শেষের পাতা

রিমান্ড শেষে কারাগারে জিকে শামীম, খালেদ

প্রকাশিত হয়েছে: ০৮-১১-২০১৯ ইং ০৩:০৭:২৭ | সংবাদটি ৪২ বার পঠিত

ডাক ডেস্ক : অবৈধ সম্পদ অর্জনের মামলায় আলোচিত ঠিকাদার জি কে শামীম ও বহিষ্কৃত যুবলীগ নেতা খালেদ মাহমুদকে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে কারাগারে পাঠিয়েছে আদালত।
বৃহস্পতিবার তাদের আদালতে হাজির করা হলে ঢাকার মহানগর জ্যেষ্ঠ বিশেষ জজ কে এম ইমরুল কায়েশ আসামিদের কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন বলে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) আইনজীবী মীর আহমেদ আলী সালাম জানান।
আদালতে তাদের পক্ষে সৈয়দ শাহ আলমসহ দুই আইনজীবী জামিন চান। আদালত জামিন আবেদন নাকচ করে দেন।
দুদকের আইনজীবী বলেন, “দুদক তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করেছে। আপতত আর জিজ্ঞাসাবাদের প্রয়োজন নেই। ভবিষ্যতে প্রয়োজন হলে আদালতের অনুমতি নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে।”
গত ২৭ অক্টোবর দুদকের এক আবেদনে ঢাকার জ্যেষ্ঠ বিশেষ জজ আদালতের ভারপ্রাপ্ত বিচারক মো. আল মামুন তাদের জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সাত দিনের হেফাজতে দিয়েছিলেন।
ফকিরাপুল ইয়ংমেন্স ক্লাবে অবৈধ ক্যাসিনো পরিচালনার অভিযোগে গত ১৮ সেপ্টেম্বর র‌্যাবের অভিযানে গ্রেপ্তার করা হয় ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের যুব সংগঠন যুবলীগের ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সাংগঠনিক সম্পাদক খালেদকে। এরপর যুবলীগ থেকেও তাকে বহিষ্কার করা হয়।
তখন অস্ত্র, মাদক ও মুদ্রাপাচার আইনে খালেদের বিরুদ্ধে চারটি মামলা হয়। ওই মামলাগুলোতে হেফাজতে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদের পর তাকে পাঠানো হয়েছিল কারাগারে।
গত ২১ অক্টোবর দুদকের সমন্বিত জেলা কার্যালয়-১ এ খালেদ ও শামীমের বিরুদ্ধে অবৈধ সম্পদ অর্জনের মামলা হয়।
খালেদের বিরুদ্ধে মামলাটি করেছেন দুদকের উপ-পরিচালক জাহাঙ্গীর আলম। মামলায় তার বিরুদ্ধে পাঁচ কোটি ৫৮ লাখ ১৫ হাজার ৮৫৯ টাকার অবৈধ সম্পদের মালিক হওয়ার অভিযোগ আনা হয়।
অপরদিকে জি কে শামীমের বিরুদ্ধে মামলা করেন দুদকের উপ-পরিচালক মো. সালাউদ্দিন। তার বিরুদ্ধে অবৈধ উপায়ে ২৯৭ কোটি আট লাখ ৯৯ হাজার ৫৫১ টাকার সম্পদ অর্জনের অভিযোগ আনা হয়েছে।
জি কে শামীমকে গ্রেপ্তার করা হয় ২০ সেপ্টেম্বর গুলশানের নিকেতনে তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠান থেকে। সেখান থেকে নগদ প্রায় দুই কোটি টাকা, পৌনে দুইশ কোটি টাকার এফডিআর, আগ্নেয়াস্ত্র ও মদ পাওয়ার কথা জানায় র‌্যাব। তখন শামীমের সঙ্গে তার সাত দেহরক্ষীকেও গ্রেপ্তার করা হয়।
শামীমের বিরুদ্ধেও মাদক, মুদ্রা পাচার ও অস্ত্র আইনে তিনটি মামলা হয়েছে।

শেয়ার করুন
শেষের পাতা এর আরো সংবাদ
  • দোয়ারাবাজারে অগ্নিকান্ডে ৫ দোকান ভস্মিভূত : ক্ষয়ক্ষতি অর্ধকোটি টাকা
  • লিডিং ইউনিভার্সিটির ট্যুরিস্ট ক্লাবের শিক্ষা সফর
  • ছাতকে জনপ্রতিনিধি ও সরকারী কর্মকর্তাদের সাথে বিভাগীয় কমিশনারের মতবিনিময়
  • অতিরিক্ত সচিব শিশির রায়’র পরলোকগমণ
  • পোস্টমর্টেম রিপোর্ট স্পষ্ট অক্ষরে লিখতে হাইকোর্টের নির্দেশ
  • সংসদীয় তদন্ত কমিটির আহবায়ক এমপি মানিক
  • কানাইঘাটে সুরমা নদীর ভাঙ্গন পরিদর্শনে পাউবো’র প্রতিনিধি
  • ইমরান আহমদ কারিগরি কলেজ পলিটেকনিক ইন্সটিটিউটে উন্নীত হবে --প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রী
  • তারেক রহমানের জন্মদিন উপলক্ষে জেলা বিএনপি’র দোয়া মাহফিল
  • মিডওয়াইফরা মাতৃ ও শিশু মৃত্যুর হার কমাতে ভূমিকা রাখছে --------------মো. কুতুব উদ্দিন
  • প্রতিবাদ মিছিল করতে গিয়ে সংঘর্ষে আহত ১৫
  • ১০ দিন ধর্মঘটেও চালের বাজারে প্রভাব পড়বে না, গ্যারান্টি: খাদ্যমন্ত্রী
  • নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের দাম নিয়ন্ত্রণে সরকার ব্যর্থ ---বাম গণতান্ত্রিক জোট
  • বিয়ানীবাজারে আওয়ামীলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি শিগগির
  • পদ্মা সেতুর ১৬তম স্প্যান স্থাপন
  • গৃহঋণের সর্বোচ্চ সীমা বেড়ে ২ কোটি টাকা
  • মীর নাছিরের ১৩, ছেলের ৩ বছরের সাজা হাই কোর্টে বহাল
  • গবেষণা ছাড়া কোন বিশ্ববিদ্যালয় একাডেমিকভাবে পরিপূর্ণ হয়না ---প্রফেসর ড. মো. কামরুজ্জামান চৌধুরী
  • সরকারের ব্যর্থতায় নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের অস্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধি হচ্ছে ----------- নাসিম হোসাইন
  • তারেক রহমানের জন্মদিন উপলক্ষে জেলা বিএনপির দোয়া মাহফিল আজ
  • Developed by: Sparkle IT