প্রথম পাতা

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবায় দুই ট্রেনের সংঘর্ষে নিহত ১৬

প্রকাশিত হয়েছে: ১৩-১১-২০১৯ ইং ০২:৫৬:৪৭ | সংবাদটি ৪১১ বার পঠিত
Image

ডাক ডেস্ক : ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবায় চট্টগ্রাম থেকে ঢাকা অভিমুখী তূর্ণা নিশীথা এক্সপ্রেসের সঙ্গে সিলেট থেকে চট্টগ্রাম অভিমুখী ‘উদয়ন এক্সপ্রেস’ ট্রেনের সংঘর্ষ হয়েছে। এ ঘটনায় ১৬ জন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন শতাধিক মানুষ। গত সোমবার রাত ৩টার দিকে উপজেলার মন্দভাগ এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। দুর্ঘটনার ৮ ঘণ্টা পর ঢাকা-চট্টগ্রাম এবং চট্টগ্রাম-সিলেটের সঙ্গে রেল যোগাযোগ চালু হয়েছে।
প্রশাসনের হিসেব অনুযায়ী মারা গেছেন ১৬জন। তবে এ হতাহতের সংখ্যা আরো বাড়তে পারে। হতাহত সবাই উদয়নের ট্রেনের যাত্রী। এ ঘটনায় রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী ও স্থানীয় সংসদ সদস্য, আইনমন্ত্রী গভীর শোক প্রকাশ করেছেন। জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার, রেলওয়ে মহাপরিচালক, উপজেলা চেয়ারম্যান, উপজেলা নির্বাহী অফিসার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। ঘটনার পর থেকেই ঢাকা-চট্টগ্রাম, চট্টগ্রাম-সিলেট, নোয়াখালী-ঢাকা, নোয়াখালী-সিলেট রেলপথে সবধরনের ট্রেন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। রেলওয়ে ও জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে দুইটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। তাছাড়া সেনাবাহিনী, বিজিবি, ফায়ারসার্ভিস, পুলিশ, জেনেটিক কম্পিউটার একাডেমি মুক্ত স্কাউট গ্রুপ, সিডিসি মুক্ত স্কাউট গ্রুপ, স্থানীয় আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগসহ বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন উদ্ধার কাজে সহযোগিতা করে।
রেলওয়ে স্টেশন, প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, চট্টগ্রাম থেকে ছেড়ে আসা আন্তঃগর ট্রেন ঢাকাগামী তুর্ণা নিশীথা মঙ্গলবার ভোর রাত ২টা ৪৮মিনিটে শশীদল রেলওয়ে স্টেশন অতিক্রম করে মন্দভাগ রেলওয়ে স্টেশনের দিকে রওয়ানা করে। মন্দভাগ রেলওয়ে স্টেশন মাস্টার স্টেশনে প্রবেশের আগেই আউটারে থামার জন্য লালবাতি জ্বালিয়ে সংকেত দেয়। অপরদিকে, সিলেট থেকে ছেড়ে আসা চট্টগ্রামগামী উদয়ন এক্সপ্রেস কসবা রেলওয়ে স্টেশন ছেড়ে মন্দভাগ রেলওয়ে স্টেশনে প্রবেশপথে স্টেশন মাস্টার তাকে মেইন লাইন ছেড়ে দিয়ে ১ নম্বর লাইনে আসার সংকেত দেয়। ওই ট্রেনের চালক ১ নম্বর লাইনে প্রবেশ করার সময় ছয়টি বগি প্রধান লাইনে থাকতেই অপর দিক থেকে আসা তুর্ণা নিশীথা ট্রেনের চালক সিগনাল (সংকেত) অমান্য করে দ্রুতগতিতে ট্রেন চালায়। এ সময় উদয়ন ট্রেনের মাঝামাঝি তিনটি বগির সাথে তূর্ণা নিশীথার ইঞ্জিনের সংঘর্ষ হয়। এতে উদয়ন ট্রেনের তিনটি বগি দুমড়ে মুচড়ে যায়। উদয়ন ট্রেনের ১৬জন যাত্রী মারা যায় এবং শতাধিক নারী পুরুষ যাত্রী আহত হয়েছে। নিহতদের পরিচয় জানতে বায়েক শিক্ষা সদন উচ্চ বিদ্যালয়ে একটি অস্থায়ী তথ্যকেন্দ্র খোলা হয়েছে।
মন্দভাগ রেলওয়ে স্টেশন মাস্টার মো. জাকের হোসেন চৌধুরী বলেন, নিশীথা ট্রেনটি আউটারে মেইন লাইনে থামার সংকেত দেয়া হয়েছিল। উদয়ন ট্রেনটিকে মেইন লাইন থেকে ১ নং লাইনে আসার সংকেত দেয়া হয়েছিল। সেই হিসাবে উদয়ন ট্রেন ১ নম্বর লাইনে প্রবেশ করছিল। এ সময় নিশীথা ট্রেনের চালক সংকেত অমান্য করে উদয়ন ট্রেনের উপর উঠে গিয়ে দুর্ঘটনার শিকার হয়।
দুর্ঘটনার কারণ অনুসন্ধানের জন্য তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করেছে জেলা প্রশাসন। এছাড়া, রেল বিভাগের পক্ষ থেকে পৃথক একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

