ধর্ম ও জীবন

তাফসিরুল কোরআন

প্রকাশিত হয়েছে: ১৫-১১-২০১৯ ইং ০১:০৫:১৭ | সংবাদটি ১৬১ বার পঠিত

তৃতীয় উদ্দেশ্য পবিত্রকরণ : মহানবী (সা.) এর তৃতীয় কর্তব্য হচ্ছে পবিত্রকরণ। এর অর্থ বাহ্যিক ও আত্মিক নাপাকী থেকে পবিত্র করা। বাহ্যিক নাপাকী সম্পর্কে সাধারণ মুসলমানরাও ওয়াকিফহাল। আত্মিক নাপাকী হচ্ছে কুফর, শেরক, আল্লাহ ব্যতীত অন্যের উপর পুরোপুরি ভরসা করা, অহংকার, হিংসা, শত্রুতা দুনিয়া প্রীতি ইত্যাদি। কুরআন সুন্নাহতে এসব বিষয়ের বর্ণনা রয়েছে। পবিত্রকরণকে রাসুলুল্লাহ (সা.) এর পৃথক কর্তব্য সাব্যস্থ করে ইঙ্গিত করা হয়েছে যে, কোনো শাস্ত্র পুঁথিগতভাবে শিক্ষা করলেই তার প্রয়োগ ও পূর্ণতা অর্জিত হয় না। প্রয়োগ ও পূর্ণতা অর্জন করতে হলে গুরুজনের শিক্ষাধীনে থেকে তাঁর অনুশীলনের অভ্যাসও গড়ে তুলতে হয়। সুফীবাদে কামেল পীরের দায়িত্বও তাই। তিনি কুরআন ও সুন্নাহ থেকে অর্জিত শিক্ষাকে কার্যক্ষেত্রে অনুশীলন করে অভ্যাস পরিণত করার চেষ্টা করেন।
হেদায়াত ও সংশোধনের দু’টি ধারাÑ আল্লাহর গ্রন্থ ও রাসুল : এ প্রসঙ্গে আরও দু’টি বিষয় প্রণিধানযোগ্য। প্রথম এই যে, আল্লাহ তা’আলা সৃষ্টির আদিকাল থেকে শেষ নবী মুহাম্মদ (সা.) পর্যন্ত মানুষের হেদায়েত ও সংশোধনের জন্য দু’টি ধারা অব্যাহত রেখেছেন। একটি খোদায়ী গ্রন্থসমূহের ধারা এবং অপরটি রসুলগণের ধারা। আল্লাহ তা’আলা শুধু গ্রন্থ নাযিল করাই যেমন যথেষ্ট মনে করেননি, তেমনি শুধু রাসুল প্রেরণ করেও ক্ষান্ত হননি। বরং সর্বদা উভয় ধারা অব্যাহত রেখেছেন। এতদুভয় ধারা সমভাবে প্রবর্তন করে আল্লাহ তা’আলা একটি বিরাট শিক্ষার দ্বার উন্মুক্ত করে দিয়েছেন। তা এই যে, মানুষের নির্ভুল শিক্ষা ও প্রশিক্ষণের জন্যে শুধু গ্রন্থ কিংবা শুধু শিক্ষাই যথেষ্ট নয়; বরং একদিকে খোদায়ী হেদায়েত ও খোদায়ী সংবিধানেরও প্রয়োজন, যাকে কুরআন বলা হয় এবং অপরদিকে একজন শিক্ষাগুরুরও প্রয়োজন যিনি স্বীয় শিক্ষা ও প্রশিক্ষণের মাধ্যমে সাধারণ মানুষকে খোদায়ী হেদায়েতে অভ্যস্থ করে তুলবেন। কারণ, মানুষই মানুষের প্রকৃত শিক্ষাগুরু হতে পারে। গ্রন্থ কখনও গুরু বা অভিভাবক হতে পারে নাÑ তবে শিক্ষা-দীক্ষায় সহায়ক অবশ্যই হতে পারে।
ইসলামের সূচনা একটি গ্রন্থ ও একজন রাসুলের মাধ্যমে হয়েছে। এ দু’য়ের সম্মিলিত শক্তিই জগতে একটি সুষ্ঠু ও উচ্চস্তরের আদর্শ সমাজ প্রতিষ্ঠিত করেছে। এমনিভাবে ভবিষ্যত বংশধরদের জন্যেও একদিকে পবিত্র শরীয়ত ও অন্যদিকে কৃতী পুরুষগণ রয়েছেন। কুরআনও নানাস্থানে এ সম্পর্কে নির্দেশ দিয়েছে। এ জায়গায় বলা হয়েছেÑ ‘হে মুমিনগণ, আল্লাহকে ভয় কর এবং সত্যবাদীদের সঙ্গে থাক।’
সমগ্র কুরআনের সারমর্ম হলো সুরা ফাতেহা। আর সুরা ফাতেহার সারমর্ম হলো সিরাতে মুস্তাকীমের হেদায়েত। এখানে সিরাতে মুস্তাকীমের সন্ধান দিতে গিয়ে কুরআনে পথ, রাসুলের পথ অথবা সুন্নাহর পথ বলার পরিবর্তে কিছু খোদাভক্তের সন্ধান দেয়া হয়েছে যে, তাদের কাছ থেকে সিরাতে মুস্তাকীমের সন্ধান জেনে নাও।
বলা হয়েছে, ‘সীরাতে-মুস্তাকীম হলো তাদের পথ, যাদের প্রতি আল্লাহর নেয়ামত বর্ষিত হয়েছে। তাদের পথ নয়, যারা গযব পতিত ও গোমরাহ’। অন্য এক জায়গায় নেয়ামত প্রাপ্তদের আরও ব্যাখ্যা করা হয়েছে, Ñএমনিভাবে রাসুলুল্লাহ (সা.) ও পরবর্তীকালের জন্যে কিছু সংখ্যক লোকের নাম নির্দিষ্ট করে তাদের অনুসরণ করার নির্দেশ দিয়েছেন।
তিরমিযীর রেওয়ায়েতে বলা হয়েছেÑ ‘হে মানবজাতি, আমি তোমাদের জন্যে দু’টি বস্তু ছেড়ে যাচ্ছি। এতদুভয়কে শক্তভাবে আঁকড়ে থাকলে তোমরা পথভ্রষ্ট হবে না। একটি আল্লাহর কিতাব এবং অপরটি আমার সন্তান ও পরিবার পরিজন। সহীহ বুখারীতে বর্ণিত হাদিসে রয়েছেÑ ‘আমার পরে তোমরা আবু বকর ও ওমরের অনুসরণ করবে’। অন্য এক হাদিসে আছে, ‘আমার সুন্নত ও খোলাফায়ে রাশেদীনের সুন্নত অবলম্বন করা তোমাদের কর্তব্য’। [চলবে]

