শেষের পাতা রিসার্চ ফেলোশিপ পেলেন সেলিম আউয়াল

সাংবাদিকতার পাশাপাশি সিলেট প্রেসক্লাব গবেষণার ওপর জোর দিচ্ছে --------------আবুল মাল আবদুল মুহিত

স্টাফ রিপোর্টার প্রকাশিত হয়েছে: ০৬-১১-২০১৯ ইং ০২:৪৮:২৪ | সংবাদটি ৫৭ বার পঠিত

 প্রখ্যাত লেখক-গবেষক ও সাবেক অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত বলেছেন, সিলেট প্রেসক্লাব বেশ পুরনো ও ঐতিহ্যে সমৃদ্ধ প্রতিষ্ঠান। সাংবাদিকতার পাশাপাশি সাম্প্রতিক সময়ে এই ক্লাব গবেষণার ওপর জোর দিচ্ছে, এটি খুবই তাৎপর্যপূর্ণ।
গতকাল মঙ্গলবার সিলেট প্রেসক্লাব প্রবর্তিত সাংবাদিকতা বিষয়ে ফেলোশিপ প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। ‘স্বাধীনতাপূর্ব সিলেটের সাংবাদিকতা ও সিলেট প্রেসক্লাব’ শীর্ষক গবেষণাকর্মের জন্য এবারের ফেলোশিপ দেয়া হয় লেখক, গবেষক সেলিম আউয়ালকে। বাংলা সংবাদপত্র প্রকাশনার ২শ’ বছর পূর্তিতে সিলেট প্রেসক্লাব এ ফেলোশিপ প্রবর্তন করে।
সিলেট প্রেসক্লাবের সভাপতি ইকরামুল কবিরের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক ইকবাল মাহমুদের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন-বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের সাবেক সদস্য নর্থ ইস্ট ইউনিভার্সিটির ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. আতফুল হাই শিবলী।
প্রেসক্লাবের আমীনূর রশীদ চৌধুরী মিলনায়তনে আয়োজিত ফেলোশিপ প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে আবুল মাল আবদুল মুহিত আরো বলেন, সিলেট প্রেসক্লাব উপযুক্ত মানুষকে ফেলোশিপ প্রদান করেছে। সেলিম আউয়ালের সাহিত্য, সাংবাদিকতা ও গবেষণায় সমান দখল রয়েছে। সাবেক এই মন্ত্রী বলেন, সবসময় যে ফেলোশিপ দিতে হবে তা নয়, যখনই দেয়া হবে যাতে উপযুক্ত মানুষের হাতে দেয়া হয়। আবুল মাল আবদুল মুহিত বলেন, রিসার্চ ফেলোশিপ প্রদানের মাধ্যমে সিলেটের সাংবাদিকতায় একটি নবযুগের সূচনা হলো। এ গৌরবের মুহূর্তে শরীক হতে পেরে তিনি আনন্দিত বলে মন্তব্য করেন আবুল মাল আবদুল মুহিত। অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সিলেট জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক মাহি উদ্দিন আহমদ সেলিম ও দৈনিক সিলেটের ডাক এর নির্বাহী সম্পাদক গবেষক আবদুল হামিদ মানিক।
