প্রথম পাতা অযোধ্যা মামলার রায়

 বিতর্কিত ভূমিতে মন্দির হবে, মুসলমানদের বিকল্প জমি

ডাক ডেস্ক প্রকাশিত হয়েছে: ১০-১১-২০১৯ ইং ০২:৪৫:৪৭ | সংবাদটি ৩৫১ বার পঠিত

কয়েক দশকের প্রতীক্ষার অবসান ঘটিয়ে বাবরি মসজিদ-রাম জন্মভূমি নিয়ে করা ঐতিহাসিক অযোধ্যা মামলার রায় ঘোষণা করেছে ভারতের সুপ্রিম কোর্ট।
গতকাল শনিবার দেওয়া এই রায়ে ভারতের সর্বোচ্চ আদালত সুন্নি ওয়াকফ বোর্ডের আর্জি এবং নির্মোহী আখড়ার বিতর্কিত জমির উপর দাবি দুটোই খারিজ করে দেন।
আদালত এই জটিলতার সমাধান করেছে এভাবে, পৌনে ৩ একরের ওই স্থানে মন্দির হবে, তবে তা হবে একটি ট্রাস্টের অধীনে। আর মসজিদের জন্য কাছাকাছি অন্য স্থানে ৫ একর জমি দিতে হবে সরকারকে।
এই রায়ে বিতর্কিত জমির উপর বিশ্ব হিন্দু পরিষদের কর্তৃত্বও খর্ব হল, যারা মন্দির নির্মাণের জন্য মসজিদ ভেঙেছিল। কারণ, জমিটি এখন ট্রাস্টের অধীনে চলে যাবে এবং ট্রাস্টি বোর্ড মন্দির নির্মাণসহ সেটির দেখভালের দায়িত্বে থাকবে।
কলকাতার দৈনিক আনন্দবাজারের প্রতিবেদনে বলা হয়, রায়ের শুরুতেই প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈ ওয়াকফ বোর্ডের আর্জি এবং নির্মোহী আখড়ার বিতর্কিত জমির উপর দাবি খারিজ করে দেন।
তারপর তিনি বলেন, “আর্কিওলজিক্যাল সার্ভে অব ইন্ডিয়ার (এএসআই) তথ্যনুযায়ী ফাঁকা জায়গায় বাবরি মসজিদ নির্মাণ হয়নি। তবে মাটির নিচে থাকা স্থাপনাটি ঠিক কী ছিল, তা এএসআই সুনির্দিষ্ট করে বলতে পারেনি।
“যেহেতু বিশ্বাসের উপর দাঁড়িয়ে জমির মালিকানা ঠিক করা সম্ভব নয়, তাই আইনের ভিত্তিতেই জমির মালিকানা ঠিক করা উচিৎ। আপাতত কেন্দ্রীয় সরকার ওই জমির মালিকানা পাবে। কেন্দ্রকে তিন মাসের মধ্যে বোর্ড অব ট্রাস্ট গঠন করে তাদের হাতে বিতর্কিত জমি তুলে দিতে হবে। ট্রাস্টের তত্ত্বাবধানেই বিতর্কিত ২.৭৭ একর জমিতে মন্দির নির্মাণ হবে।
“সুন্নি ওয়াকফ বোর্ড ওই জমিতে অধিকার দাবি করতে পারবে না। তবে তারা মসজিদ নির্মাণের জন্য বিকল্প জমি পাবে। অযোধ্যার কেন্দ্রের কোথাও তাদের পাঁচ একর জমি দেওয়া হবে এবং সেখানে তারা মসজিদ নির্মাণ করতে পারবে।”
অযোধ্য মামলার রায় ঘিরে বিশৃঙ্খলা এড়াতে গতকাল শনিবার সকাল থেকেই গোটা উত্তরপ্রদেশে জুড়ে ১৪৪ ধারা জারি করা হয়। এছাড়া আগামী সোমবার পর্যন্ত রাজ্যের সব স্কুল-কলেজ বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।
প্রতিবেশী কর্নাটক ও মধ্যপ্রদেশে রাজ্যেও একই নির্দেশ জারি হয়েছে বলে জানায় আনন্দবাজার।
অযোধ্যার রায়ের পর আবারও ১৯৯২ সালের দাঙ্গা পরিস্থিতির সৃষ্টি হওয়া আটকাতে সব রাজনৈতিক দল ও সম্প্রদায়ের নেতারা নিজ নিজ দলের কর্মী ও সমর্থকদের প্রতি শান্তি বজায় রাখার আহ্বান জানিয়েছেন।
ষোড়শ শতকে নির্মিত বাবরি মসজিদটি ১৯৯২ সালে গুঁড়িয়ে দেয় উগ্র হিন্দুত্ববাদীরা। রামচন্দ্রের জন্মভূমিতে এই মসজিদ তৈরি করা হয়েছে বলেই তাদের বিশ্বাস। মসজিদটি ভাঙা নিয়ে ওই বছর হিন্দু-মুসলমান দাঙ্গায় ভারতজুড়ে তিন হাজারের বেশি মানুষ নিহত হয়।
অর্ধ শতাব্দীর বেশি সময় ধরে বাবরি মসজিদ ও রাম জন্মভূমি নিয়ে বিরোধ মামলা চলছে।
১৯৪৯ সালের ডিসেম্বরে বিতর্কিত জমিতে রামের মূর্তি স্থাপনের পরে ফৈজাবাদ আদালতে বাবরি মসজিদের পক্ষে যিনি প্রথম মামলা দায়ের করেছিলেন তার নাম হাসিম আনসারি। ২০১৬ সালে তিনি মারা গেলে তার ছেলে ইকবাল আনসারি মামলার বাদী হন।
এই রাম মন্দির ও বাবরি মসজিদের বিষয়টি ১৯৮০’র দশকে ভারতে অন্যতম রাজনৈতিক ইস্যুতে পরিণত হয়েছিল।
স্পর্শকাতর এ মামলাটি নিয়ে নানা টানা পড়েনের পর চলতি বছরের শুরুতে মধ্যস্থতার মাধ্যমে সমস্যা সমাধানের চেষ্টায় ভারতের সুপ্রিম কোর্ট একটি কমিটি গঠন করে দেয়। ওই কমিটি সব পক্ষের সঙ্গে কথা বলে নানাভাবে সমাধানে পৌঁছানোর চেষ্টা করে ব্যর্থ হলে গত ৬ আগস্ট থেকে কোনও বিরতি ছাড়া মামলার টানা শুনানি হয়।
গত ১৬ অক্টোবর চূড়ান্ত শুনানি হলেও রায় প্রদান অপেক্ষমান রেখেছিলেন শীর্ষ আদালত। অবশেষে শুক্রবার আচমকাই সুপ্রিম কোর্ট গতকাল শনিবার রায় প্রদান করা হবে বলে ঘোষণা দেয়।
রায়ের তারিখ ঘোষণার আগে প্রধান বিচারপতি গগৈ নিজের চেম্বারে ডেকে নিয়ে উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী এবং ডিজির সঙ্গে কথা বলেন বলে জানায় আনন্দবাজার।
আগামী ১৭ নভেম্বর দেশের প্রধান বিচারপতির পদ থেকে অবসর নিচ্ছেন রঞ্জন গগৈ। তিনি আগেই জানিয়েছিলেন, অবসর নেওয়ার আগেই তিনি অযোধ্যার বিতর্কিত জমি মামলার রায় দিয়ে যেতে চান। সেই অনুযায়ী তাঁর নেতৃত্বে সুপ্রিম কোর্টের পাঁচ বিচারপতির বেঞ্চ গঠন করা হয়।

