শেষের পাতা

সম্মেলনকে ঘিরে চাঙ্গা গোলাপগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগ

প্রকাশিত হয়েছে: ০৯-১১-২০১৯ ইং ০২:৪৫:১০ | সংবাদটি ৬২৩ বার পঠিত
Image

স্টাফ রিপোর্টার : প্রায় দেড় যুগ পর গোলাপগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগের সম্মেলনকে ঘিরে নেতাকর্মীদের মধ্যে প্রাণচাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে। কে আসছেন উপজেলা আওয়ামীলীগের নেতৃত্বে, কারা পাচ্ছেন কমিটিতে স্থান, তাই এখন নেতাকর্মীদের আলোচনার মূল উপজীব্য। হাট-বাজার, পাড়া-মহল্লায় নেতাকর্মীরা একত্রিত হলেই আলোচনায় স্থান পাচ্ছে সম্মেলন। এদিকে, পৌর আওয়ামীলীগের সম্মেলন শেষ হওয়ায় উপজেলা আওয়ামীলীগের সম্মেলন নিয়ে নেতাকর্মীদের আগ্রহের মাত্রা আরো বেড়ে গেছে।
জানা যায়, প্রায় ১৪ বছর আগে উপজেলা আওয়ামীলীগের সম্মেলনের মাধ্যমে বর্ষীয়ান রাজনীতিবিদ এডভোকেট ইকবাল আহমদ চৌধুরীকে সভাপতি ও রফিক আহমদকে সাধারণ সম্পাদক করে কমিটি গঠন করা হয়েছিল। এরপর আর কোনো সম্মেলন না হওয়ায়, কোন কমিটিও গঠন করা হয়নি। দীর্ঘদিন পর আগামী ১৩ নভেম্বর সম্মেলনের তারিখ নির্ধারণ করা হয়।
এদিকে, সম্মেলনকে ঘিরে উপজেলা আওয়ামীলীগের ১১টি ইউনিয়নের নেতাকর্মীদের মধ্যে ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনা বিরাজ করছে। আসন্ন সম্মেলনের মাধ্যমে নতুন কমিটির নেতৃত্বে কারা আসছেন তা নিয়ে সর্বত্র আলোচনা চলছে। কাউন্সিলকে সামনে রেখে অনেকে হচ্ছেন সভাপতি ও সম্পাদক পদ প্রার্থী। সম্ভাব্য পদ প্রতাশীরা দৌড়ঝাপ ও জোর লবিং চালিয়ে যাচ্ছেন নেতৃত্বে আসার জন্য। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে চলছে নিজ নিজ পছন্দের প্রার্থীর পক্ষে কর্মীদের প্রচারণার প্রতিযোগিতা। ইতিমধ্যে সভাপতি পদে যাদের নাম শোনা যাচ্ছে, তারা হলেন, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক রফিক আহমদ ও যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক লুৎফুর রহমান। অপরদিকে, সাধারণ সম্পাদক পদ প্রার্থী হিসেবে নাম শোনা যাচ্ছে যাদের, তারা হলেন, সিলেট জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য সৈয়দ মিছবাহ উদ্দিন, উপজেলা আওয়ামীলীগ নেতা শাহাব উদ্দিন আহমদ, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক মিজানুর রহমান চৌধুরী রিঙ্কু, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক এনামুল হক রুহেল , উপজেলা আওয়ামীলীগের দপ্তর সম্পাদক আলী আকবর ফখর ও সাবেক ছাত্রলীগ নেতা দেলোয়ার হোসেন চুনু।
এদিকে, সম্মেলনের দিন যতই ঘনিয়ে আসছে ততই প্রার্থীদের মধ্যে বাড়ছে ব্যস্ততা। কাউন্সিলরদের দ্বারে দ্বারে ছুটছেন তারা। উপজেলার শরিফগঞ্জ ইউনিয়নের কালিকৃষ্ণপুর থেকে শুরু করে বাঘা ইউনিয়নের আগলসপুর পর্যন্ত এখন প্রার্থীদের বিচরণ। কাউন্সিলরদের সাথে কথা বলছেন, দেখা করছেন দলের সাবেক ও বর্তমান নেতৃবৃন্দের সাথে। কুশল বিনিময়ের পাশাপাশি, দলের সাংগঠনিক কার্যক্রম নিয়ে করছেন আলোচনা। অপরদিকে, প্রার্থীদের ছুটাছুটিতে সম্মেলন নিয়ে উৎসবমুখর পরিবেশের সৃষ্টি হয়েছে। নেতাকর্মীদের অনেকে কমিটিতে স্থাপন পাওয়ার আশা করছেন। অনেকে ইতিমধ্যে ছাত্রলীগ, যুবলীগ থেকে বেরিয়ে আওয়ামীলীগের কমিটিতে আসার অপেক্ষায় রয়েছেন। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক তাদের অনেকে বলেন, দীর্ঘদিন থেকে তারা রাজনীতিতে সক্রিয় রয়েছেন। কিন্তু নতুন কমিটি না হওয়ায় তারা কমিটিতে আসতে পারেননি। এখন নতুন কমিটির মাধ্যমে সেই প্রতীক্ষার অবসান হবে বলে তারা মনে করেন। সম্মেলনে নেতাকর্মীরা উজ্জীবিত জানিয়ে সভাপতি পদপ্রার্থী বর্তমান কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক লুৎফুর রহমান জানান, কাউন্সিলের মাধ্যমে নেতৃত্ব নির্বাচিত হলে গোলাপগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগ আরো শক্তিশালী ও গতিশীল হবে। তিনি আওয়ামীলীগের বৃহত্তর সার্থে কাউন্সিলের উপর বিশেষ গুরুত্ব আরোপ করেন। এদিকে, সাধারণ সম্পাদক পদ প্রার্থী উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক মিজানুর রহমান চৌধুরী রিঙ্কুর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, আওয়ামীলীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনা মোতাবেক তৃণমূলের মতামতের ভিত্তিতে নেতৃত্ব নির্বাচিত হলে গোলাপগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগের কার্যক্রম আরো বেগমান হবে। সাবেক ছাত্রনেতা ও উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক এনামুল হক রুহেল দলের আদর্শে বিশ্বাসী নিবেদিত প্রাণদের নির্বাচিত করার আহবান জানান। একই মতামত দেন উপজেলা আওয়ামীলীগ নেতা শাহাব উদ্দিন আহমদ। অন্যদিকে, সম্মেলনকে ঘিরে শুধু আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীরাই নয়, ছাত্রলীগ, যুবলীগসহ অঙ্গ সংগঠেনের নেতাকর্মীদের মধ্যেও উৎসাহ উদ্দীপনার কমতি নেই। ছাত্রলীগ নেতা হোসেন আহমদ বলেন, বাংলাদেশের স্বাধীনতা আন্দোলনে নেতৃত্ব দেয়া দল বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ ঐতিহ্যবাহী দল। দলের উপজেলা নেতৃত্ব নির্বাচন স্বাভাবিকভাবেই অঙ্গ সংগঠনের সকলের আগ্রহের কেন্দ্রবিন্দুতে রয়েছে। এ ব্যাপারে কথা বললে উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান এডভোকেট ইকবাল আহমদ চৌধুরী বলেন, সম্মেলনের আয়োজন দলের একটি সাংগঠনিক কার্যক্রমের অংশ। রাজনৈতিক দলের নেতৃত্ব নির্বাচনের অন্যতম পন্থা হচ্ছে সম্মেলন। সম্মেলন কে উপলক্ষ্য করে রাজনৈতিক দল গুলোর মধ্যে গণতান্ত্রিক চর্চা হয়। আশা করি আগামী ১৩ নভেম্বর উপজেলার তৃণমূলের নেতাকর্মীরা তাদের সুবিবেচনাপ্রসূত মতামতের ভিত্তিতে একটি সঠিক নেতৃত্ব উপহার দেবেন। তিনি সম্মেলন সফল করতে সকলের সহযোগিতা কামনা করেন।