শেয়ার করুন
ধর্ম ও জীবন এর আরো সংবাদ
  • হাদীস সংগ্রহকারী ইমাম মুসলিম ও তিরমিজি
  • নবীজিকে ভালোবাসার দাবী সমূহ
  • বড়পীর আব্দুল কাদির জিলানী (র:)
  • জৈন্তা অঞ্চলে হিফজুল কোরআন পরিক্রমা
  • তাফসিরুল কোরআন
  • হাদীস সংগ্রাহক ইমাম বুখারী (রহ.)
  • জৈন্তা অঞ্চলে হিফজুল কোরআন পরিক্রমা
  • কুরআন চর্চা অপরিহার্য  কেন 
  • একদিন নবীজির বাড়িতে
  • বেহেস্তের সিঁড়ি নামাজ
  • দেন মোহর নিয়ে যত কথা
  • তাফসিরুল কোরআন
  • মানব সভ্যতায় মহানবীর অবদান
  • মানব সভ্যতায় মুহাম্মদ (সা.) এর অবদান
  • দেনমোহর নিয়ে যতো কথা
  •   উম্মাহাতুল মুমিনীন
  • ইসলাম শান্তি ও সম্প্রীতির ধর্ম
  • তাফসিরুল কোরআন
  • রাসূল (সা.) এর প্রতি মুহব্বত ও আহলে বাইত প্রসঙ্গ
  • মহানবীর প্রতি ভালোবাসা
  • Developed by: Sparkle IT