শেয়ার করুন
প্রথম পাতা এর আরো সংবাদ
  • মুক্তিযোদ্ধাদের ফেরী-লঞ্চঘাটের প্রবেশ ফি মওকুফ
  • ঢাকা-সিলেট ছয় লেনের কাজ শুরু জুলাইয়ে
  • নতুন প্রজন্মকে দক্ষ মানবসম্পদ হিসেবে গড়ে তুলতে হবে
  • হত্যা নয়, সালমান শাহ আত্মহত্যাই করেছেন
  • মাহাথির মালয়েশিয়ার অন্তর্বর্তী প্রধানমন্ত্রী
  • পবিত্র শবে মেরাজ ২২ মার্চ
  • মন্ত্রিসভায় তিনটি হজ প্যাকেজের অনুমোদন
  • আওয়ামী লীগের প্রার্থী মিজান ও বিএনপি’র রাজু
  • দেশের বিভিন্ন স্থানে দমকা হাওয়াসহ গুঁড়িগুঁড়ি বৃষ্টির সম্ভাবনা
  • সংসদের বিশেষ অধিবেশনে বক্তা প্রণব মুখার্জি
  • বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হতে ডোপটেস্টে বাধ্যতামূলক
  • রিজভীর বিরুদ্ধে হত্যাচেষ্টার মামলা
  • পাপিয়ার বাড়ি থেকে লাখ লাখ টাকা, অস্ত্র উদ্ধার
  • রোহিঙ্গা সঙ্কট মোকাবেলায় বাংলাদেশের ভূমিকার প্রশংসা ইউএনএইচসিআর দূত জোলির
  • জরুরি প্রয়োজন ছাড়া করোনায় আক্রান্ত দেশে ভ্রমণ না করার পরামর্শ
  • সিলেট-লন্ডন সরাসরি ফ্লাইট চালু ডিএফটি রিপোর্টের ওপর ?
  • দেশে লুটপাটের রাজত্ব কায়েম করা হয়েছে
  • শিক্ষার্থীদের যুগোপযোগী শিক্ষায় শিক্ষিত করতে হবে -----পরিবেশমন্ত্রী শাহাব উদ্দিন
  • যুব মহিলা লীগ নেত্রী পাপিয়াকে বহিষ্কার
  • আদালত থেকে ‘সঠিক রায়’ প্রত্যাশা ফখরুলের
  • Developed by: Sparkle IT