শেয়ার করুন

ফেসবুকে সিলেটের ডাক

শেষের পাতা এর আরো সংবাদ
  • প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের শাহাদাত বার্ষিকীতে বিভিন্ন কর্মসূচি পালন
  • শিল্পপতি আব্দুল মোনেমের ইন্তেকাল
  • সব কর্মীকে একসঙ্গে কাজে না ফেরাতে আইএলও’র সতর্কতা
  • দুই মাস বন্ধের পর মসজিদ খুলে দিয়েছে সৌদি আরব
  • জিয়া্উর রহমানের মৃত্যুবার্ষিকীতে দক্ষিণ সুরমায় খাবার বিতরণ
  • তিলপাড়া ইউনিয়নে বিয়ানীবাজার থানা জনকল্যাণ সমিতি ইউকে’র আর্থিক সহায়তা প্রদান
  • জগন্নাথপুরে নলজুর সেতুর সংযোগ সড়ক উদ্বোধন
  • বিয়ানীবাজারের ৪ ইউনিয়নে থানা জনকল্যাণ সমিতি ইউকের আর্থিক সহায়তা প্রদান
  • যুক্তরাজ্য বিএনপির উদ্যোগে পূর্ব লন্ডনের নিউহ্যাম হসপিটালের এনএইচএস ষ্টাফদের জন্য খাদ্য বিতরণ
  • সিলেটে ৮৫০ পরিবারকে খাদ্য সহায়তা প্রদান করেছে দক্ষিণ সুরমা সমাজ কল্যাণ সমিতি
  • ওয়ার্ল্ড বিডি হিউম্যান হেল্প এসোসিয়েশনের কমিটি গঠিত
  • রাধাকান্ত দেবনাথের শ্রাদ্ধানুষ্ঠান আজ
  • ব্যবসায়ী গৌসুল আলম গেদু’র ব্যক্তিগত উদ্যোগে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ
  • মাধবপুরের আবাবিল সোসাইটির ত্রাণ বিতরণ
  • করোনায় অসহায় ১৮১ পরিবারের পাশে প্রজন্ম প্রত্যাশা
  • হাতিম চৌধুরী ইসলামিয়া হাফিজিয়া দাখিল মাদ্রাসার কৃতজ্ঞতা প্রকাশ
  • শাল্লায় কমিউনিস্ট পার্টির হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিতরণ
  • আরও একশ পরিবারে খাদ্য সামগ্রী পৌছে দিল বন্ধন সমাজ কল্যাণ যুব সংঘ
  • অসহায় পরিবারদের উপহার সামগ্রী দিল সিলেট জেলা ছাত্রলীগ
  • মাধবপুরে সুরমা চা বাগানে ত্রাণ বিতরণ
  • Image

    Developed by:Sparkle IT