অনুভূতি প্রকাশ করেন ফেলোশিপপ্রাপ্ত সাংবাদিক সেলিম আউয়াল ও তার পরিবারের পক্ষে তার কন্যা সিলেট উইমেন্স মেডিকেল কলেজের ইন্টার্ন চিকিৎসক ডা. নাদিরা নুসরাত মাশিয়াত। শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন ক্লাব সদস্য লুৎফুর রহমান তোফায়েল। অনুষ্ঠানে সেলিম আউয়ালের হাতে আনুষ্ঠানিকভাবে ফেলোশিপ সনদ, সম্মানী তুলে দেন প্রধান অতিথি।
বিশেষ অতিথির বক্তব্যে নর্থইস্ট ইউনিভার্সিটির ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. আতফুল হাই শিবলী বলেন, ফেলোশিপ প্রদান সিলেট প্রেসক্লাবের এক যুগান্তকারী উদ্যোগ। সেলিম আউয়ালের এই গবেষণা এক সময়ে ঐতিহাসিক কর্ম হিসেবে বিবেচিত হবে। তিনি বলেন সততা না থাকলে ভালো সাংবাদিক হওয়া যায় না। রাজনৈতিক লেজুড়বৃত্তি থেকে বেরিয়ে সাংবাদিকতায় মনোনিবেশ করলে কেউ কখনো খালি হাতে ফিরবে না। তথ্য পরিবেশনে সচেতন হলেই ইতিহাসে জায়গা করে নেয়া যাবে।
সেলিম আউয়াল অনুভূতি প্রকাশ করতে গিয়ে বলেন, উপমহাদেশে বাংলা সংবাদপত্র প্রকাশের ১৩ বছরের মাথায় সিলেটের গৌরীশঙ্কর ভট্টাচার্য কলকাতায় সংবাদপত্র সম্পাদনা করেছেন। এইভাবে সিলেটের মানুষ সাংবাদিকতায় গুরুত্বপূর্ণ ও ঐতিহাসিক অবদান রেখেছেন।
সভাপতির বক্তব্যে ইকরামুল কবির বলেন, সিলেট প্রেসক্লাবের রয়েছে গৌরবোজ্জ্বল এক ইতিহাস। সেই ইতিহাসকে লিপিবদ্ধ করার মতো দু:সাহসিক কাজ সাংবাদিক সেলিম আউয়াল সম্পন্ন করেছেন। এই গবেষণার মাধ্যমে সেলিম আউয়াল সিলেটের সাংবাদিকতার ইতিহাসে নিজেকে যুক্ত করেছেন এক অনন্য কর্মে।
২০১৮ সালে প্রথমবারের মতো সিলেট প্রেসক্লাব ফেলোশিপ প্রবর্তন করা হয়। এ ফেলোশিপের গবেষণার বিষয় ছিল ‘স্বাধীনতা পূর্ব সিলেটের সাংবাদিকতা ও সিলেট প্রেসক্লাব।’ প্রেসক্লাবের সহযোগী সদস্য সেলিম আউয়াল প্রায় দুই বছরব্যাপী কাজ করে ১৬টি প্রবন্ধে এ গবেষণা সম্পন্ন করেন। তার গবেষণা প্রবন্ধগুলো বিভিন্ন সময় স্থানীয় দৈনিক সিলেটের ডাকে প্রকাশিত হয়েছে। সম্প্রতি তার এ গবেষণাটি সিলেট প্রেসক্লাবের কার্যনির্বাহী কমিটি অনুমোদন করে। মঙ্গলবার আনুষ্ঠানিকভাবে তাকে ফেলোশিপ সনদ প্রদান করা হয়।
অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সাংবাদিক-কলামিস্ট আফতাব চৌধুরী, বাংলাদেশ সিএনজি এন্ড পেট্রোল পাম্প ওনার্স এসোসিয়েশনের কেন্দ্রীয় মহাসচিব জুবায়ের আহমদ চৌধুরী, প্রেসক্লাবের সিনিয়র সহ-সভাপতি এনামুল হক জুবের, সহ-সভাপতি এম এ হান্নান, সাবেক সহ-সভাপতি আতাউর রহমান আতা ও মুহাম্মদ আমজাদ হোসাইন, সাবেক সাধারণ সম্পাদক মো. বশির উদ্দিন, সমরেন্দ্র বিশ্বাস সমর ও মোহাম্মদ সিরাজুল ইসলাম, সিনিয়র সাংবাদিক আব্দুর রাজ্জাক, আরটিভির সিনিয়র রিপোর্টার কামকামুর রাজ্জাক রুনু, প্রেসক্লাবের সাবেক কোষাধ্যক্ষ খালেদ আহমদ, সাবেক ড্রাগ সুপার ডা. এম এ জলিল চৌধুরী, বাংলাদেশ ব্যাংকের যুগ্ম পরিচালক মো. জাবেদ আহমদ ও উপ পরিচালক আমিনুল ইসলাম, দৈনিক সিলেটের ডাকের ব্যবস্থাপনা সম্পাদক ওয়াহিদুর রহমান ওয়াহিদ, প্রেসক্লাবের ক্রীড়া ও সংস্কৃতি সম্পাদক নূর আহমদ, পাঠাগার ও প্রকাশনা সম্পাদক খালেদ আহমদ, কার্যনির্বাহী সদস্য দিগেন সিংহ, প্রেসক্লাব সদস্য আব্দুল বাতিন ফয়সল, মো. আমিরুল ইসলাম চৌধুরী এহিয়া, মুহাম্মদ তাজ উদ্দিন, মো. মঈন উদ্দিন মনজু, মো. আব্দুল মুকিত অপি, মো. দুলাল হোসেন, শেখ আশরাফুল আলম নাসির, কাউসার চৌধুরী, প্রবাসী সাংবাদিক আকবর হোসেন, প্রাবন্ধিক বেলাল আহমদ চৌধুরী, কবি নাঈমা চৌধুরী, ইসমত হানিফা চৌধুরী, আলেয়া রহমান, রোকসানা চৌধুরী, নাসরিন চৌধুরী প্রমুখ।

শেয়ার করুন
শেষের পাতা এর আরো সংবাদ
  • ওসমানীর জন্মশতবার্ষিকীর সমাপনী অনুষ্ঠান ৫ ডিসেম্বর
  • শ্রীমঙ্গলে যুবকের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার
  • ছাতকে প্রতিপক্ষের দেয়া আগুনে সহস্রাধিক মোরগসহ ফার্ম ভস্মীভূত
  • পররাষ্ট্রমন্ত্রী রোববার সিলেট আসছেন
  • খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবীতে সিলেট জেলা বিএনপির বিক্ষোভ কাল
  • কৃষি অর্থনীতিবিদদের জন্য নির্দিষ্ট করায় সিকৃবিতে আনন্দ মিছিল
  • সিসিকের কাজে চাঁদা না দেয়ায় শ্রমিকের উপর হামলা : আহত ১
  • রাজনগরে বেশি দামে পেঁয়াজ বিক্রি ৫ ব্যবসায়ীকে জরিমানা
  • তদন্ত সংস্থার মর্যাদা পেল পুলিশের অ্যান্টি টেররিজম ইউনিট
  • সরকারের ভাবমূর্তি বিনষ্ট করতে গুজব ছড়ানো হচ্ছে
  • ফুডকার্টেই জীবন পাল্টেছে বৃহন্নলা সুমির
  • দক্ষিণ সুনামগঞ্জে রাস্তায় নিম্নমানের ইট !
  • আইনজীবীদের অবস্থান সুদৃঢ় করতে কাজ করে যাবো
  • তারেক রহমানের জন্মদিনে সিলেট মহানগর বিএনপির দোয়া মাহফিল
  • দোয়ারাবাজারে অগ্নিকান্ডে ৫ দোকান ভস্মিভূত : ক্ষয়ক্ষতি অর্ধকোটি টাকা
  • লিডিং ইউনিভার্সিটির ট্যুরিস্ট ক্লাবের শিক্ষা সফর
  • ছাতকে জনপ্রতিনিধি ও সরকারী কর্মকর্তাদের সাথে বিভাগীয় কমিশনারের মতবিনিময়
  • অতিরিক্ত সচিব শিশির রায়’র পরলোকগমণ
  • পোস্টমর্টেম রিপোর্ট স্পষ্ট অক্ষরে লিখতে হাইকোর্টের নির্দেশ
  • সংসদীয় তদন্ত কমিটির আহবায়ক এমপি মানিক
  • Developed by: Sparkle IT