শেয়ার করুন

ফেসবুকে সিলেটের ডাক

প্রথম পাতা এর আরো সংবাদ
  • সিকৃবিতে ৪র্থ সিলেট চলচ্চিত্র উৎসবের পর্দা উঠছে আজ
  • মধুশহীদ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগের তদন্ত অনুষ্ঠিত
  • আবারো করোনা ‘পজিটিভ’ মাশরাফি
  • করোনাভাইরাস পরীক্ষার ফি তুলে দেওয়ার দাবি বিএনপির
  • সারাদেশে ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট বন্ধের হুমকি
  • দেড় কোটির বেশি পরিবারকে সরকারি ত্রাণ সহায়তা প্রদান
  • রাজধানীর ওয়ারী’তে ২১ দিনের লকডাউন শুরু
  • বাড়িওয়ালাদের সদয় হতে ওবায়দুল কাদেরের আহ্বান
  • সিলেট বিভাগে কোভিড-১৯ আক্রান্তের সংখ্যা
  • ভারত-চীন উত্তেজনার মধ্যেই লাদাখ সফরে মোদি
  • যুক্তরাজ্যের বর্ষসেরা চিকিৎসক বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত ফারজানা বিলবোর্ডে ছবি টানিয়ে সম্মানীত
  • দ্রুতই বিশ্ব পেতে পারে করোনার কার্যকরী ঔষধ : বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা
  • ছয় দফার পক্ষে দলিল প্রস্তুতিতে অবদান ছিল ড. ওয়াহিদুল হকের : পররাষ্ট্রমন্ত্রী
  • বিএনপি নেতা এনামুলকে ঢাকায় প্রেরণ
  • সিলেট-ঢাকা মহাসড়কের শেরপুর ও কাগজপুর সেতু বন্ধ, বিকল্প রাস্তা ব্যবহারের অনুরোধ
  • দোয়ারাবাজারে দুর্ভোগে বানভাসি মানুষ
  • পরিবেশ রক্ষায় বৃক্ষরোপণের কোন বিকল্প নাই : এমএ মান্নান
  • সিলেটে করোনায় মৃত্যুর মিছিল বাড়ছে
  • দেশে করোনায় মৃত্যু ২ হাজার ছুঁইছুঁই
  • রাজনগরে বিশিষ্ট ব্যবসায়ী দেওয়ান হাসানাত মজিদ ইসমতের ইন্তেকাল
  • Image

    Developed by:Sparkle IT