের অধীনে এসব পদক্ষেপ বাস্তবায়নের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। চট্টগ্রাম মংলা সমৃদ্র বন্দর ব্যবহার করে বাংলাদেশ, ভারত, ভুটান ও নেপালের মধ্যে সরাসরি গাড়ি চলাচল বিষয়েও সিদ্ধান্ত আসতে পারে। তবে কিছু টেকনিক্যাল সমস্যার কারণে এসব চুক্তি বাস্তবায়ন করা যাচ্ছে না। গুয়াহাটি দ্বি-পাক্ষিক বৈঠকে সমস্যাগুলো চিহ্নিত করে সমাধান করা হবে বলে আশা প্রকাশ করা হচ্ছে। বাংলাদেশের নৌ-পথ ও স্থলপথে আসাম এবং নর্থ-ইস্টের মধ্যে পণ্য পরিবহন ,চট্রগ্রাম ও মংলা সমুদ্র বন্দর ব্যবহার করতে পারলে আসাম-বাংলাদেশের ব্যবসায়ীগণ অনেক উপকৃত হবেন। পাশাপাশি বাংলাদেশের সাথে আসামের নৌ-পথে কানেক্টিভিটিতে এক বৈপ্লবিক পরিবর্তন আসবে। এতে করে সিলেট-আসামের অর্থনৈতিক ও সামাজিক উন্নয়নে ব্যাপক ভূমিকা রাখবে।
আসামের বাণিজ্য ও পরিবহন মন্ত্রী চন্দ্র মোহন পাটোয়ারী জানান, আসামের মুখ্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সোনেয়াল‘র নেতৃত্বে অ্যাক্ট-ইস্ট পলিসির অধীনে শিল্প-ব্যবসা,বাণিজ্য, যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়ন ভারত-বাংলাদেশের মধ্যে বিশেষ করে সিলেটের মানুষের সাথে আসামের সম্পর্ক আরও সুদৃঢ় করতে সম্পর্ক উন্নয়ন যাত্রা শুরু করা হয়েছে।
গুয়াহাটি দ্বি-পাক্ষিক বৈঠকে বাংলাদেশের সাথে ব্যবসা-বাণিজ্য, নৌ-পথ ও স্থলপথে যোগাযোগ বাড়ানো এবং পর্যটন শিল্পের উন্নয়ন সহ আরো বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে আলোচনা করা হবে বলে সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন।

শেয়ার করুন
প্রথম পাতা এর আরো সংবাদ
  • সিলেট বিভাগে গতবারের চেয়ে কম ৪০ হাজার ৬৮৯ পরীক্ষার্থী
  • পেঁয়াজ নিয়ে হৈ চৈ ॥ দাম ১৮০-২২০ টাকা সবজির দাম স্থিতিশীল
  • আজ থেকে ইবতেদায়ী সমাপনী পরীক্ষা শুরু
  • দুবাই পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী
  • আগামী দু’দিনের মধ্যে পেঁয়াজ ভর্তি বিমান পৌঁছবে
  • আগামী দু’দিনের মধ্যে পেঁয়াজ ভর্তি বিমান পৌঁছবে প্রধানমন্ত্রীর আশাবাদ
  • মওলানা ভাসানীর ৪৩তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ
  • সিটি কর্পোরেশনের পরিধি বাড়লে উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ গঠনের সুযোগ সৃষ্টি হবে
  • সৌদি থেকে ফিরলেন নির্যাতিত সেই সুমি
  • দক্ষিণ সুরমায় ১১টি মোবাইলসহ চার ছিনতাইকারী গ্রেফতার
  • দেশকে এগিয়ে নিতে অর্থনৈতিক উন্নয়নের পাশাপাশি প্রয়োজন সাংস্কৃতিক গণজাগরণ .... ড. এ কে আব্দুল মোমেন
  • সিলেট অঞ্চলে রোপা আমন ধান কর্তনে ব্যস্ত কৃষক
  • ছড়ারপারের একটি কলোনি থেকে যুবকের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার
  • মুজিববর্ষের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা মোদি
  • পেঁয়াজ সিন্ডিকেটের সাথে সরাসরি মন্ত্রী-এমপি জড়িত : রিজভী
  • ঘুষ লেনদেনে দক্ষিণ এশিয়ায় শীর্ষে বাংলাদেশ!
  • এখনই নেতৃত্বে আসতে ‘চান না’ জয়: কাদের
  • রাষ্ট্রপতি দেশে ফিরেছেন
  • প্রধানমন্ত্রী দুবাই এয়ারশেতে যোগ দিতে আমিরাত যাচ্ছেন আজ
  • তূর্ণার ট্রেনচালক ও সহকারী চালককে দায়ী করা হয়েছে
  • Developed by: Sparkle IT